৭ জুন, ইতিহাসের এই দিনে

অনলাইন ডেস্ক

৭ জুন, ইতিহাসের এই দিনে

ছবি- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

আজ ৭ জুন, গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ১৫৮তম (অধিবর্ষে ১৫৯তম) দিন। বছর শেষ হতে আরো ২০৭ দিন বাকি রয়েছে। এক নজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

১০৯৯ – ক্রুসেড বাহিনী জেরুজালেমে প্রবেশ করে।
১৫৪৬ - আরড্রেস শান্তিচুক্তির মাধ্যমে ফ্রান্স ও স্কটল্যান্ডের সঙ্গে ইংল্যান্ডের যুদ্ধাবসান।
১৫৫৭ - ইংল্যান্ড ফ্রান্সের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে।
১৯০৫ - সুইডেনের কাছ থেকে নরওয়ের স্বাধীনতা লাভ।
১৯৬৬ - ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস। ছয় দফার সমর্থন ও পূর্ণ আঞ্চলিক স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে পূর্ব বাংলায় হরতাল পালিত হয়। পুলিশের গুলিতে ১১ জন নিহত ও শত শত লোক আহত হন।
১৯৮৮– বাংলাদেশ সংবিধানের অষ্টম সংশোধনীতে ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম ঘোষণা করা হয়।

জন্ম:

১৮৪৮ - পল গোগাঁ, প্রখ্যাত ফরাসি চিত্রকর।
১৮৬৮ - চিন্তাবিদ, সাংবাদিক ও লেখক মাওলানা আকরম খাঁ।
১৮৭১ - নওয়াব স্যার খাজা সলিমুল্লাহ, ঢাকার নবাব।
১৮৭৫ - চিকিৎসাবিজ্ঞানী উপেন্দ্রনাথ ব্রহ্মচারী।
১৯৫২ - ওরহান পামুক, ২০০৬ সালের সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী তুর্কী সাহিত্যিক।
১৯৭০ - কাফু, ব্রাজিলীয় ফুটবল খেলোয়াড়।

আরও পড়ুুুন:

 মহাখালীর সাততলা বস্তির আগুন নিয়ন্ত্রণে, সহস্রাধিক ঘর ভস্মীভূত

 যার জন্য বিয়ে করা ফরজ

 মহেশখালীতে পাহাড় ধসে প্রাণ গেল আড়াই বছরের শিশুর

 ঢাকার যেসব মার্কেট বন্ধ আজ

 

মৃত্যু:

১৩২৯ - স্কটল্যান্ডের রাজা রবার্ট ব্রুস।
১৮২৬ - ইয়োসেফ ফন ফ্রাউনহোফার, একজন জার্মান আলোকবিজ্ঞানী।
১৯০৭ - ধর্মবেত্তা সমাজ সংস্কারক সাহিত্যিক মুন্সী মেহেরুল্লাহ।
১৯৫৪ - অ্যালান টুরিং, ইংরেজ গণিতবিদ, যুক্তিবিদ ও ক্রিপ্টোবিশেষজ্ঞ।
১৯৭০ - ঔপন্যাসিক ই. এম. ফরস্টার।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

বৃষ্টিপাত চলবে আরও তিন দিন

অনলাইন ডেস্ক

বৃষ্টিপাত চলবে আরও তিন দিন

আজসহ পরের তিনদিন দেশের সবগুলো বিভাগে বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। মঙ্গলবার (২২ জুন) সকালে এসব তথ্য জানায় তারা।

আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বৃষ্টি হতে পারে।

মৌসুমী বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।


আরও পড়ুনঃ

জম্মু-কাশ্মীরে সংঘর্ষ: লস্কর-ই-তাইয়্যেবার কমান্ডারসহ নিহত ৩

যদি নারী অল্প পোশাক পরে ঘোরে তার প্রভাব পুরুষের উপর পড়তে বাধ্য: ইমরান

পুলিশ বিনা ওয়ারেন্টে সাইফুলকে ধরে বন্দুক ঠেকিয়ে গুলি করে: ফখরুল

ফেসবুকে ‘হা-হা’ রিঅ্যাক্ট নিয়ে যা বললেন শায়খ আহমাদুল্লাহ


কয়েক দিনের তুলনায় গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে বৃষ্টিপাত কম হয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে হাতিয়ায় ৯৭ মিলিমিটার। এছাড়া সন্দ্বীপে ৭৪, সীতাকুণ্ডে ৮১, চট্টগ্রামে ৩০, কক্সবাজারে ৩৪, কুতুবদিয়ায় ৩৫, বগুড়ায় ৩৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

খাবার কিনতে গিয়ে লাঞ্ছিত শ্রীলংকান মুসলিমেরা

অনলাইন ডেস্ক

খাবার কিনতে গিয়ে লাঞ্ছিত শ্রীলংকান মুসলিমেরা

রেস্তোরাঁয় খাবার কিনতে গিয়ে অপমানিত ও লাঞ্চিত হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন শ্রীলঙ্কান মুসলিমরা। রাজধানী কলম্বো থেকে প্রায় ৩০০ কিলোমিটার পূর্বে ইরাভুর শহরে এ ঘটনা ঘটেছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল কিছু ছবিতে দেখা যায়, সামরিক বাহিনী মুসলমানদের রাস্তার ওপর হাত ওপরের দিকে তুলে হাঁটু গেড়ে বসতে বাধ্য করেছে।

মুসলিমরা দুটি রেস্তোরাঁয় খাবার কিনতে গিয়েছিলেন। আর এরপরই লকডাউন আইন লঙ্ঘনের অজুহাত দেখিয়ে সশস্ত্র সেনারা মুসলমানদের ওপর এই অমানবিক নির্যাতন করে।

এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা। মুসলিমদের অবমাননা করার জন্যই এসব করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন তারা। কারণ এ ধরনের শাস্তি দেওয়ার কোনো ক্ষমতা সেনা সদস্যদের দেওয়া হয়নি। 


আরও পড়ুনঃ

জম্মু-কাশ্মীরে সংঘর্ষ: লস্কর-ই-তাইয়্যেবার কমান্ডারসহ নিহত ৩

যদি নারী অল্প পোশাক পরে ঘোরে তার প্রভাব পুরুষের উপর পড়তে বাধ্য: ইমরান

পুলিশ বিনা ওয়ারেন্টে সাইফুলকে ধরে বন্দুক ঠেকিয়ে গুলি করে: ফখরুল

ফেসবুকে ‘হা-হা’ রিঅ্যাক্ট নিয়ে যা বললেন শায়খ আহমাদুল্লাহ


এই ঘটনার পর সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ইরাভুর এলাকায় এমন হয়রানির কিছু সুনির্দিষ্ট ছবি ভাইরাল হওয়ার পর মিলিটারি পুলিশ এরই মধ্যে তদন্ত শুরু করেছে।

এ অভিযোগে এরই মধ্যে অফিসার ইনচার্জকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। সেনাবাহিনীর যেসব সদস্য এমন আচরণ করেছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোরভাবে শৃংখলা ভঙের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় শ্রীলঙ্কায় এক মাসের লকডাউন চলছে। 

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক কুমির ‘মুজা’র জন্মদিন পালন

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক কুমির ‘মুজা’র জন্মদিন পালন

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক কুমির `মুজার' ৮৫তম জন্মদিন পালন করেছে সার্বিয়ার বেলগ্রেড চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় (১৯৪১, ১৯৪৫) এবং ১৯৯৯ সালে ন্যাটোর নিক্ষিপ্ত বোমা হামলার শিকার হয় বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক এই কুমিরটি।

২০১২ সালে কুমিরটির সামনের এক পায়ের পাতায় ব্যথা দেখা দিলে এক্সরের মাধ্যমে দেখা যায় কুমিটির পায়ের একটি আঙুল ভেঙে গেছে। পরে যা গ্যাংগ্রিন এ রূপ নেয়। গ্যাংগ্রিন থেকে কুমিরটিকে বাঁচানোর জন্য ৪৮ ঘণ্টার এক অপারেশনের মাধ্যমে কুমিরটির আক্রান্ত পা ফেলে দেওয়া হয়।

টিকটকে বয়স্ক এ কুমিরটি ব্যাপক জনপ্রিয়। সংক্ষিপ্ত ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপস টিকটকে তার একটি ভিডিও শেয়ার করলে তা এক লাখের বেশি ভিউ হয়।


আরও পড়ুনঃ

শেষ ষোলোর আশা বাঁচিয়ে রাখলো সুইজারল্যান্ড

রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

তিনটি কেন্দ্রে ফাইজারের টিকা দেওয়া শুরু

বেবি বাম্পের ছবি দিয়ে নুসরাতের লুকোচুরির ইতি


বেলগ্রেড চিড়িয়াখানার একজন কর্মকর্তা বিবিসিকে জানিয়েছেন, বয়স্ক এ কুমিরটির স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। বর্তমানে কুমিরটি সুস্থ রয়েছে।

সাধারণত এধরণের কুমির ৩০ থেকে ৫০ বছর পর্যন্ত বেঁচে থাকে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

রাস্তায় পরিত্যক্ত অবস্থায় ৩৫০ বছর আগের মূল্যবান চিত্রকর্ম উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক

রাস্তায় পরিত্যক্ত অবস্থায় ৩৫০ বছর আগের মূল্যবান চিত্রকর্ম উদ্ধার

রাস্তার পাশে পড়ে ছিলো ৩৫০ বছর আগের দুটি বিখ্যাত তৈলচিত্র! জার্মানির বাভারিয়া অঙ্গরাজ্যের উজবুর্গ শহরের একটি মোটরওয়ে সার্ভিস স্টেশনে পরিত্যক্ত অবস্থায় ছবি দুটি দেখতে পান এক পথচারী।

সংবাদমাধ্যম বিবিসির একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, ছবি দেখে সন্দেহ হলে সেসব নিয়েই পুলিশের কাছে হাজির হন তিনি। প্রাথমিকভাবে পর্যালোচনায় বেরিয়ে আসে, তৈলচিত্রগুলোর একটি ডাচ শিল্পী স্যামুয়েল ভ্যান হুগস্ট্রেইনের। পরে জানা যায়, ইতালীয় শিল্পী পেইত্রো বেল্লোত্তির অন্যটি।

ছবি দুটি কীভাবে রাস্তার পাশে পড়ে আছে তা নিয়ে স্থানীয় প্রশাসন চিন্তায় পড়ে যায়। তবে এখনো পর্যন্ত কেউ মূল্যবান এই চিত্রকর্ম দুটির মালিকানা দাবি করেনি।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

এক হাতকড়ায় ১২৩ দিন, খুলতেই বিচ্ছেদ!

অনলাইন ডেস্ক

এক হাতকড়ায় ১২৩ দিন, খুলতেই বিচ্ছেদ!

নিজেদের ভালোসার দৃঢ়তা পরীক্ষা করতে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে একটানা ১২৩ দিন একসঙ্গে থাকার প্রতিতশ্রুতি নিয়েছিলেন ইউক্রেনের খারকিভের বাসিন্দা ভিক্টোরিয়া পুসতোভিতোভা (২৯) এবং আলেকজান্ডার কাডলে (৩৩)।

দুজনের হাতও বাধা হয়েছিলো একই হাতকড়ায়। তবে শেষরক্ষা হয়নি। পরীক্ষা। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী টানা ১২৩ দিন হাতকড়া বাঁধা অস্থাতেই দিন কাটান দুইজন। কিন্তু হাতকড়া খোলার সঙ্গে সঙ্গে তারা বিচ্ছেদের পথ বেছে নেন।

জানা গেছে, সেজন্য দুজনের হাত বাঁধা হয়েছিল একই হাতকড়ায়। এ সময় গোসল-খাওয়া, রান্না করা, বাইরে যাওয়া সব কিছুই তারা একসঙ্গে করেছেন। যদিও শেষরক্ষা আর হয়নি। যেখানে তারা হাতকড়া বেঁধে একসঙ্গে থাকার প্রতিশ্রুতি নিয়েছিলেন সেই কিয়েভের ইউনিটি মনুমেন্টের সামনেই হাতকড়াটি খুলতেই দুজনে আলাদা হওয়ার কথা জানান। যদিও নিজেদের সিদ্ধান্তের স্বপক্ষে যুক্তিও দিয়েছেন ওই যুগল।

ভিক্টোরিয়া বলেন, আমি স্বাধীন জীবনযাপনই করতেই চাই। একজন স্বাধীন মানুষ হিসেবেই এগিয়ে যেতে চাই। শেষপর্যন্ত বন্ধন মুক্ত হয়ে ভালই লাগছে।
এদিকে, আলেকজান্ডার ইনস্টগ্রামে তাদেরকে যারা সমর্থন করেছেন তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, আমাদের সমর্থন দেওয়ার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ।


আরও পড়ুনঃ

চীনের রাস্তায়-গলিতে সরকারদলীয় প্রচারণামূলক বিলবোর্ড

‘নিখিলকে আগেই বলেছিলাম, নুসরাত তোমাকে ঠকাবে’

বিয়ের পিঁড়িতে বসার আগ মূহুর্তে যে কারণে বিয়ে ভেঙে দিয়েছিলেন সালমান

চুরির দায়ে জেলে গেলেন ‘ক্রাইম পেট্রলের’ ২ অভিনেত্রী


তিনি আরও বলেন, আমরা এখন একে-অপরের থেকে অনেকটাই দূরে থাকি। ভিকা নিজের আগের জীবনে ফিরে যেতে চাইছিল। আমরা চেষ্টা করতাম যাতে মনমালিন্য বা ঝগড়া না হয়। কিন্তু শেষপর্যন্ত ঝগড়ায় জড়িয়েই পড়তাম। একজনের কোনও অভ্যাস অনেকসময়ই আরেকজনের পছন্দ হত না। যদিও এখন আমরা দুজনেই খুশী। আর এই অভিজ্ঞতাটাও আমাদের জন্য খুবই ভালো ছিল।
news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর