গণপূর্ত অফিসে আ’লীগ নেতাদের অস্ত্রের মহড়া (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক

গণপূর্ত অফিসে আ’লীগ নেতাদের অস্ত্রের মহড়া (ভিডিও)

পাবনা গণপূর্ত অফিসে আওয়ামী লীগ নেতাদের অস্ত্র নিয়ে প্রবেশের ঘটনায় প্রশাসনে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। গত ৬ জুন এই ঘটনা ঘটলেও সিসি ক্যামেরায় ধারণ করা একটি ভিডিও ফুটেজ শনিবার জানাজানি হয়। 

নির্বাহী প্রকৌশলী বলেন, ঠিকাদাররা লাইসেন্স করা অস্ত্র নিয়ে অফিসে ঢুকলেও কারও সঙ্গে খারাপ আচরণ করেননি। তাই কোনো অভিযোগ দেওয়া হয়নি। 

অস্ত্র নিয়ে যাওয়া আওয়ামী লীগ নেতারা বলেন, আমরা ভুল করে লাইসেন্স করা অস্ত্র নিয়ে ওই অফিসে গিয়েছিলাম। তবে এটি আমাদের ভুল হয়েছে। 

জেলা গণপূর্ত অফিসের পক্ষ থেকে এ নিয়ে পুলিশে কোনো অভিযোগ করা হয়নি।  এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন কর্মীরা জানান, এ ঘটনায় তারা আতঙ্কিত। 

গত ৬ জুনের সিসিটিভির ওই ভিডিওতে দেখা যায়, দুপুর ১২টার দিকে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ফারুক হোসেন তার কর্মীদের নিয়ে জেলা গণপূর্ত ভবনে প্রবেশ করছেন। তার পেছনে শটগান হাতে পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ আর খান মামুন এবং জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য শেখ লালু। অস্ত্র নিয়েই তাদেরকে কার্যালয়ের বিভিন্ন কক্ষে ঢুকতে দেখা গেছে। ওই সময় তাদের অন্য সঙ্গীরা বাইরে অপেক্ষায় ছিলেন। বেলা ১২টা ১২ মিনিটে তারা ফিরে যান। 

অস্ত্র ও দলবল নিয়ে গণপূর্ত বিভাগে যাওয়ার বিষয়ে আওয়ামী লীগ নেতা ফারুক হোসেন বলেন, আমি গণপূর্ত বিভাগের ঠিকাদার নই। বিল সংক্রান্ত বিষয়ে কথা বলতে মামুন ও লালু আমাকে সেখানে নিয়ে গিয়েছিল।তবে এভাবে যাওয়া আমাদের উচিত হয়নি। 

সিসি ক্যামেরার ভিডিওতে দেখা পাবনা জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য শেখ লালু বলেন, ভুলবশত আমরা অস্ত্র নিয়ে অফিসে ঢুকে পড়েছিলাম। প্রভাব দেখিয়ে বিভিন্ন কাজ নিজেদের আয়ত্তে নেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তারা।

পাবনা গণপূর্ত বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মিজানুর রহমান বলেন, নির্বাহী প্রকৌশলী স্যার অফিসে ছিলেন না। ঠিকাদাররা আমার কক্ষে এসেছিলেন। আমার টেবিলে অস্ত্র রেখে নির্বাহী প্রকৌশলী স্যারের কাছে এসেছেন বলে জানান তারা। তবে তারা কোনো খারাপ আচরণ বা অসৌজন্যমূলক আচরণ করেননি।

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গণপূর্ত অফিসের এক কর্মী বলেন, এসব মহড়ায় তাদের আতঙ্কে থাকতে হচ্ছে। প্রভাব বলয় তৈরি করে বিভিন্ন কাজের দরপত্র নিজেদের আয়ত্তে নিতে চেষ্টা করেন ক্ষমতাসীন দলের বিভিন্ন ঠিকাদার নেতারা। তাদের দাপটে অনেক নিরীহ ঠিকাদাররা দরপত্র জমা দিতে পারেন না। 

শনিবার পাবনা গণপুর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আনোয়ারুল আজিম বলেন, ওইদিন আমি অফিসের বাইরে ছিলাম। তবে সিসিটিভি ফুটেজে অস্ত্র হাতে অনেকে এসেছে দেখেছি। পরে তাদের সঙ্গে কথাও হয়েছে। তারা বলেছেন, মহাসড়কের পাশে অফিস হওয়ায় তারা ওইদিক দিয়ে যাওয়ার সময় আমার অফিসে এমনিতে আমার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন। তারা আমাকে সরাসরি বা ফোনে কোনো হুমকি দেয়নি। তাই আমরা লিখিত অভিযোগ করিনি। 

পাবনার পুলিশ সুপার (এসপি) মুহিবুল ইসলাম খান বলেন, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। অস্ত্র আইনের শর্ত ভঙ্গ হয়েছে কি না- আমরা তা খতিয়ে দেখছি। তদন্ত শেষে দোষী হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

পাবনার জেলা প্রশাসন (ডিসি) কবীর মাহমুদ বলেন, আমি ঘটনাটি শুনেছি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিষয়টি তদন্ত করছে। তাদের সুপারিশ অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ডিএনসিসিতে মোবাইল কোর্টে ২৭ মামলা

অনলাইন ডেস্ক

ডিএনসিসিতে মোবাইল কোর্টে ২৭ মামলা

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) এলাকায় এডিস মশা, ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া বিস্তার রোধকল্পে মোবাইল কোর্টে ২৭টি মামলায় সর্বমোট ২ লক্ষ ১৬ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

২৮শে জুলাই বুধবার ডিএনসিসির ১ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ জুলকার নায়ন পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ২টি মামলায় ১০ হাজার টাকা, ২ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ. এস. এম. সফিউল আজম পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ২টি মামলায় ২০ হাজার টাকা, ৩ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল বাকী পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৮টি মামলায় ৩৪ হাজার ৭০০ টাকা, ৪ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সালেহা বিনতে সিরাজ পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৪টি মামলায় ৩৬ হাজার টাকা,

৫ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুদ হোসেন পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৩টি মামলায় ৭৫ হাজার টাকা, ৮ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আবেদ আলি পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৫টি মামলায় ১০ হাজার ৮০০ টাকা এবং ৯ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পারসিয়া সুলতানা প্রিয়াংকা পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৩টি মামলায় ৩০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এভাবে মোট ২৭টি মামলায় আদায়কৃত জরিমানার সর্বমোট পরিমাণ ২ লক্ষ ১৬ হাজার ৫০০ টাকা।

আরও পড়ুনঃ


দ. কোরিয়ার কোন গালিও দেয়া চলবে না উত্তর কোরিয়ায়

তালেবানের হাত থেকে ২৪ জেলা পুনরুদ্ধারের দাবি

কাছাকাছি আসা ঠেকাতে টোকিও অলিম্পিকে বিশেষ ব্যবস্থা


 

এসময় মাইকিং করে জনসচেতনতামূলক বার্তা প্রচার করা হয় এবং সকলকে এডিস মশা এবং ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে ডিএনসিসি মেয়রের আহবান “তিন দিনে একদিন, জমা পানি ফেলে দিন” মানার পাশাপাশি ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনাসহ স্বাস্থ্যবিধিসমূহ যথাযথভাবে মেনে চলার পরামর্শ দেয়া হয়।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

পিরোজপুরে ৩৩৩ কল দিয়ে একদিনে খাবার পেল ৩০ পরিবার

পিরোজপুর প্রতিনিধি

পিরোজপুরে ৩৩৩ কল দিয়ে একদিনে খাবার পেল ৩০ পরিবার

পিরোজপুরে ৩৩৩ কল দিয়ে একদিনে খাবার পেল ৩০ পরিবার। আজ মঙ্গলবার দুপুরে সদর উপজেলা পরিষদ ভবনে অসহায় পরিবারগুলোর হাতে ১০ কেজি চাল,ডাল,তেল ও আলুসহ খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন ইউএনও বশির আহমেদ। 

এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার বশির আহমেদ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সদর উপজেলায় ১৩ লক্ষ টাকা খাদ্য সহায়তার জন্য বরাদ্দ দিয়েছেন। যা ৩৩৩ এর মাধ্যমে আমরা খাদ্য সহায়তা প্রদান করছি। ঢাকায় যে মেসেজ পাওয়া যায় তা যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে আমরা খাদ্য সহায়তা তুলে দেই। ৩৩৩ চালু হওয়ার পর থেকে আমরা ৫ শতাধিক লোককে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে মৃত্যুর তথ্য

গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী


 

বিতরনকালে সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আমিরুল ইসলামসহ সদর উপজেলার বিভিন্ন সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বিয়ের দাবীতে স্বামী ছেড়ে পরকীয়া প্রেমিকের বাড়িতে প্রবাসীর স্ত্রীর অনশন

অনলাইন ডেস্ক

বিয়ের দাবীতে স্বামী ছেড়ে পরকীয়া প্রেমিকের বাড়িতে প্রবাসীর স্ত্রীর অনশন

স্ত্রীর মর্যাদার দাবীতে স্বামীর ঘর ছেড়ে পরকীয়া প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন এক প্রবাসীর স্ত্রী। এ সংবাদ পেয়ে প্রেমিক শাহাদত (২৫) বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। এ নিয়ে ওই গ্রামে পক্ষে-বিপক্ষে উত্তেজনা দেখা দেয়।

নওগাঁর রাণীনগরে  সোমবার (২৬ জুলাই) বিকেল থেকে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন শুরু করেন প্রবাসীর স্ত্রী। 

জানা গেছে, উপজেলার মিরাট ইউনিয়নের মেরিয়া গ্রামের এনামুল সরদারের ছেলে শাহাদত হোসেন একই গ্রামের সৌদি প্রবাসী আপেল মাহমুদের স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায় প্রেমিক শাহাদত বিয়ে করার প্রলোভন দিয়ে ওই গৃহবধূর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করেন। বিষয়টি প্রবাসী স্বামী ও স্বজনরা জানার পর পারিবারিকভাবে কয়েক দফা সালিশি বৈঠকে এমন কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকতে বলেন প্রবাসীর স্ত্রীকে। কিন্তু পিছু ছাড়েন না শাহাদত।

আরও পড়ুন:


বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে মৃত্যুর তথ্য

গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী


 

ভুক্তভোগী নারী জানান, কয়েক দিন আগে আমার প্রেমিক শাহাদত আমাদের দুই জনের বেশ কিছু ছবি আমার স্বামীর কাছে পাঠায়। এক পর্যায়ে স্বামী আমাকে বাড়ি থেকে চলে যেতে বলে এবং কিছু ছবি আমার স্বামী বাবার বাড়ি বগুড়া জেলার দুপচাচিয়া পাঠায়। সেখান থেকেও আমাকে নানাভাবে গালমন্দ করে। কোনো পথ না পেয়ে আমি শাহাদতের বাড়ি চলে আসি। আমার উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় শাহাদত। এরপর বাড়ির অন্যান্য সদস্যরাও চলে যায়। শাহাদত যদি আমাকে বিয়ে না করে তাহলে আত্মহত্যা ছাড়া আমার পথ নেই।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ডিএমপিতে এসি মর্যাদার দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে বদলি

অনলাইন ডেস্ক

ডিএমপিতে এসি মর্যাদার দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে বদলি

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) পদমর্যাদার দুই কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে।

লজিস্টিকস্ বিভাগের সহকারী পুলিশ কমিশনার মাহফুজুর রহমানকে ওয়ারী বিভাগে (গোয়েন্দা) ও সহকারী পুলিশ কমিশনার মোস্তাফিজুর রহমানকে লজিস্টিকস্ বিভাগের সহকারী পুলিশ কমিশনার হিসেবে পদায়ন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে মৃত্যুর তথ্য

গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী


 

সোমবার (২৬ জুলাই) ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে এ পদায়ন করা হয়। এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ডিএসসিসিতে মশক নিয়ন্ত্রণে ১০ ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

অনলাইন ডেস্ক

ডিএসসিসিতে মশক নিয়ন্ত্রণে ১০ ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

এডিস মশার লার্ভা নিয়ন্ত্রণে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ১০ ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে মশার লার্ভা পাওয়ায় ৭ নির্মাণাধীন ভবন ও বাসা-বাড়িকে ১ লক্ষ ৯ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করেছে। 

এডিস মশার লার্ভা নিয়ন্ত্রণে আজ সোমবার ডিএসসিসি এর অঞ্চল-৪ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা (আনিক) মো. হায়দার আলী কেপি ঘোষ স্ট্রিট এলাকায় এবং অঞ্চল-১০ এর আনিক মোহাম্মদ মামুন মিয়া জনতাবাগ ও রইছনগর এলাকায় এবং করপোরেশনে নবসংযুক্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের মধ্যে মুহাম্মদ হাসনাত মোর্শেদ ভূঁইয়া গেন্ডারিয়া এলাকায়, শাহীন রেজা নন্দীপাড়া এলাকায় এবং মো. আলমগীর হোসেন খিলগাঁও এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এছাড়াও আনিক-৭ এবং নবসংযুক্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের মধ্যে ৪ জন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছেন।   

অভিযানে ভ্রাম্যমাণ আদালতসমূহ মোট ৮৭টি নির্মাণাধীন ভবন ও বাসাবাড়ি পরিদর্শন করেন। এ সময় আনিক-৪ মো. হায়দর আলী ২ মামলায় ১ লক্ষ টাকা, আনিক-১০ মোহাম্মদ মামুন মিয়া ২ মামলায় ৭ হাজার টাকাসহ সর্বমোট ৭ মামলায় এক লক্ষ ৯ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। 

আরও পড়ুন:


করোনায় জাবি অধ্যাপকের মৃত্যু

মর্মান্তিক মৃত্যুর ঠিক আগ মুহূর্তে ছবি তোলেন তিনি

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ স্থগিত


আগামীকাল থেকে আরও বৃহদাকারে ডিএসসিসি এর ১০টি অঞ্চলে একযোগে ১০টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হবে। অভিযানের পাশাপাশি করপোরেশনের বিভিন্ন ওয়ার্ডে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর