বঙ্গবন্ধুর চার খুনির মুক্তিযোদ্ধের খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত

অনলাইন ডেস্ক

বঙ্গবন্ধুর চার খুনির মুক্তিযোদ্ধের খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত

বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত ও মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত চার খুনি শরীফুল হক ডালিম, মোসলেম উদ্দিন, রাশেদ চৌধুরী ও এবিএমএইচ নূর চৌধুরীর মুক্তিযুদ্ধের খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বুধবার মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়ে গেছে। এখন গেজেট আকারে প্রকাশ করা হবে। প্রকাশ করলেই জানা যাবে।

বুধবার সচিবালয়ে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে যোগ দেওয়ার আগে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সম্প্রতি জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের এক সভায় খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়।

মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল বলেন, নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়ে গেছে। এখন আমরা গেজেট আকারে প্রকাশ করব, প্রকাশ করলে আপনারা পাবেন। এর আগে দয়া করে আর কোনো মন্তব্য করতে চাই না।

কতদিনের মধ্যে গেজেট প্রকাশ হতে পারে- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, এটা হয়ত দুই-চার-পাঁচ দিন লাগতে পারে।

খেতাব বাতিল হলে তারা এবং তাদের পরিবারের সদস্যরা মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য আর কোনো রাষ্ট্রীয় সুযোগ-সুবিধা পাবেন না।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার দুই বোন কারাগারে

অনলাইন ডেস্ক

ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার দুই বোন কারাগারে

অস্বচ্ছল পরিবারের দুই বোন সাংসারিক টানাপোড়েনে কিছু টাকার আশাতেই ঝুঁকি নিয়ে জয়পুরহাট থেকে ফেনসিডিল নিয়ে ঢাকায় আসে। তারা দুজন আহাদ পরিবহনের একটি বাসে যাত্রী বেশে ফেনসিডিলের ১৭৮ বোতল চালান জয়পুরহাট থেকে ঢাকায় বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে বহন করে নিয়ে আসে। খবর পেয়ে অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করে র‌্যাব। তাদের বাড়ি দিনাজপুরের হাকিমপুর উপজেলায়। ১৭৮ বোতল ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার এই দুই বোনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। আসামিরা হলেন- মোছা. মিতু আক্তার (২৩) ও মোছা. রিতু আক্তার (২১)।

শুক্রবার (২৩ জুলাই) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মন্ডলের আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন (জিআর) শাখা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে মহানগরীর দারুসসালাম থানার মাজার রোড এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ১৭৮ বোতল ফেনসিডিলসহ তাদের গ্রেফতার করে র‌্যাব।

উত্তরের জেলা জয়পুরহাট থেকে ফেনসিডিল বহন করে নিয়ে ঢাকায় আসা ওই দুই নারী সম্পর্কে বোন উল্লেখ করে র‌্যাব-৩ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বীণা রানী দাস জানান, র‌্যাব-৩ গোয়েন্দা সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, একটি মাদক চক্রের কয়েকজন সদস্য আহাদ পরিবহনের একটি বাসে যাত্রী বেশে অবৈধ মাদকদ্রব্য ফেনসিডিলের চালান জয়পুরহাট থেকে ঢাকায় বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে বহন করে নিয়ে আসছে। খবর পেয়ে অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করা হয়। তাদের বাড়ি দিনাজপুরের হাকিমপুর উপজেলায়।

আরও পড়ুনঃ


দ. কোরিয়ার কোন গালিও দেয়া চলবে না উত্তর কোরিয়ায়

তালেবানের হাত থেকে ২৪ জেলা পুনরুদ্ধারের দাবি

কাছাকাছি আসা ঠেকাতে টোকিও অলিম্পিকে বিশেষ ব্যবস্থা


 

তাদের কাছ থেকে ১৭৮ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে উল্লেখ করে বীণা রানী দাস আরও জানান, তারা দুজনে বোরকা পরে ব্যাগ ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ফেনসিডিলগুলো লুকিয়ে নিয়ে এসেছিল। দুবোনের মধ্যে রিতু বিবাহিত। তার স্বামীর নাম মহিনুল ইসলাম। এরা মূলত বাহক হিসেবে মাদক বহন করে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

হাইকোর্টে বিচারিক কার্যক্রম চলবে সীমিত পরিসরে

অনলাইন ডেস্ক

হাইকোর্টে বিচারিক কার্যক্রম চলবে সীমিত পরিসরে

কঠোরতম বিধিনিষেধকালে হাইকোর্টে বিচারিক কার্যক্রম সীমিত পরিসরে পরিচালিত হবে বলে জানা গেছে।

শুক্রবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সুপ্রিম কোর্টের ফুল কোর্ট সভায় সর্বসম্মতিতে এ সিদ্ধান্ত হয়।

সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচারপতিদের অংশগ্রহণে ওই সভা হয়।

এই সময়ে হাইকোর্ট বিভাগের পৃথক তিনটি একক বেঞ্চে বিচারকাজ পরিচালিত হবে।

রিট ও দেওয়ানি, ফৌজদারি এবং কোম্পানি ও অ্যাডমিরালটি–সংক্রান্ত একটি করে তিনটি বেঞ্চে তিনজন বিচারপতি তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে ভার্চ্যুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে অতি জরুরি বিষয়ে শুনানি গ্রহণ ও অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দেবেন।

সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র মোহাম্মদ সাইফুর রহমান শুক্রবার রাতে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন: 


বাংলাদেশকে টিকা দেওয়ার ব্যাপারে যা জানালেন ভারতীয় হাই কমিশনার

এদেশে সৎ মানুষ তৈরির সিস্টেমটাই নাই

গাজীপুরে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে হত্যা চেষ্টা


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ধর্ষণের ভিডিও ভাইরালের হুমকি, স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

অনলাইন ডেস্ক

ধর্ষণের ভিডিও ভাইরালের হুমকি, স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ ও সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করার হুমকি দেওয়ায় স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। 

পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলায় এমন ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে কাউখালী থানায় ৫ জনকে আসামি মামলা করলে আসামি শাকিল হোসেনকে (২৩) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কাউখালী উপজেলার ছোট বিড়ালজুড়ি গ্রামের নবম শ্রেণিতের ওই স্কুলছাত্রীকে একই উপজেলার কাঠালিয়া গ্রামের সজিব খান (২৪), মো. সাকিল (২৩), আকাশ মীরসহ (২৪) চার-পাঁচজন প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত। তারা গত ১৬ জুলাই মোবাইল ফোনে স্কুলছাত্রীকে ডেকে স্থানীয় হাবিব মীরের একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে যান। সেখানে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করেন এবং দৃশ্য মোবাইলে ভিডিও ধারণ করে রাখে।

এরপর তারা স্কুলছাত্রীকে তাদের সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক চালিয়ে যাওয়ার কুপ্রস্তাব দেন।

তাদের প্রস্তাবে রাজি না হলে ধর্ষণের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকি দেন তারা।

এ হুমকিতে লোকলজ্জার ভয়ে স্কুলছাত্রী ১৬ জুলাই রাতে ঘরের বারান্দায় ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দেয়।

প্রতিবেশীরা টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে ১৭ জুলাই চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় স্কুলছাত্রী। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ৫ জনের বিরুদ্ধে ২২ জুলাই  রাতে  কাউখালী থানায় মামলা করেন।

কাউখালী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বনী আমিন বলেন, স্কুলছাত্রীকে আত্মহত্যার প্ররোচনায় তার বাবা বাদী হয়ে ৫ জনকে নামীয় ও কয়েকজনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা করেছেন।

পরবর্তী খবর

শিশু গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে উকিল দম্পতির বিরুদ্ধে মামলা

অনলাইন ডেস্ক

শিশু গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে উকিল দম্পতির বিরুদ্ধে মামলা

বান্দরবানে শিশু গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে এক উকিল দম্পতির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে রওশন আরা নামে এক নারী বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

দায়ের করা মামলায় বান্দরবান জজ কোর্টের আইনজীবী সারাহ সুদীপা ইউনুছ ও তার স্বামী কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের অর্গানিয়ার লিগাল অ্যাডভাইজার ফয়সাল আহমেদকে (৪৫) আসামি করা হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, মামলার বাদী রওশন আরা সাত মাস আগে শিশু জয়নাব আক্তার জোহুরাকে (৯) বনরুপা পাড়ায় উকিল দম্পতির বাসায় গৃহকর্মীর কাজ দেন। বাড়ির গৃহকর্ত্রী সারা সুদীপা গৃহকর্মী জয়নাবকে মারধর ও নির্যাতন করেন।

এক পর্যায়ে নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে গত ২০ জুলাই সকালে শিশুটি উকিল দম্পতির বাসা থেকে পালিয়ে যায়।


আরও পড়ুন:

রাস্তায় ফেলে চলে যাওয়া চামড়াগুলোতে পচন ধরে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে

করোনায় প্রাণ গেলো একজন ভাষা সৈনিকের

জিততে ভুলে গেছে শ্রীলঙ্কা

আগের চেয়েও কঠোর হবে কাল থেকে শুরু হওয়া লকডাউন!


পরে তাকে খুঁজে গৃহকর্তা ফয়সাল স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের মাধ্যমে ওই গৃহকর্মীকে স্থানীয় অভিভাবক রওশন আরার কাছে দিয়ে আসেন। এরপর শিশুটির নির্যাতনের একটি বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসে।

এ ঘটনায় আজ ২২ জুলাই রওশন আরা ভিকটিমের পক্ষ হয়ে উকিল দম্পতির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলে পুলিশ শিশুটিকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্যপরীক্ষা ও চিকিৎসার জন্য বান্দরবান সদর হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়।

news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর

হেফাজতের আসাদুল্লাহ গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক

হেফাজতের আসাদুল্লাহ গ্রেফতার

সহিংসতা, ভাংচুর ও নাশকতার মাধ্যমে রাষ্ট্রবিরোধী চক্রান্তের অভিযোগে আসাদুল্লাহ ওরফে আসাদ (৩০) নামে এক হেফাজত নেতাকে হাটহাজারী থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব -৭। 

বুধবার সকালে পৌরসভার ফটিকা গ্রামের শাহাজালাল পাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসাদ আল্লামা আহমদ শফীর মৃত্যুর আগে সহিংসতার পৃষ্ঠপোষক ছিল বলেও জানা গেছে।

তিনি হেফাজতের হাটহাজারী উপজেলা কমিটির সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং পৌরসভা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক। 

র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) রাকিবুল হাসান সংবাদিকদের জানান, গত ২৬ ও ২৭ মার্চ মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষ উদযাপন চলাকালীন সময়ে একটি কুচক্রী মহল দেশের বিভিন্ন স্থানে বিশেষ করে হাটহাজারী এলাকায় যে অরাজকতা, সহিংসতা, নাশকতা ও ধ্বংসলীলার তাণ্ডব চালায়; সে তাণ্ডবের সঙ্গে জড়িতদের আটকের জন্য র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম ব্যাপক গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রাখে। 


নাসির প্রেমিক না আমার বন্ধু : মডেল মিম

আমার বয়ফ্রেন্ড নিয়ে আমিও মজায় আছি : নাসিরের সাবেক প্রেমিকা

বউ যেন এদিক-ওদিক ভাইগা না যায় : নাসিরের সাবেক প্রেমিকা (ভিডিও)


 

তিনি আরও বলেন, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার সকালে র‌্যাব -৭, চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিক দল হাটহাজারী থানাধীন ফটিকা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনকালীন সময়ে হাটহাজারী এলাকার সহিংসতা, ভাংচুর ও নাশকতার মাধ্যমে রাষ্ট্রবিরোধী চক্রান্তের অভিযোগে আসাদুল্লাহ ওরফে আসাদকে গ্রেফতার করে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর