ঠাকুরগাঁওয়ে আশ্রয়ণ প্রকল্পের বেহাল দশা, পুনর্নির্মাণ

আব্দুল লতিফ লিটু, ঠাকুরগাঁও

ঠাকুরগাঁওয়ে আশ্রয়ণ প্রকল্পের বেহাল দশা, পুনর্নির্মাণ

ঠাকুরগাঁও রাণীশংকৈল উপজেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের বাড়ী নির্মাণের দু-মাসের মাথায় বাড়ি ভেঙ্গে গেলে আবার মেরামত করা হয়েছে। মেরামত করা বাড়ীগুলো উপজেলার হোসেনগাঁও ইউনিয়নের হাজেরা দীঘি-২ এলাকায় অবস্থিত।

স্থানীয়রা বলছেন, বাড়ী নিমার্ণের শুরু থেকেই নিম্নমানের কাজ করা হচ্ছে। আমরা বাধা দিলেও তা কর্ণপাত করা হয়নি। এ কারণেই এক ঝড়ে একটি বাড়ীর বারান্দার তিনটি পিলারের মধ্যে দুইটি পিলার ভেঙে পড়েছে। ঘরের ছাউনি টিন স্থাপনার সময় সঠিক নিয়মে কাঠ না দেওয়ায় এক ঝড়েই ১৪টি ঘরের একাধিক টিন উড়ে গেছে। আমরা সবে মাত্র দুমাস আগে ঘরগুলোতে উঠেছি। এতেই এ অবস্থা সামনে যে আরো কি হবে আশংকায় রয়েছি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আশ্রয়ণ প্রকল্পের সদ্য নির্মিত ঘরগুলোর একাধিক টিনের উপর ইট ও ভারি বস্তা দেওয়া রয়েছে। এছাড়াও রান্না ও বাথরুমের ঘরের টিনের পিছন পাশে বিল্ডিংয়ের দেয়াল ফুটো করে তাতে দড়ি ও তার দিয়ে টিনের কাঠের সাথে টানা দেওয়া। একটি ঘরের আবার তিনটি পিলারে মধ্যে দুটি নতুন করে নির্মাণ করা হয়েছে। এছাড়াও মেঝে ও পিলারের সিমেন্ট খসে পড়ারও অভিযোগ রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে বছর খানেক ব্যবহারের মধ্যেই এই বাড়ীগুলোর অবস্থা নাজেহাল হয়ে পড়বে।


আরও পড়ুন


নাগরিকদের সিনোফার্ম টিকার তৃতীয় ডোজ দেয়ার ঘোষণা আমিরাত-বাহরাইনের

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ফিলিস্তিন সফরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ

স্ত্রীর পরকীয়ায় সাত টুকরা হওয়া সেই আজহারুলের দাফন সম্পন্ন

খালাসের আগেই আমদানি করা বিটুমিনের মান পরীক্ষা বাধ্যতামূলক


স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, ঘর নির্মাণের শুরু থেকেই বালু সিমেন্ট ও ঘরের ভিত্তি নিয়ে আমাদের অভিযোগ ছিলো। বিশেষ করে ইট গাথুনির জন্য মিশ্রিত বালু সিমেন্ট নিয়ে। তারা পরিমাণে বালু বেশি আর সিমেন্ট কম দিয়ে ঘরের কাজ করেছেন। প্লাষ্টারগুলোও করেছেন দায়সারাভাবে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সোহেল সুলতান জুলকার নাইন বলেন, এক ঝড়ে ১৪টি ঘর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিল আমরা তা ঠিক করেছি। ঘরগুলো এখনো হস্তান্তর করা হয়নি। তারা এমনিতেই ঘরে উঠে পড়েছে। আমাদের কাজ চলমান।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

যশোর বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা

যশোর প্রতিনিধি:

যশোর বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা

যশোর বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। গত ১২ দিনে এজেলায় ৩ হাজার ১শ’ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১ হাজার ৭৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়। যা শনাক্তের হার ৩৫ শতাংশ। 

গত মাসে ছিল ২০ শতাংশ। আর আজ নতুন করে ৩৩০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১১৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। যা শনাক্তের হার প্রায় ৩৫ শতাংশ।

এছাড়া গতকাল যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা আক্রান্ত ও করোনার সিম্পটম নিয়ে মোট তিনজন মারা গেছেন।

এদিকে, করোনা সংক্রমণ রোধে যশোর পৌরসভা ও নওয়াপাড়া পৌরসভায় ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি কার্যকর করতে অভিযান অব্যাহত রেখেছে প্রশাসন।

আরও পড়ুন:


ইউরোপের দেশ উত্তর মেসিডোনিয়াতে ২০ বাংলাদেশি আটক

দেশে ১০ বছরে বজ্রপাতে মৃত্যু ২২৭৬

রাশিয়াকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিল বেলজিয়াম

আজ মোহাম্মদ নাসিমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

নোয়াখালীতে চলছে ৭ দিনের লকডাউন

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীতে চলছে ৭ দিনের লকডাউন

নোয়াখালীতে আশঙ্কাজনক হারে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় নোয়াখালী পৌরসভাসহ সদর উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে লকডাউন ঘোষণা করেছে প্রশাসন। ৭ দিনের চলমান লকডাউন বাড়িয়ে তা ১৮ জুন রাত ১২টা পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে, শহরের বিভিন্ন স্থানে প্রশাসনের তৎপরতা দেখা গেছে।

জেলা শহরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, সকালে জেলা শহর মাইজদী থেকে দুরপাল্লার কোনো যানবাহন না ছাড়লেও আভ্যন্তরিণ সড়কে সিএনজি, অটোরিকশা, ট্রাকসহ বিভিন্ন যানবাহন চলতে দেখা গেছে। তবে বিভিন্ন স্থানে মানুষের ভিড় ছিল লক্ষণীয়। 

লকডাউন ও স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা দেখা গেছে। বিভিন্ন চেক পোস্টে আইন অমান্য ও স্বাস্থ্য বিধি না মানায় কয়েকটি সিএনজি অটোরিকশা ও যাত্রীকে জরিমানা করেতেও দেখা যায়। 

জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার জানান, জেলায় করোনা সংক্রমণ আগের চেয়ে কয়েকগুন বৃদ্ধি পাওয়ায় ১৮ জুন রাত ১২টা পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে। লকডাউন কার্যকর করতে সর্বোচ্চ পদক্ষেপ নেয়ার কথাও বলেছেন তিনি। 

আরও পড়ুন:


ইউরোপের দেশ উত্তর মেসিডোনিয়াতে ২০ বাংলাদেশি আটক

দেশে ১০ বছরে বজ্রপাতে মৃত্যু ২২৭৬

রাশিয়াকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিল বেলজিয়াম

আজ মোহাম্মদ নাসিমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

রাজশাহী মেডিকেলে করোনায় আরও ১৩ জনের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

রাজশাহী মেডিকেলে করোনায় আরও ১৩ জনের মৃত্যু

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে নতুন আরও ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (১২ জুন) সকাল ৮টা থেকে রোববার (১৩ জুন) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাদের মৃত্যু হয়। 

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক সাইফুল ফেরদৌস এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সাইফুল ফেরদৌস জানান, যে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে তারমধ্যে রাজশাহীর ২, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৬, নওগাঁ ৩ এবং নাটোর ও কুষ্টিয়ার ১ জন করে মারা গিয়েছেন।

তিনি আরও জানান, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের দুই ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা হয়েছে ৩৪১ জনের আর শনাক্ত হয়েছে ১৮৩ জনের। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৫৩.৬৬ শতাংশ।

আরও পড়ুন:


ইউরোপের দেশ উত্তর মেসিডোনিয়াতে ২০ বাংলাদেশি আটক

দেশে ১০ বছরে বজ্রপাতে মৃত্যু ২২৭৬

রাশিয়াকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিল বেলজিয়াম

আজ মোহাম্মদ নাসিমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়ে দুজনের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়ে দুজনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এই ৬৭ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। রোববার সকালে সিভিল সার্জন কার্যালয় এ সব তথ্য জানিয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাব ও চট্টগ্রামের ছয়টি ল্যাবে ৭৪১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, গত ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় ৬৭ জন নতুন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৭৪১টি। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নগরে ৪৯ জন এবং উপজেলার ১৮ জন।

এর মধ্যে বিআইটিআইডি ল্যাবে ২৩ জন, চমেক ল্যাবে ছয়, শেভরন ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ২১, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ৮, আরটিআরএল-এ ৩ ও মেডিকেল সেন্টার হাসপাতালে ৬ জনের নমুনায় করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।  

এ নিয়ে চট্টগ্রামে মোট ৫৪ হাজার ৮০৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্যদিকে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে একটি নমুনা পরীক্ষায় করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব মিলেনি।

আরও পড়ুন:


ইউরোপের দেশ উত্তর মেসিডোনিয়াতে ২০ বাংলাদেশি আটক

দেশে ১০ বছরে বজ্রপাতে মৃত্যু ২২৭৬

রাশিয়াকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিল বেলজিয়াম

আজ মোহাম্মদ নাসিমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

বিয়ের আসরে নকল গহনা, মারামারি পরে ক্ষতিপূরণ রেখে তালাক

অনলাইন ডেস্ক

বিয়ের আসরে নকল গহনা, মারামারি পরে ক্ষতিপূরণ রেখে তালাক

বিয়ে বাড়িতে সোনা বদলে নকল অলঙ্কার দেওয়ায় দুই পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে । এ ঘটনায় বর পক্ষকে এক দিন আটকে রেখে কনের তালাক ও ক্ষতিপূরণ আদায় করা হয়েছে। 

ঘটনাটি ঘটেছে নীলফামারীর সৈয়দপুরে বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিণ সোনাখুলী সরকারপাড়ায়। এ ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

জানা যায়, ঐ এলাকার মো. আকবর আলী পটলের মেয়ে আঁখির (১৮) সঙ্গে প্রায় আড়াই মাস আগে বিয়ে রেজিস্ট্রি হয় দিনাজপুরের খানাসামা উপজেলার তেবাড়িয়া চৌপথি এলাকার হোটেল ব্যবসায়ী মো. হবিবর রহমানের ছেলের মো. মফিজুল ইসলামের। শুক্রবার রাতে ছিল কনে বিদায়ের দিন। ৫০-৬০ জন লোক নিয়ে কনেকে নিতে শ্বশুরবাড়িতে আসেন মফিজুল।

একদিকে বরপক্ষের খাওয়া-দাওয়া চলছিল, আর অন্যদিকে কনে সাজানো হচ্ছিল। কনের ভাবি টের পান যে, বরপক্ষের দেওয়া হাতের বালা দুইটি স্বর্ণের নয়। এ নিয়ে বরপক্ষের সঙ্গে শুরু হয় কথা-কাটাকাটি। এক পর্যায়ে তা হাতাহাতিতে রূপ নেয়। সারা রাত বরপক্ষকে আটকে রাখে কনেপক্ষ। 

পরে শনিবার (১২ জুন) দুপুরে দুই পক্ষের চেয়ারম্যান-মেম্বারের উপস্থিতিতে কনের তালাক হয় এবং ছেলে পক্ষের কাছ থেকে ১ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ আদায় করা হয়। 

আরও পড়ুন:


ইউরোপের দেশ উত্তর মেসিডোনিয়াতে ২০ বাংলাদেশি আটক

দেশে ১০ বছরে বজ্রপাতে মৃত্যু ২২৭৬

রাশিয়াকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিল বেলজিয়াম

আজ মোহাম্মদ নাসিমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর