ফিলিস্তিনিদের হত্যার অপরাধে যুক্তরাষ্ট্রও সমান অপরাধী: হামাস

অনলাইন ডেস্ক

ফিলিস্তিনিদের হত্যার অপরাধে যুক্তরাষ্ট্রও সমান অপরাধী: হামাস

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন ইহুদিবাদী ইসরাইলের দমন অভিযান সমর্থন করে যে বক্তব্য দিয়েছেন তার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস।

গতকাল মঙ্গলবার ব্লিঙ্কেন এক বক্তব্যে ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর তেল আবিবের দমন অভিযানকে ‘আত্মরক্ষা’ বলে উল্লেখ করেন এবং ইহুদিবাদী ইসরাইলের প্রতি আমেরিকার পূর্ণ সমর্থন অব্যাহত থাকবে বলে ঘোষণা করেন। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “আমরা ইসরাইলের নিরাপত্তা রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় সমরাস্ত্রের পাশাপাশি আয়রন ডোম প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা শক্তিশালী করে দেয়ার সিদ্ধান্তে অটল রয়েছি।”

এর প্রতিক্রিয়ায় হামাস এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, “আমরা কুদস দখলদার ইসরাইল সরকারের প্রতি আমেরিকার সামরিক সমর্থন এবং তেল আবিবের হাতে অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র তুলে দেয়ার মার্কিন নীতির তীব্র নিন্দা জানাই। আমেরিকা এ সমর্থনের মাধ্যমে ফিলিস্তিনি জনগণকে হত্যার অপরাধে সমান অংশীদারে পরিণত হয়েছে।”

আরও পড়ুন


‘প্রজেক্ট হিলশা’র পর এবার ভাইরাল ‘প্রজেক্ট তেলাপিয়া’

কোন দেশে নয়, বেশি বজ্রপাত হয় ‘ভারতীয় সিরিয়ালে’

কোরবানির ঈদে ‘ইভ্যালি গরুর হাটে’ আলমগীর র‍্যাঞ্চের গরু

এক স্বামী তুলে নিয়ে গেলেন বউকে, ফেরত পেতে অন্য স্বামীর মামলা


হামাসের বিবৃতির বরাত দিয়ে ফিলিস্তিনি বার্তা সংস্থা শাহাব জানিয়েছে, “আমেরিকা যদি মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠার দাবিতে আন্তরিক হয় তবে তাকে স্বাধীনচেতা ফিলিস্তিনি জাতির আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতি সম্মান জানাতে হবে। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাবে ফিলিস্তিনি জনগণকে তাদের মাতৃভূমিতে ফিরে যাওয়ার যে অধিকার দেয়া হয়েছে তা বাস্তবায়নে ওয়াশিংটনকে সহযোগিতা করতে হবে।”

গত ১০ থেকে ২১ মে পর্যন্ত অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইহুদিবাদী ইসরাইলের পাশবিক হামলায় ৬৯ শিশু, ৩৯ নারী ও ১৭ বৃদ্ধসহ ২৪৮ ফিলিস্তিনি শহীদ হয়েছেন।মার্কিন সমর্থনে চালানো এ হামলায় আহত হন আরো ১৯১০ ফিলিস্তিনি নাগরিক। এই ১২ দিনে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ ইসরাইলি হামলার নিন্দা জানাতে ও হামলা বন্ধ করতে তিনবার বৈঠকে বসলেও আমেরিকার বিরোধিতার কারণে তেল আবিবের বিরুদ্ধে কোনো প্রস্তাব পাস করা সম্ভব হয়নি। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

উত্তর কোরিয়ার সামরিক শক্তি বাড়ানোর নির্দেশ

অনলাইন ডেস্ক

উত্তর কোরিয়ার সামরিক শক্তি বাড়ানোর নির্দেশ

কোরীয় উপদ্বীপের পরিস্থিতি দ্রুত পরিবর্তন হওয়ায় তিনি সামরিক বাহিনীকে উচ্চ সতর্ক অবস্থায় থাকার নির্দেশ দিয়েছেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন।

উত্তর কোরিয়ার সেন্ট্রাল মিলিটারি কমিশনের সঙ্গে বৈঠকে তিনি বলেন, দেশের সামগ্রিক শক্তি বাড়াতে হবে।

তবে এ জন্য সামরিক বাহিনীকে কী ধরনের তৎপরতা চালাতে হবে সে সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু বলে নি কেসিএনএ।


আরও পড়ুন:


ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ: মাঠে যাওয়ার সময় আম্পায়ারদের গাড়িতে হামলা

১০ বছরের জেল হতে পারে নেতানিয়াহুর: ইসরাইলি আইনজীবী

এবার ফিলিস্তিনি নারীকে গুলি করে হত্যা ইসরাইলি বাহিনীর

বিয়ের আসরে নকল গহনা, মারামারি পরে ক্ষতিপূরণ রেখে তালাক


উত্তর কোরিয়ার সামগ্রিক জাতীয় প্রতিরক্ষা বিষয়ক নতুন অবস্থা তৈরীর মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে কিম জং উন আলোচনা করেন।

এছাড়া দেশের অর্থনীতি দৃঢ় ও অস্থিতিশীল করার বিষয়ে কিম জং উন একটি পরিকল্পনা প্রকাশ করেন।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

তুরস্কে পাওয়া গেল ১ হাজার ৮শ বছর আগের ভাস্কর্য

অনলাইন ডেস্ক

তুরস্কে পাওয়া গেল ১ হাজার ৮শ বছর আগের ভাস্কর্য

এক হাজার ৮০০ বছর আগের একটি ভাস্কর্য পাওয়া গেছে তুরস্কে। গতকাল শনিবার দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় ইজমির প্রদেশ থেকে নারী ভাস্কর্যটি পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন, তুরস্কের কর্মকর্তারা।

এক টুইট বার্তায় তুরস্কের সংস্কৃতি ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের খনন বিভাগ জানিয়েছে, ইজমির প্রদেশের তোরবালি জেলার মেট্রোপলিস শহরে ভাস্কর্যটি পাওয়া গেছে। চলতি বছরের শেষ পর্যন্ত চলবে খনন কাজ।

তুরস্কের সংস্কৃতি ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এবং জেলাল বায়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ উদ্যোগে কয়েক বছর ধরে অনুসন্ধান চলছিল সেখানে। মেট্রোপলিস শহরে ক্ল্যাসিকাল, হেলেনিস্টিক, রোমান, বাইজেন্টাইন ও অটোমান যুগের নিদর্শন রয়েছে। সূত্র: ইয়েনি শাফাক

news24bd.tv আহমেদ

আরও পড়ুন


নিজের দাম বাড়িয়েছেন রাশি খান্না!

ইসরাইলের কাছ থেকে গোলান মালভূমি মুক্ত করতে প্রস্তুত নুজাবা আন্দোলন

‘ইরাকের তেল সম্পদের ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করছে তুরস্ক’

শেখ হাসিনার বিকল্প কে?


 

পরবর্তী খবর

১২ হাজার মোটরসাইকেল নিয়ে র‍্যালিতে প্রেসিডেন্ট, অতঃপর জরিমানা

অনলাইন ডেস্ক

১২ হাজার মোটরসাইকেল নিয়ে র‍্যালিতে প্রেসিডেন্ট, অতঃপর জরিমানা

করোনাভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে ব্রাজিল। আর সে দেশেরই প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো করোনাবিধি না মেনে মোটরসাইকেল নিয়ে মিছিলে বের হয়েছেন। এজন্য জরিমানাও গুণতে হলো তাকে।

গতকাল শনিবার সাও পাওলো শহরে সরকারি নির্দেশ না মেনে বড় পরিসরে মোটরসাইকেল র‍্যালি বের করেন বলসোনারো। এজন্য প্রেসিডেন্ট, তার ছেলে ও একজন মন্ত্রীকে জারিমানা করা হয়েছে।

সেই মিছিলে হাজার হাজার মানুষ অংশ নেয়। সেখানে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা হয়নি। কেউ মাস্ক পরেও ছিল না। এ ধরনের আচারণকে দায়িত্বহীন বলে উল্লেখ করেছেন সাও পাওলোর গভর্নর। 

জোওয়াও ডোরিয়া মনে করেন, তার দেশের প্রেসিডেন্টের উপযুক্ত শাস্তি হওয়া উচিত। সেখানকার গভর্নর ব্রাজিলের রাজনীতিতে প্রধান বিরোধী হিসেবে বেশ জনপ্রিয়।


আরও পড়ুন:


ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ: মাঠে যাওয়ার সময় আম্পায়ারদের গাড়িতে হামলা

১০ বছরের জেল হতে পারে নেতানিয়াহুর: ইসরাইলি আইনজীবী

এবার ফিলিস্তিনি নারীকে গুলি করে হত্যা ইসরাইলি বাহিনীর

বিয়ের আসরে নকল গহনা, মারামারি পরে ক্ষতিপূরণ রেখে তালাক


জানা গেছে, প্রেসিডেন্ট ও তার ছেলেসহ দেশটির অবকাঠামো মন্ত্রী টারকিসিও গোমসকে ১০৮ ডলার জরিমানা করা হয়েছে। ওই মিছিলে অন্তত ১২ হাজার মোটরসাইকেল অংশ নেয়।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

চীনে গ্যাস পাইপ বিস্ফোরণ, নিহত ১১

অনলাইন ডেস্ক

চীনে গ্যাস পাইপ বিস্ফোরণ, নিহত ১১

চীনের এক আবাসিক এলাকায় গ্যাস পাইপ বিস্ফোরণে অন্তত ১১ জন নিহত ও ৩৭ জন আহত হয়েছেন। রবিবার (১৩ জুন) স্থানীয় সময় সাড়ে ছয়টায় দেশটির হুবেই প্রদেশের শিয়ান শহরে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

বিস্ফোরণের পর ওই এলাকা থেকে ১৪৪ জনকে নিরাপেদে সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলে জানায় মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন।

দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বিস্ফোরণে হতাহতের পাশাপাশি ধ্বংসস্তুপে অনেকে আটকে পড়েছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে দেখা গেছে, উদ্ধারকারীরা বিধ্বস্ত ঘড়বাড়িতে উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন।


আরও পড়ুন:


ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ: মাঠে যাওয়ার সময় আম্পায়ারদের গাড়িতে হামলা

১০ বছরের জেল হতে পারে নেতানিয়াহুর: ইসরাইলি আইনজীবী

এবার ফিলিস্তিনি নারীকে গুলি করে হত্যা ইসরাইলি বাহিনীর

বিয়ের আসরে নকল গহনা, মারামারি পরে ক্ষতিপূরণ রেখে তালাক


তবে কীভাবে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে তা এখনো জানা যায়নি। বিস্ফারণের কারণ অনুসন্ধান করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে সরকারের পক্ষ।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

ইসরাইলের কাছ থেকে গোলান মালভূমি মুক্ত করতে প্রস্তুত নুজাবা আন্দোলন

অনলাইন ডেস্ক

ইসরাইলের কাছ থেকে গোলান মালভূমি মুক্ত করতে প্রস্তুত নুজাবা আন্দোলন

ইহুদিবাদী ইসরাইলের হাতে দখল হওয়া গোলান মালভূমি মুক্ত করার লড়াইয়ে অংশ নিতে নুজাবা আন্দোলন সংগঠন সম্পূর্ণভাবে প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন ইরাকের সন্ত্রাসবাদ বিরোধী সংগঠন আল-নুজাবার মুখপাত্র নাসের আশ-শিমারি। সমস্ত লক্ষণ জোরালোভাবে এই ইঙ্গত দিচ্ছে যে, তেলআবিব ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে বলেও জানান তিনি।

লেবাননের আল-অহেদ নিউজ ওয়েবসাইটকে এসব কথা বলেছেন তিনি। নাসের আশ-শিমারি জানান, তার সংগঠন ২০১৭ সালে গোলান লিবারেশন ব্রিগেড নামে একটি শাখা প্রতিষ্ঠা করেছে যারা সিরিয়ার প্রতিরোধকামী যোদ্ধাদের সঙ্গে বিশেষভাবে কাজ করছে। তাদের সবার লক্ষ্য কৌশলগত গোলান মালভূমি সিরিয়ার হাতে ফিরিয়ে আনা।

আরও পড়ুন


‘ইরাকের তেল সম্পদের ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করছে তুরস্ক’

শেখ হাসিনার বিকল্প কে?

দখল হয়ে যাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ছাত্রী লীলা নাগের বাড়ি

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ: মাঠে যাওয়ার সময় আম্পায়ারদের গাড়িতে হামলা


সংগঠনটির মুখপাত্র আরো জানান, তার সংগঠনের যোদ্ধারা সিরিয়ায় উগ্র তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে সক্রিয়ভাবে লড়াই করছে, তা সত্ত্বেও এসব যোদ্ধা ইহুদিবাদী ইসরাইল সরকারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য বিশেষভাবে তৈরি হয়েছে এবং তারা তাদের পথে অটল থাকবে। এ ধরনের লড়াইয়ের জন্য সংগঠনের এলিট যোদ্ধারা আলাদা ধরনের চমৎকার কিছু প্রশিক্ষণ নিয়েছে এবং তাদের হাতে এমন যুদ্ধের জন্য প্রয়োজনীয় অস্ত্রশস্ত্র রয়েছে। তারা শুধুমাত্র গোলান মালভূমি নয় বরং ইহুদিবাদী ইসরাইলের গভীর অভ্যন্তরে হামলা চালানোর ক্ষমতা রাখে।

আশ-শামারি বলেন, "গোলান মালভূমি মুক্ত করার জন্য কাউন্ট ডাউন শুরু হয়েছে, এখন বাকিটা নির্ভর করছে সিরিয়ার ভাইদের উপর। তবে সমস্ত লক্ষণই এই ইঙ্গিত দিচ্ছে যে, ইসরাইলের অবসান অত্যাসন্ন।" সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর