ফিলিস্তিনিদের সুরক্ষায় আন্তর্জাতিক বাহিনী নিয়ে যা বলছে তুরস্ক
ফিলিস্তিনিদের সুরক্ষায় আন্তর্জাতিক বাহিনী নিয়ে যা বলছে তুরস্ক

ফিলিস্তিনিদের সুরক্ষায় আন্তর্জাতিক বাহিনী নিয়ে যা বলছে তুরস্ক

অনলাইন ডেস্ক

ফিলিস্তিনের নিরীহ জনগণের ওপর নির্বিচার হামলা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েল। দখলদার বাহিনীর হামলায় নিহতের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়েছে। ইসরায়েলের নৃশংস আগ্রাসনের জবাবে ফিলিস্তিন থেকে ব্যাপক হারে রকেট হামলা চালানো হচ্ছে। যা ২০১৯ ও ২০০৬ সালের চাইতে বেশি।

  এদিকে দখলদার বাহিনীর হামলা থেকে ফিলিস্তিনিদের সুরক্ষায় আন্তর্জাতিক বাহিনী গঠনের প্রস্তাব দিয়েছে তুরস্ক।  

ফিলিস্তিনের পরিস্থিতি নিয়ে ওআইসির সদস্য রাষ্ট্রগুলোর জরুরি ভার্চুয়াল বৈঠকে এ প্রস্তাব দেয় প্রভাবশালী এ মুসলিম দেশটি।  

দখলকৃত ফিলিস্তিনের জন্য ‘ইন্টারন্যাশনাল প্রটেকশন ম্যাকানিজম’ নামে ওই বাহিনী গঠনের প্রস্তাব দিয়েছে আঙ্কারা। ২০১৮ সালের জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের একটি প্রস্তাবের আওতাতে আন্তর্জাতিক আইনে স্বীকৃত ভাবেই এই ধরনের বাহিনী গঠন সম্ভব বলে ওআইসিকে আশ্বস্ত করেছেন তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী।  

ওআইসি এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ন্যায়বিচার ও মানবতার পক্ষে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে মেভলুত কাভুসোগলু বলেন, মুসলিম বিশ্ব প্রত্যাশা করছে ওআইসি নেতৃত্ব এবং সাহস প্রদর্শন করবে। প্রয়োজনীয় যেকোনো পদক্ষেপ নিতে তুরস্ক প্রস্তুত রয়েছে।   

তিনি আরও বলেন, আগ্রহী দেশগুলোর সামরিক এবং আর্থিক অনুদানের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক বাহিনী গঠন করে ফিলিস্তিনিদের শারিরীক সুরক্ষা নিশ্চিত করা উচিত। অন্য কোনো বিবেচনা থাকা উচিত নয়। এখন আমাদের একতা এবং সিদ্ধান্তগ্রহণের কার্যকারিতা প্রদর্শনের সময়।

এর আগে ফিলিস্তিনিদের রক্ষায় একটি আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা বাহিনী তৈরির বিষয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে কথা বলেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান।  

ফিলিস্তিনিদের রক্ষার জন্য একটি আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা বাহিনী তৈরির বিষয়টি বিবেচনা করা উচিত বলে রুশ প্রেসিডেন্টকে পরামর্শ দিয়েছেন এরদোগান।

news24bd.tv/আলী