আরামদায়ক পোশাকে অফিস
আরামদায়ক পোশাকে অফিস

আরামদায়ক পোশাকে অফিস

অনলাইন ডেস্ক

শহরের জীবন মানেই ব্যস্ততার যেন যান্ত্রিক জীবন। দিন শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই চাকরিজীবী, ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তা নানা পরিচয়ে মানুষ ছোটেন যাঁর যাঁর কর্মস্থলে। আর কর্মস্থল মানেই বিভিন্ন জেনারেশনের নানা বয়সীদের উপস্থিতি। আর লক্ষণীয় বিষয়, অনেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ চুকিয়ে এখন অফিসপাড়ায়।

এরই ধারাবাহিকতায় কর্মক্ষেত্রের পোশাকে এসেছে পরিবর্তন।

গরমে আরামদায়ক পোশাক পরার বিকল্প নেই। তবে ফ্যাশনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে গরমে ক্যাজুয়াল পোশাক পরা উচিত। চলুন জেনে নেই গরমে কেমন ঘরানার পোশাক পরবেন-

>> গরমে টি-শার্ট ব্যবহারের বিকল্প নেই। ছোট-বড়, নারী-পুরুষ সবার জন্যই সবচেয়ে আরামদায়ক পোশাক হলো টি-শার্ট। তবে কাপড়ের ধরন ও হালকা রং দেখে গরমে টি-শার্ট পরবেন।

>> ফ্যাশনে ফতুয়ার জনপ্রিয়তা অনেক। গরমে নারী-পুরুষ সবাই জিন্সের সঙ্গে ফতুয়া পরতে পারেন। এ ছাড়াও নারীরা ফতুয়ার সঙ্গে ধুতি সেলোয়ার, পালাজো বা স্কার্ট ও পরতে পারবেন। এসময় হালকা রঙের উপর বিভিন্ন সুতার কারুকাজ করা ফতুয়া বেছে নিতে পারেন।
>> কুর্তি বর্তমানে সব নারীই পরতে পছন্দ করেন। লম্বা কামিজ অথবা গোল হলেও আরামদায়ক হয় কুর্তি। রং ও ডিজাইনের পার্থক্যে সুতি বা হালকা ফেব্রিক্সের কুর্তি পরতে পারেন গরমে।

>> অনেকেই নিয়মিত শাড়ি পরে অফিস করেন। আবার বিশেষ দিনগুলোতেও নারীরা শাড়ি পরে থাকেন। সেক্ষেত্রে সুতির ছাপা শাড়ি, ব্লক, টাঙ্গাইলের শাড়ি অথবা ব্লক-বাটিকের সুতি ট্রেন্ডি শাড়ি, অ্যাপ্লিকের শাড়ি পরতে পারেন।

অফিসে কোন অনুষ্ঠান ছাড়া সব সময় হালকা ধরনের গয়না বেছে নেওয়া উচিত। অনেক অফিসে আজকাল সপ্তাহের যেকোনো এক বা দুই দিন ক্যাজুয়াল ডে ঘোষণা করা থাকে। এমন হলে সে সময় বেছে নিতে পারেন স্ট্রিট স্টাইলের ক্যাজুয়াল পোশাক।

news24bd.tv / এমিজান্নাত

;