মায়ের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ভাইরাল বাবা রাজহাঁস

অনলাইন ডেস্ক

মায়ের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ভাইরাল বাবা রাজহাঁস

এক রাজহাঁসের ধবধবে ডানা দু’টো পিঠের ওপর আগলে রেখেছে ৩ সন্তানকে। চতুর্থ জনের জায়গা পিটে জায়গা না পাওয়াতে সে সাদা পালকের লেজের গা ঘেঁষে এগিয়ে চলেছে বাবার পাশে পাশে। 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেট্‌স অঙ্গরাজ্যে এই দৃশ্য দেখা গেছে। বস্টনের এক হংস পরিবারের এই ‘বেঁধে বেঁধে থাকার’ ছবি দেখে আবেগে ভাসছেন নেটাগরিকরা।

ছেলেমেয়েদের সঙ্গে নিয়ে বাবা রাজহাঁসের সময় কাটানোর এই দৃশ্য ধরা পড়েছে পেশাদার আলোকচিত্রী ম্যাথু রইফম্যানের ক্যামেরায়। তিনটি ছবি নিজের ইনস্টাগ্রামে দিয়েছেন ম্যাথু। তাতে দেখা যাচ্ছে দু’টি ডানার ভরে পিঠের উপর তিন ছানাকে বসিয়ে হ্রদে সাঁতার কেটে এগিয়ে যাচ্ছে বাবা রাজহাঁস। বাবার গা ঘেঁষে জলে সাঁতরাতে দেখা যাচ্ছে পিঠে জায়গা না হওয়া আরেক সন্তানকেও।

ছবির ক্যাপশনে ম্যাথু ওই রাজহাঁসকে ‘সিঙ্গেল ফাদার’ বা ‘একলা বাবা’ বলে বর্ণনা করেছেন। জানিয়েছেন তাদের দুঃখের গল্পও। 

ম্যাথু লিখেছেন, গত সপ্তাহেই বস্টনে এই চার ছানার জন্ম হয়েছে। তবে তাদের জন্মের পরই অজানা কোনও কারণে মা রাজহাঁসের মৃত্যু হয়। ডুবে মারা যায় একটি ছানাও। আর একটিকে কোনোমতে উদ্ধার করে বস্টনের প্রাণী সুরক্ষা বিভাগ। তারপর থেকে ছেলেমেয়েদের খেয়াল রাখার দায়িত্ব নিয়েছে একলা বাবা রাজহাঁসই।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

অবশেষে ইরাক যুদ্ধের সমাপ্তি ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রের

অনলাইন ডেস্ক

অবশেষে ইরাক যুদ্ধের সমাপ্তি ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রের

চলতি বছরের শেষ নাগাদ ইরাকে ‘যুদ্ধের দায়িত্ব সমাপ্ত’ করার ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ওয়াশিংটন সফররত ইরাকি প্রধানমন্ত্রী মুস্তফা আল-কাজেমির সঙ্গে সাক্ষাতে সোমবার হোয়াইট হাউজে এ ঘোষণা দিয়েছে তিনি।

বাইডেন উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশের (আইএস) বিরুদ্ধে কথিত যুদ্ধের সমাপ্তি ঘোষণা করে বলেন, ২০২১ সাল শেষে মার্কিন সেনারা ইরাকি সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণ ও সহযোগিতা করার দায়িত্ব পালন করবে; কিন্তু তারা সরাসরি কোনো যুদ্ধে অংশ নেবে না। তবে এ সাক্ষাতে ইরাক থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করা হবে কিনা- সে সম্পর্কে মুখ খোলেননি বাইডেন।

সাক্ষাতের পর দুই নেতা এক যৌথ বিবৃতিতে ঘোষণা করেন, “২০২১ সালের ৩১ ডিসেম্বরের পর ইরাকে আর কোনো মার্কিন সেনা যুদ্ধের ভূমিকা পালন করবে না।”

ইরাকি প্রধানমন্ত্রী কাজেমি রোববার রাতে এমন সময় আমেরিকা পৌঁছান যখন তার দেশ থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে ইরাকি পার্লামেন্টে পাস হওয়া আইন এখনও বাস্তবায়ন করা হয়নি।  


আরও পড়ুন:

শিল্পকারখানা খুললে আইনানুগ ব্যবস্থা

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী

১০ আগস্ট থেকে বিদেশি মুসল্লিদের জন্য চালু হচ্ছে পবিত্র ওমরাহ

পরকীয়ায় ধরা মসজিদের ইমাম! রাতভর বেঁধে রাখল গ্রামবাসী


প্রধানমন্ত্রী কাজেমি আমেরিকা সফরে যাওয়ার আগে বাগদাদে বলেছিলেন, উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আর মার্কিন সেনাদের তার দেশে প্রয়োজন নেই। তবে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক সময়সীমা ঘোষণা হবে চলতি সপ্তাহে মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের পর।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

আফগানিস্তানে বেসামরিক নাগরিকের প্রাণহানি বৃদ্ধিতে জাতিসংঘের উদ্বেগ

অনলাইন ডেস্ক

আফগানিস্তানে বেসামরিক নাগরিকের প্রাণহানি বৃদ্ধিতে জাতিসংঘের উদ্বেগ

আফগানিস্তানের চলমান যুদ্ধে বেসামরিক নাগরিকের প্রাণহানি বৃদ্ধির ব্যাপারে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে জাতিসংঘ। আফগানিস্তানে জাতিসংঘের রাজনৈতিক দপ্তর ইউনামা সোমবার তার সর্বসাম্প্রতিক প্রতিবেদন প্রকাশ করে বলেছে, ২০২১ সালের প্রথম ছয় মাসে দেশটিতে বেসামরিক নাগরিকদের হতাহতের সংখ্যা ছিল নজিরবিহীন।

জাতিসংঘের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২১ সালের প্রথম ছয় মাসে আফগানিস্তানে এক হাজার ৬৫৯ বেসামরিক ব্যক্তি নিহত ও তিন হাজার ২৫৪ জন আহত হয়েছেন। ২০২০ সালের এই সময়ের তুলনায় এই সংখ্যা শতকরা ৪৭ ভাগ বেশি। হতাহতদের প্রায় অর্ধেকই নারী ও শিশু বলে এই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

মে মাসে বিদেশি সেনা প্রত্যাহার শুরু ও তালেবান হামলা বেড়ে যাওয়ার পর থেকে এই প্রাণহানি উল্লেখযোগ্য মাত্রায় বেড়ে গেছে বলে ইউনামা জানিয়েছে। এটি সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, আফগানিস্তানের সংঘাত উল্লেখযোগ্য মাত্রায় না কমলে ২০০৯ সালের পর বেসামরিক নাগরিকদের সর্বোচ্চ মাত্রার প্রাণহানি প্রত্যক্ষ করতে হবে। জাতিসংঘ ওই বছর থেকে আফগানিস্তানের বেসামরিক নাগরিকদের প্রাণহানির রেকর্ড রাখতে শুরু করেছিল।

ইউনামার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আফগানিস্তানের বেসামরিক নাগরিকদের হতাহতের শতকরা ৩৯ ভাগ ঘটে তালেবানের হাতে, ২৩ ভাগ আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে, শতকরা ১৬ ভাগ অন্যান্য সরকার বিরোধী গোষ্ঠীর হাতে এবং উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশের (আইএস) হাতে হতাহত হন শতকরা নয় ভাগ বেসামরিক আফগান নাগরিক। এছাড়া শতকরা ১৩ ভাগ হতাহতের ঘটনা ঘটে সংঘর্ষরত পক্ষগুলোর ক্রসফায়ারের মধ্যে পড়ে।


আরও পড়ুন:

শিল্পকারখানা খুললে আইনানুগ ব্যবস্থা

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী

১০ আগস্ট থেকে বিদেশি মুসল্লিদের জন্য চালু হচ্ছে পবিত্র ওমরাহ

পরকীয়ায় ধরা মসজিদের ইমাম! রাতভর বেঁধে রাখল গ্রামবাসী


তবে তালেবান এই প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করে দাবি করেছে, তাদের হাতে কোনো বেসামরিক নাগরিকের প্রাণহানি ঘটে না। আর আফগান সেনাবাহিনী বলেছে, তারা সব সময় যুদ্ধের আইন মেনে চলে এবং তারা বেসামরিক নাগরিকদের প্রাণহানির জন্য দায়ী নয়।

সূত্রঃ পার্সটুডে

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

উজবেকিস্তানের সীমান্তবর্তী কালদার জেলা পুনরুদ্ধার করল আফগান সেনাবাহিনী

অনলাইন ডেস্ক

উজবেকিস্তানের সীমান্তবর্তী কালদার জেলা পুনরুদ্ধার করল আফগান সেনাবাহিনী

তালেবানের কাছ থেকে আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলীয় বল্‌খ প্রদেশের কালদার জেলার নিয়ন্ত্রণ পুনরুদ্ধার করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। জেলাটি তাজিকিস্তান ও উজবেকিস্তান সীমান্তে অবস্থিত। তালেবান এর আগে আফগানিস্তানের সীমান্তবর্তী শতকরা ৯০ ভাগ জেলা দখল করার দাবি করেছিল।

বল্‌খ প্রদেশের গভর্নর ফরহাদ আজিমি নিজের ফেসবুক পেজে কালদার জেলা পুনরুদ্ধারের খবর দিয়ে লিখেছেন, “জেলাটি আফগানিস্তান প্রজাতন্ত্রের নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে এসেছে।”

বলখ পুলিশের মুখপাত্র আদিল শাহ আদিল বলেছেন, “নিরাপত্তা বাহিনী সোমবার (২৬ জুলাই) স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় কালদার জেলা শহরে প্রবেশ করেছে।” তালেবান সদস্যরা শহরটি থেকে বহু দূরে পশ্চাদপসরণ করেছে বলেও তিনি জানান। 

তবে তালেবান এ খবরের প্রতিক্রিয়ায় বলেছে, তারা কালদার শহরের আশপাশে সরকারি বাহিনীর হামলা প্রতিহত করে দিয়েছেন।

উজবেকিস্তানের সঙ্গে আফগানিস্তানের গুরুত্বপূর্ণ স্থলবন্দর ‘হিরতান’ এই জেলায় অবস্থিত বলে কৌশলগত দিক দিয়ে কালদার জেলার নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখা গুরুত্বপূর্ণ।


আরও পড়ুন:

শিল্পকারখানা খুললে আইনানুগ ব্যবস্থা

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী

১০ আগস্ট থেকে বিদেশি মুসল্লিদের জন্য চালু হচ্ছে পবিত্র ওমরাহ

পরকীয়ায় ধরা মসজিদের ইমাম! রাতভর বেঁধে রাখল গ্রামবাসী


এ নিয়ে গত এক মাসে দুইবার কালদারের নিয়ন্ত্রণ হাতবদল হলো। সাম্প্রতিক সময়ের সহিংসতা ও যুদ্ধের ধারাবাহিকতায় তালেবান আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলের বেশ কিছু এলাকা দখল করে নিয়েছিল। বর্তমানে বল্‌খ প্রদেশের ১৪ জেলার মধ্যে এখনও আট জেলা তালেবানের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

তিউনিসিয়ায় বিক্ষোভের জেরে প্রধানমন্ত্রীকে বরখাস্ত করে সংসদ বিলুপ্ত ঘোষণা

অনলাইন ডেস্ক

তিউনিসিয়ায় বিক্ষোভের জেরে প্রধানমন্ত্রীকে বরখাস্ত করে সংসদ বিলুপ্ত ঘোষণা

তিউনিসিয়ায় ব্যাপক বিক্ষোভের জেরে প্রধানমন্ত্রী হিচাম মেচিচিকে বরখাস্ত করে সংসদ বিলুপ্ত ঘোষণা করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট কায়েস সায়িদ। নতুন একজন প্রধানমন্ত্রীর সহায়তায় তিনি নির্বাহী ক্ষমতা গ্রহণ করবেন বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট।

করোনা মোকাবেলায় ব্যার্থতা ও ভঙ্গুর অর্থনীতির জন্য সরকারকে দায়ী করে তীব্র আন্দোলন চলছে দেশটিতে। রোববার নিজ বাসভবনে জরুরি বৈঠক শেষে এক বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট জানান, কেউ হাতে অস্ত্র তুলে নিয়ে গুলি নিক্ষেপ করলে সশস্ত্র বাহিনীও পাল্টা জবাবে গুলি চালাবে।


আরও পড়ুন

বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে মৃত্যুর তথ্য

গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

বাল্যবিয়ে মুক্ত উপজেলায় বাল্যবিয়ের চেষ্টা, জরিমানা-মুচলেকায় রক্ষা

ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনায় ‍মৃত্যুর রেকর্ড


সোমবার পার্লামেন্ট ভবনে স্পিকার রাচেদ ঘানাউচিকে পার্লামেন্ট ভবনে ঢুকতে বাধা দিয়েছে তিউনিসিয়ার সেনাবাহিনী। এর আগে করোনায় অর্থনৈতিক সঙ্কট ও বেকারত্বের কারণে তিউনিসিয়ার বেশ কয়েকটি শহরে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ করে লাখো মানুষ। সংসদ বিলুপ্ত এবং প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেন তারা। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে কয়েক দফা সংঘর্ষে জড়ায় পুলিশ।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর

পশ্চিমা দেশুলোর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

পশ্চিমা দেশুলোর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে রাশিয়া

পশ্চিমা দেশুলোর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছে রাশিয়া। এসব যোগাযোগ মাধ্যম রুশ স্থানীয় আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল নয় বলে অভিযোগ তুলেছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

আগামী বছরের জানুয়ারিতেই এসব ডিজিটাল প্লাটফর্ম নিয়ন্ত্রনে পাস্ হওয়া আইন কার্যকর করবে মস্কো। আইনটির আওতায়, রাশিয়ায় কমপক্ষে পাঁচ লাখ সদস্য আছে এমন প্লাটফর্মকে নির্দিষ্ট কিছু বিধিবিধান মানতে হবে।


আরও পড়ুন

বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে মৃত্যুর তথ্য

গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

বাল্যবিয়ে মুক্ত উপজেলায় বাল্যবিয়ের চেষ্টা, জরিমানা-মুচলেকায় রক্ষা

ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনায় ‍মৃত্যুর রেকর্ড


আর আইন না মানলে বন্ধ করে দেয়া হবে ডিজিটাল প্লাটফর্মের কার্যক্রম। এদিকে হংকংয়েও নেয়া হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন ধরণের ডিজিটাল মাধমের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান। সেখানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ ইন্টারনেট ও ডিজিটাল মাধ্যমগুলো তাদের ব্যবহারকারীদের তথ্য প্রকাশ করতে পারবেনা।

news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর