যুদ্ধবিরতি হওয়ায় ইসরাইলে ৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের পরিকল্পনা বাতিল হয়

অনলাইন ডেস্ক

যুদ্ধবিরতি হওয়ায় ইসরাইলে ৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের পরিকল্পনা বাতিল হয়

ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের শীর্ষস্থানীয় নেতা ইয়াহিয়া সিনওয়ার বলেছেন, তারা গাজা থেকে ইসরাইল অভিমুখে মিনিটে ২০০ কিলোমিটার পাল্লার কয়েকশ’ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের সক্ষমতা রাখেন।

তিনি গতকাল (বুধবার) গাজায় এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানিয়ে বলেন, সাম্প্রতিক গাজা যুদ্ধে প্রতিরোধ আন্দোলনগুলোর সামান্যই ক্ষতি হয়েছে।

সিনওয়ারা বলেন, যুদ্ধের শেষের দিকে ইসরাইলি আগ্রাসন কার্যকরভাবে বন্ধ করে দেওয়ার জন্য হামাসের সামরিক শাখা ইজ্জাদ্দিন আল-কাসসাম ব্রিগেডস একসঙ্গে ৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। কিন্তু যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠিত হওয়ায় সে পরিকল্পনা বাতিল করা হয়।

সিনওয়ার বলেন, গাজা-ভিত্তিক প্রতিরোধ আন্দোলনগুলো অবস্থানে বিশেষ করে হামাসের সমরাস্ত্র ভাণ্ডারে হামলা চালাতে ইসরাইল ব্যর্থ হয়েছে। গাজায় হামাসের নির্মিত টানেলগুলো ধ্বংস করার ইসরাইলি দাবিও তিনি প্রত্যাখ্যান করেন।

হামাসের এই নেতা বলেন, গাজায় আমাদের নির্মিত ৫০০ কিলোমিটারেরও বেশি লম্বা টানেল রয়েছে এবং ইসরাইল সর্বোচ্চ মাত্র ৫ শতাংশ টানেলের ক্ষতি করতে পেরেছে।

ফিলিস্তিনি জাতি কখনো ইসরাইল বিরোধী প্রতিরোধ আন্দোলন বন্ধ করবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেন ইয়াহিয়া সিনওয়ার। তিনি বলেন, গোটা মধ্যপ্রাচ্যের চিত্র পাল্টে যাবে এবং ইহুদিবাদী শত্রু  আল-আকসা ও আল-কুদসে আমাদের নাগরিকদের বিজয় দেখতে পাবে।

হামাসের এই নেতা বলেন, আল-আকসা মসজিদ রক্ষার জন্য এই মুহূর্তে অন্তত ১০ হাজার মানুষ জীবন দিতে প্রস্তুত রয়েছে।

হামাসের এই নেতা কথিত দুই রাষ্ট্র-ভিত্তিক সমাধানের পরিকল্পনা প্রত্যাখ্যান করে বলেন, ফিলিস্তিনি ভূমিতে কথিত সহাবস্থানের পরিকল্পনার কবর চিরতরে রচিত হয়ে গেছে। সংবাদ সম্মেলনে সিনওয়ার ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ যোদ্ধাদের সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য ইরানকে ধন্যবাদ জানান।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

নদীর পানিতে করোনার অস্তিত্ব!

অনলাইন ডেস্ক

নদীর পানিতে করোনার অস্তিত্ব!

ভারতের গুজরাত রাজ্যের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নদী সবরমতীর পানিতে পাওয়া গেছে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব। আজ শুক্রবার (১৮ জুন) ইন্ডিয়া টুডে এবং আনন্দবাজার পত্রিকা এমন খবর দিয়েছে।

ভারতীয় গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইআইটি নদী পানির নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা  করে  এ ফলাফল পেয়েছে  বলে জানিয়েছে ভারতের গণমাধ্যম।  স্বাভাবিকভাবেই এটা অত্যন্ত বিপজ্জনক ভয় বলেই মনে করা হচ্ছে।

আইআইটি গান্ধিনগরের বিজ্ঞান বিভাগের বিশেষজ্ঞগণ জানিয়েছেন, গতবছরের ৩ সেপ্টেম্বর থেকে ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতি সপ্তাহে একবার করে নদীর পানি নমুনা নিয়ে আসা হত। সবরমতী নদীর মোট ৬৯৫টি নমুনা পরীক্ষা করার পরেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছান তারা।

আরও পড়ুন:


ইসরাইলি ড্রোন মাটিতে নামাল ফিলিস্তিনিরা

প্রাণঘাতী করোনায় ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যু

ময়মনসিংহে ছাত্রদলের সভা নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া


এদিকে আনন্দবাজার এবং ইন্ডিয়া টুডে জানাচ্ছে, সবরমতি নদীই নয়, আহমেদাবাদের দু'টি বড় পুকুর কাঁকরিয়া ও চান্দোলার পানিতেও মিলেছে করোনা ভাইরাস। কাঁকরিয়া পুকুরের ৫৪৯টি নমুনা ও চান্দোলার ৪০২টি নমুনা পরীক্ষা করানোর পর এই প্রমাণ মিলেছে।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

টিকার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে ‘অভিনব উপহার’

অনলাইন ডেস্ক

টিকার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে ‘অভিনব উপহার’

করোনা টিকার প্রতি মানুষের আগ্রহ তৈরির জন্য অভিনব উপহারের ঘোষণা দিয়েছেন ইন্দোনেশিয়ার পুলিশ ও সরকারি কর্মকর্তারা। জানানো হয়েছে, টিকা নিতে এলে বয়স্ক মানুষেরা প্রত্যেকে উপহার হিসেবে পাবেন জ্যান্ত মুরগি।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন গতকাল বৃহস্পতিবার এ খবর প্রকাশ করে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, অবাক করা এ উপহার দিচ্ছে ইন্দোনেশিয়ার পশ্চিম জাভার কিয়ানজুর রিজেন্সির পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসন। ওই এলাকায় ৪৫ বছর ও তার বেশি বয়সীদের করোনার টিকা দেওয়ার কার্যক্রম চলছে। তবে স্থানীয়দের মধ্যে টিকা নেওয়ার মানসিকতা বেশ কম। বুঝিয়ে, প্রচার–প্রচারণা চালিয়েও অনেককে টিকাকেন্দ্রে আনা যায় না।

আরও পড়ুন:


ইসরাইলি ড্রোন মাটিতে নামাল ফিলিস্তিনিরা

প্রাণঘাতী করোনায় ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যু


স্থানীয় পিকাট সাব–ডিস্ট্রিক্টের সহকারী পুলিশ কমিশনার গালিহ আপরিয়াহ বলেন, ‘করোনার টিকা নিয়ে সেখানকার বয়স্ক মানুষের অনেক দ্বিধা রয়েছে। এর অন্যতম কারণ টিকা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভুল তথ্য ও গুজব। বয়স্কদের অনেকের ধারণা, টিকা নিলে করোনা থেকে সুরক্ষা মিলবে না। বরং তা অন্যান্য অনেক গুরুতর রোগের কারণ হতে পারে।’

টিকার প্রতি আগ্রহ ফেরাতে সেখানকার পুলিশ একটি অভিনব উপায় বের করেছে। প্রচার করা হয়েছে, ‘বয়স্ক মানুষেরা টিকা নিতে এলেই মিলবে উপহার। স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আসুন, করোনার টিকা নিন। জ্যান্ত মুরগি হাতে বাড়ি ফিরুন।’ এমন উদ্যোগে সাড়াও মিলছে বেশ। গালিহ জানান, জ্যান্ত মুরগি উপহার দেওয়ার ঘোষণার আগে এক দিনে ২৫ জনের মতো বয়স্ক মানুষ করোনার টিকা নিতে আসতেন। এখন এ সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দৈনিক ২৫০ জনে।

তবে বয়স্ক মানুষকে জ্যান্ত মুরগি উপহার দেওয়ার পাশাপাশি করোনার টিকা নিয়ে ইতিবাচক মনোভাব গড়ার প্রচেষ্টাও অব্যাহত রয়েছে।

গালিহ বলেন, ‘টিকা নিয়ে মানুষের মধ্যে আগ্রহ বাড়াতে আমরা বাড়ি বাড়ি যাচ্ছি। মানুষকে টিকার উপকারিতা বোঝাচ্ছি। স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ ও সেনাসদস্যরা টিকা কার্যক্রম এগিয়ে নিতে অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন। কেন্দ্রগুলোতে টিকা দেওয়ার পাশাপাশি স্বাস্থ্য পরীক্ষার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।’

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ইরানিদের প্রতিটি ভোট শত্রুদের কাছে ক্ষেপণাস্ত্র: সালামি

অনলাইন ডেস্ক

ইরানিদের প্রতিটি ভোট শত্রুদের কাছে ক্ষেপণাস্ত্র: সালামি

ইরানের ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি'র প্রধান মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি বলেছেন, ইরানিদের প্রতিটি ভোট শত্রুদের কাছে যেন একেকটি ক্ষেপণাস্ত্র।

তিনি আজ (শুক্রবার) তেহরানে নির্বাচনে নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা নিশ্চিতকরণ বিষয়ক এক বৈঠকে অংশগ্রহণ শেষে সালামি আরও বলেছেন, ইরানের শত্রুরা এবারের নির্বাচনের বিরুদ্ধে যুদ্ধের স্টাইলে ওঠেপড়ে লেগেছে। কিন্তু ইরানের জনগণ ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে শত্রুদেরকে জবাব দিচ্ছে। একেকটি ভোট শত্রুর ওপর একেকটি ক্ষেপণাস্ত্রের মতো আঘাত হানছে, এ যেন শত্রুদের ওপর ক্ষেপণাস্ত্র-বৃষ্টি।

আরও পড়ুন:


ইসরাইলি ড্রোন মাটিতে নামাল ফিলিস্তিনিরা

প্রাণঘাতী করোনায় ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যু


তিনি বলেন, ব্যাপক ভোটার উপস্থিতি শত্রুদের সব অসৎ চিন্তা ও পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দেবে।

আইআরজিসির প্রধান বলেন, নির্বাচনকালীন নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তারা পুলিশ বাহিনীকে সার্বিক সহযোগিতা দিচ্ছেন।

আজ ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পাশাপাশি সিটি কাউন্সিলসহ স্থানীয় পরিষদের মূল নির্বাচন এবং পার্লামেন্ট ও বিশেষজ্ঞ পরিষদের মধ্যবর্তী নির্বাচনের ভোটগ্রহণও চলছে।

সকাল ৭টা থেকেই ভোটকেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের বিপুল উপস্থিত দেখা যায়। তারা দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে ভোটাধিকার প্রয়োগ করছেন। ভোটার উপস্থিতি বেশি হলে প্রয়োজনে গভীর রাত পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ইসরাইলি ড্রোন মাটিতে নামাল ফিলিস্তিনিরা

অনলাইন ডেস্ক

ইসরাইলি ড্রোন মাটিতে নামাল ফিলিস্তিনিরা

গাজায় একটি একটি ইসরাইলি ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি করেছে ফিলিস্তিনিরা। সংবাদ মাধ্যম 'সাবেরিন নিউজ' জানিয়েছে, ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ সংগ্রামীরা আজ (শুক্রবার) সকালে গাজার পশ্চিমে ইসরাইলের একটি ড্রোন ধ্বংস করেছে।

বার্তা সংস্থা 'শাহাব' জানিয়েছে, ইসরাইলি বাহিনী কয়েকটি ড্রোনের সাহায্যে গাজার উত্তরাঞ্চলীয় বেইত লাহিয়ায় প্রতিরোধ বাহিনীর একটি ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে। এরপরই ড্রোনটিকে ভূপাতিত করা হয়।

তবে ওই হামলায় কয় জন হতাহত হয়েছে অথবা কী পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তার বিবরণ প্রকাশ করেনি এই বার্তা সংস্থা।

ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ সংগ্রামীদের ঘাঁটিতে হামলার মাধ্যমে ইসরাইল কার্যত ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ সংগঠনের সঙ্গে সাক্ষরিত যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করেছে।

১২ দিনের যুদ্ধ শেষে গত ২১ মে ইসরাইল এবং গাজাভিত্তিক ইসলামী প্রতিরোধ সংগঠন হামাসের মধ্যে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয়।

এরপর গত মঙ্গলবার দখলদার ইসরাইলের উগ্রপন্থী ইহুদিবাদীরা পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাস শহরে উসকানিমূলক পতাকা মিছিল করে। এই নিয়েও ফিলিস্তিনি জনগণ ও ইহুদিবাদীদের মধ্যে টানটান উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছিল।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

করোনা: বিশ্বে মৃত্যু সাড়ে ৩৮ লাখ ছাড়াল

অনলাইন ডেস্ক

করোনা: বিশ্বে মৃত্যু সাড়ে ৩৮ লাখ ছাড়াল

মহামারি করোনা ভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় সাড়ে ৮ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩ লাখ ৮৩ হাজার।

শুক্রবার (১৮ জুন) করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার এ তথ্য জানিয়েছে।

ওয়েবসাইটটি জানায়, বিশ্বব্যাপী প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ কোটি ৮১ লাখ ৯৫ হাজার ৯২৯ জন। মারা গেছেন ৩৮ লাখ ৫৭ হাজার ৭৯৪ জন। করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ১৬ কোটি ২৬ লাখ ৯২ হাজার ৭৫৪ জন।

করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩ কোটি ৪৩ লাখ ৭৭ হাজার ২৮১ জন সংক্রমিত এবং ৬ লাখ ১৬ হাজার ৪৩০ জন মারা গেছেন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী এক কোটি ৭৭ লাখ ৪ হাজার ৪১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৯৬ হাজার ১৭২ জনের।

অপরদিকে করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। দেশটিতে মোট আক্রান্ত দুই কোটি ৯৭ লাখ ৬১ হাজার ৯৬৪ জন এবং মারা গেছেন ৩ লাখ ৮৩ হাজার ৫২১ জন।

এছাড়া এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৫৭ লাখ ৪৯ হাজার ৬৯১ জন, রাশিয়ায় ৫২ লাখ ৬৪ হাজার ৪৭ জন, যুক্তরাজ্যে ৪৬ লাখ ৬২৩ জন, ইতালিতে ৪২ লাখ ৪৯ হাজার ৭৫৫ জন, তুরস্কে ৫৩ লাখ ৫৪ হাজার ১৫৩ জন, স্পেনে ৩৭ লাখ ৫৩ হাজার ২২৮ জন, জার্মানিতে ৩৭ লাখ ২৭ হাজার ৬২৪ জন এবং মেক্সিকোতে ২৪ লাখ ৬৩ হাজার ৩৯০ জন সংক্রমিত হয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ


ইসলামী বক্তা আবু ত্বহার খোঁজ মিলেছে

শনিবার থেকে সিনোফার্মের টিকাদান কার্যক্রম শুরু

ব্রাজিলের কাছে পাত্তাই পেল না পেরু

আবারও গাজায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী


অন্যদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে এক লাখ ১০ হাজার ৬৩৪ জন, রাশিয়ায় এক লাখ ২৭ হাজার ৯৯২ জন, যুক্তরাজ্যে এক লাখ ২৭ হাজার ৯৪৫ জন, ইতালিতে এক লাখ ২৭ হাজার ১৯০ জন, তুরস্কে ৪৯ হাজার ১২ জন, স্পেনে ৮০ হাজার ৬৩৪ জন, জার্মানিতে ৯০ হাজার ৮২০ জন এবং মেক্সিকোতে ২ লাখ ৩০ হাজার ৬২৪ জন মারা গেছেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর