মোবাইল কেনার জন্য শিক্ষার্থীদের ঋণ দেবে ঢাবি

অনলাইন ডেস্ক

মোবাইল কেনার জন্য  শিক্ষার্থীদের ঋণ দেবে ঢাবি

দেশব্যাপী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় শুরু থেকেই বন্ধ রয়েছে শিক্ষা কার্যক্রম। এতে স্থবির হয়ে পড়েছে শিক্ষা ব্যবস্থা। সেই শিক্ষা ব্যবস্থাকে সচল করার জন্য নানা উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি)। এ কারণে অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রম চালানোর জন্য স্মার্টফোন কিনতে ঢাবি অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের বিনা সুদে ঋণ দেয়ার কথা জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এই ঋণ দেবে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি)। ঋণ পেতে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীকে আগামী ১৫ জুনের মধ্যে নির্ধারিত আবেদন ফরম পূরণ করতে বলা হয়েছে।

আবেদন করলে প্রতি জন আট হাজার টাকা করে ঋণ পাবেন। তবে তাতে কিছু শর্ত আরোপ করা হয়েছে।  

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ে মোট ৮ হাজার ৫৫৬ শিক্ষার্থী ঋণের জন্য আবেদন করেন। তাদের আগামী ১৫ জুনের মধ্যে আবারও আবেদন করতে বলা হয়েছে।

গত ৩ জুন বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব পরিচালকের স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ ঋণ পেতে কিছু শর্তের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

শর্তগুলো হলো:
১. ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক/স্নাতকোত্তর পর্যায়ে অধ্যয়নরত অস্বচ্ছল শিক্ষার্থী, যাদের নাম ‘শিক্ষার্থীদের সফট লোন’ তালিকায় অন্তর্ভুক্ত আছে, কেবল তারাই আবেদন করতে পারবেন।

২. ঋণের সর্বোচ্চ সিলিং আট হাজার টাকা যা সুদমুক্ত। এসব টাকা সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীর ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমে প্রদান করা হবে।

৩. শিক্ষার্থীদের জরুরি ভিত্তিতে সোনালী/জনতা/অগ্রণী ব্যাংকের যেকোনো একটি শাখায় নিজ নামে ব্যাংক হিসাব খুলে নিজ নিজ বিভাগ/ইনস্টিটিউটকে জানাতে হবে।

৪. সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীকে স্মার্টফোন কেনার ভাউচারটি বিভাগ/ইনস্টিটিউটের মাধ্যমে সফট লোন অনুমোদন কমিটির সদস্য সচিবের কাছে জমা দিতে হবে।

৫. ঋণের অর্থ সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নের সময়ে এককালীন অথবা চারটি সমান কিস্তিতে পরিশোধ করতে হবে।

৬. ঋণের সম্পূর্ণ অর্থ ফেরত না দেওয়া পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীর নামে কোনো ট্রান্সক্রিপ্ট ও সাময়িক/মূল সনদ ইস্যু করা হবে না।

৭. ১৫ জুনের মধ্যে শিক্ষার্থীদের সফট লোন তালিকায় নিবন্ধিত শিক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (www.du.ac.bd) ওয়েবসাইটে অন্তর্ভুক্ত Du Forms এর অন্তস্থ Student Softloan থেকে ডাউনলোড করে পূরণের পর নিজ নিজ বিভাগ/ইনস্টিটিউটের চেয়ারম্যান/পরিচালকের নিকট প্রেরণ করতে হবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ঢাবির সিনেট অধিবেশন কাল

অনলাইন ডেস্ক

ঢাবির সিনেট অধিবেশন কাল

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিনেটের বার্ষিক অধিবেশন বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) বিকেল ৩টায় নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে অনুষ্ঠিত হবে। বুধবার (২৩ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সিনেটের চেয়ারম্যান ও উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান অধিবেশনে সভাপতিত্ব করবেন। চলমান করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবং শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে সিনেটের এ বার্ষিক অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশ, ১৯৭৩ এর ২১ ধারায় অর্পিত ক্ষমতাবলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান সিনেটের এ বার্ষিক অধিবেশন আহ্বান করেছেন।

সিনেট অধিবেশনে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ ২০২১-২০২২ অর্থ বছরের জন্য ৮৩১ কোটি ৭৯ লাখ টাকার বাজেট উপস্থাপন করবেন।

বিশ্ববিদ্যালযের প্রশাসনিক ভবন সূত্রে জানা গেছে, ৮৩১ কোটি ৭৯ লাখ টাকা বাজেটের ২৬৪ কোটি টাকা শিক্ষক-কর্মকর্তা কর্মচারীদের বেতন, ২২৪ কোটি টাকা ভাতা, পণ্য ও সেবায় খাতে ১৬৮ কোটি টাকা, পেনশন বাবদ ১২২ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। আর বাজেটের ৮৩ শতাংশ আয় হবে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের অনুদান।

আরও পড়ুন


এবার নিষিদ্ধ পরীমণি‍!

করোনা: খুলনা বিভাগে একদিনে রেকর্ড ৩২ জনের মৃত্যু

প্রথম প্রবাসী বাংলাদেশি হিসেবে সুইজারল্যান্ডে এমপি হলেন সুলতানা খান

সাতক্ষীরায় আজও ৮ জনের মৃত্যু, নতুন সংক্রমণ ৭৭


বাজেট বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গতবারের তুলনায় এবার বাজেটের আকার কমেছে। ২০২০-২১ অর্থবছরে বাজেট ছিল ৮৬৯ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। এবার তা কমে দাঁড়িয়েছে ৮৩১ কোটিতে। অন্যদিকে, গবেষণায় বরাদ্দ বেড়েছে। এতে রাখা হয়েছে ১১ কোটি টাকা। ২০২০-২১ অর্থবছরে ৯ কোটি ৫০ লাখ ও ২০১৯-২০ অর্থবছরে গবেষণায় বরাদ্দ ছিল ৯ কোটি টাকা।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

করোনায় পেছাল বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় পেছাল বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট)২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত করেছে কর্তৃপক্ষ। করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসার পর পরীক্ষার নতুন তারিখ ঘোষণা করা হবে।

মঙ্গলবার (২২ জুন) বুয়েটের একাডেমিক কাউন্সিলের ভার্চুয়াল বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক সত্য প্রসাদ মজুমদার।

ভর্তি পরীক্ষা স্থগিতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বুয়েটের ছাত্র কল্যাণ পরিষদের পরিচালক অধ্যাপক মিজানুর রহমান। তিনি বলেন, বর্তমানে করোনার কারণে দেশের বেশ কয়েকটি জেলায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। এর মধ্যে যদি পরীক্ষা নেওয়া হয় তাহলে শিক্ষার্থীদের পক্ষে পরীক্ষায় অংশ নেওয়া সম্ভব হবে না। তাই একাডেমিক কাউন্সিল পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ১১ মে প্রথম দফায় ভর্তি পরীক্ষা পেছানোর সিদ্ধান্ত জানায় বুয়েট। করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় পরীক্ষা পেছায় কর্তৃপক্ষ। সেদিনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ৩০ জুন ও ১ জুলাই প্রাথমিক বাছাই ও ১০ জুলাই চূড়ান্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

নোবিপ্রবিতে লকডাউন ঘোষণা

আকবর হোসেন সোহাগ, নোয়াখালী

নোবিপ্রবিতে লকডাউন ঘোষণা

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি) ৩০ জুন পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। 

মঙ্গলবার (২২ জুন) নোবিপ্রবি রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. মো. আবুল হোসেন স্বাক্ষরিত এক নোটিশে এই এ তথ্য জানানো হয়।

নোটিশে বলা হয়, করোনা সংক্রমণেরর উদ্ভূত পরিস্থিতিতে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় পূর্ণ লকডাউন থাকবে। লকডাউন চলাকালে অফিসের জরুরি কার্যক্রম পরিচালনার বিষয়ে ইনস্টিটিউটের পরিচালক, বিভাগীয় চেয়ারম্যান ও দফতরপ্রধানরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

আরও পড়ুন:


পরমাণু ইস্যুতে বাইডেনের সঙ্গে কোনও বৈঠক নয়: রাইসি

তদন্তের প্রয়োজনেই হুইপ সামশুলসহ ৬ জনের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা: দুদক

নির্বাচন ব্যবস্থাকে আরও কলঙ্কিত করল আওয়ামী লীগ: চরমোনাই পীর

বিশেষ বিসিএসের মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত


বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, শিক্ষকসহ ১৫ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় এ লকডাউন ঘোষণা করা হয়।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

বিশেষ বিসিএসের মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত

অনলাইন ডেস্ক

বিশেষ বিসিএসের মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত

৪২তম বিসিএস (বিশেষ) এর চলমান মৌখিক পরীক্ষা আগামী ২৭ জুন থেকে স্থগিত করা হয়েছে। 

আজ মঙ্গলবার সরকারি কর্ম কমিশনের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। 

স্থগিত পরীক্ষার পরিবর্তিত তারিখ পরে জানানো হবে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল পরীক্ষা স্থগিত

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল পরীক্ষা স্থগিত

স্বাস্থ্যবিধি মেনে সশরীরে মাস্টার্স চূড়ান্ত পর্বের পরীক্ষা শুরুর একদিন পরই করোনা পরিস্থিতিতে আবারও সকল পরীক্ষা স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

রোববার খুবি উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেনের সভাপতিত্বে উপ-উপাচার্য ও ডিনবৃন্দের এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে রেজিস্ট্রার দপ্তরের জারিকৃত অফিস আদেশে বলা হয়- পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ডিসিপ্লিনে (বিভাগ) অনুষ্ঠিতব্য সকল পরীক্ষা স্থগিত থাকবে।

খুলনা অঞ্চলে করোনার প্রাদুর্ভাব ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় ২২ জুন থেকে খুলনা জেলায় সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষিত হয়েছে। এই প্রেক্ষিতে পরীক্ষা স্থগিতের কথা জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

জানা যায়, ৩০ মে একাডেমিক প্রধানদের সভায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ইউজিসির নির্দেশনার আলোকে মাস্টার্স চূড়ান্ত পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সে অনুযায়ী রোববার নগর ও গ্রামীণ পরিকল্পনা ডিসিপ্লিনের নির্ধারিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। তবে ইলেক্ট্রনিক এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিন, গণিত ডিসিপ্লিন, ফরেস্ট্রি এন্ড উড টেকনোলজি ডিসিপ্লিন, বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিন ও সয়েল ওয়াটার এন্ড এনভায়রনমেন্ট ডিসিপ্লিনের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর