ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার
ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার

ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার

Other

নাটোরের বড়াইগ্রামে ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে আ: রহিম নামে এক মাদ্রাসা শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে ওই শিক্ষককে সদর উপজেলার খোলাবাড়িয়া গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আ: রহিম উপজেলার নগর ইউনিয়নের তালশো আল জামিয়া হুসাইনিয়া মদিনাতুল উলুম হাফেজিয়া ও ক্যাডেট মাদ্রাসার শিক্ষক।

গত (১৮ মে) মঙ্গলবার সন্ধ্যা উপজেলার তালশো আল জামিয়া হুসানিয়া মাদিনাতুল উলুম হাফিজিয়া ও ক্যাডেট মাদ্রাসায় ১১ বছরের শিশুকে বলাৎকারের ঘটনা ঘটে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, শিশুটি ৪ পারা কোরআনের হাফেজ। মহামারি করোনার কারণে মাদ্রাসা বন্ধ থাকায় বাড়িতেই থাকে। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হুজুর আব্দুর রহিম শিশুটির বাড়িতে এসে কাগজ পত্রাদি নেওয়ার কথা বলে মোটরসাইকেলে করে মাদ্রাসায় নিয়ে যায়।

পরে রাতে ৮ টার দিকে মাদ্রাসার কক্ষে বলাৎকার করে পালিয়ে যায়। পরে সে বাসায় ফিরে কান্না জড়িত কন্ঠে পরিবারের কাছে বলৎকারের ঘটনা খুলে বলে।

আরও পড়ুন

  যে শর্তে ইসরাইলের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি মেনে চলবে হামাস

  জাতিসংঘে ফিলিস্তিন সঙ্কটের স্থায়ী সমাধানের আহ্বান বাংলাদেশের

  ঘণিভূত হচ্ছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়, খুলনা উপকূলে আঘাত হানার আশঙ্কা

  ‘সময়সীমা শেষ হওয়ার পর আর কোন সুযোগ দেয়া হবে না’

বড়াইগ্রাম থানার ওসি আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ঘটনা শোনামাত্র আমরা তাকে আটকের জন্য অভিযান পরিচালনা করি এবং বৃহস্পতিবার রাতে তাকে আটক করা হয়।

ওসি আরও বলেন, এ ঘটনায় আজ শুক্রবার নির্যাতিত ছাত্রের বাবা থানায় মামলা করেন। এরপর শিক্ষক আ: রহিমকে ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

news24bd.tv / কামরুল 

;