মারধরের প্রতিবাদ করতে গিয়ে মারামারি
মারধরের প্রতিবাদ করতে গিয়ে মারামারি

মারধরের প্রতিবাদ করতে গিয়ে মারামারি

অনলাইন ডেস্ক

আজ বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় নেতাদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার প্রতিবাদে বগুড়ায় পূর্বনির্ধারিত বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছিল জেলা ছাত্রদল। সেই কর্মসূচিতে ব্যানারের সামনে কে আগে দাঁড়াবেন, তা নিয়ে নেতা-কর্মীদের মধ্যে প্রথমে ধাক্কাধাক্কি এবং পরে হাতাহাতির একপর্যায়ে মারামারি হয়েছে। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের নওয়াববাড়ি সড়কে দলীয় কার্যালয়ের সামনে এ মারামারির ঘটনা ঘটে। এতে সমাবেশ কর্মসূচি পণ্ড হয়।

বগুড়া সদর ফাঁড়ির পরিদর্শক তাজমিলুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ছাত্রদলের সমাবেশ শুরুর পর থেকেই ব্যানারের সামনে কে আগে দাঁড়াবেন, তা নিয়ে তাঁরা নিজেরাই হাতাহাতি–মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন। এতে উত্তেজনা তৈরি হলে তাঁদের সেখান থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। তাঁরা দলীয় কার্যালয়ে অবস্থান নিলে সেখানেও মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন। নিজেদের দোষেই তাঁদের সমাবেশ কর্মসূচি পণ্ড হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকনসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও কেন্দ্রীয় নেতাদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার প্রতিবাদে বগুড়ায় এ প্রতিবাদ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। শহরের নওয়াববাড়ি দলীয় কার্যালয়ের সামনে জেলা ছাত্রদলের এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। সমাবেশকে কেন্দ্র করে জেলা ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শহরের নওয়াববাড়ি সড়কে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমবেত হন। বেলা সাড়ে ১১টায় সমাবেশ শুরু হওয়ার পরপরই ব্যানারের সামনে কে আগে দাঁড়াবেন, তা নিয়ে প্রথমে দুজন কর্মীর মধ্যে বাগ্‌বিতণ্ডা থেকে মারামারি বাধে। একপর্যায়ে অন্যরাও সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন।

news24bd.tv এমিজান্নাত

;