গাজা যুদ্ধে ইসরাইলের উৎসমূলে মারাত্মক আঘাত হেনেছি: হামাস

অনলাইন ডেস্ক

গাজা যুদ্ধে ইসরাইলের উৎসমূলে মারাত্মক আঘাত হেনেছি: হামাস

শতভাগ সুরক্ষিত ও অজেয় বলে ইসরাইল নিজেকে যে দাবি করেছিলো সাম্প্রতিক ১২ দিন ধরে চলা গাজা যুদ্ধে প্রতিরোধ আন্দোলনগুলো তার উৎসমূলে আঘাত হেনেছে বলে জানিয়েছে ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস। 

গতকাল শুক্রবার আরবি নিউজ চ্যানেল আল-মায়াদিনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে হামাসের সিনিয়র নেতা মাহমুদ আজ-জাহার এ মন্তব্য করেন।

সাক্ষাৎকারে মাহমুদ বলেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলের বিরুদ্ধে সিরিয়া, লেবানন, হামাস ও ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলনগুলোর স্বার্থ একই সুতায় গাঁথা। সেই অভিন্ন স্বার্থ হচ্ছে ইসরাইলের পতনের মাধ্যমে ফিলিস্তিনকে মুক্ত করা।

আজ-জাহার বলেন, ইহুদিবাদী ইসরাইল নিজেকে অজেয় বলে দীর্ঘদিন ধরে যে দাবি করে আসছিল ‘শোর্ড অব গাজা’ যুদ্ধে তার অসারতা প্রমাণিত হয়েছে। তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, এর পরবর্তী যুদ্ধের মাধ্যমে ফিলিস্তিনের ভাগ্য নির্ধারিত হবে; কারণ, এবারের যুদ্ধে ফিলিস্তিনি জনগণ নিজেদের শক্তিমত্তা উপলব্ধি করেছে এবং বুঝতে পেরেছে তাদের পক্ষে নিজেদের অধিকার আদায় করা সম্ভব।

হামাসের এই সিনিয়র নেতা ইহুদিবাদী ইসরাইলকে উদ্দেশ করে বলেন, তেল আবিবকে যদি শান্তিতে থাকতে হয় তাহলে নতুন ইসরাইলি মন্ত্রিসভা যেন সাম্প্রতিক গাজা যুদ্ধ থেকে শিক্ষা নিয়ে আল-কুদস ও মসজিদুল আকসায় কোনো উসকানিমূলক কর্মকাণ্ড না ঘটায়।

আরও পড়ুন


বিশ্ব শিশুশ্রম প্রতিরোধ দিবস আজ

আমিরাতের কাছে ইসরাইলের এফ-৩৫ বিক্রি ও সোলাইমানি হত্যা সম্পর্কযুক্ত: পম্পেও

যৌবনে যে কাজগুলো মেনে চললে দুনিয়া ও আখিরাতে সফলতা সুনিশ্চিত

সূরা ইয়াসিন: আয়াত ৫-৯, উদাসিনতা থেকে মুক্তি ও সৃষ্টিরহস্য


গত মে মাসের গোড়ার দিকে আল-আকসা মসজিদে মুসল্লিদের ওপর ইসরাইলি সেনাদের ব্যাপক দমন অভিযানের প্রতিবাদে গাজা উপত্যকা থেকে ইসরাইল অভিমুখে রকেট নিক্ষেপ শুরু করে প্রতিরোধ আন্দোলনগুলো। দখলদার ইসরাইল টানা ১২ দিন ধরে গাজা উপত্যকার বেসামরিক অবস্থানে বিমান হামলা চালিয়ে তার জবাব দেয়।

ইসরাইল বিমান হামলা শুরু করার সঙ্গে সঙ্গে গাজা থেকে ইসরাইলের বিভিন্ন শহর লক্ষ্য করে হাজার হাজার রকেট নিক্ষেপ করতে থাকে হামাস ও ইসলামি জিহাদ আন্দোলনসহ অন্যান্য প্রতিরোধ সংগঠন। তারা এই ১২ দিনে জেরুজালেম, তেল আবিব এমনকি দূরবর্তী হাইফা শহরে চার হাজারের বেশি রকেট নিক্ষেপ করে ইহুদিবাদীদের অন্তরে কাঁপন ধরিয়ে দেয়। ফিলিস্তিনিদের রকেটের পাল্লা ও নিখুঁতভাবে আঘাত হানার ক্ষমতা দেখে তেল আবিব ১২ দিনের মাথায় যুদ্ধবিরতি মেনে নিতে বাধ্য হয়।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

ফেলে দেয়া বস্তু দিয়ে মূল্যবান চিত্রকর্ম তৈরি করছেন এক ইরাকী শিল্পী

অনলাইন ডেস্ক

ফেলে দেয়া বস্তু দিয়ে মূল্যবান চিত্রকর্ম তৈরি করছেন এক ইরাকী শিল্পী

একেবারে নিষ্ফলা কোন জায়গা থেকেও মানুষ তার চেষ্টা আর অধ্যাবস্যায় দিয়ে তৈরি করে আনতে পারে মহামূল্যবান কিছু। আর এরকমই এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন ইরাকের শিল্পী আলী জামাল। যে কি-না ফেলে দেয়ার মতো অপ্রয়োজনীয় সব বস্তু দিয়ে অসম্ভব সুন্দর সব চিত্র অংকন করে অবাক করে দিয়েছেন সবাইকে।

বিস্তারিত নাহিদ জিহানের ডেস্ক রিপোর্টে। নরম প্লাস্টিকের এই বোর্ডগুলো খুব ছোট আকারে কেটে একটি একটি করে বসিয়ে যাচ্ছে ইরাকের শিল্পী আলী জামাল। অত্যন্ত ধৈয্য আর নিষ্ঠার সঙ্গে অনেক সুক্ষভাবে তাকে প্রতিটি টুকরো বসাতে হয়েছে। প্রথমে বিষয়টিকে অর্থহীন মনে হলেও, যখন পুরো কাজটি শেষ হয়, তখন সেখানে ফুটে ওঠে বিখ্যাত খেলোয়ার মেসির ছবি। আরো মজার বিষয় হলো এক পাশ থেকে মেসি আর অন্যপাশ থেকে দেখা যাচ্ছে রোনান্দোকে।

আমি একজন চিত্রশিল্পী। কিন্তু এতো চিত্রকরের ভীড়ে আমার নিজের স্বকীয়তাকে অন্যরুপে ফুটিয়ে তুলতেই আমি আমার ছবিতে অদ্ভুত সব জিনিষ ব্যবহার করেছি। যা আমার অভিনব সৃষ্টিকে করেছে অনন্য। আলী জামাল, রঙিন স্কচ টেপ দিয়ে তৈরি করেছেন ছবি।


আরও পড়ুন

করোনায় শ্রমিক ভাইয়েরা নীরবে-নিভৃতে নিষ্পেষিত হচ্ছে: তাপস

নির্মাণাধীন ৬৫ শতাংশ ভবন ও ওয়াসার পানির মিটারের গর্তে ২৫ শতাংশ ডেঙ্গুর লার্ভা

রোহিঙ্গাদের ইস্যুতে বিশ্ব ব্যাংকের প্রস্তাব নাকচ

মাত্র ৫ টাকার জন্য অটোচালককে হত্যা!


এছাড়াও প্লাস্টিকের রঙিন ব্যাগ, পিন, নাইলনের সুতা, প্লাস্টিকের ফ্লিপ, কিংবা বুলেটের খালি শেলের মতো জিনিষ দিয়েও তৈরি করেছেন অসাধারণ সব চিত্রকর্ম। "আমি সাধারণত মানুষের মুখের অভিব্যাক্তি তৈরি করতে বেশি পছন্দ করি। আর আমার বেশিরভাগ কাজই আমি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করেছি। আবার সেখানে অনেকেই আমাকে ভীষণ অনুপ্রাণিত করে।" ২৬ বছর বয়সি আলী জামাল এখনো শিক্ষার্থী। অপ্রাসঙ্গিক সব দ্রব্য দিয়ে অসাধারণ তার সব চিত্রকর্ম এরইমধ্যে বেশ সারা ফেলে দিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর

৪৮ ঘন্টা অভুক্ত : বৃদ্ধাকে উদ্ধারে হেলিকপ্টার

অনলাইন ডেস্ক

৪৮ ঘন্টা অভুক্ত : বৃদ্ধাকে উদ্ধারে হেলিকপ্টার

হঠাৎ করে বাঁধ ভেঙে চারদিকে বন্যায় গোটা এলাকা প্লাবিত। এরই মাঝখানে একটি বাড়িতে আটকে পড়েন ১০১ বছরের এক বৃদ্ধা। সেই বৃদ্ধাকে অবশেষে হেলিকপ্টারে করে উদ্ধার করা হয়েছে। দুইদিন না খেয়ে ছিলেন জাহ্নবী নামে ওই বৃদ্ধা। হেলিকপ্টার থেকে নেমেই খাবার চাইলেন। প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর বৃদ্ধার প্রথম কথা ছিলো, বড্ড খিদে পেয়েছে। দু’দিন প্রায় কিছুই খাওয়া হয়নি।

পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলার খানাকুলে এ ঘটনা ঘটে। আজ সোমবার সকালে তাকে বাড়ির ছাদ থেকে উদ্ধার করে আরামবাগের ত্রাণশিবিরে নেওয়া হয়। খানাকুলের পূর্ব ঠাকুরানি চকের সামন্তপাড়ায় সেই বাড়ি। আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়েছে, ১০১ বছরের জীবনে এই প্রথম আকাশে ওঠা জাহ্নবীর। প্রথমে ভয়। তার পর বিস্ময়, শিহরণ। কিন্তু সব ছাপিয়ে উঠল পেটের জ্বালা। হেলিকপ্টার চড়ার ঘোর দ্রুতই কেটে গেল দু’দিন প্রায় না খেয়ে থাকা জাহ্নবীর।

গত শনিবার রাতে রূপনারায়ণের বাঁধ ভেঙে পড়ে। এলাকায় পানি ঢুকতে শুরু করে। ধীরে ধীরে বন্যা লেগে যায়। এতে জাহ্নবীর বাড়িটির একতলা ডুবে যায়। বাধ্য হয়েই তিনি সপরিবারে বাড়ি ছাদে গিয়ে আশ্রয় নেয় তারা।

সূত্র: আনন্দবাজার

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর

আমিরাতে এবার শিশুদেরও সিনোফার্মের টিকা দেওয়া হবে

অনলাইন ডেস্ক

আমিরাতে এবার শিশুদেরও সিনোফার্মের টিকা দেওয়া হবে

প্রাপ্তবয়স্কদের পাশাপাশি এখন তিন থেকে ১৭ বছর বয়সীদেরও সিনোফার্মের তৈরি করোনা টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দিল সংযুক্ত আরব আমিরাত। চীনের তৈরি এই করোনা টিকা দেয়া হবে বলে ঘোষণা দিয়েছে আমিরাতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ওয়াম সোমবার এক টুইটে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

দুবাইভিত্তিক সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে পাওয়া ইতিবাচক ফলাফলের ভিত্তিতে শিশুদের সিনোফার্মের টিকা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমিরাতি কর্তৃপক্ষ। এর মাধ্যমে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই আরও জোরদার করতে পারবে দেশটি।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর

প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি : মালয়েশিয়ার সংসদে বিরোধীদের মিছিল

অনলাইন ডেস্ক

প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি : মালয়েশিয়ার সংসদে বিরোধীদের মিছিল

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিনের পদত্যাগের দাবিতে দেশটির বিরোধী আইনপ্রণেতারা পার্লামেন্ট ভবনে মিছিল করার চেষ্টা করেছেন। আজ সোমবার প্রধানমন্ত্রী রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যে সংসদ অধিবেশন স্থগিত করার পর এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সময় সোমবার নির্ধারিত চূড়ান্ত সংসদ অধিবেশন স্থগিত করার জন্য মুহিউদ্দিন কভিড সংক্রমণের শনাক্তের কথা উল্লেখ করেছেন। তবে বিরোধীরা এটিকে তার নেতৃত্বের প্রতি যেকোনো চ্যালেঞ্জ রোধ করার জন্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত পদক্ষেপ বলে অভিহিত করেন।

এ সময় বিরোধীদলীয় সংসদ সদস্যরা মিছিল নিয়ে পার্লামেন্ট ভবনের দিকে অগ্রসর হন। তখন পুলিশ তাদের বাধা দেয়। আইনপ্রণেতারা মুখ ফিরিয়ে নেওয়ার পর এক বক্তব্যে বিরোধী নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম বলেন, আজ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মুহিউদ্দিনের পতন হয়েছে।


আরও পড়ুন

করোনায় শ্রমিক ভাইয়েরা নীরবে-নিভৃতে নিষ্পেষিত হচ্ছে: তাপস

নির্মাণাধীন ৬৫ শতাংশ ভবন ও ওয়াসার পানির মিটারের গর্তে ২৫ শতাংশ ডেঙ্গুর লার্ভা

রোহিঙ্গাদের ইস্যুতে বিশ্ব ব্যাংকের প্রস্তাব নাকচ

মাত্র ৫ টাকার জন্য অটোচালককে হত্যা!


এক বিবৃতিতে মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, কেবল উপায়েই দীর্ঘ রাজনৈতিক অস্থিরতার অবসান ঘটতে পারে। পাশাপাশি ১৭ মাস আগে থেকে দেশ যে স্বাস্থ্য, অর্থনৈতিক ও সামাজিক সংকটের মুখোমুখি হচ্ছে তা সমাধানের প্রচেষ্টায় পুরোপুরি মনোযোগ দেওয়া যেতে পারে।

সূত্র : রয়টার্স

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

 

পরবর্তী খবর

প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে এমপিদের বিক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক

প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে এমপিদের বিক্ষোভ

সরকার বিরোধী এমপিদের পদযাত্রা ঠেকাতে পার্লামেন্টের বাইরে দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন করেছে মালয়েশিয়া। এমনকি কোনও এমপি পার্লামেন্টে ঢুকতে চাইলে তাদের গ্রেপ্তার করা হবে বলেও হুমকি দেয়া হয়েছে। 

মালয়েশিয়ায় করোনার কারণে গত জানুয়ারি মাসে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছিল। তখন পার্লামেন্ট অধিবেশনও স্থগিত করে দেয়া হয়েছিল। তবে গত সপ্তাহে পার্লামেন্টের ‘বিশেষ অধিবেশন’ শুরু হয়েছে। মালয়েশিয়ায় কঠোর লকডাউন থাকা সত্ত্বেও গত কিছুদিন ধরে ধারাবাহিকভাবে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। এজন্য প্রধানমন্ত্রী মুহিউদ্দীন ইয়াসিন এবং তার মন্ত্রিসভা বিরোধীদের তোপের মুখে পড়েছে।

পার্লামেন্টের বিশেষ এই অধিবেশন সোমবার পর্যন্ত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু পার্লামেন্টের ভেতরে বেশ কয়েকজন করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর তা বাতিল করে দেয়া হয়। বিরোধী দলীয় নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম এবং দুইবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদসহ কয়েক ডজন এমপি কুয়ালালামপুরের মেরদেকা স্কয়ারে জড়ো হন।

এসময় তারা মুহিউদ্দীনের পদত্যাগের দাবি জানান। তখন তারা সেখান থেকে পার্লামেন্টের দিকে পদযাত্রা করতে চান। ওই এলাকা থেকে পার্লামেন্টের দূরত্ব ২ কিলোমিটার। বিক্ষোভ সমাবেশে মাহাথির বলেন, শত শত মানুষ মারা যাচ্ছে। কিন্তু তিনি ক্ষমতায় থাকতে চান। আনোয়ার বলেন, বৈধতা হারিয়েছেন মুহিউদ্দীন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর