শিক্ষকের বলাৎকারের কারণে মাদ্রাসায় যেতে চাচ্ছিল না ছাত্ররা
শিক্ষকের বলাৎকারের কারণে মাদ্রাসায় যেতে চাচ্ছিল না ছাত্ররা

শিক্ষকের বলাৎকারের কারণে মাদ্রাসায় যেতে চাচ্ছিল না ছাত্ররা

অনলাইন ডেস্ক

বগুড়ায় একাধিক ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগ উঠেছে এক কওমী মাদ্রাসা শিক্ষককে বিরুদ্ধে। ইতিমধ্যে তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে মাদ্রাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম ওমর ফারুক (৩৫)।

গ্রেপ্তার ওমর ফারুক শিবগঞ্জ উপজেলার গুজিয়া গ্রামের বাসিন্দা এবং বগুড়া সদরের পলাশবাড়ি উত্তরপাড়া হাফেজিয়া কওমী মাদ্রাসার শিক্ষক।

এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে থানা-পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তার ওমর ফারুক ওই মাদ্রাসাতেই অবস্থান করতেন। গত রমজান মাসে মাদ্রাসায় অবস্থানকালে কয়েকজন ছাত্রকে তিনি বলাৎকার করেন। ঈদের ছুটি শেষে মাদ্রাসা খুললে ছাত্ররা সেখানে যেতে আপত্তি করে। এতে ছাত্রদের অভিভাবকেরা মাদ্রাসায় যেতে না চাওয়ার কারণ জানতে চাইলে ছাত্ররা বলাৎকারের বিষয়টি অভিভাবকদের জানায়।

এ খবর জানাজানি হলে গ্রামের লোকজন মাদ্রাসা ঘেরাও করে। খবর পেয়ে পুলিশ পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয় এবং মাদ্রাসা শিক্ষক ওমর ফারুককে গ্রেপ্তার করে।

ঘটনাস্থলে থাকা বগুড়া সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বেদার উদ্দিন জানান, মাদ্রাসা আবাসিকে থাকা বেশ কয়েকজন ছাত্রকে বলাৎকার করেছেন ওই শিক্ষক। তাদের মধ্যে দু'জন ছাত্র ও তাদের অভিভাবককে থানায় পাঠানো হয়েছে অভিযোগ দেয়ার জন্য। অভিযোগ পাওয়ার পর ওই শিক্ষককে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

news24bd.tv তৌহিদ

;