এক মঞ্চে দুই বোনকে বিয়ে করে জেলে বর!
এক মঞ্চে দুই বোনকে বিয়ে করে জেলে বর!

এক মঞ্চে দুই বোনকে বিয়ে করে জেলে বর!

অনলাইন ডেস্ক

একই সাথে একই  মঞ্চে দুই বোনকে বিয়ে করার দায়ে উমাপাতি নামে এক বরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশের অভিযোগ দুই বোনকে একই সাথে বিয়ে করা হিন্দু আইনের পরিপন্থী হওয়াই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।   কিন্তু  উভয় পরিবারের সম্মতি এবং উপস্থিতিতে এক দিনে এক বিয়ের মঞ্চেই দুই বোনকে বিয়ে করেন বর উমাপাতি। তাদের দুই পরিবার থেকেও এই বিয়ে নিয়ে কোনও অভিযোগ নেই বলে জানা গেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে কর্নাটক রাজ্যের কোলারের মুলাবাগিলু গ্রামে। উমাপাতি নামের ৩০ বছর বয়সী এক যুবক গত ৭ মে একই গ্রামের ১৯ ও ১৬ বছর বয়সী দুই বোনকে বিয়ে করেন। গত শনিবার ওই বিয়ের ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়। সোমবার ভারতের কর্নাটক রাজ্যের কোলার জেলার পুলিশ  উমাপতিকে গ্রেফতার করে।

বিয়ে নিয়ে দুই বর ও তার পরিবারের সঙ্গে দুই বোনের পরিবারও খুশি ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাদের সেই আনন্দ বিষাদে পরিণত হয়েছে যখন হিন্দু বিবাহ আইন অনুযায়ী কোনো ব্যক্তি একসঙ্গে দুজনকে বিয়ে করতে পারেন না অভিযোগ তুলে পুলিশ বরকে গ্রেফতার করে।

হিন্দু বিবাহ আইনের বরাত দিয়ে পুলিশের দাবি, আইন অনুযায়ী দ্বিতীয় বিয়ের আগে প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ বাধ্যতামূলক। তাই নিয়ম ভাঙার অপরাধে দুই বোনের স্বামীকে গ্রেফতার করে তারা জেল হেফাজতে পাঠিয়েছে স্থানীয় পুলিশ।

বড় বোন ললিতাকে বিয়ের প্রস্তাব দিলেও ললিতা বিয়েতে রাজি হলেও শর্ত হিসেবে ছোট বোন সুপ্রিয়াকে একসঙ্গে বিয়ে করতে বলেন। কারণ বাক প্রতিবন্ধী সুপ্রিয়ার বিয়ে হচ্ছিল না। পরে দুই পরিবারের সম্মতিতেই উমাপতি দুই বোনকে একই মণ্ডপে বিয়ে করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যচ্ছে যে, এই ধরনের ঘটনা ওই পরিবারে আগেও ঘটেছে। কনের বাবা নাগরাজাপাও একই মণ্ডপে দুই বোনকে বিয়ে করেছিলেন। কারণ দুই বোনের একজন বাক প্রতিবন্ধী ছিলেন।

তবে হিন্দু বিবাহ আইন অনুযায়ী, প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ না হওয়া পর্যন্ত দ্বিতীয় বিয়ে আইনত বিয়ে হিসেবে বিবেচিত হবে না।

news24bd.tv/আলী 

;