বাঁধের দাবিতে কাফনের কাপড় পরে অবস্থান : দুজনকেই পেটালেন চেয়ারম্যান
বাঁধের দাবিতে কাফনের কাপড় পরে অবস্থান : দুজনকেই পেটালেন চেয়ারম্যান

বাঁধের দাবিতে কাফনের কাপড় পরে অবস্থান : দুজনকেই পেটালেন চেয়ারম্যান

অনলাইন ডেস্ক

টেকসই বাঁধ নির্মাণের দাবিতে কাফনের কাপড় পরে অবস্থান কর্মসূচি পালন করায় দুই যুবককে মারধরের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানর বিরুদ্ধে।  

শনিবার (২৯ মে) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার পদ্মপুকুর ইউনিয়নের পশ্চিম পাতাখালী বেড়িবাঁধে চেয়ারম্যান আতাউর রহমান তাদের মারধর করেন।

হামলার শিকার শাহিন বিল্লাহ (২৩)সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের অনার্সের শিক্ষার্থী ও গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে। অন্যজন ইয়াছির আরাফাত (২১)  একই গ্রামের জামাত আলী মোল্লার ছেলে।

দুজনেই  সাতক্ষীরার উপকূলীয় অঞ্চলে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সৃষ্ট প্রভাব থেকে মুক্তির জন্য আন্দোলন করে আসছিলেন।

ইয়াছির আরাফাত বলেন, শুক্রবার সকালে ভাঙনকবলিত এলাকায় গ্রামবাসীকে সঙ্গে নিয়ে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবি জানিয়ে কাফনের কাপড় পরে প্রতীকী কর্মসূচি পালন করি। শনিবার সকালে ওই এলাকায় বাঁধ মেরামতের কাজে সহযোগিতা করতে গেলে ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান চেয়ারম্যান আমাদের ওপর ক্ষিপ্ত হন।  

এ সময় তিনি শাহিন বিল্লাহকে গলাধাক্কা দিয়ে ফেলে কিলঘুষি মারতে থাকেন। পরে উপস্থিত লোকজন তাকে রক্ষা করেন। পরে আরেক দফায় চেয়ারম্যানের লোকজন আমার ওপর হামলা চালায়।

news24bd.tv/আলী