মাদারীপুরে গাঁজার গাছসহ গ্রেপ্তার ১

মাদারীপুর প্রতিনিধি:

মাদারীপুরে গাঁজার গাছসহ গ্রেপ্তার ১

মাদারীপুরে গাঁজার গাছসহ কমল শীল (৩৫) নামে এক গাঁজা চাষি ও মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-০৮, মাদারীপুর ক্যাম্পের একটি বিশেষ দল। 

বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে সদর থানার খোয়জপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাকে ৬টি তাজা গাঁজার গাছসহ গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃত আসামি খোয়জপুর গ্রামের মৃত মরন শীলের ছেলে। সে একজন পেশাদার গাঁজা চাষি ও মাদক ব্যবসায়ী।  

র‌্যাব-০৮ মাদারীপুর ক্যাম্পের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৮ জানতে পারে যে, মাদারীপুর সদর থানার খোয়াজপুর গ্রামের কমল শীল নামের এক ব্যক্তি তার বসত বাড়ির আঙ্গিনায় গাঁজা চাষের কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। 

ওই গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান পরিচালনা করে মাদকদ্রব্য গাঁজা চাষি কমল শীলকে আটক করে। এ সময় আটককৃত আসামির বসত বাড়িতে তল্লাশি করে বসত বাড়ির আঙ্গিনার পূর্ব পার্শ্বের ঘরের সাথে চাষকৃত ৬টি তাজা গাঁজা গাছ উদ্ধার করে। 

আরও পড়ুন:


সুনামগঞ্জে বেহাল সড়ক সংস্কারের দাবিতে এলাবাসীর মানববন্ধন

হামাসের ঘাঁটিতে বিস্ফোরণ, ২ ফিলিস্তিনি যোদ্ধা নিহত

বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে চাচা-ভাতিজার মৃত্যু

বাগেরহাটে হু-হু করে বাড়ছে করোনা সংক্রামণ


আটককৃত আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ ও স্থানীয় লোকজনের কাছে র‌্যাবকে জানতে পারে আসামি একজন পেশাদার গাঁজা চাষি ও মাদক ব্যবসায়ী এবং সে দীর্ঘদিন ধরে তার নিজ বসত বাড়ির আশ-পাশ এলাকায় অবৈধভাবে গাঁজা চাষ ও বিক্রয় কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। ধৃত আসামিকে উদ্ধারকৃত গাঁজা গাছ ও অন্যান্য আলামতসহ মাদারীপুর সদর মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। 

এ ব্যাপারে মাদারীপুর সদর মডেল থানায় একটি মাদক মামলা দায়ের করা হয়েছে। র‌্যাব-৮ এর এ ধরণের কার্যক্রম ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলে জানান র‌্যাব-৮, সিপিসি-৩, মাদারীপুর কোম্পানী কমান্ডার স্কোয়াড্রন লীডার মোহাম্মদ সাদেকুল ইসলাম।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

টেকনাফে অপহৃত রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করলো এপিবিএন

নিজস্ব প্রতিবেদক

টেকনাফে অপহৃত রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করলো এপিবিএন

কক্সবাজারের টেকনাফের জাদিমুড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে অপহৃত মুজিবুল্লাহ নামের  এক রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)।

অপহরণের একদিন পর রোববার (১৩ জুন) দুপুর ২টার দিকে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের জাদিমুড়া ২৭ নম্বর ক্যাম্পের সি-ব্লকের নেচারি পার্কসংলগ্ন এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়।

কক্সবাজার এপিবিএন-১৬-এর অধিনায়ক এসপি তারিকুল ইসলাম তারিক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শুক্রবার দুপুরে জাদিমুরা ক্যাম্প থেকে মুখোশ পরা ৮/৯ জন অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি মুজিবুল্লাহকে জোরপূর্বক নেচারি পার্কের পাহাড়ের দিকে নিয়ে যায়। খবর পাওয়ার পর থেকেই জাদিমুড়া এপিবিএন ক্যাম্পের সদস্যরা উদ্ধার অভিযান শুরু করেন।

আরও পড়ুন:


করোনা: ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত-মৃত্যু দুটোই বেড়েছে

বাংলাদেশসহ ২৬ দেশের ওপর পাকিস্তানের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা

কোনো অবস্থাতেই ভারত থেকে যেন কোরবানির পশু না আসে: এলজিইডি মন্ত্রী


 

এপিবিএন কর্মকর্তা আরও জানান, আজ দুপুর ১টার দিকে সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে পার্ক এলাকা থেকে মুজিবুল্লাহকে উদ্ধার করা হয়। তিনি সুস্থ আছেন। পরিবারের জিম্মায় তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

ঘাটাইলে ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ২

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঘাটাইলে ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ২

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় ট্রাক ও সিএনজি চালিত অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে দু্ইজন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ৩ জন।

আজ বিকেলে ঘাটাইল-সাগরদিঘী-ভরাডোবা সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

নিহতরা হলেন, টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার গোপিনাথপুর গ্রামের আ. হালিমের ছেলে আমজাদ হোসেন (৪৫)। গোপালপুর উপজেলার কাঠিালিয়া গ্রামের সোহরাব উদ্দিনের ছেলে মঞ্জুরুল করিম (৩২)।

সাগরদিঘী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মো. হেলাল উদ্দিন তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

আরও পড়ুন:


করোনা: ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত-মৃত্যু দুটোই বেড়েছে

বাংলাদেশসহ ২৬ দেশের ওপর পাকিস্তানের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা

কোনো অবস্থাতেই ভারত থেকে যেন কোরবানির পশু না আসে: এলজিইডি মন্ত্রী


 

তিনি বলেন, বিকেলে ঘাটাইল-সাগরদিঘী-ভরাডোবা সড়কের বইন্নাদিঘী এলাকার ট্রাক-সিএনজি চালিত অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই অটোরিক্সার ২ জন যাত্রী নিহত হন। আহত হন আরও ৩ জন যাত্রী। আহতরা স্থানীয় একটি ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

রংপুর মেডিকেলে ১০ দালাল আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুর মেডিকেলে ১০ দালাল আটক

রংপুর মেডিকেলে অভিযান চালিয়ে ১০ দালালকে আটক করেছে মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা পুলিশ। আজ দুপুরে এ অভিযান চালানো হয়। 

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (ডিবি অ্যান্ড মিডিয়া) ফারুক আহমেদ বলেন, দুপুরে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের ভয়ভীতি দেখিয়ে টানা হেঁচড়া করার সময় ১০ জন দালালকে আটক করা হয়। তারা দীর্ঘদিন ধরে সাধারণ রোগীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি আদায়, হাসপাতালে রোগী পরিবহনের ট্রলি ব্যবহারের জন্য অবৈধভাবে ফি আদায়, অননুমোদিতভাবে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রবেশ করা, অবৈধভাবে বিভিন্ন পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহের নামে নানাভাবে প্রতারণা করে অর্থ হাতিয়ে নিতেন।  

আরও পড়ুন:


করোনা: ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত-মৃত্যু দুটোই বেড়েছে

বাংলাদেশসহ ২৬ দেশের ওপর পাকিস্তানের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা

কোনো অবস্থাতেই ভারত থেকে যেন কোরবানির পশু না আসে: এলজিইডি মন্ত্রী


 

আটক ব্যক্তিরা হলেন- পরশুরাম থানার লাল মিয়ার ছেলে মো. মোরশেদ আলম (২৪), দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার রফিজ উদ্দীনের ছেলে মো. মাসুদ শাহ (২৭), মাহিগঞ্জ পাঠানপাড়ার রুহুল আমিনের ছেলে মো. মিজানুর রহমান (৩৫), পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলার মৃত আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে মো. মাহবুব আলম (৩৪), হাজিরহাটের জগদীশপুর এলাকার মৃত আজিবর রহমানের ছেলে মো. আশরাফুল ইসলাম (৩২), পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলার রমেশচন্দ্রের ছেলে উত্তম কুমার (২৩), উত্তরখলেয়া এলাকার মনোরঞ্জনের ছেলে আপন কুমার (২৩), নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার শোলমারী এলাকার মঈনুল হাসানের ছেলে মো. রিফাতুল ইসলাম (২১), গঙ্গাচড়ার বিষ্ণুরায় এলাকার উজ্জ্বল রায় (২৪) ও জলঢাকার চেরেঙ্গা এলাকার দীনেশ রায়ের ছেলে কমল রায়।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

কি‌শোরগ‌ঞ্জে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার, স্বামী পলাতক

নিজস্ব প্রতিবেদক

কি‌শোরগ‌ঞ্জে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার, স্বামী পলাতক

কি‌শোরগ‌ঞ্জের কটিয়াদী‌তে স্মৃতি আক্তার (২২) না‌মে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার ক‌রে‌ছে পু‌লিশ। ঘটনার পর থেকেই গৃহবধূর স্বামী আনোয়ার (২৮) পলাতক।

আজ সকা‌লে ক‌টিয়াদী পৌরসভার প‌শ্চিমপাড়া এলাকা থেকে গৃহবধূর মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের মা তাস‌লিমা আক্তার বাদী হ‌য়ে ক‌টিয়াদী ম‌ডেল থানায় এক‌টি হত্যা মামলা ক‌রে‌ছেন।

পু‌লিশ ও স্বজনরা জানান, এক বছর আগে ক‌টিয়াদী পৌরসভার প‌শ্চিমপাড়া এলাকার বাচ্চু আক‌ন্দের মে‌য়ে স্মৃ‌তি আক্তা‌রের বি‌য়ে হয় কি‌শোরগঞ্জ সদর উপ‌জেলার গাগলাইল গ্রা‌মের ম‌ঞ্জিল মিয়ার ছে‌লে আনোয়া‌রের। বি‌য়ের পর থে‌কে শ্বশুরবা‌ড়ি‌তে থাক‌তেন আনোয়ার।

স্বজন‌দের অভি‌যোগ, বি‌য়ের পর থে‌কে স্মৃ‌তি‌কে প্রায়ই মারধর কর‌তো স্বামী আনোয়ার। ‌বি‌য়ের পর প্রথমবা‌রের ম‌তো গত দু'‌দিন আগে স্মৃ‌তি‌কে নি‌জের বাড়িতে নি‌য়ে যান আনোয়ার হো‌সেন। সেখা‌নে গি‌য়ে স্মৃ‌তি জান‌তে পা‌রেন, আনোয়ার বিবা‌হিত। তার ঘ‌রে স্ত্রী-সন্তান আছে। এ নি‌য়ে প্র‌তিবাদ কর‌লে শ্বশুরবা‌ড়ির লোকজন স্মৃ‌তি‌তে মার‌পিট‌ ক‌রে।

শ‌নিবার (১২ জুন) ‌বি‌কে‌লে স্ত্রী‌কে নি‌য়ে ক‌টিয়াদী‌তে শ্বশুরবা‌ড়ি‌ আসেন আনোয়ার। রোববার (১৩ জুন) ভোরে ঘ‌রের ফ্যা‌নে ঝুলন্ত অবস্থায় স্মৃ‌তির মর‌দেহ দেখ‌তে পায় স্বজনরা। স্ত্রী হত্যার পর স্বামী আনোয়ার পা‌লি‌য়ে যায় ব‌লে অভি‌যোগ তাদের।


চীনের উপহারের ৬ লাখ ডোজ টিকা দেশে পৌঁছেছে

মাদারীপুরে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের মামলা, গ্রেপ্তার ১৩


স্মৃ‌তির দাদী ফা‌তেমা জানান, গভীর রা‌তে আনোয়ার স্মৃ‌তি‌কে শ্বাস‌রোধ ক‌রে হত্যা ক‌রে। এ সময় তার শিশুকন্যা ঝুম চিৎকার কর‌লেও ঘ‌রে অন্য কেউ না থাকায় বিষয়‌টি কেউ জান‌তে পা‌রে‌নি।

ক‌টিয়াদী থানার প‌রিদর্শক তদন্ত মো. শ‌ফিকুল ইসলাম বলেন, মরদেহটির ময়নাতদ‌ন্তের জন্য কি‌শোরগঞ্জ ২৫০শয্যা হাসপাতাল ম‌র্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাটির তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হ‌বে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

মাদারীপুরে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের মামলা, গ্রেপ্তার ১৩

বেলাল রিজভী, মাদারীপুর

মাদারীপুরে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের মামলা, গ্রেপ্তার ১৩

মাদারীপুরে জেলা আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা করলো পুলিশ। রোববার সকালে সদর মডেল থানায় মামলটি করে এসআই মো. খসরুজ্জামান। এ সময় ৯৬জনকে এজাহার নামীয় আসামি করা হয়েছে। এছাড়া মামলায় অজ্ঞাত ২০০ থেকে ৩০০ জনকে আসামি করা হয়।

পরে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন স্থান থেকে ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

সম্প্রতি মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহাবুদ্দিন আহম্মেদ মোল্লা সাবেক মন্ত্রী শাজাহান খান এমপির বাবা মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মৌলভী আছমত আলী খানকে নিয়ে কটূক্তি করেছে-এমন অভিযোগ তুলে সাহাবুদ্দিন মোল্লার পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন  করে আসছে শাজাহান খান গ্রুপের লোকজন। 

এরই অংশ হিসেবে শনিবার সকালে সদর উপজেলার কলাবাড়িতে একই স্থানে মানবববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশের ডাক দেয় শাজাহান খান গ্রুপ ও সাহাবুদ্দিন মোল্লা গ্রুপ সমর্থক কর্মীরা। এসময় পুলিশের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় উত্তেজিত নেতাকর্মীরা বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক ও ইসলামী ব্যাংকের ঘটকচর শাখা এবং মুক্তিযোদ্ধা সোহরাব সরদারের মার্কেটসহ বেশ কয়েকটি দোকান ও ঘরবাড়ি ভাংচুর করে। এতে তিন পুলিশসহ আহত হয় বেশ কয়েকজন। 

পরে পুলিশ লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এই ঘটনায় বাহাউদ্দিন নাছিম পুন্থি নেতা সোহরাব সরদার বাদী হয়ে ৩২ জনকে আসামি করে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শাজাহান খান গ্রুপের পক্ষ থেকে থানায় কোনো অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

আরও পড়ুন:


ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ: মাঠে যাওয়ার সময় আম্পায়ারদের গাড়িতে হামলা

১০ বছরের জেল হতে পারে নেতানিয়াহুর: ইসরাইলি আইনজীবী

এবার ফিলিস্তিনি নারীকে গুলি করে হত্যা ইসরাইলি বাহিনীর

বিয়ের আসরে নকল গহনা, মারামারি পরে ক্ষতিপূরণ রেখে তালাক


 

মাদারীপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. কামরুল ইসলাম মিঞা জানান, পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাঁধা দেয়ার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার ১৩জনকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে মাদারীপুরে জেলা আওয়ামী লীগ দুটি গ্রুপে বিভক্ত। একটি গ্রুপের নেতৃত্ব দেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আফম বাহাউদ্দিন নাসিম এবং অন্যটির নেতৃত্ব দেন সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মাদারীপুর-২ আসনের সাংসদ শাজাহান খান। বর্তমান জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহাবুদ্দিন আহম্মেদ মোল্লা বাহাউদ্দিন নাসিমের অনুসারী।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর