ফিলিস্তিনে নিপীড়ন নিয়ে সাবেক ইসরায়েলি পাইলটের স্বীকারোক্তি
ফিলিস্তিনে নিপীড়ন নিয়ে সাবেক ইসরায়েলি পাইলটের স্বীকারোক্তি

ফিলিস্তিনে নিপীড়ন নিয়ে সাবেক ইসরায়েলি পাইলটের স্বীকারোক্তি

অনলাইন ডেস্ক

ইসরায়েলি সরকার ও সামরিক বাহিনীকে ‘যুদ্ধাপরাধীদের’ পরিচালিত ‘সন্ত্রাসী সংগঠন’ বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির বিমান বাহিনীর সাবেক বৈমানিক ইউনতান শাপিরা। তুরস্কের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সিকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে সম্প্রতি এই মন্তব্য করেন তিনি।

সময় ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর তৎকালীন ক্যাপ্টেন ইউনতান শাপিরা ২০০৩ সালে দ্বিতীয় ইন্তিফাদায় পদত্যাগ করেন।

সাক্ষাতকারে শাপিরা বলেন, দ্বিতীয় ইন্তিফাদার সময় আমি উপলব্ধি করলাম ইসরায়েলি বিমান বাহিনী ও সামরিক বাহিনী লাখ লাখ ফিলিস্তিনি জনগোষ্ঠীর মধ্যে ত্রাস সৃষ্টি করে যুদ্ধাপরাধ করছে।

যখনই তা উপলব্ধি করলাম, আমি শুধু নিজেই (বিমান বাহিনী) ছেড়ে আসার সিদ্ধান্ত নেইনি বরং অন্য বৈমানিকদেরও সংগঠিত করলাম যারা এই অপরাধের অংশ হতে অস্বীকার করেছে।

তিনি বলেন, ইসরায়েলি শিশু হিসেবে, আপনি বেড়ে উঠবেন জোরালো জায়নবাদী সামরিকায়িত শিক্ষায়। আপনি ফিলিস্তিন সম্পর্কে কিছুই জানবেন না, ১৯৪৮ সালের নাকবা সম্পর্কে, চলমান নিপীড়ন সম্পর্কে কিছুই জানবেন না।

ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর দায়িত্ব ছেড়ে আসার পর শাপিরা এক প্রচারণা আন্দোলন শুরু করেন, যাতে ফিলিস্তিনিদের আক্রমণের আদেশ অমান্যে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর অন্য সদস্যদের উৎসাহিত করা হয়।


আরও পড়ুন


 আয়ারল্যান্ডে ইসরাইলি রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের দাবিতে ৫০ হাজার আবেদন

 শতবর্ষের প্রথা ভেঙে আশ্রমে ঢুকলো মাছ-মাংস

 লন্ডনে ক্যাফে খুলছেন সেই পাকিস্তানি 'ভাইরাল' চা ওয়ালা

 নাগরিকদের সিনোফার্ম টিকার তৃতীয় ডোজ দেয়ার ঘোষণা আমিরাত-বাহরাইনের


শাপিরার ভাষ্যমতে, এই দখলদারিত্ব এক চলমান অপরাধমূলক কাজ ও যুদ্ধাপরাধ। আমরা এই যুদ্ধাপরাধের অংশ হতে ইচ্ছুক নই।

উল্লেখ্য, অবরুদ্ধ ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড গাজায় ইসরাইলের সাম্প্রতিক আগ্রাসনে প্রধান ভূমিকা রেখেছে দেশটির বিমান বাহিনী। এই হামলায় গাজায় ২৪৮ জন নিরীহ ফিলিস্তিনি নিহত হন যার একটি বড় অংশ নারী ও শিশু।

news24bd.tv / নকিব