নেত্রকোনার তিন উপজেলায় বজ্রপাতে ঝরল ৭ প্রাণ

অনলাইন ডেস্ক

নেত্রকোনার তিন উপজেলায় বজ্রপাতে ঝরল ৭ প্রাণ

নেত্রকোনার কেন্দুয়া, খালিয়াজুরি ও মদন উপজেলায় ঝড়–বৃষ্টির সময় বজ্রপাতে দুই কৃষকসহ সাতজন নিহত হয়েছেন। আজ মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে।

মৃত ব্যক্তিরা হলেন- কেন্দুয়ার পাইকুড়া ইউনিয়নের বৈরাটী গ্রামের মো. বায়েজিদ মিয়া (৪২) ও কান্দিউড়া ইউনিয়নের কুণ্ডলী গ্রামের মো. ফজলুর রহমান (৫৫), খালিয়াজুরির মেন্দিপুর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের আছেক মিয়া (৩২), বিপুল মিয়া (২৮) ও গাজিপুর ইউনিয়নের বাতুয়াল গ্রামের এক যুবক (৩৫)। এ প্রতিবেদন লেখা পযন্ত তাঁর নাম জানা যায়নি। আর মদনের পশ্চিম ফতেপুর গ্রামের মৃত মো. আবদুর মন্নাফের ছেলে মো. আতাউর রহমান (২২) ও মৃত আবদুল কাদিরের ছেলে মো. শরিফ মিয়া (১৭)।

এলাকাবাসী ও প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, আজ দুপুরে কৃষক বায়েজিদ মিয়া ও ফজলুর রহমান তাঁদের নিজ নিজ বাড়ির সামনে সবজিখেত ও ধানখেতে কাজ করছিলেন। এ সময় হঠাৎ মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হয়। একপর্যায়ে বজ্রপাতে তাঁদের শরীর ঝলসে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাঁদের মৃত ঘোষণা করেন। একই সময় খালিয়াজুরির বাতুয়াল এলাকায় সাত যুবক বৃষ্টির মধ্যে হাওরে মাছ ধরছিলেন। এ সময় বজ্রপাতে তাঁরা আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন পাশের মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন। আর চার যুবককে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। বেলা সোয়া তিনটার দিকে মদনের পশ্চিম ফতেপুর গ্রামের সামনে মাঠে বৃষ্টির মধ্যে কয়েকজন কিশোর ও যুবক ফুটবল খেলছিলেন। হঠাৎ বজ্রপাতে দুজন মারা যান। আর চারজন আহত হন। আহত ব্যক্তিদের মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক কাজী মো. আবদুর রহমান বলেন, ‘স্বজনেরা নিহত ব্যক্তিদের মরদেহ বাড়িতে নিয়ে গেছেন। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দাফনের জন্য প্রতি পরিবারকে নগদ ১০ হাজার টাকা প্রদান করা হবে।’

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

মিরসরাইয়ে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনা, নিহত ২

অনলাইন ডেস্ক

মিরসরাইয়ে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনা, নিহত ২

মিরসরাই ইকোনমিক জোন এলাকায় একটি মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আইল্যান্ডের সঙ্গে ধাক্কা লেগে মো.জাবেদ হোসেন (৩০) ও নাজমুল হোসেন (১২) নামে দুজন নিহত হয়েছেন।

রোববার (২০ জুন) সন্ধায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় আহত আরও একজন চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের ২৬ নম্বর অর্থোপেডিক্স ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আরও পড়ুন:


ইরানের নতুন প্রেসিডেন্টের সংবাদ সম্মেলন কাল

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল পরীক্ষা স্থগিত

‘ড্যাব’কে অনুরোধ জানাব ফখরুলের মানসিক পরীক্ষা করাতে: তথ্যমন্ত্রী


চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক)  হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই শীলব্রত বড়ুয়া বলেন, মিরসরাই ইকোনমিক জোনে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আইল্যান্ডের সঙ্গে ধাক্কা লেগে তিনজন আরোহী আহত হয়। খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করে মিরসরাইয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। সেখান থেকে তিনজনকে রাত ৯টার দিকে চমেক হাসপাতালে আনা হলে মো.জাবেদ হোসেন ও নাজমুল হোসেন নামে দুইজনকে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। মৃতদেহ দুইটি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ মর্গে রাখা হয়েছে। আহত দিদারুল আলম হাসপাতালের ২৬ নম্বর অর্থোপেডিক্স ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ধসে পড়ল নির্মাণাধীন বহুতল ভবন, চাপা পড়েছে কয়েকটি প্রাইভেট কার

অনলাইন ডেস্ক

ধসে পড়ল নির্মাণাধীন বহুতল ভবন, চাপা পড়েছে কয়েকটি প্রাইভেট কার

রাজশাহী নগরীতে নির্মাণাধীন একটি চারতলা ভবন ধসে পড়েছে। যার  দৈর্ঘ্য ছিল ৮০ ফুট এবং প্রস্থ ৪০ফুট।

রোববার (২০ জুন) দুপুরের দিকে নগরীর কয়েরদাঁড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি বলে জানা গেছে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সে জানায়, দৈর্ঘ্য প্রায় ৮০ ফুট এবং প্রস্থে ৪০ফুট ওই ভবনে কেউ না থাকলেও চাপা পড়েছে কয়েকটি প্রাইভেট কার। চারতলা পর্যন্ত নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছিল। ওপরে আরেক তলা তোলার জন্য বিম ওঠানো হয়েছিল। অত্যন্ত নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে ভবনটি নির্মাণ করা হচ্ছিল। এ কারণে ভবনটি ভেঙে পড়েছে।

জানা গেছে, ভবনটির মালিক ছিলেন স্থানীয় বাসিন্দা আক্তারুজ্জামান বাবলু নামে এক ব্যবসায়ী। প্রায় এক বছর আগে তিনি মারা গেছেন। এরপর থেকে বন্ধ ছিল নির্মাণকাজ। এখন ভবনের মালিকানায় আছেন তার ছোট ভাই নুরুজ্জামান পিটার। তবে রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে এই ভবনটির নকশার অনুমোদন নেওয়া হয়েছিল কিনা তা জানা যায়নি।

ফায়ার সার্ভিস বলছে, ভবনের নকশা অনুমোদন ছিল কিনা, কোনো ধরনের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার হয়েছিল তা তারা তদন্ত করে দেখবেন।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

নরসিংদীতে মাইক্রোবাস-ট্রাক সংর্ঘষে নিহত ৫

মো. হৃদয় খান, নরসিংদী:

নরসিংদীতে মাইক্রোবাস-ট্রাক সংর্ঘষে নিহত ৫

নরসিংদীতে ট্রাক-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে দুই শিশুসহ মাইক্রোবাসের অন্তত পাঁচ যাত্রী নিহত ও সাত যাত্রী আহত হয়েছেন। শনিবার দিবাগত রাত ১২ টার দিকে ঘোড়াশাল-টঙ্গী আঞ্চলিক সড়কের মাধবদী থানার পাঁচদোনায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতদের সবার বাড়ি ঢাকার আশুলিয়ার জিরাব এলাকায় ও তাঁরা পরস্পরের আত্মীয়।

আহতরা হলেন, সাইফা (১২), ইসরাত জাহান (৮), সামসুন্নাহার (৬০), শারমিন (৩৫), রাজিয়া (৪০), রশিদ (৪০) ও কাজীমুদ্দীন (৫২)। প্রথমে তাঁদের নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। 

পরে অবস্থার গুরুতর বিবেচনায় চারজনকে ঢাকায় পাঠানো হয়। তাঁদের মধ্যে পথে মৃত্যু হয় রুবি আক্তারের। আর ঘটনাস্থল থেকেই রোকেয়া বেগমকে ঢাকায় নেওয়ার চেষ্টা করেন তাঁর স্বজনেরা। কিন্তু ঢাকার পথে তাঁরও মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন মাধবদী থানার উপপরিদর্শক জাহিদুল ইসলাম।

নরসিংদীর মাধবদী থানার উপপরিদর্শক জাহিদুল ইসলাম জানান, শনিবার সকালে মাইক্রোবাসের এই যাত্রীরা আশুলিয়া থেকে সিলেটে মাজার জিয়ারত করতে গিয়েছিলেন। তারা সেখানে হজরত শাহজালাল (রহ.) ও হজরত শাহপরান (রহ.) মাজার জিয়ারত করেন। ফেরার পথে পাঁচদোনার সাকুরার মোড়ে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সঙ্গে মাইক্রোবাসটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মাইক্রোবাসটি দুমড়ে মুচড়ে যায়।

তিনি আরও জানান, ট্রাকটি জব্দ করা হলেও ট্রাকের ড্রাইভার ও হেলপার পলতক রয়েছে। 

news24bd.tv / কামরুল

পরবর্তী খবর

নরসিংদীতে মাইক্রোবাস-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

নরসিংদীতে মাইক্রোবাস-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩

নরসিংদীর পাঁচদোনায় মাইক্রোবাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়েছেন। গুরুতর আহত হয়েছেন আট জন।

শনিবার (১৯ জুন) রাত ১২টার দিকে সদরের ঘোড়াশাল- টঙ্গীর আঞ্চলিক মহাসড়কের পাঁচদোনার সাকোরারমোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্য নারী ও শিশু রয়েছে।

আরও পড়ুন:


বেতন বাড়ছে ক্রিকেটারদের, কত পান সাকিব-তামিম-মুশফিকরা

রিজার্ভের সব রেকর্ড ভেঙে ৪৫.৪৬ বিলিয়ন ডলার

বাব-মা-বোনকে হত্যার পর ৯৯৯-এ ফোন দিয়ে যা বলেছিলো মেহজাবিন


পাঁচদোনা ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক ইউসুফ মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।  

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

শ্রীপুরে ট্রেনে কাটা পড়ে যুবক নিহত

মোহাম্মদ আল-আমীন, গাজীপুর

শ্রীপুরে ট্রেনে কাটা পড়ে যুবক নিহত

গাজীপুরের শ্রীপুরে ট্রেনে কাটা পড়ে অজ্ঞাত পরিচয় এক যুবক নিহত হয়েছেন। শনিবার (১৯ জুন) বিকেল সাড়ে চারটার দিকে শ্রীপুর রেলওয়ে স্টেশনের উত্তর দিকে (কাটারপুল উত্তর ) সংলগ্ন স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জামালপুর থেকে ঢাকা গামী বিকেলের বলাকা ট্রেনটি শ্রীপুর রেলস্টেশন পৌঁছার আগে সোনাকর গুন্টিঘর আউট সিগনালের দক্ষিণ নামক স্থানে পৌঁছলে হঠাৎই ওই যুবক পড়ে যান। এতে ট্রেনে কাটা পড়ে কয়েক খণ্ড হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। পরে ট্রেনের চাকার সাথে যুবকের খন্ডিত মাথা ও শরীর কাটারপুলের উত্তর পাশে এসে পড়ে।

আরও পড়ুন:


বেতন বাড়ছে ক্রিকেটারদের, কত পান সাকিব-তামিম-মুশফিকরা

রিজার্ভের সব রেকর্ড ভেঙে ৪৫.৪৬ বিলিয়ন ডলার

বাব-মা-বোনকে হত্যার পর ৯৯৯-এ ফোন দিয়ে যা বলেছিলো মেহজাবিন


শ্রীপুর রেলওয়ে স্টেশনের কর্তব্যরত স্টেশন মাস্টার হারুন উর রশীদ জানান, ট্রেনে কাটা পড়ে মারা যাওয়ার বিষয়টি সম্পর্কে আমি অবগত হয়ে সাথে সাথেই রেলওয়ে পুলিশকে জানাই। তারা আসলে বিস্তারিত পরে জানাতে পারবো। তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। মারা যাওয়া ব্যক্তিটির বয়স আনুমানিক ২৫ বছর হবে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর