ডা. সাবিরাকে হত্যার পর তোশকে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় : সিআইডি
ডা. সাবিরাকে হত্যার পর তোশকে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় : সিআইডি

ডা. সাবিরাকে হত্যার পর তোশকে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় : সিআইডি

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীর কলাবাগানে চিকিৎসক সাবিরা রহমান লিপিকে (৪৭) হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) ক্রাইম সিন ইউনিট।

সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিটের ইন্সপেক্টর শেখ রাসেল কবির বলেন, ধারালো অস্ত্র দিয়ে সাবিরার শ্বাসনালী কেটে ফেলা হয়েছে। তার দেহে ধারালো অস্ত্রের আঘাত ও পোড়ার ক্ষত আছে। আমরা আপাতত নিশ্চিত হয়েছি, এটি একটি হত্যাকাণ্ড।

আলামত দেখে মনে হয়েছে, মধ্যরাতের যেকোনো সময় হত্যাকাণ্ডটি সংঘটিত হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, সাবিরাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাতের পর বিছানার তোশকে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। তবে দাহ্য পদার্থ না থাকায় আগুন তেমন ছড়াতে পারেনি। তবে, সাবিরার শরীরের কিছু অংশ দগ্ধ হয়।  

রাজধানীর কলাবাগান এলাকার ৫০/১ নম্বর ফার্স্টলেনের বাসায় এ ঘটনা ঘটে। থেকে কাজী সাবিরা রহমান লিপির লাশ উদ্ধার করা হয়।   

খবর পেয়ে সোমবার দুপুরে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) ক্রাইম সিন ইউনিট। তারা দগ্ধ লাশ উদ্ধার করে।  

এরপর এ ঘটনার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চারজনকে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়। বিকালে ডিবি রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) আজিমুল হক গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সাবলেটে থাকা এক শিক্ষার্থী, তার এক বন্ধু, বাড়ির দারোয়ান ও এক কাজের মেয়েকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।  

news24bd.tv/আলী 

;