রাজধানীতে গ্যাস থাকবে না দুই দিন যেসব এলাকায়

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীতে গ্যাস থাকবে না দুই দিন যেসব এলাকায়

রাজধানীর সংস্কার কাজের জন্য আদাবর-শেখেরটেকসহ কিছু এলাকায় পরপর দুইদিন গ্যাস সরবরাহ কয়েক ঘণ্টার জন্য বন্ধ রাখা হবে। শনিবার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, পূর্ব বাইতুল আমান হাউজিংয়ের গ্যাস সঙ্কট দূর করতে ট্রায়াল গ্যাস শাটডাউন কাজের জন্য রোববার দুপুর ১২টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত এবং পরদিন সোমবার সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত গ্যাস বন্ধ থাকবে।

শেখের টেক, আদাবর, নবায়তুল আমান হাউজিং, মেহেদী আলিফ হাউজিং ও সংলগ্ন এলাকার সব শ্রেণির গ্রাহকদের গ্যাস সরবরাহ এ সময় বন্ধ থাকবে এবং পার্শ্ববর্তী এলাকায়ও গ্যাসের চাপ কম থাকতে পারে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

ইয়াস দুর্গত এলাকায় মৃত মানুষের দাফন হচ্ছে বিকল্পভাবে

মনিরুল ইসলাম মনি, সাতক্ষীরা

ইয়াস দুর্গত এলাকায় মৃত মানুষের দাফন হচ্ছে বিকল্পভাবে

কবর দেওয়ার মতো উঁচু জায়গা নেই সাতক্ষীরার আশাশুনির ইয়াস দুর্গত প্রতাপনগরে। মৃত মানুষের দাফন করতে হচ্ছে বিকল্পভাবে। আম্পানের পর ইয়াসের প্রভাবে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসে বাঁধ ভেঙে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এখনও পানিবন্দী রয়েছেন হাজারো মানুষ। আর এই এলাকার মানুষের দুর্দশার শেষ নেই।

খাওয়া-দাওয়া তো দূরের কথা, মরা মানুষের শেষ বিদায় দেওয়ার মতো পরিবেশ নেই এলাকায়।

বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) প্রতাবনগরে ৬ ঘণ্টার ব্যবধানে দুজনের মৃত্যু হয়। এই দুজনের মধ্যে একজনকে অভিনভ পন্থায় দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। জোয়ারের পানি কমে গেলে ইট বিছিয়ে তার উপরে পলিথিন দিয়ে থরে থরে ইট সাজিয়ে মাটির পরিবর্তে কংক্রিটের কবর সম্পন্ন করা হয়।

আরও পড়ুন:


‘সেক্সি’ লিখলে না কী জন্য, শ্রীলেখার প্রশ্ন

ইসরাইলি ড্রোন মাটিতে নামাল ফিলিস্তিনিরা

প্রাণঘাতী করোনায় ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যু


প্রতাপনগর ইউনিয়ন মোটরসাইকেল চালক পরিচালনা উন্নয়ন কমিটির সাবেক সভাপতি শহিদুল ইসলাম গাজীর পুত্র মাহমুদুল হাসান (৩৪) বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে পাঁচটায় তার কর্মস্থল কলারোয়ার বাসায় স্ট্রোকজনিত কারণে মৃত্যু হয়। তার মরদেহ আনা হয় প্রতাপনগরে। কিন্তু প্রতাপনগরসহ আশে পাশের এলাকা পানির নীচে ডুবে আছে। আছর নামাজের পর আল আমিন মহিলা আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাসুম বিল্লাহ গাজীর বাড়ির সামনের রাস্তায় জানাজা নামাজ শেষে বিকল্পভাবে পারিবারিক কবরস্থানে কবর না খুঁড়ে দাফন করা হয়। জোয়ারের পানি কমে গেলে ইট
বিছিয়ে তার উপরে পলিথিন দিয়ে থরে থরে ইট সাজিয়ে মাটির পরিবর্তে কংক্রিটের কবর সম্পন্ন করা হয়েছে।

এদিকে প্রতাপনগর গ্রামের ডা. আক্তার হোসেনের বাবা আরশাদ আলী সানা (৭৮) বৃহস্পতিবার বেলা ১০টা ৫৫ মিনিটে বার্ধক্যজনিত কারণে নিজস্ব বাসভবনে ইন্তেকাল করেন। শুক্রবার (১৮ জুন) জানাজা নামাজ শেষে বিকল্পভাবে পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে।

প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেন জানান, আম্পানের পর থেকে প্রতাপনগর ইউনিয়নের অধিকাংশ মানুষ নদীর জোয়ার ভাটার সাথে বসবাস করছে। এর পর ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের তাণ্ডব। পুরো ইউনিয়ন বর্তমানে পানিতে ভাসছে। মানুষ মারা গেলে এলাকায় দাফন করার মতো কোনো পরিস্থিতি নেই। ফলে কেউ মারা গেলে বিকল্প হিসেবে মাটির উপর ইটের গাঁথুনি করে সেখানে সিমেন্ট, খোয়া ও বালি দিয়ে ঢালাই দেওয়া হচ্ছে।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

যানজটে, গাজীপুর-টঙ্গী-ঢাকা রুটে বিশেষ ট্রেন সার্ভিস চালু হচ্ছে

মোহাম্মদ আল-আমীন, গাজীপুর

যানজটে, গাজীপুর-টঙ্গী-ঢাকা রুটে বিশেষ ট্রেন সার্ভিস চালু হচ্ছে

গাজীপুর চৌরাস্তা থেকে ঢাকার বিমানবন্দর পর্যন্ত রাস্তায় যানজটে আটকা পড়ে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। বর্ষা মৌসুমেও এই রাস্তায় বিআরটিএ প্রকল্পের কাজ চলমান থাকায় প্রতিদিন অবর্ণনীয় ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে অফিসগামী মানুষকে। 

ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে এ রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করা ৩৭টি জেলার মানুষকেও। যানজটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থাকতে হচ্ছে তাদের। আর এই দুর্ভোগ কমাতে নতুন উদ্যোগের কথা জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। 

গতকাল বুধবার (১৬ জুন) রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ কথা জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল জানিয়েছেন আগামী রোববার (২০ জুন) থেকে গাজীপুর-টঙ্গী-ঢাকা রুটে চালু হচ্ছে বিশেষ ট্রেন সার্ভিস। 

প্রতিমন্ত্রী তার ফেসবুক পাতায় লেখেন, ‘এই দুর্ভোগের হাত থেকে মানুষকে কিছুটা হলেও রক্ষা করতে আজ (১৬ জুন) রাতে মাননীয় রেলমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে আগামী রোববার থেকে গাজীপুর থেকে টঙ্গী হয়ে ঢাকা এবং ঢাকা থেকে টঙ্গী হয়ে গাজীপুর পর্যন্ত বিশেষ ট্রেন সার্ভিস চালু করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। এ জন্য মাননীয় রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজনের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। জনগণের দুর্ভোগ লাগবে আমার পক্ষ থেকে ভবিষ্যতেও সব ধরনের উন্নয়ন প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।’

তিনি লেখেন, ‘গাজীপুর চৌরাস্তা থেকে এয়ারপোর্ট পর্যন্ত রাস্তাটিকে যানজটমুক্ত করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিআরটি প্রজেক্ট আমাদের উপহার হিসেবে দিয়েছেন। কিন্তু ঠিকাদারদের ক্রমাগত দায়িত্বজ্ঞানহীনতার কারণে অনেক বছর ধরে ধীর গতিতে কাজ করায় মানুষের দুর্ভোগের কোনো সীমা নেই। আবার যখন বর্ষাকাল আসে এই দুর্ভোগ কয়েকগুণ বৃদ্ধি পায়। 

বিআরটি প্রজেক্টে দায়িত্বপালনরত সচিব, পিডিসহ সবাইকে প্রায় প্রতিদিনই কয়েকবার করে ফোন করছি যাতে টঙ্গী গাজীপুরবাসীসহ এই সড়ক দিয়ে যাতায়াতকারী প্রায় ৩৭টি জেলার মানুষদের এই দুর্ভোগের হাত থেকে দ্রুত রক্ষা করা যায়। সিটি কর্পোরেশন, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ, জেলা প্রশাসনসহ সবাই আন্তরিকভাবে চেষ্টা করছে। গাজীপুর যাওয়ার সব বিকল্প রাস্তাগুলোয় একসঙ্গে কাজ চলমান থাকায়, সেই রাস্তাগুলো বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করতে না পারায় এই দুর্ভোগ যেন আরও বেড়ে গেছে।’

আরও পড়ুন


পরীমনি কেনো এতো রাতে বোট ক্লাবে যাবে: সোহান (ভিডিও)

ক্লাবে ঢুকে মদ না পেয়ে তারা ভাঙ্গচুড় চালায় : ক্লাব কর্তৃপক্ষ (ভিডিও)

অল কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগ অস্বীকার করলেন পরীমনি (ভিডিও)

মদ পানে গভীর রাতে যুবক-যুবতী নিয়ে ক্লাবে যেতেন পরীমনি


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

বৈরি আবহাওয়ায় সারাদেশে তিনদিন গ্যাস সংকট

অনলাইন ডেস্ক

বৈরি আবহাওয়ায় সারাদেশে তিনদিন গ্যাস সংকট

সাগরে বৈরি আবহাওয়ার কারণে এলএনজি সরবরাহে বিঘ্ন ঘটায় আগামী ১৪ থেকে ১৬ জুন তিনদিন সারাদেশে গ্যাসের সংকট থাকবে। তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বৈরী আবহাওয়ার কারণে সাগর উত্তাল থাকায় বিঘ্ন ঘটছে এলএনজি খালাসে। এর ফলে প্রতিদিন অন্তত ৪০০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস পাইপলাইনে সরবরাহ করা সম্ভব হবে না। এজন্য ১৪-১৬ জুন পর্যন্ত তিন দিন আবাসিক, শিল্প, বিদ্যুৎ ও বাণিজ্যিক কাজে গ্যাস সরবরাহ ব্যাহত হবে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় কাল ১২ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় কাল ১২ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ১২ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না আগামীকাল মঙ্গলবার (০৮ জুন)। পদ্মা সেতুর রেল সংযোগ স্থাপনে পাইপলাইন স্থানান্তর করায় এই সমস্যা হবে। আজ সোমবার (০৭ জুন) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

এলাকাগুলো হলো-কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে টিটিপাড়া, সায়দাবাদ বাস টার্মিনাল, মুগদা, গোলাপবাগ, বেলতলা, মানিক নগর, অতীশ দিপঙ্কর রোড, আর কে মিশন রোড, গোপীবাগ, উত্তর যাত্রাবাড়ী ও ধলপুর।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পদ্মা সেতুর রেল সংযোগ স্থাপনে পাইপলাইন স্থানান্তর কাজের জন্য ৮ জুন, মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত (১২ ঘণ্টা) কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে টিটিপাড়া, সায়দাবাদ বাস টার্মিনাল, মুগদা, গোলাপবাগ, বেলতলা, মানিক নগর, অতীশ দিপঙ্কর রোড, আর কে মিশন রোড, গোপীবাগ, উত্তর যাত্রাবাড়ী ও ধলপুর এলাকার সব শ্রেণির গ্রাহকদের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

তিতাস আরও জানায়, সরবরাহ বন্ধ থাকায় পার্শ্ববর্তী এলাকায় গ্যাসের চাপ কম থাকতে পারে।

 

আরও পড়ুন:


মহাখালীর সাততলা বস্তির আগুন নিয়ন্ত্রণে, সহস্রাধিক ঘর ভস্মীভূত

ঠাকুরগাঁওয়ে এবারও আমের বাম্পার ফলন

 যার জন্য বিয়ে করা ফরজ

 মহেশখালীতে পাহাড় ধসে প্রাণ গেল আড়াই বছরের শিশুর


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

টানা বর্ষণে চট্টগ্রামে জলজট

হাসপাতালসহ বহু স্থাপনায় হাটুপানি

ফাতেমা জান্নাত মুমু:

টানা বৃষ্টিতে ডুবে গেছে বন্দর নগরী চট্টগ্রাম। জলজটে বেড়েছে জনদুর্ভোগ। নগরীর বিভিন্নগুরুত্বপূর্ণ সড়কসহ পানিতে তলিয়ে গেছে দোকানপাট, ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান ও স্থানীয়দের বাড়ি-ঘর। জলাবদ্ধতা প্রকল্প বাস্তবায়ণ না হওয়ার ​কারণকে দুষছেন নগরপরিকল্পনাবিদরা।

এদিকে, টানা বৃষ্টিতে বন্দর নগরি চট্টগ্রামে বেড়েছে পাহাড় ধসের শঙ্কা। তাই পাহাড়ে বাসিন্দাদের নিরাপত্তায়, নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে জেল প্রশাসন। খোলা হয়েছে আশ্রুয় কেন্দ্র্রও।

এটি বন্দর নগরি চট্টগ্রামের চিত্র। দুই দিনের টানা বৃষ্টিতে পানিতে ডুবে গেছে বন্দর নগরির বিভিন্ন নিন্মাঞ্চল। সড়কে জলাবদ্ধতার কারণে যেমন সৃষ্টি হয়েছে জলজট, তেমনি ভোগান্তি বেড়েছে সাধারণ মানুষের।

নগরির বহদ্দার হাট, মুরাদপুর, চাকবাজার, জিইসি, আগ্রাবাদ, খাতুনগঞ্জসহ বেশি কিছু গুরুত্বপূর্ণ সড়কের এখন এমন চিত্র। বৃষ্টির ভারি বর্ষণে তলিয়ে গেছে দোকান পাট,ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানসহ স্থানীয়দের বাড়ি-ঘর। হঠাৎ পানি বন্দি হয়ে পরে বাসিন্দারা।

এর কারণ হিসেবে জলাবদ্ধতা প্রকল্প বাস্তবায়ণ না হওয়াকে দুষছেন নগর পরিকল্পনাবিদরা।

এদিকে, এমন বৃষ্টিতে চট্টগ্রামে দেখা দিয়েছে পাহাড় ধসের শঙ্কা। চট্টগ্রামের আশপাশে ৩০টি পাহাড়ে ঝুঁকি নিয়ে বসবাস করছে প্রায় ১০হাজারের অধিক পরিবার। তাদের নিরাপত্তায় নিরাপদে সড়ে যেতে করা হচ্ছে মাইকিং। আশ্রয় কেন্দ্রে যেতে বাধ্য করা হচ্ছে  পাহাড়ে বসবাসরতদের।

আবহাওয়া অফিস বলছে, পশ্চিমা লঘুচাপের সঙ্গে পূবালী বাতাসের মিশ্রণের ফলে বজ্রমেঘ তৈরি হওয়ায় বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকবে।

আরও পড়ুন:


চলমান বিধি-নিষেধ ‘লকডাউন’ বাড়ল ১৬ জুন পর্যন্ত

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত কমল

কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে বেগম খালেদা জিয়াকে

বঙ্গবন্ধু সেতু থেকে এ পর্যন্ত ৬ হাজার ৩৪৩ কোটি টাকা টোল আদায়


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর