এভারেস্ট জয় করলেন হংকংয়ের নারী, গড়লেন বিরল রেকর্ড

অনলাইন ডেস্ক

এভারেস্ট জয় করলেন হংকংয়ের নারী, গড়লেন বিরল রেকর্ড

পবর্তারোহী সাং ইন-হাং

বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টের চূড়ায় উঠে বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন হংকংয়ের সাং ইন-হাং নামের এক নারী। তিনি মাত্র ২৫ ঘণ্টা ৫০ মিনিটে এভারেস্টের চূড়ায় উঠে বিরল এই রেকর্ড গড়েন। তার আগে কোনো নারী পর্বতারোহী এত কম সময়ে আট হাজার ৮৪৮ দশমিক ৮৬ মিটার উচ্চতাবিশিষ্ট এভারেস্টের চূড়ায় উঠতে পারেননি।

শুক্রবার (২৮ মে) নেপালের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৪৪ বছর বয়সী সাং ইন–হাং একসময় স্কুলে পড়াতেন। পরবর্তী সময়ে পর্বত জয়ের নেশা পেয়ে বসে। এবার নিয়ে তিনবার এভারেস্ট অভিযানে যান তিনি। ২০১৭ সালে সাং ইন–হাং হংকংয়ের প্রথম নারী হিসেবে এভারেস্ট জয় করেন।

এভারেস্টের বেস ক্যাম্পের লিয়াজোঁ অফিসার জ্ঞানেন্দ্র শ্রেষ্ঠ বলেন, হংকংয়ের নারী পর্বতারোহী সাং ইন–হাং ২৫ ঘণ্টা ৫০ মিনিটে ২৯ হাজার ৩১ ফুট (৮৮৪৮.৮৬ মিটার) উচ্চতার এভারেস্টের চূড়ায় উঠেছেন। তিনি গত শনিবার বেলা ১টা ২০ মিনিটে বেস ক্যাম্প থেকে রওনা হয়ে পরের দিন বেলা ৩টা ১০ মিনিটে চূড়ায় পৌঁছান।

এর আগে সবচেয়ে কম সময়ে এভারেস্ট জয়ের রেকর্ড রয়েছে নেপালের নারী পর্বতারোহী পুঞ্জো ঝাংমু লামার। তিনি সময় নিয়েছিলেন ৩৯ ঘণ্টা ৬ মিনিট। তাঁর সেই রেকর্ড ভেঙেছেন সাং ইন–হাং।

আল-জাজিরা জানায়, এখনই নারী পর্বতারোহী হিসেবে সবচেয়ে কম সময়ে এভারেস্ট জয়ের স্বীকৃতি পাচ্ছেন না সাং ইন–হাং। এ জন্য তাকে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে আবেদন করে তথ্য-প্রমাণ উপস্থাপন করতে হবে। সনদ পেলে তবেই তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে এ স্বীকৃতি পাবেন। নেপাল সরকার পর্বতারোহীদের এভারেস্ট জয়ের সনদ দেয়। তবে নতুন কোনো রেকর্ড হলে সেটার সনদ গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে নিতে হয়।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

মার্কিন সেনাদের মধ্যে বেড়েছে আত্মহত্যা প্রবণতা

অনলাইন ডেস্ক

মার্কিন সেনাদের মধ্যে বেড়েছে আত্মহত্যা প্রবণতা

যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর মধ্যে বিশেষ করে পুরনো সেনা সদস্যদের মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা অনেক বেড়ে গেছে বলে  মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পেন্টাগনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। ছয় বছরের বেশি অভিজ্ঞ ৪৫ হাজারের বেশি মার্কিন সেনা সদস্য আত্মহত্যা করেছে। প্রত্যাহার করে আনার পরও অনেকে আত্মহত্যা করেছে। 

এ পরিস্থিতিতে পেন্টাগন এই আত্মহত্যার প্রকৃত কারণ খুঁজে বের করা এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়ে জোর প্রচেষ্টা শুরু করেছে।

ইরাক ও আফগানিস্তান যুদ্ধে যে সংখ্যক মার্কিন সেনারা প্রাণ হারিয়েছে, তার চেয়ে বেশি মারা গেছে আত্মহত্যা করে।

বিশিষ্ট সাংবাদিক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক ক্যারল গিয়াকোমো এ ব্যাপারে বলেছেন, প্রতিদিন গড়ে ২০ জন মার্কিন সেনা আত্মহত্যা করছে।

ধারনা করা হচ্ছে, ইরাক ও আফগানিস্তানের যুদ্ধে যেসব মার্কিন সেনা অংশ নিয়েছিল তাদের মধ্যেই আত্মহত্যার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি।
২০১৮ সালে কর্মস্থলেই আত্মহত্যা করেছে ৩২৬ মার্কিন সেনা, ২০১৯ সালে ৩৪৮ এবং ২০২০ সালে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৭৭ জনে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বউ চুরির অভিযোগ নিয়ে থানায় স্বামী, অবাক পুলিশ!

অনলাইন ডেস্ক

বউ চুরির অভিযোগ নিয়ে থানায় স্বামী, অবাক পুলিশ!

স্ত্রীকে নিয়ে আসতে গিয়ে উধাও হয়ে যান স্ত্রী ও ড্রাইভার। এই ঘটনায় স্বামী হাজির হন পুলিশের কাছে। অভিযোগ তার বউকে ড্রাইবার চুরি করে নিয়ে গেছে। বউকে খুঁজে দিন।  বউ খুঁজে দেয়ার এমন আবদার শুনে বেশ অবাক হন রাজাবাগান থানার পুলিশ কর্মকর্তারা।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে এই ঘটনা ঘটে।

স্বামীর অভিযোগের ভিত্তিতেই পুলিশ ওই গাড়ি চালকের বিরুদ্ধে গৃহবধূকে অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেছে। ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু হয়েছে।

স্বামীর বাড়ি পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার রবীন্দ্রনগর এলাকায়। শ্বশুরবাড়ি রাজাবাগান এলাকায়।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই ব্যক্তি জানিয়েছে- কয়েকদিন আগে ঘটে এই ঘটনা। বিশেষ কারণে তার স্ত্রীর বাপের বাড়ি যাওয়ার প্রয়োজন ছিল। তার গাড়ির চালক স্ত্রী ও ছেলেকে গাড়ি করে নিয়ে গিয়ে শ্বশুরবাড়িতে রেখে আসে। একই দিনে কিছুক্ষণ পর স্বামীর মা তার শ্বশুরবাড়িতে যান।

সন্ধ্যার পর মা ও ছেলেকে নিয়ে গাড়ির চালক বাড়িতে ফিরে আসেন। কিন্তু বাপের বাড়িতে থেকে যান তার স্ত্রী। গাড়ির চালককে অভিযোগকারী ভোররাতে বলেন তার স্ত্রীকে নিয়ে আসতে। চালক তার বাড়ি থেকে গাড়ি নিয়ে রওনা হয়। সকাল পেরিয়ে বেলা গড়িয়ে যায়। কিন্তু স্ত্রী আর বাড়ি ফেরেননি। তার সঙ্গে উধাও গাড়ির চালক। মোবাইলে ফোন করতে দেখা যায় দু’জনের ফোনই বন্ধ। খোঁজাখুঁজি করে কাউকেই পাওয়া যায়নি। সেদিন রাতে এক আত্মীয় মারফত অভিযোগকারী জানতে পারেন যে, রামবাগানের কাছে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে আছে তাদের গাড়ি। কিন্তু গাড়ির ভেতর কেউ নেই।

এরপর ওই ব্যক্তি স্ত্রীর নামে প্রথমে নিখোঁজ ডায়েরি করেন। এরপর বিভিন্ন জায়গায় স্ত্রীর খোঁজ চালান তিনি। তারপর কেটে গিয়েছে ৮ দিন। কিন্তু স্ত্রী আর ফিরে আসেননি। খোঁজ মেলেনি চালকেরও। তার অভিযোগ, শাহনেওয়াজ নামে ওই গাড়ির চালক স্ত্রীকে চুরি করে কোনো অজানা জায়গায় লুকিয়ে রেখেছে। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ব্রিটেনকে রাশিয়ার কঠোর হুঁশিয়ারি

অনলাইন ডেস্ক

ব্রিটেনকে রাশিয়ার কঠোর হুঁশিয়ারি

কৃষ্ণসাগরে আবার কোনো উসকানিমূলক তৎপরতা চালায় ব্রিটিশ সেনারা তাহলে তাদের বিরুদ্ধে নিশ্চিত এবং কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে ব্রিটেনকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে রাশিয়া।

রুশ প্রেসিডেন্ট সরকারি দপ্তর ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ আজ (বৃহস্পতিবার) এ কথা বলেন।

ক্রিমিয়া উপকূলে ব্রিটিশ ডেস্ট্রয়ার সম্প্রতি যে উসকানিমূলক তৎপরতা চালিয়েছে তার সমালোচনা করে দিমিত্রি পেসকভ একথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা মনে করি ব্রিটিশরা উসকানিমূলক তৎপরতা চালিয়েছে। দুঃখজনক হলো যে, এটি ইচ্ছাকৃত ছিল এবং প্রস্তুতি নিয়েই উসকানি সৃষ্টি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


পঞ্চাশোর্ধ জেলায় করোনার উচ্চ সংক্রমণ, ১৪ দিনের ‘শাটডাউন’

পাহাড়ি এলাকায় ভারতীয় সেনাকে টেক্কা দিতে অক্ষম চীন: বিপিন রাওয়াত

নাজমুল হুদার স্ত্রী সিগমা হুদার সম্পদের হিসাব চেয়ে দুদকের চিঠি


গতকাল কৃষ্ণসাগরে ব্রিটিশ নৌবাহিনী ওই ডেস্ট্রয়ার দিয়ে উসকানিমূলক তৎপরতা চালায়।

দিমিত্রি পেসকভ বলেন, ব্রিটিশরা কৃষ্ণসাগরের জলসীমায় আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করেছে যা মোটেই গ্রহণযোগ্য নয়।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

সমকামী-উভকামী-রূপান্তরকামীদের ব্যাপারে কঠোর শরিয়া আইন আনছে মালয়েশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

সমকামী-উভকামী-রূপান্তরকামীদের ব্যাপারে কঠোর শরিয়া আইন আনছে মালয়েশিয়া

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ‌‘নারী-পুরুষ সমকামী, উভকামী ও রূপান্তরকামীদের (এলজিবিটি) জীবনাচারের প্রসার এবং ইসলাম ধর্মের অবমাননাকারীদের’ বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ইসলামি শরিয়া আইনে সংশোধনের প্রস্তাব করেছে মালয়েশিয়ার সরকারি একটি টাস্কফোর্স।

মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ মালয়েশিয়ার ইসলামি আইনে পুরুষ সমকামিতা অথবা সমলিঙ্গের কার্যক্রম অবৈধ। তবে এসব অভিযোগে কাউকে দোষী সাব্যস্ত করার ঘটনা বিরল।

এক বিবৃতিতে দেশটির ধর্মীয় কল্যাণবিষয়ক ভারপ্রাপ্ত উপমন্ত্রী আহমদ মারজুক শারি বলেছেন, চলতি মাসে নারী-পুরুষ সমকামী, উভকামী ও রূপান্তরকামীদের প্রাইড মান্থ কর্মসূচির অংশ হিসেবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উদযাপনের বিভিন্ন পোস্টের প্রতিক্রিয়ায় শরিয়া ফৌজদারি আইনে সংশোধনের প্রস্তাব আনা হয়েছে।

তিনি বলেছেন, আমরা দেখেছি নির্দিষ্ট কিছু পক্ষ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে স্ট্যাটাস এবং ছবি আপলোড করেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এলজিবিটিদের জীবনাচারের প্রসারের চেষ্টা হিসেবে ইসলাম ধর্মকে অবমাননা করা হয়েছে।

আহমদ মারজুক শারি বলেছেন, প্রস্তাবিত আইনে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের বিভিন্ন ধরনের নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে কেউ ইসলাম ধর্মের অবমাননা এবং অন্যান্য শরিয়া ফৌজদারি অপরাধ করলে তার বিরুদ্ধে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থাগুলো ব্যবস্থা নিতে পারবে।

ইসলাম ধর্মের অবমাননা এবং এলজিবিটির প্রসার ঠেকাতে সরকারের গঠিত টাস্কফোর্সে দেশটির ইসলামি উন্নয়ন বিভগ, যোগাযোগ ও মাল্টিমিডিয়া মন্ত্রণালয়, অ্যাটর্নি জেনারেলের অফিস এবং পুলিশের প্রতিনিধিরা রয়েছেন।

ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স বলছে, গত কয়েক বছরে মালয়েশিয়ায় এলজিবিটি সম্প্রদায়ের প্রতি ক্রমবর্ধমান অসহিষ্ণুতা নিয়ে উদ্বেগের মধ্যে শরিয়া আইনে সংশোধনী আনার এই প্রস্তাব উঠেছে।

আরও পড়ুন:


পঞ্চাশোর্ধ জেলায় করোনার উচ্চ সংক্রমণ, ১৪ দিনের ‘শাটডাউন’

পাহাড়ি এলাকায় ভারতীয় সেনাকে টেক্কা দিতে অক্ষম চীন: বিপিন রাওয়াত

নাজমুল হুদার স্ত্রী সিগমা হুদার সম্পদের হিসাব চেয়ে দুদকের চিঠি


এর আগে, ২০১৯ সালে আন্তর্জাতিক নারী দিবসের পদযাত্রায় এলজিবিটি কর্মীদের অংশগ্রহণের পর দেশটির একজন মন্ত্রী এবং অন্যান্য মুসলিম সংগঠনগুলোর সদস্যরা প্রতিবাদ-বিক্ষোভ করেন। ওই বছর সমকামিতার চেষ্টার দায়ে দেশটিতে পাঁচজনকে জরিমানা, কারাদণ্ড, বেত্রাঘাতের সাজা দেওয়া হয়।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

আগামী কয়েক দশকে বিশ্বে ক্ষুধা, খরা ও রোগে ভুগবে কোটিরও বেশি মানুষ

অনলাইন ডেস্ক

আগামী কয়েক দশকে বিশ্বে ক্ষুধা, খরা ও রোগে ভুগবে কয়েক কোটির বেশি মানুষ। বৈশ্বিক উষ্ণায়নের বিরূপ প্রভাবের কারণে মানবস্বাস্থ্য এই ভোগান্তিতে পড়বে বলে জাতিসংঘের একটি খসড়া প্রতিবেদনে এ হুশিয়ারি দেয়া হয়েছে।

ইন্টারগভর্নমেন্টাল প্যানেল অন ক্লাইমেট চেঞ্জ - IPCC এর চার হাজার পৃষ্ঠার এই খসড়া প্রতিবেদন আগামী বছর চূড়ান্ত আকারে প্রকাশ হওয়ার কথা। এতে পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে, ২০৫০ সাল নাগাদ বিশ্বে বর্তমানের তুলনায় আরও প্রায় ৮ কোটি মানুষ খাবারের অভাবে পড়বে। প্রতিবেদনে পানি চক্র ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা করা হয়েছে। আরো বলা হয়েছে, ভারতের যেসব এলাকায় ধান উৎপাদন হয়, তার ৪০ শতাংশের মতো এলাকায় উৎপাদনক্ষমতা কমে যেতে পারে।

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে ১৯৮১ সালের তুলনায় এরইমমধ্যে বিশ্বে ভুট্টা উৎপাদন ৪ শতাংশ কমে গেছে। সম্ভাব্য এ সংকটের মাত্রা কমিয়ে আনতে উদ্ভিদ থেকে পাওয়া খাবারের ওপর নির্ভরতা বাড়ানোর মতো নীতি গ্রহণের পরামর্শ দেয়া হয়েছে প্রতিবেদনে।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর