বাজেটে সরাসরি জনগনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ কিছু নেই
বাজেটে সরাসরি জনগনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ কিছু নেই

বাজেটে সরাসরি জনগনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ কিছু নেই

Other

বাংলাদেশের বাজেট নিয়ে নিজের মতামত প্রকাশের আগে বাজেট ঘোষনা পরবর্তী সময়ে এ নিয়ে আমার প্রত্যাশার কথাই বরং বলি। একটা ভিন্নরকম পরিবেশে সরকার বাজেট ঘোষনা করেছে- বাজেট দলিলে সেই ভিন্ন রকম পরিস্থিতির স্বীকৃতি এবং তা থেকে উদ্ধারের কী পরিকল্পনা আছে সেটি খুঁজবো। দাঁত ভাঙ্গ উচ্চারণের অর্থনীতির নানা টার্মিওলোজির বাইরে বাজেট সরাসরি নাগরিকদের কতোটা স্পর্শ করেছে তার একটা চিত্র খুঁজবো। নাগরিকদের স্পর্শ করার উপায় কেবল কর বাড়ানো কমানো, কোন পণ্যের মূল্য বাড়লো বা কমলো  কিংবা বিশেষ প্রণোদনার মাধ্যমেই হয় না, নাগরিকদের জীবনকে স্পর্শ করে এমন পদক্ষেপও থাকতে হয়।

 

আরেকটি বিষয় তীক্ষ্ণ মনোযোগ দিয়ে খুঁজবো- সরকারের অর্থমন্ত্রী থেকে শুরু করে মন্ত্রীরা- বাজেট প্রস্তাবনাকে কিভাবে জনগনের সাথে কানেক্ট করার চেষ্টা করেন। কানেক্ট করার চেষ্টা মানে প্রতিটি মন্ত্রী তার মন্ত্রনালয়ের আওতায় জনগনের জন্য প্রয়োজনীয় যে সব পদক্ষেপ বাজেটে আছে সেগুলো তারা কিভাবে জনগনের সামনে নিয়ে আসেন। মন্ত্রীরা সুনির্দিষ্টভাবে এটি করতে না পারলে বুঝতে হবে- হয় বাজেটে সরাসরি জনগনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ কিছু নেই, নতুবা মন্ত্রীরা নিজেরাও বাজেটটি পড়ে দেখেননি।  

রাষ্ট্রের জাতীয় বাজেট কেবলমাত্র সরকারের আয় ব্যয়ের দলিলই না, এটি সরকারের স্বল্প এবং দীর্ঘমেয়াদের আর্থিক পরিকল্পনা। সেই পরিকল্পনাটি জনগনের জীবনকে কতোটা স্পর্শ করতে পারবে- সেটি পরিষ্কার হওয়া দরকার।   
 এটি হচ্ছে আমার বাজেট পাঠের আগের প্রতিক্রিয়া।

শওগাত আলী সাগর, প্রধান সম্পাদক, নতুনদেশ

(মত ভিন্ন মত বিভাগের লেখার আইনগত ও অন্যান্য দায় লেখকের নিজস্ব। এই বিভাগের কোনো লেখা সম্পাদকীয় নীতির প্রতিফলন নয়। )

news24bd.tv/আলী 

;