বজ্রপাত থেকে বাঁচতে আবহাওয়া অধিদপ্তরের ৯ পরামর্শ

অনলাইন ডেস্ক

বজ্রপাত থেকে বাঁচতে আবহাওয়া অধিদপ্তরের ৯ পরামর্শ

চলছে বজ্রপাতের ভরা মৌসুম। প্রায় প্রতিদিনই দেশের কোথাও না কোথাও থেকে বজ্রপাতে প্রাণহানির খবর আসছে। গতকাল দেশের ছয় জেলায় ১৮ জনের প্রাণ গেছে বজ্রপাতে। এর মধ্যে নেত্রকোনায় নয়জন, ফরিদপুরে চারজন, মানিকগঞ্জে দুজন এবং সুনামগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ ও ময়মনসিংহে একজন করে মারা গেছেন। 

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, এপ্রিল ও মে মাসে দেশে বজ্রপাত তুলনামূলকভাবে বেশি হয়। এ সময় একটু সাবধানতা অবলম্বন করলেই নিরাপদে থাকা যেতে পারে। এড়ানো যেতে পারে অনাকাঙ্ক্ষিত প্রাণহানি।

বজ্রপাতে প্রাণহানি কমাতে আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে ৯টি পরামর্শ রয়েছে।

০১. পাকা বাড়ির নিচে আশ্রয় নিন। ঘন ঘন বজ্রপাত হতে থাকলে কোনো অবস্থাতেই খোলা বা উঁচু জায়গায় না থাকাই ভালো। এ অবস্থায় সবচেয়ে ভালো হয় যদি কোনো দালানের নিচে আশ্রয় নিতে পারেন।

০২. উঁচু গাছপালা ও বিদ্যুতের লাইন থেকে দূরে থাকুন। উঁচু গাছপালা বা বিদ্যুতের খুঁটিতে বজ্রপাতের সম্ভাবনা বেশি থাকে। তাই এসব জায়গায় যাবেন না বা কাছাকাছি থাকবেন না। ফাঁকা জায়গায় কোনো যাত্রী ছাউনি বা বড় গাছ ইত্যাদিতে বজ্রপাত হওয়ার সম্ভাবনা অত্যন্ত বেশি থাকে।

০৩. জানালা থেকে দূরে থাকুন। বজ্রপাতের সময় বাড়িতে থাকলে জানালার কাছাকাছি থাকবেন না। জানালা বন্ধ রাখুন এবং ঘরের ভেতর থাকুন।

০৪. ধাতব বস্তু এড়িয়ে চলুন। বজ্রপাত ও ঝড়ের সময় বাড়ির ধাতব কল, সিঁড়ির রেলিং, পাইপ ইত্যাদি স্পর্শ করবেন না। এমনকি ল্যান্ড লাইন টেলিফোনও স্পর্শ করবেন না। বজ্রপাতের সময় এগুলোর সংস্পর্শে এসে অনেকে আহত হন।

০৫. টিভি-ফ্রিজ থেকে সাবধান। বজ্রপাতের সময় বৈদ্যুতিক সংযোগযুক্ত সব যন্ত্রপাতি স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন। টিভি, ফ্রিজ ইত্যাদি বন্ধ করা থাকলেও ধরবেন না। বজ্রপাতের আভাস পেলে আগেই এগুলোর প্লাগ খুলে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন করুন। অব্যবহৃত যন্ত্রপাতির প্লাগ আগেই খুলে রাখুন।

০৬. বজ্রপাতের সময় রাস্তায় গাড়িতে থাকলে যত দ্রুত সম্ভব বাড়িতে ফেরার চেষ্টা করুন। যদি প্রচণ্ড বজ্রপাত ও বৃষ্টির সম্মুখীন হন তবে গাড়ি কোনো পাকা ছাউনির নিচে নিয়ে যান। এ সময় গাড়ির কাঁচে হাত দেয়া বিপজ্জনক হতে পারে।

০৭. ঝড়-বৃষ্টির সময় রাস্তায় পানি জমতে পারে। বজ্রপাত অব্যাহত থাকলে সে সময় রাস্তায় বের না হওয়াই মঙ্গল। একে তো বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা থাকে। উপরন্তু কাছাকাছি কোথাও বাজ পড়লে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার সম্ভাবনাও থেকে যায়।


রক্তাক্ত হাত দিয়ে ইতিহাস লিখছেন আপনি: বাইডেনকে এরদোয়ান

নিউইয়র্কে সাঁতার কাটতে গিয়ে প্রাণ গেল বাংলাদেশির

আধাঘণ্টায় গাজার ৬৫টি স্থানে বিমান হামলার দাবি জিলম্যানের

চার ঘণ্টায় গেল ১৮ প্রাণ


০৮. বজ্রপাতের সময় চামড়ার ভেজা জুতা বা খালি পায়ে থাকা খুবই বিপজ্জনক। যদি একান্ত বেরোতেই হয় পা ঢাকা জুতো পড়ে বের হোন। রবারের গাম্বুট এক্ষেত্রে সব থেকে ভালো কাজ করবে।

০৯. বজ্রপাতের সময় রাস্তায় চলাচলের সময় আশেপাশে খেয়াল রাখুন। যেদিকে বাজ পড়ার প্রবণতা বেশি সে দিক বর্জন করুন। কেউ আহত হলে তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

দেশের নদীবন্দরে সতর্কতা

অনলাইন ডেস্ক

দেশের নদীবন্দরে সতর্কতা

ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

মঙ্গলবার (১৫ জুন) সন্ধ্যা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার দেওয়া পূর্বাভাসে এ তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

আরও পড়ুন:


বিপদটা এখানেই

ফ্রান্সের কাছে জার্মানির হার

ওমানের কাছে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত বাংলাদেশ

মুমিনদের সম্পর্কের গুরুত্ব, ছয়টি গুরুত্বপূর্ণ হক


আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বিহার ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি বর্তমানে পূর্ব উত্তর প্রদেশ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমী বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ উত্তর প্রদেশ, লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি থেকে প্রবল অবস্থায় বিরাজমান রয়েছে।

আজ দুপুর ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাজশাহী, পাবনা, টাঙ্গাইল, সিলেট, ফরিদপুর, ঢাকা, মাদারীপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার অঞ্চলের উপর দিয়ে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা ও ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি ও বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরকে ১ নম্বর নৌ-সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ছুটির বিকেলে বৃষ্টিতে ভিজলো ঢাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক

ছুটির বিকেলে বৃষ্টিতে ভিজলো ঢাকা

আজ শুক্রবার, সরকারি ছুটির দিন। কড়া রোদের তপ্ত দুপুরই ছিল আজ। তবে বিকেল নামতেই বদলে গেল ঢাকার আকাশ। তারপর রাজপথের ধুলো উড়িয়ে শুরু হলো ঝড়ো হাওয়া, সঙ্গে সঙ্গে ঝুম বৃষ্টি আর মৃদু বজ্রের গর্জন।

বিকেল ৩টা ৫০ মিনিটের দিকে এ বৃষ্টি শুরু হয়। আর এ বৃষ্টিতে ভ্যাপসা গরমের অবসান ঘটেছে। স্বস্তি নেমে এসেছে শহরজুড়ে। বিকেল ৪টা ৫মিনিটে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বৃষ্টি হচ্ছিলো।

এদিকে হঠাৎ করে বৃষ্টি নামায় বিপাকে পড়েন পথচারীরা। বৃষ্টি নামার সঙ্গে সঙ্গে রাস্তার পাশে বিভিন্ন দোকানগুলোতে আশ্রয় নেন তারা। যারা রিকশায় ছিলেন তারাও পর্দা না থাকায় ভিজেছেন। বৃষ্টি থেকে বাঁচতে অনেককে যাত্রীছাউনিতে আশ্রয় নিতে দেখা যায়।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে,গতকাল বৃহস্পতিবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রাজশাহীতে ৩৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে টাঙ্গাইলে ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। 

আরও পড়ুন:


রাজশাহী মেডিকেলে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১৫ জনের মৃত্যু

বিয়েটা সেরেই ফেললেন রেলমন্ত্রী, পাত্রীর পরিচয় জানুন...

সুযোগ পেলে নায়ক হিসেবে অভিনয় করতে রাজি বেরোবি উপাচার্য কলিমউল্লাহ

পাওনা টাকা না দেওয়ায় প্রায় ৬ কোটি টাকার বাড়ি ভেঙে দিলেন মিস্ত্রি


 

বৃহস্পতিবার ঢাকায় সর্বোচ্চ ৩৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন ২৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্র রেকর্ড করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে সাতক্ষীরায় ৪২ মিলিমিটার। এ ছাড়া কক্সবাজারে ২১, কুতুবদিয়ায় ১৭, চট্টগ্রামে ১৩ এবং সীতাকুণ্ড ও চাঁদপুরে ১২ মিলিমিটার করে বৃষ্টিপাত হয়।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

আবারও সাগরে লঘুচাপের আভাস, রূপ নিতে পারে ঘূর্ণিঝড়ে

অনলাইন ডেস্ক

আবারও সাগরে লঘুচাপের আভাস, রূপ নিতে পারে ঘূর্ণিঝড়ে

আবারও সাগরে লঘুচাপের আভাস। সাগর পৃষ্ঠের পানির উপরিতল গরম হয়ে যাওয়ায় লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। গত মাসের শেষ ভাগে সাগরে সৃষ্ট লঘুচাপই পরবর্তীকালে ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে রূপ নিয়েছিল। যদিও দীর্ঘমেয়াদী পূর্বাভাসে বলা হচ্ছে এই লঘুচাপ নিম্নচাপে রূপ নেবে।

আবহাওয়াবিদ একেএম রুহুল কুদ্দুস জানান, বৃহস্পতিবার (১০ জুন) নাগাদ মৌসুমী বায়ু তথা বর্ষা সারাদেশে বিস্তার লাভ করতে পারে। আর শুক্রবারের দিকে সাগরে সৃষ্টি হতে পারে লঘুচাপ।

এক পূর্বাভাসে আবহাওয়া অফিস জানায়, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু চট্টগ্রাম, বরিশাল, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগ পর্যন্ত অগ্রসর হয়েছে। দেশের অবশিষ্টাংশে মৌসুমী বায়ু আরও অসের হওয়ার জন্য আবহাওয়া পরিস্থিতি অনুকূলে রয়েছে। মৌসুমী বায়ু দেশের পূর্বাঞ্চলের উপর সক্রিয় এবং উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে এটি মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।

এ অবস্থায় মঙ্গলবার (০৮ জুন) সন্ধ্যা পর্যন্ত ঢাকা, ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি-বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

আরও পড়ুন


এবার গাজায় হত্যাযজ্ঞ চালানো নিয়ে ইসরাইলকে যে বার্তা দিলেন কিম

হামাসের হুমকির মুখে জেরুজালেমে প্যারেড বাতিল করল ইসরাইল

আল্লাহর সঙ্গে নাফরমানির জন্য যে শোচনীয় পরিণতি ভোগ করতে হবে

বাংলাদেশ জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সহ-সভাপতি নির্বাচিত


এদিকে ফরিদপুর, রাজশাহী, পাবনা, সিরাজগঞ্জ এবং কুষ্টিয়া অঞ্চল সমূহের উপর দিয়ে মৃদু তাপ প্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা প্রশমিত হতে পারে। সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। ঢাকায় এ সময় দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ থাকবে ১০-১৫ কিলোমিটার।

বুধবার নাগাদ সারাদেশের অবশিষ্টাংশে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বিস্তার লাভ করতে পারে। আর বর্ধিত পাঁচ দিনে উত্তর বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

সাতসকালে রাজধানীতে নেমে এলো স্বস্তির বৃষ্টি

অনলাইন ডেস্ক

সাতসকালে রাজধানীতে নেমে এলো স্বস্তির বৃষ্টি

ভোর থেকেই রাজধানীর আকাশ ছিলো কালো মেঘে ঢাকা। সঙ্গে ছিল প্রবল মেঘের গর্জন। অবশেষে নেমে এলো বৃষ্টি। আর এতেই স্বস্তি নেমে আসে।

শনিবার ( ৫ জুন) সকাল ৮টা ১৫ মিনিটের দিকে বৃষ্টি শুরু হয়।

সকালবেলার বৃষ্টিতে পথ চলতে গিয়ে অসুবিধায় পড়েছেন কর্মব্যস্ত মানুষ। বিশেষ করে অফিসগামী মানুষদের বেশি বিপত্তিতে পড়তে হয়। বৃষ্টি থেকে বাঁচতে অনেককে যাত্রীছাউনিতে আশ্রয় নিতে দেখা যায়।

আরও পড়ুন:

 কারাগারে ছেলের মৃত্যুর বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে বাবার মামলা

 বজ্রপাতে একদিনে প্রাণ গেল ১০ জনের

 এবার ফেসবুকে ২ বছরের জন্য নিষিদ্ধ ট্রাম্প

 বজ্রপাত থেকে বাঁচতে করণীয়

 

ঝুম বৃষ্টি দারুণ উপভোগও করছেন অনেকে। কেউ কেউ আবার বৃষ্টিতে গা ভিজিয়েও নিয়েছেন। সবার চোখেমুখে ছিল স্বস্তি। তীব্র তাপপ্রবাহ আর ভ্যাপসা গরমের পর স্বস্তির বৃষ্টিতে হিমেল পরশ পেল রাজধানীবাসী।

সকাল সাড়ে ৮টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বৃষ্টি চলছিলো।

ন news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতসহ ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা, বাড়বে তাপমাত্রা

অনলাইন ডেস্ক

বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতসহ ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা, বাড়বে তাপমাত্রা

আজ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। তবে বৃষ্টিপাত কমলেও তাপমাত্রা আগের চেয়ে বাড়তে পারে বলেও আশঙ্কা করছে তারা।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, বৃষ্টিপাত আরো কমতে পারে। একই সঙ্গে তাপমাত্রা আরো বাড়বে।

আবহাওয়াবিদ একেএম রুহুল কুদ্দুছ জানান, লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে, এর বর্ধিতাংশ অবস্থান করছে উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত।

চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ময়মনসিংহ, ঢাকা, বরিশাল, রাজশাহী, রংপুর ও খুলনা বিভাগের দু'এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা,ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বজ্রসহ বৃষ্টিপাত হতে পারে।


আরও পড়ুন


জনসংখ্যা বাড়াতে চীনে তিন সন্তান নীতির অনুমোদন

লাউডস্পিকারে আজান বন্ধের যে ব্যাখ্যা দিল সৌদি আরব

নিরামিষাশী অভিনেতার নামে মাংসের দোকান দিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ

তিন মাস বেতন পাবেন না মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীসহ অন্যান্য মন্ত্রীরা


একই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। ঢাকায় এসময় দক্ষিণ/দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে বাতাসের গতিবেগ থাকবে ঘণ্টায় ১০-১৫ কিমি।

শুক্রবার নাগাদ তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে। তবে বর্ধিত পাঁচদিনে মৌসুমি বায়ু দেশের উপকূলে এলে বৃষ্টিপাত পুনরায় বাড়বে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর