ইরাকে মার্কিন কূটনীতিক কেন্দ্রে রকেট হামলা

অনলাইন ডেস্ক

ইরাকে মার্কিন কূটনীতিক কেন্দ্রে রকেট হামলা

ইরাকের রাজধানী বাগদাদের একটি মার্কিন কূটনৈতিক স্থাপনায় রকেট হামলা হয়েছে। ইরাকে মোতায়েন মার্কিন সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে এই তথ্য জানানো হয়।

গতকাল (শনিবার) রাতে বাগদাদের ডিপ্লোমেটিক সাপোর্ট সেন্টার হামলার শিকার হয় বলে ইরাকে মার্কিন সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র কর্নেল ওয়েনে মারত্তো টুইটার পোস্টে জানান।

তিনি বলেন, “প্রাথমিক রিপোর্টে জানা গেছে যে, স্থানীয় সময় শনিবার রাত সোয়া বারোটার দিকে কূটনৈতিক কেন্দ্র লক্ষ্য করে একটি রকেট ছোঁড়া হয়। রকেটটি কেন্দ্রের কাছে পড়ে তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটে নি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।” 


আরও পড়ুন


এবার ইন্দোনেশিয়ান ভাষায় হিরো আলমের বিরহের গান (ভিডিও)

ইসরাইলি জাহাজের পণ্য খালাসে অস্বীকৃতি মার্কিন বন্দর শ্রমিকদের

জুকারবার্গকে আর হোয়াইট হাউসে ডিনারে ডাকবেন না ট্রাম্প


মার্কিন সেনা মুখপাত্র বলেন, “এ ধরনের হামলায় ইরাকে জাতীয় সার্বভৌমত্ব ক্ষুন্ন হয়।”

ইরাকের সাদ্দাম সরকারের কাছে ব্যাপক গণবিধ্বংসী অস্ত্র রয়েছে- এমন অজুহাত তুলে ২০০৩ সালে ইরাকে সামরিক আগ্রাসন চালায় মার্কিন সরকার। এরপরও যুক্তরাষ্ট্র সেনা প্রত্যাহার না করায় ইরাকের জনগণের ভেতরে মার্কিন বিরোধী মনোভাব তৈরি হয়।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

ধনী হতে কে না চায়?

অনলাইন ডেস্ক

ধনী হতে কে না চায়?

ধনী হতে কে না চায়? দক্ষিণ আফ্রিকার কয়াজুলু-নাতাল প্রদেশের কয়া-হাথি গ্রামের একটি খোলা মাঠে নাম না জানা কিছু স্ফটিক পাথরের খোঁজ পায় এক দল মানুষ। হীরার মতো দেখতে মূল্যবান পাথর সংগ্রহে মাটি খুঁড়ে ভাগ্য পরিবর্তনে নেমেছেন হাজারের বেশি মানুষ।

দক্ষিণ আফ্রিকার কয়াজুলু-নাতাল প্রদেশের কয়াহাথি গ্রামের এক খোলা মাঠে পাথর খননকারী একব্যক্তি নাম না জানা কিছু স্বচ্ছ পাথরের খোঁজ পায়। পাথরগুলোকে কোয়ার্টজ ক্রিস্টাল বলেছেন তিনি। এরপর আরও পাথরের খোঁজে সেখানে খোঁড়াখুঁড়ি শুরু করে কয়েকজন মিলে। পাথরের খোঁজ পেয়ে নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তনের আশায় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রামটিতে ভিড় জমান হাজারেরও বেশি মানুষ। "আমাদের জীবন বদলে দিবে। কারণ আমাদের কারো ভালো কোনো কাজ নেই। জীবন চালিয়ে নিতে আমি অনেক যেনতেন কাজও করেছি। তবে যখন এই পাথরগুলো নিয়ে ঘরে ফিরেছি সবাই ভীষণ খুশি হয়েছে। আমি জীবনে হীরা দেখিনি। এই প্রথমবার হীরা স্পর্শ করতে পারলাম। আমরা সত্যই লড়াই করছি, আশা করছি এই বিষয়গুলো জীবনে আরও ভালো কিছু হবে।

পাথরগুলোর কারণে অপরাধের অবসান ঘটবে, কারণ যুবকরা বেকারত্বের কারণেই এই সব কাজ করে থাকে। ​এ বিষয়ে দেশটির খনি বিভাগ জানিয়েছে, পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্য ঘটনাস্থলে ভূতাত্ত্বিক ও খনি বিশেষজ্ঞের দল পাথরের নমুনা সংগ্রহ করেছে। অনেকে খনিজ সম্পদ দপ্তরের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় বসে না থেকে, পাথরগুলো বিক্রিও শুরু করে দিয়েছেন। প্রাদেশিক সরকারের আশঙ্কা, এভাবে হাজারো মানুষ একসঙ্গে জড়ো হওয়ার কারণে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে। 

news24bd.tv/এমিজান্নাত

 

পরবর্তী খবর

ফুলশয্যার রাতে প্রাণ গেল নববধুর!

অনলাইন ডেস্ক

ফুলশয্যার রাতে  প্রাণ গেল নববধুর!

ঝাক জমকপূর্ণ ভাবে বিয়ের সব আয়োজন সম্পন্ন। সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষে এবার নব দম্পতির ফুলশয্যার রাত। কিন্তু সেই রাতেই ঘটলো এক মর্মান্তিক ঘটনা। বিয়ের রাতে স্বামীর সঙ্গে সঙ্গমরত অবস্থাতেই হৃদরোগে আক্রান্ত হন স্ত্রী। আর তাতেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন নববধূ। 

সম্প্রতি এই ঘটনা ঘটেছে ব্রাজিলের ইবিরিতে শহরে।

বিয়ের রাতে সঙ্গমের সময় অসুস্থ বোধ করেন ওই নববধূ। তা জানাতেই প্রতিবেশীদের খবর দেন স্বামী। প্রতিবেশীরা সঙ্গে সঙ্গে ফোন করে ট্যাক্সি ডাকেন। কিন্তু ট্যাক্সি চালক আসতে অস্বীকার করেন বলে জানায় তারা।

দ্বিতীয় ট্যাক্সিচালকের সঙ্গেও একই ঘটনা ঘটে। শেষে এক চিকিৎসাকর্মী আসেন। তিনি জানান, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন ওই তরুণী। তখন শ্বাসকষ্টও হচ্ছিল তার। হাসপাতালে যাওয়ার পথে মৃত্যু হয় ওই তরুণীর।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই নববধূর শরীরে কোনও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবে ওই তরণীর ব্রঙ্কাইটিসের সমস্যা ছিল বলে জানা গেছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ধর্ষণের মামলায় জামিন নিয়ে সেই কিশোরীকেই আবার ধর্ষণ!

অনলাইন ডেস্ক

ধর্ষণের মামলায় জামিন নিয়ে সেই কিশোরীকেই আবার ধর্ষণ!

গত বছর জুলাই মাসে ১৭ বছর বয়সী এক কিশোরীকে অপহরণ করে ধর্ষণ করেন ২১ বছরের তরুন। সেই  ধর্ষণের মামলায়  কারাগারে যেতে হয়েছিল যুবকটিকে। কিন্তু ধর্ষণের সেই মামলায় জামিনে বের হয়ে আবারও সেই কিশোরীকে ধর্ষণ করেছে ওই যুবক। পুলিশ জানিয়েছে, এ ঘটনায় ওই যুবকের বিরুদ্ধে তিনটি এজাহার দায়ের করা হয়েছে।

ভারতের রাজস্থানের জয়পুরে এ ঘটনা ঘটেছে। 

জানা গেছে, অভিযুক্ত যুবক ভুক্তভোগী কিশোরীর পরিবারের পরিচিত। ওই কিশোরীর পরিবার জানায়, গত বছর জুলাই মাসে তাকে অপহরণ করে ওই যুবক। পরে অক্টোবরে ওই যুবকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করা হয়।

কারদানি পুলিশ জানিয়েছে, প্রায় এক মাস আগে জামিনে মুক্ত হয় অভিযুক্ত যুবক। রোববার তার সঙ্গে দেখা করতে ওই কিশোরীকে ডাকে সে। এসময় হুমকি দিয়ে তাকে একটি রুমে নিয়ে যায় ওই যুবক। সেখানেই তাকে ধর্ষণ করে সে।

সন্ধ্যা হয়ে গেলেও ওই কিশোরী বাসায় না ফেরায় তার পরিবারের সদস্যরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে। এসময় তার মোবাইল ফোনও বন্ধ পায় তারা। পরে তারা হন্যে হয়ে কিশোরীকে খুঁজতে বের হয়। পরদিন সোমবার সকালে পরিবারের কাছে নিজের অবস্থান জানায় ওই কিশোরী। পরে তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, তারা ওই কিশোরীর মেডিকেল পরীক্ষা করিয়েছে এবং তার বক্তব্য রেকর্ড করেছে। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

পাকিস্তানের সংসদে বাজেট অধিবেশনের সময় মারামারি (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক

পাকিস্তানের সংসদে বাজেট অধিবেশনের সময় মারামারি (ভিডিও)

পাকিস্তানের জাতীয় সংসদে বাজেট অধিবেশনের সময় মারামারির ঘটনা ঘটেছে। গতকাল মঙ্গলবার দেশটির ২০২১-২২ অর্থ বছরের বাজেট অধিবেশনে বক্তব্য দিচ্ছিলেন বিরোধী দল পাকিস্তান মুসলিম লীগের নেতা শেহবাজ শরীফ। 

এ সময় হঠাৎ উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে, শুরু হয় ধস্তাধস্তি। কেউ কেউ হাতে থাকা বাজেট বই ছুঁড়ে মারেন অন্যের দিকে। এতে আহত হন ক্ষমতাসীন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের নারী আইনপ্রণেতা মালেকা বোখারি। তিনি চোখে আঘাত পেয়েছেন বলে জানা গেছে।

প্রথমে সরকার দলীয় সংসদ সদস্য আলী নাওয়াজ খান বিরোধী দলের দিকে বাজেট বই ছুঁড়ে মারেন। উত্তেজনাকর পরিস্থিতি দমনে সংসদের স্পিকার আসাদ কায়সার তিনবার সংসদ মুলতবি করেন। কিন্তু তাতেও থামেনি হট্টগোল। যদিও ঘটনার জন্য বিরোধী দলকে দায়ী করেছেন পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী। 

তিনি বলেছেন, বিরোধী দলের একজন সংসদ সদস্য শুরুতে আপত্তিকর শব্দ ব্যবহার করলে পিটিআইয়ের কয়েকজন ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখান।

এ ঘটনায় প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে পাকিস্তান মুসলিম লীগ। দলটির পক্ষ থেকে এক টুইট বার্তায় ক্ষমতাসীন তেহরিক-ই-ইনসাফকে ফ্যাসিবাদী দল হিসেবে আখ্যা দেওয়া হয়।

পাকিস্তানের জাতীয় সংসদ দ্বি-কক্ষ বিশিষ্ট। নিম্নকক্ষের নাম মজলিসে শুরা আর উচ্চকক্ষের নাম সিনেট। এতে মোট ৩৩৬টি আসন রয়েছে। এর মধ্যে ২৭২টি নির্বাচিত আসন এবং বাকি ৭০টি সংরক্ষিত আসন নারী ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের জন্য। সূত্র: ডন।

ভিডিও দেখুন-

আরও পড়ুন


পুলিশের শূন্য পদে শিগগিরই জনবল নিয়োগ: সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

দেশে ১২ কোটি মানুষেরই জন্মতারিখ ঠিক নেই: ডা. জাফরুল্লাহ

অপহরণকাণ্ডে কারাগারে হুইপ সামশু’র অনুসারী মীর কাসেম

অবৈধ সুদের কারবারকে বৈধতা দিতে ব্যস্ত কর্মকর্তারা, দায়সারা তদন্ত প্রতিবেদন


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

জেল হতে পারে অং সান সু চির

অনলাইন ডেস্ক

জেল হতে পারে অং সান সু চির

মিয়ানমারে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের লড়াইয়ের পাশাপাশি চলছে দেশটির নেত্রী অং সান সু চির আদালতে বিচারের প্রক্রিয়া।ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী সু চির বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ ও করোনার বিধিনিষেধ ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার এ বিষয়ে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু করে মিয়ানমারের জান্তা সরকার। অভিযোগ প্রমাণিত হলে এ মামলায় ১০ বছরের বেশি সময় সু চিকে কারাগারে থাকতে হতে পারে।


আরও পড়ুন

পুলিশের শূন্য পদে শিগগিরই জনবল নিয়োগ: সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

দেশে ১২ কোটি মানুষেরই জন্মতারিখ ঠিক নেই: ডা. জাফরুল্লাহ

অপহরণকাণ্ডে কারাগারে হুইপ সামশু’র অনুসারী মীর কাসেম

অবৈধ সুদের কারবারকে বৈধতা দিতে ব্যস্ত কর্মকর্তারা, দায়সারা তদন্ত প্রতিবেদন


গত বছর নির্বাচনের সময় সু চি ও তার দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি কোভিডের বিধিনিষেধ ভাঙে বলে অভিযোগ জান্তাদের। এ বিষয়ে জান্তা সরকারের আদালত সাক্ষীদের বক্তব্য শোনেন। একইসাথে তার বিরুদ্ধে ওঠা রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগেরও সাক্ষ্য গ্রহণ করেন আদালত। সু চির আইনজীবী জানান, অভিযোগ মোকাবিলা করতে প্রস্তুত আছেন সু চি।
আইনজীবী এটাও জানান, তিনি শারীারকভাবে সুস্থ আছেন সু চি।

 news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর