চলন্ত বাস থেকে শিশুসহ স্ত্রীকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগে স্বামী গ্রেপ্তার

রেজাউল করিম মানিক, রংপুর

চলন্ত বাস থেকে শিশুসহ স্ত্রীকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগে স্বামী গ্রেপ্তার

রংপুরে দাবি করা যৌতুক না পাওয়ায় চলন্ত গাড়ি থেকে দুই সন্তানসহ স্ত্রীকে ফেলে দিয়েছে স্বামী। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অমানবিক এ ঘটনা ঘটেছে রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার হাজিপাড়া এলাকায়।

নির্যাতনকারী স্বামী সুমনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নির্যাতিতা মায়িশা মোজাহিদ তন্নী বাদী হয়ে রংপুর মেট্রোপলিটান কোতয়ালি থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছে। ওই নারী রংপুর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ইউনিট কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোসাদ্দেক হোসেন বাবলুর ভাতিজি।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৬ সালে রংপুর নগরীর শালবন মহল্লার মোজাহেদ হোসেন ফুলুর মেয়ে মায়িশা মোজাহিদ তন্নীর সাথে কাউনিয়া থানার হারাগাছ হাজিপাড়া এলাকার মাহমুদার রহমানের ছেলে মতিউল হাসান সুমনের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের সময় ছেলে ও তার স্বজনদের অনুরোধে মেয়ের সুখের জন্য নগদ ১২ লাখ টাকা ২০ ভড়ি গহনাসহ প্রায় ৩৫ লাখ টাকার মালামাল ও অর্থ প্রদান করা হয়।

বিয়ের কিছুদিন পর মায়িশা জানতে পারে তার স্বামী সুমন রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলায় আগে একটি বিয়ে করেছিল, যৌতুক সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে সেই বিয়ে ভেঙে যায়। এত কিছু জানার পরেও মায়িশা স্বামীর সাথে ঘর সংসার করতে থাকে। এ সময় তাদের দুটি কন্যা সন্তান জন্ম নেয়। তাদের বয়স যথাক্রমে চার বছর ও দেড় বছর।

এদিকে তার স্বামী সুমন মাদকাসক্ত হয়ে পড়ায় তার প্রতিদিন ৫/৭ হাজার টাকা লাগে। প্রথম দিকে তার বাবা মা এ মাদক কেনার টাকা টাকা প্রদান করলেও হঠাৎ করে টাকা দেওয়া বন্ধ করে দেয়। এরপরেই শুরু হয় মায়িশার উপর স্বামী সুমনের নির্যাতন। সে বাবার বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে আসার জন্য চাপ সৃষ্টি করতে থাকে। রাজি না হওয়ায় তাকে মারধর করে। বিষয়টি মায়িশা তার বাবা মাকে জানালে তার বাবা মেয়ের সুখের কথা ভেবে আবারো ১০ লাখ টাকা প্রদান করে। এ টাকা শেষ হয়ে গেলে আবারো ২৫ লাখ টাকা যৌতুক হিসেবে বাবার বাড়ি থেকে আনার জন্য এক মাস আগে মারধর করে বাসা থেকে দুই শিশু সন্তানসহ বের করে দেয়, মায়িশা বাবার বাড়িতে চলে আসে। এর মধ্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবলু ও তার ছোট ভাইসহ স্বজনরা দুই শিশু সন্তানের কথা ভেবে সংসার করার জন্য সুমন ও তার বাবাসহ স্বজনদের বাড়িতে দাওয়াত দিয়ে গত ২৪ মে বাসায় ডেকে আনে। সেখানে আলোচনা করার পর ওইদিন আবারো সুমনকে ১২ লাখ টাকা প্রদান করা হয়। এরপর মায়িশা স্বামী সুমন ও তার দুই শিশু সন্তানসহ শশুড় মাহমুদার রহমানের প্রাইভেট কারে ওঠে। কিছুদুর যাবার পর যৌতুক লোভি সুমন কেন তার দাবি করা ২৫ লাখ দেওয়া হলো না একথা বলে গাড়ির ভেতরেই আবারো মায়িশাকে মারধর করে। এক পর্যায়ে গাড়ির ভেতরে ইলেকট্রিক তার গলায় পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে। এসময় তার আত্মচিৎকারে লোকজন এগিয়ে এলে চলন্ত গাড়ি থেকে সুমন তার স্ত্রী মায়িশা ও দুই শিশু সন্তানকে ফেলে দিয়ে গাড়ি নিয়ে চলে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় মায়িশাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

চিকিৎসাধীন অবস্থা থেকে সুস্থ হবার পর মায়িশা নিজেই বাদি হয়ে মেট্রোপলিটান কোতয়ালি থানায় গত ২৭ মে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করে। যার মামলা নম্বর ৫৭। এ ঘটনায় পুলিশ স্বামী সুমনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে চালান দিলে বিজ্ঞ বিচারক তার জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়ে দেয়।

মায়িশার বাবা মোজাহিদ হোসেন ফুলূ জানিয়েছন, মেয়ের সুখের জন্য এত টাকা দিয়েও নির্যাতনের হাত থেকে রক্ষা করতে পারলাম না। মামলা করার পর সুমনের স্বজনরা মামলা তুলে নেবার জন্য নানানভাবে হুমকি প্রদান করছে। ফলে মায়িশা চরম নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। তিনি ঘটনার দায়িদের বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

এদিকে রংপুর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোসাদ্দেক হোসেন বাবলু বলেন, আমরা ভাজিজির সংসার সুখের জন্য কী না করেছি। কিন্তু সুমন যে মাদকসেবী আর যৌতুক লোভী তা জানতাম না। আমরা মামলা দায়ের করেছি, আশা করি ন্যায় বিচার পাবো।

এ ব্যাপারে কোতয়ালি থানার ওসি আব্দুর রশিদ জানান, এটা চরম অমানবিক ঘটনা। অন্যান্য আসামিদের গ্রেপ্তার করার চেষ্টা চলছে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

রোহিঙ্গা নাগরিককে অবৈধভাবে চলাফেরায় সহযোগিতা, গ্রেপ্তার ২

আকবর হোসেন সোহাগ, নোয়াখালী

রোহিঙ্গা নাগরিককে অবৈধভাবে চলাফেরায় সহযোগিতা, গ্রেপ্তার ২

নোয়াখালীর হাতিয়ার ভাসানচরের রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের অবৈধ ভাবে চলাচলে সহযোগিতা করায় দুই দালালকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

তারা হলো- চর আলাউদ্দিন গ্রামের আকবর হোসেন সাইফুল্লাহ (৩৬) ও নুর ইসলাম (৪৪)।

মঙ্গলবার ( ৩ আগস্ট) আটক দুই আসামিকে বিদেশি নাগরিক আইনের মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

এর আগে, একই দিন সকালে সুবর্ণচরের মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের চর আলাউদ্দিন গ্রাম থেকে দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

সুবর্ণচরের চরজব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল হক বলেন, গত কিছু দিন আগে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে করলে তারা জানায়, সুবর্ণচর উপজেলার বাসিন্দা সাইফুল্লাহ ও নুর ইসলাম ভাসানচরের আশ্রয়কেন্দ্র থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের মেঘনা নদী পারাপারে দীর্ঘদিন থেকে সহযোগিতা করে আসছে। এ ঘটনায় আটক রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে বিদেশি নাগরিক আইনের মামলা হয়। রোহিঙ্গাদের ভাষ্যমতে ওই মামলায় সাইফুল্লাহ ও নুর ইসলামকে সহযোগী হিসেবে আসামি করা হয়েছে।

ওসি জিয়াউল হক বলেন, সোমবার দিবাগত রাতে তাঁরা নিজ বাড়িতে আসলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

আরও পড়ুন:


১১ তারিখ থেকে যানবাহন চলবে যে নিয়মে

৭, ৮, ৯ আগস্ট ভ্যাকসিন নেওয়ার সুযোগ দিচ্ছি: মোজাম্মেল হক

১১ আগস্টের পর ভ্যাকসিন ছাড়া ঘোরাফেরা করলে শাস্তি


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

হেলেনা জাহাঙ্গীরের আরও ৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

নিজস্ব প্রতিবেদক

হেলেনা জাহাঙ্গীরের আরও ৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

সম্প্রতি বিভিন্ন বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের জেরে আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক উপকমিটি থেকে অব্যাহতি পাওয়া আলোচিত হেলেনা জাহাঙ্গীরের ৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত শুনানি শেষে এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর মধ্যে পল্লবী থানার চাঁদাবাজি ও টেলিযোগাযোগ আইনের মামলায় চারদিন করে আটদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শাহিনুর রহমান।

গত ৩০ জুলাই গুলশান থানার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় হেলেনা জাহাঙ্গীরের তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। সেই রিমান্ড শেষে মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতে হাজির করা হয়।

এদিন তার বিরুদ্ধে পল্লবী থানায় টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের এক মামলায় সাতদিন ও চাঁদাবাজির মামলায় সাতদিন করে ১৪ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। আসামিপক্ষে রিমান্ড বাতিল চাওয়া হয়। শুনানি শেষে বিচারক চারদিন করে আটদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

news24bd.tv এসএম

আরও পড়ুন


আবারও বাড়ল লকডাউন

নরসিংদীতে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও হাসপাতালে অক্সিজেন সিলিন্ডার বিতরণ

জাতির পিতার এই দেশে কেউ গৃহহীন থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী

অবৈধ সম্পদ অর্জন ও তাওবা


 

পরবর্তী খবর

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে নিম্ন আদালতে প্রেরণ

অনলাইন ডেস্ক

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে নিম্ন আদালতে প্রেরণ

ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে মিথ্যাচার, অপপ্রচার ও বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা ও ব্যক্তিবর্গের সম্মানহানি করার অপচেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতারকৃত হেলেনা জাহাঙ্গীর এর অন্যতম সহযোগী হাজেরা খাতুন এবং সানাউল্ল্যাহ নূরী’কে রাজধানীর গাবতলি এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

এ বিষয়ে মঙ্গলবার দুপুরে কারওয়ান বাজারে র‍্যাব বের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়,  মিডিয়া শাখার পরিচালক হলেন, হেলেনা জাহাঙ্গীর। তার জয়যাত্রা টিভি বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ব্যবহার না করে, ২০১৮ সাল থেকে হংকং এর একটি ডাউন লিংক চ্যানেল হিসেবে সম্প্রচার করতো, ফ্রিকুয়েন্সি হংকং হতে বরাদ্দ হতো। এর জন্য প্রতিমাসে ছয় লাখ টাকা দেয়া হতো।

আরও পড়ুন

৭৩টি ভুঁইফোড় সংগঠনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ

রামেকে করোনা ওয়ার্ডে ১৯ জনের মৃত্যু

হেলেনা জাহাঙ্গীরের দুই সহযোগী গ্রেফতার

সানাউল্লাহ নূরী প্রতিনিধি সমন্বয় ছিলো। আর হাজেরা খাতুন মূল মিডিয়া জগতের বিপরীতে একটি সংগঠন তৈরির করে ৫ হাজার প্রতিনিধি নিয়োগ ও এদের নিয়ে বিশাল নেটওয়ার্ক তৈরীর কাজ করছিলো। 

এদিকে, হেলেনা জাহাঙ্গীরকে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে নিম্ন আদালতে পাঠিয়েছে ডিবি সাইবার ক্রাইম বিভাগ। 

news24bd.tv রিমু 

পরবর্তী খবর

বাগেরহাটে ২৪ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক কারবারি আটক

শেখ আহসানুল কারিম, বাগেরহাট

বাগেরহাটে ২৪ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক কারবারি আটক

বাগেরহাটের মোল্লাহাটে উপজেলার নোনাডাঙ্গা এলাকা হতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ২৪ বোতল ফেন্সিডিলসহ এক নারীসহ দুই মাদক কারবারিকে আটক করেছে। রোববার রাতে আটক দুই মাদক ব্যবসায়ীকে সোমবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আটক দুই মাদক ব্যবসায়ীরা হলো- খুলনার পাইকগাছা উপজেলার গাদাইপুর গ্রামের রাশিদা খাতুন (৩৫) ও সাতক্ষীরা সদর উপজেলার হড়দ্দহা গ্রামের আলমগীর হোসেনকে (৩৮)।

মোল্লাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোমেন দাশ জানান, উপজেলার গাওলা ইউনিয়নের নোনাডাঙ্গা এলাকায় মাদক বেচাকেনা হচ্ছে এমন খবরের ভিত্তিতে রোববার রাতে সেখানে অভিযান চালিয়ে এক নারীসহ দুই মাদক কারবারিকে আটক হয়। 

এ সময়ে এক নারীর কটির মধ্য বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে রাখা ২৪ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়। সোমবার বিকেলে আটক দুই মাদক কারবারিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: 


বগুড়ায় এই প্রথম এত মৃত্যু

তথ্য লুকিয়ে সরকারের কী লাভ?

পিয়াসা-মৌয়ের বিরুদ্ধে গুলশান-মোহাম্মদপুরে মামলার প্রস্তুতি


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

মডেল পিয়াসা ও মৌ তিনদিনের রিমান্ডে

অনলাইন ডেস্ক

মডেল পিয়াসা ও মৌ তিনদিনের রিমান্ডে

মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা ও মরিয়ম আক্তার মৌয়ের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের পৃথক দুই মামলায় তিন দিন করে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। 

আজ ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শহিদুল ইসলাম এই আদেশ দেন। 

আদালতের সরকারি কৌঁসুলি তাপস কুমার পাল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি বলেন, ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আজ পৃথক দুই থানার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আসামি দুইজনকে হাজির করে ১০ দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক প্রত্যেককে দুই মামলায় তিন দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দেন। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর