ওয়াশিং মেশিন ভালো রাখতে যে ভুলগুলো এড়িয়ে চলবেন

অনলাইন ডেস্ক

ওয়াশিং মেশিন ভালো রাখতে যে ভুলগুলো এড়িয়ে চলবেন

ময়লা কাপড় ওয়াশিং মেশিনে ঢুকিয়ে দিলে মুহূর্তেই পরিষ্কার হয়ে যায়। জীবনকে আরও সহজ করে তুলেছে এই যন্ত্রটি। ওয়াশিং মেশিন ভালো রাখতে যে ভুলগুলো এড়িয়ে চলবেন-

১. জামাকাপড়ের ট্যাগের গায়ে লেখা থাকে কীভাবে তা কাঁচতে হবে। যদি আপনি খেয়াল না করেন, তাহলে কাপড় ও মেশিন দুটোই নষ্ট হবে।

২. ওয়াশিং মেশিন চালানোর আগে এর সেটিংস কীভাবে ঠিক করবেন, তা আগেই জেনে নিন। বেশিরভাগ জামাকাপড়ই নরমাল সেটিংসে পরিষ্কার করা যায়। তবুও অনেক জামাকাপড়ের জন্য আলাদাকরে সেটিংস সেট করতে হয়।

৩. অত্যাধিক নোংরা জামাকাপড় পরিষ্কারের জন্য অযথা বেশি ডিটারজেন্ট দেবেন না। এতে আপনার ওয়াশিং মেশিনের ক্ষতি হবে। তাই পরিমাণমতোই ডিটারজেন্ট ব্যবহার করুন কাপড় কাচতে।

আরও পড়ুন:

 আরবি-বাংলা অক্ষরে চিরকুট নিয়ে আসা সেই ‘কণ্ঠী ঘুঘু’ অবশেষে অবমুক্ত

 বাংলা টিভি ইউকের সাবেক চেয়ারম্যান ফিরোজ খান আর নেই

 চীনের আরও একটি টিকার অনুমোদন দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

 গুরুদাসপুরে পাট ক্ষেত থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

 

৪. কাপড় কাচা হয়ে গেলে ভেজা জামাকাপড় দীর্ঘক্ষণ মেশিনের ভেতরে ফেলে রাখবেন না। এতে কাচা জামাকাপড়েও গন্ধ হবে, আবার মেশিনও খারাপ হবে। প্রয়োজনে মনে রাখার জন্য মোবাইলে রিমাইন্ডার দিয়ে রাখুন।

৫. ওয়াশিং মেশিনে কাপড় কাচার সময় কোনটি কোন ধরনের ফেব্রিক, তা খেয়াল করে তবেই ঢোকান। এর ফলে যেমন একটা পোশাকের রং অন্য পোশাকে লেগে খারাপ হয়ে যেতে পারে, তেমনই দীর্ঘদিন এমনটি করলে ওয়াশিং মেশিন দ্রুত নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

আজ যাদের জন্মদিন

অনলাইন ডেস্ক

আজ যাদের জন্মদিন

আজ যাদের জন্মদিন, দেখে নিন কেমন যাবে আপনার সারাদিন।

আজ জন্মদিন হলে ( ৫ অগস্ট ২০২১ )- আজ আপনার ব্যবসা ভাগ্য খুব ভাল থাকবে। ইচ্ছা না থাকলেও খরচ হয়ে যেতে পারে। স্ত্রীর জন্য খুব ভাল আয়ের ব্যবস্থা হতে পারে। খাবারের ব্যাপারে সংযত না হতে পারলে স্বাস্থ্যের অবনতি হবে। পারিবারিক জীবন সুখে কাটবে। সন্তানদের জন্য কোনও কারণে চিন্তা বৃদ্ধি পেতে পারে। ধর্ম আলোচনায় মন দিতে পারলে শান্তি পাবেন। প্রতিবেশীদের সঙ্গে মনোমালিন্য হতে পারে।

রাশির ব্যক্তিদের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য- ব্যবসার দিক দিয়ে বছরটি ভাল যেতে পারে। পাওনা টাকা আদায় হবে। পুরনো মামলা নিয়ে অশান্তি হতে পারে। বিবাহিত জীবনে বিবাদের আশঙ্কা। নতুন কাজ এই বছর শুরু না করাই ভাল হবে। কর্মস্থানে কোনও কারণে বাধা আসবে। দূরে থাকা বন্ধুর সঙ্গে যোগাযোগ হবে। সন্তানদের দিক দিয়ে বছরটি ভাল। ব্যবসায় খুব ভাল খবর পাবেন। ব্যবসায়ে নতুন চাহিদা বাড়বে।

আরও পড়ুন


হানি সিংকে নিয়ে গুরুতর সব অভিযোগ, আদালতের দ্বারস্থ স্ত্রী

৫ আগস্ট: ইতিহাসে আজকের এই দিনে

ইসলামী সাইকোথেরাপির প্রবর্তক আল-বালখি

আপনার ব্যক্তিত্ব- এরা বাবা-মায়ের ভক্ত হন। দোষের মধ্যে এরা একটু খুঁতখুঁতে চঞ্চল ও ভিতু স্বভাবের। সব বিষয়ে হুড়োহুড়ি করেন ও চঞ্চল প্রকৃতির হন। এদের ব্যবসা বুদ্ধি জন্মগত, তাই চাকরির চেয়ে ব্যবসাতেই জাতক বেশি উন্নতি করেন। এদের স্বাস্থ্য খুব একটা মজবুত হয় না। 

news24bd.tv রিমু 

পরবর্তী খবর

ভালো চামড়ার জুতা চেনার সহজ উপায়

অনলাইন ডেস্ক

ভালো চামড়ার জুতা চেনার সহজ উপায়

জুতা এখন আর শুধু ময়লা থেকে পা বাঁচানোর জন্য পরে না, জুতা এখন ফ্যাশনের অন্যতম একটি অংশ হয়ে উঠেছে। ভালোমানের পাদুকা কিনতে পারলে এবং ঠিক মতো যত্ন নিলে সেটা অনেকদিন টেকসই হয়। ভালো চামড়ার জুতা চেনার কিছু উপায় রয়েছে। 

আসুন সেগুলো একটু জেনে নেই: 

১. আসল চামড়া চেনার সব চাইতে সহজ পদ্ধতি হল স্পর্শ। জুতায় চাপ দিলেই চামড়ায় পড়বে ভাঁজ তারপর সেটা উঠে আসবে। সেই সঙ্গে আসল চামড়ায় মিলবে প্রাকৃতিক এবং চকচকে অনুভূতি।

২.আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ এবং লক্ষণীয় বিষয় হল জুতার সঠিক মাপ। অভিজ্ঞ কারিগরের হাতের তৈরি একজোড়া জুতা শুধু মাপেই সঠিক হবে না, বরং পায়ের একটি অংশে পরিণত হবে। আর মাপে সঠিক হলে জুতা টেকসই হওয়ার সম্ভাবনা বাড়বে। কারণ জুতায় ভাঁজ পড়া এবং আকৃতি নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা থাকবে না।

৩. সুকতলা এবং সেলাই জুতার স্থায়িত্ব বাড়ানোর ক্ষেত্রে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। ভালোমানের একজোড়া জুতার ভেতরে একটি করে বাড়তি শুকতলা থাকবে। নরম এই শুকতলার কারণে জুতার ভেতরে পায়ের পাতা স্থায়ীভাবে বসবে, ফলে পরে বেশি আরাম পাবেন।

শুকতলায় আসল চামড়া ব্যবহার করলে পায়ে দুর্গন্ধ হওয়ার আশঙ্কাও কমে।

৪. ভালো জুতা চেনার আরেকটি দিক হল এর গন্ধ। আসল চামড়ার জুতায় বিশেষ একটি গন্ধ থাকবে যা শুধু চামড়া থেকেই আসা সম্ভব। আর চামড়ার জুতায় কোনো রাসায়নিক দ্রব্য কিংবা প্লাস্টিকের গন্ধ থাকবে না।

৫. জুতা কেনার আগে এর তলা ভালোভাবে পরীক্ষা করা জরুরি। রাবার, চামড়া ইত্যাদি বিভিন্ন উপকরণে তৈরি হয় জুতার তলা বা ‘সোল’। দীর্ঘসময় হাঁটার উপযোগী করতে বিশেষ ধরনের হালকা তলার জুতাও রয়েছে। ভালো জুতার তলা উপরের অংশের সঙ্গে সেলাই করা থাকবে, আঠা দিয়ে জোড়া দেওয়া নয়। আর আসল চামড়ার জুতার তলা যে কোনো সময় পরিবর্তন করা সম্ভব।

৬. জুতার কেনার সময় ডিজাইনের নান্দনিকতা এবং রুচিশীলতার দিকে নজর রাখতে হবে। হাতে তৈরি এবং রং করা জুতা কেনার ক্ষেত্রে রং এবং সেলাইয়ের গুণগত মান দেখে নিতে হবে। সেলাই হতে হবে পরিচ্ছন্ন এবং যতটা সম্ভব চোখের আড়ালে থাকবে।

৭. জুতার উপর কোনো কৃত্রিম বা প্লাস্টিকের আবরণ আছে কিনা তা দেখতে হবে। সাধারণত জুতায় বাড়তি দীপ্তি আনতে এই আবরণ দেওয়া হয়। যা পুরানো হয়ে গেলে চকচকে-ভাব হারায় এবং অনেকসময় উঠে আসে। জুতা স্পর্শ করেই এই আবরণ সনাক্ত করা সম্ভব।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

আজকের রাশিফল, কি আছে ভাগ্যে জেনে নিন

অনলাইন ডেস্ক

আজকের রাশিফল, কি আছে ভাগ্যে জেনে নিন

আজ বুধবার, ৪ আগস্ট ২০২১। বৈদিক জ্যোতিষে ১২টি রাশি- মেষ, বৃষ, মিথুন, কর্কট, সিংহ, কন্যা, তুলা, বৃশ্চিক, ধনু, মকর, কুম্ভ ও মীন-এর ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়। একই রকমভাবে ২৩টি নক্ষত্রেরও ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়ে থাকে। ভাগ্য রেখা অনুযায়ী আপনার আজকের দিনটি কেমন কাটবে, দেখে নিন। 

মেষ: নিজের পায়ের যত্ন নিন, আঘাত লাগার সম্ভাবনা রয়েছে। বড় সিদ্ধান্তগুলি সহজেই নিতে হবে। ব্যক্তিগত সিদ্ধান্তের সঙ্গে আপস করবেন না। যাঁরা জীবনে গুরুত্বপূর্ণ তাঁদের সঙ্গে কথা বলুন।

বৃষ: তাড়াহুড়ো করে কাজ করবেন না। ধীরে সুস্থে কাজ করুন। কাজ শুরু করার আগে গবেষণা করুন। নির্দিষ্ট কিছু বিষয়ের ক্ষেত্রে অস্পষ্টতা বজায় থাকবে।

মিথুন: ব্যক্তিগত বিষয় সম্পর্কে অবগত হন। হাল ছাড়বেন না কোনও কিছুতেই। পেশাদার জীবনে কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। সময়ের সঙ্গে নিজেকে এগিয়ে নিন।

কর্কট: জটিল রহস্যের উদঘাটন করতে পারলেও কিছু উত্তর অধরা থাকবেই। নৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি বজায় রাখবেন। নিজেকে সকলের সঙ্গে সমসাময়িক রাখুন। সমস্যার মুখোমুখি হওয়ার চেষ্টা কম করবেন।

সিংহ: নিজেকে বিজয়ী ভাবার আগে কয়েক মাস অপেক্ষা করুন। বুদ্ধি দিয়ে সবকিছু যাচাই করুন। কর্মজীবনে এগিয়ে থাকবেন তবে কিছু বাঁধা রয়েছে। অপ্রত্যাশিত উন্নয়নের জন্য সর্বদা সতর্ক থাকুন। মানুষকে বিস্মিত করার পরিবর্তে তাঁদের স্বাগত জানানোর সময়।

কন্যা: নিজের কাজ অবশ্যই করতে থাকুন। সবকিছু এড়িয়ে যাবেন না। কাউকে সৎভাবে বিশ্বাস করবেন না। প্রয়োজনে এড়িয়ে যাবেন। কোথায় কখন না বলতে হয় সেই সম্পর্কে জানুন। নিজের সিদ্ধান্তে অটল থাকুন।

তুলা: নিজ ইচ্ছা এবং ব্যক্তিত্বের মধ্যে সংঘর্ষের সমস্যা রয়েছে। অন্যদের মতামত থেকে নিজেকে বিরত রাখুন এবং শান্ত থাকুন। বন্ধু নির্বাচন সাবধানে করুন।

বৃশ্চিক: আর্থিক বিষয়ে নজর দিন। আর্থিক ঝুঁকি এড়িয়ে যান এবং তাৎক্ষণিক ধনসম্পদের দিকে নজর দেবেন না। স্বল্পমেয়াদি লাভের পথে যাবেন না। তাতে সমস্যা বাড়বে বই কমবে না।

ধনু: প্রাণবন্ত পরিস্থিতি বজায় রাখুন। দরকার পড়লে বাইরে থেকে ঘুরে আসুন। মন ভালও রাখতে সবার সাথে কথা বলুন। নিজের মনের কথা ব্যক্ত করুন।

মকর: আর্থিক বিষয়ে আবেগপ্রবণ হবেন না। মতামতের পার্থক্য হতেই পারে। পারিবারিক ক্ষেত্রে ব্যয় বেশি হতে পারে সেদিকে লক্ষ্য রাখুন। অ- বিতর্কিত বিষয়ের মধ্যেই নিজেকে আবদ্ধ রাখুন।

আরও পড়ুন


গুনাহ হয়ে গেলে যে দোয়া পড়বেন

যে দুটি খারাপ অভ্যাস ত্যাগের বিনিময়ে জান্নাত

আজ যাদের জন্মদিন

৭৩টি ভুঁইফোড় সংগঠনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ

কুম্ভ: সবই বিশ্বাসের ব্যাপার। যদি অংশীদাররা বিশ্বাস করে যে আপনি আপনার প্রতিশ্রুতিতে অটল থাকবেন না, তারা গভীরভাবে ভুল করছেন। নিজের নীতি থেকে এক মিলিমিটার স্থানান্তর করাও উচিত নয়। ঘুষ, টাকা পয়সা কোনও দিকেই নিজেকে বিক্রি করবেন না।

মীন: পেশাগত এবং ব্যক্তিগত দিকে অবস্থা স্থিতিশীল। নিজের শক্তি সম্পর্কে অবগত হন। মানুষের ভরসার যোগ্য আপনি। নিজের উপস্থিতি অন্যের পক্ষে ভালও হতে পারে।

news24bd.tv রিমু 

পরবর্তী খবর

আজ যাদের জন্মদিন

অনলাইন ডেস্ক

আজ যাদের জন্মদিন

আজ যাদের জন্মদিন, দেখে নিন কেমন যাবে আপনার সারাদিন।

আজ জন্মদিন হলে ( ৪ অগস্ট ২০২১ )- কর্মচারীর জন্য ব্যবসায় লাভ হতে পারে। কোথাও বেড়াতে যাওয়ার পক্ষে দিনটি শুভ নয়। মা-বাবার সঙ্গে কোনও কারণে বিরোধ বাধতে পারে। মাথা ঠান্ডা রাখতে হবে। আজ সকালে চমকে যাওয়ার মতো খবর পেতে পারেন। আলস্য কাটিয়ে উঠতে পারলে লাভবান হবেন। বয়সে ছোট কারও কাছ থেকে উপকার পাবেন। নিজের সিদ্ধান্তে অটল থাকুন, ক্ষতি হবে না।

রাশির ব্যক্তিদের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য- ব্যবসায় ভাগ্য মোটের উপর ভাল যাবে। বন্ধুর সাহায্য পাবেন এই বছর। প্রেমের জীবন খুব ভাল। ব্যবসায় নতুন বিনিয়োগ করতে পারেন। সংসারে খুব সুখের সময়। যারা বিদেশে পড়াশোনা করেন তারা ভাল ফল পাওয়ার আশা করতে পারেন। এই বছর অজথা কারও সঙ্গে অশান্তি করবেন না, বিষয়টি পুলিশ পর্যন্ত যেতে পারে।

আরও পড়ুন


গুনাহ হয়ে গেলে যে দোয়া পড়বেন

যে দুটি খারাপ অভ্যাস ত্যাগের বিনিময়ে জান্নাত

৭৩টি ভুঁইফোড় সংগঠনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ

আপনার ব্যক্তিত্ব- এরা খুব বন্ধু বত্সল ও স্নেহশীল মানুষ। ধর্মে প্রবল উৎসাহ থাকে। এরা আনন্দময় ও আত্মবিশ্বাসী হন। প্রায়ই উত্তরাধিকার সূত্রে আত্মীয় স্বজনের অর্থ বা সম্পত্তি পেয়ে থাকেন। জাতকের জীবনে উন্নতির প্রধান অন্তরায় হল বিলাসিতা ও অমিতব্যয়িতা। এ বিষয়ে সংযত হওয়া প্রয়োজন।

news24bd.tv রিমু 

পরবর্তী খবর

দাঁতে নখ কাটার বদভ্যাস দূর করতে যা করতে পারেন

অনলাইন ডেস্ক

দাঁতে নখ কাটার বদভ্যাস দূর করতে যা করতে পারেন

নিজের অজান্তেই অনেকেই দাঁত দিয়ে নখ কাটেন। আবার অনেকের অভ্যাস থাকে দাঁত দিয়ে নখ কাটা। এটি খুবই বিরক্তিকর এবং অস্বাস্থ্যকর একটি বদভ্যাস। জানেন কি এই অভ্যাস আপনার স্বাস্থ্যের জন্য কতটা ক্ষতিকর?

তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব, নখ চিবানোর অভ্যেসটা ছাড়ার চেষ্টা করুন। এই বদভ্যাসটি ত্যাগ করার জন্য কিছু উপায় রয়েছে যা খুব সহজেই এটি প্রতিকার করতে সক্ষম। চলুন জেনে নেয়া যাক-

১. নখ সবসময় ছোট করে কেটে রাখা এবং পরিষ্কার রাখা দাঁত দিয়ে নখ কাটা বন্ধের একটি ভালো উপায় হতে পারে। 

২. নিজের হাত ও নখগুলোকে সবসময় যত্নে রাখুন ম্যানিকিউর-এর মাধ্যমে। ম্যানিকিউর শুধু হাতের সৌন্দর্যই বাড়িয়ে তোলেনা, এমন কি এটি আপনার নখগুলোকেও সুন্দর ও চকচকে রাখে। আর নখ সুন্দর থাকলেতো দাঁত দিয়ে নখ কাটার কোন প্রশ্নই আসেনা!

৩. এটা শুনতে একটু অদ্ভূত শোনালেও পদ্ধতিটা কিন্তু বেশ কার্যকরী। কারণ, নখে স্টিকার ব্যবহার করলে বা হাতে গ্লাভস পরিধান করলে আপনি নিজেকে নখ কামড়ানো থেকে বিরত রাখতে পারবেন।

আরও পড়ুন:


আবারও বাড়ল লকডাউন

জানানো হলো দোকানপাট খোলার তারিখ

টিকা নেওয়া ছাড়া কেউ অফিস-দোকান-ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আসতে পারবে না


৪. আপনার হাত ও মুখকে ব্যস্ত রাখুন প্রায় সবসময়। আপনি নখ কামড়ানোর অভ্যাস থেকে নিজেকে মুক্ত করতে মুখে চুইংগাম নিয়ে সারাক্ষণ চিবুতে পারেন এবং হাতে কাজ না থাকলে একটি বল বা যে কোন কিছু নিয়ে হাতকে ব্যস্ত রাখতে পারেন। এভাবে এক সপ্তাহ নিজেকে ব্যস্ত রেখে অভ্যাসটি দূর করতে পারেন।

৫. তেতো স্বাদের নেইল পলিশের ব্যবহার খুব ভালো একটি পদ্ধতি। এটি আপনাকে নখ কামড়ানো থেকে বিরত রাখতে সহায়তা করবে। এতে আপনার নখগুলোও সুন্দর লাগবে দেখতে আর আপনিও নিজেকে সংযত রাখতে পারবেন।

৬. আপনি কখন দাঁত দিয়ে নখ কামড়ান? যখন বোরিং ফিল করেন? যখন বিরক্ত থাকেন? নাকি যখন অন্যমনস্ক হয়ে কিছু ভাবেন? অথবা যখন উদ্বিগ্ন থাকেন তখন? আসলে কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, মানুষ বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দাঁত দিয়ে নখ কাটে যখন তারা বোরিং ফিল করে, ক্ষুধার্ত থাকে, স্ট্রেস ফিল করে এবং নার্ভাস থাকে। তাই এই বদভ্যাসটি দূর করার জন্য আপনি আসলে নখ কামড়ানোর পেছনে আসল ট্রিগার-টি খুঁজে বের করুন তাহলে এই বাজে অভ্যাসটি দূর করতে তেমন কোন কষ্ট হবে না।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর