কোনো অবস্থাতেই ভারত থেকে যেন কোরবানির পশু না আসে: এলজিইডি মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

কোনো অবস্থাতেই ভারত থেকে যেন কোরবানির পশু না আসে: এলজিইডি মন্ত্রী

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (​এলজিইডি) মন্ত্রী  মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, ‘আমাদের দেশের ভারতীয় সীমান্ত এলাকা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। ঈদুল আজহা উপলক্ষে ভারত থেকে দেশে বৈধ-অবৈধ পথে অনেক পশু আসে এবং মানুষ যাতায়াত করে থাকে। ভারতীয় ভেরিয়্যান্ট আমাদের দেশে ব্যাপকহারে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। কোনো অবস্থাতেই যেন ভারত থেকে মানুষ ও পশু না আসে, সে জন্য স্ব স্ব এলাকার জনপ্রতিনিধি এবং সংশ্লিষ্টদের শক্ত অবস্থানে থেকে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে হবে।’

আজ সকালে স্থানীয় সরকার বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। ঈদুল আজহা-২০২১ উপলক্ষে কোরবানির পশুর হাট ব্যবস্থাপনা, নির্দিষ্ট স্থানে পশু জবাইকরণ এবং কোরবানির বর্জ্য অপসারণের প্রস্তুতি পর্যালোচনা সংক্রান্ত আন্তঃমন্ত্রণালয় অনলাইনে এ সভার আয়োজন করে।

মো. তাজুল ইসলাম ভার্চুয়ালি এ সভায় যোগ দেন। তিনি বলেন, ‘আসন্ন ঈদুল আযহায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে সিটি করপোরেশন, পৌরসভা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্ধারিত জায়গায় কোরবানির পশুর হাট বসবে। এর বাইরে পশুর হাট বসতে দেওয়া হবে না।’

আরও পড়ুন:


ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ: মাঠে যাওয়ার সময় আম্পায়ারদের গাড়িতে হামলা

১০ বছরের জেল হতে পারে নেতানিয়াহুর: ইসরাইলি আইনজীবী

এবার ফিলিস্তিনি নারীকে গুলি করে হত্যা ইসরাইলি বাহিনীর

বিয়ের আসরে নকল গহনা, মারামারি পরে ক্ষতিপূরণ রেখে তালাক


 

মন্ত্রী বলেন, ‘করোনাভাইরাসের ডেল্টা ভেরিয়্যান্ট ভারতে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ায় দেশটি অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পার্শ্ববর্তী দেশ হওয়ায় আমাদের দেশেও কিছু কিছু এলাকায় বিশেষ করে সীমান্ত এলাকায় এ ভেরিয়্যান্ট দেখা দিয়েছে। তাই এ বছর সর্বোচ্চ সর্তকতা অবলম্বন করেই পশুর হাট বসানো হবে। শহর-নগর, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদ নিজ নিজ এলাকায় সবার জন্য সুবিধামত জায়গায় গরুর হাট বসানোর ব্যবস্থা নেবে।’

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

ঢাকাতেই ডেঙ্গু রোগী ১৪২, বাইরে মাত্র একজন

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকাতেই ডেঙ্গু রোগী ১৪২, বাইরে মাত্র একজন

ঢাকাতে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা প্রতিনিয়ত বাড়ছে। একদিনে সর্বোচ্চ ১৪৩ জন আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এরমধ্যে ১৪২ জনই ঢাকার এবং একজন ঢাকার বাইরের।

বুধবার (২৮ জুলাই) দুপুরে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আয়োজিত ভার্চুয়াল স্বাস্থ্য বুলেটিনে অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন।

ব্রিফিংয়ে তিনি আরও বলেন, প্রতি বছরই বর্ষা মৌসুমে ডেঙ্গু নিয়ে আমাদের ভাবতে হয়। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪৩ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এদের মধ্যে মাত্র একজন ঢাকার বাইরের।

ডা. নাজমুল বলেন, ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সরকারি ও বেসরকারি মিলিয়ে ৫০৯ জন রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। ঢাকার ৪১টি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে গতকাল পর্যন্ত ৫০০ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন। ঢাকার বাইরে সবগুলো জেলা মিলিয়ে নয়জন রোগী রয়েছেন। ১ জানুয়ারি থেকে ২৭ জুলাই পর্যন্ত এক হাজার ৯৪৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এদের মধ্যে এক হাজার ৪৩৩ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। সন্দেহজনক তিনটি মৃত্যুর তথ্য আমাদের কাছে এসেছে, সেটি আইইডিসিআর-এর মাধ্যমে আমরা পরীক্ষা করে দেখছি।

আরও পড়ুন


৫ আগস্টের পর লকডাউন বাড়ানো হবে কি না জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বুদ্ধিবাজি বা বৌদ্ধিক মাস্তানি

বগুড়ার দুপচাঁচিয়ায় ৩০০ পরিবারের মাঝে বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ বিতরণ

সানিয়া যে একা ছিলেন এমন না, ছিলেন সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা


করোনা প্রসঙ্গে বলেন, বিভাগওয়ারি তথ্যে করোনায় ঢাকায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে। তারপর চট্টগ্রাম বিভাগে, এরপর খুলনায়। সবচেয়ে কমসংখ্যক রোগী মারা গেছেন সিলেট বিভাগে। জেলার তথ্যে ঢাকা জেলায় সবচেয়ে বেশি সংখ্যক রোগী শনাক্ত হয়েছে, চার লাখ ১৯ হাজার ১২৮ জন। এরপরই বন্দর নগরী চট্টগ্রামের অবস্থান। সেখানে ৭৪ হাজার ১৯৩ জন রোগী এবং সবচেয়ে কম রোগী ১৮ হাজার ৮৩৮ জন শনাক্ত হয়েছে রাজশাহী জেলায়।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

৫ আগস্টের পর লকডাউন বাড়ানো হবে কি না জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

৫ আগস্টের পর লকডাউন বাড়ানো হবে কি না জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

করোনা প্রতিরোধে সরকারের দেওয়া চলমান বিধিনিষেধের সময়সীমা আগামী ৫ আগস্টে শেষ হবে। এরপর বিধিনিষেধ আবারও বাড়ানো হবে কি না তা জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি বলেছেন, লকডাউন আর বাড়ানো হবে না। আগামী ৫ আগস্টের পর থেকে দেশে কোনো লকডাউন থাকবে না। 

আজ বুধবার (২৮ জুলািই) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অফিসকক্ষে একটি জাতীয় দৈনিকের সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতায় এ কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, সারাদেশে সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে টিকা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ব্যাপক কর্মসূচি হাতে নেওয়া হবে। আমি ব্যক্তিগতভাবে লকডাউনের পক্ষে নই। কেবল লকডাউন দিয়েই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধ করা সম্ভব না। এটা সংক্রমণ রোধের একটি উপাদান মাত্র।

তিনি আরও বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধ করতে হলে সবাইকে বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরতে হবে এবং স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। মাস্ক পরিধান করলে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে মানুষ ৭০ ভাগ নিরাপদ থাকবে। তাই জনসাধারণকে মাস্ক পরা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে বাধ্য করার জন্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে বিশেষ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

news24bd.tv এসএম

আরও পড়ুন


বুদ্ধিবাজি বা বৌদ্ধিক মাস্তানি

বগুড়ার দুপচাঁচিয়ায় ৩০০ পরিবারের মাঝে বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ বিতরণ

সানিয়া যে একা ছিলেন এমন না, ছিলেন সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা

এবার কঙ্গনাকে কড়া বার্তা দিলেন আদালত


 

পরবর্তী খবর

বিপিএসসির যেকোনো পরীক্ষা দিতে হলে টিকা নিতে হবে

অনলাইন ডেস্ক

বিপিএসসির যেকোনো পরীক্ষা দিতে হলে টিকা নিতে হবে

করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যেও জরুরি নিয়োগ কার্যক্রম বজায় রাখতে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের কোনো পদের প্রিলিমিনারি টেস্ট, লিখিত পরীক্ষা এবং মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে প্রত্যেক পরীক্ষার্থীকে টিকা নিতে হবে।


আরও পড়ুন

করোনাভাইরাস ঊর্ধ্বগতিতে সংক্রমণের শীর্ষে ঢাকা

ফেরি ঘাটে পারের অপেক্ষায় শতাধিক যানবাহন

বিভিন্ন জেলায় করোনায় প্রায় দেড় শতাধিক মৃত্যুর

সিলেট বিভাগে করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু নতুন রেকর্ড


আজ বুধবার পিএসসির যুগ্ম-সচিব নূর আহমদ স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, জরুরি নিয়োগ কার্যক্রম বজায় রাখার স্বার্থে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন বিজ্ঞাপিত কোনো পদের যেকোনো পরীক্ষায় অংশগ্রহণের আগে পরীক্ষার্থীদের কোভিড-১৯ টিকাগ্রহণ নিশ্চিত করার পরামর্শ প্রদান দেওয়া হলো।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর

করোনাভাইরাস ঊর্ধ্বগতিতে সংক্রমণের শীর্ষে ঢাকা

অনলাইন ডেস্ক

করোনাভাইরাস ঊর্ধ্বগতিতে সংক্রমণের শীর্ষে ঢাকা

মহামারি করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বগতির এই সময় সারাদেশে সংক্রমণের শীর্ষে রয়েছে ঢাকা জেলা। এদিকে সবচেয়ে কম সংক্রমিত হয়েছে রাজশাহী জেলায়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর গত ছয় মাসের নমুনা পরীক্ষা ও রোগী শনাক্তের হার বিবেচনায় এ তথ্য জানায়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত করোনা বুলেটিনে অধিদপ্তরের মুখপাত্র ও লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ঢাকা জেলায় এখন পর্যন্ত করোনা শনাক্ত হয়েছে ৪ লাখ ১৯ হাজার ১২৮ জন। ঢাকার পরের অবস্থান চট্টগ্রামের। সেখানে এই পর্যন্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে ৭৪ হাজার ১৯৩ জন।আর এখন পর্যন্ত রাজশাহীতে শনাক্ত হয়েছে মোট ১৮ হাজার ৮০৮ জন রোগী।


আরও পড়ুন

ফেরি ঘাটে পারের অপেক্ষায় শতাধিক যানবাহন

বিভিন্ন জেলায় করোনায় প্রায় দেড় শতাধিক মৃত্যুর

সিলেট বিভাগে করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু নতুন রেকর্ড

বগুড়ায় ৭০০ পরিবারের মাঝে বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ বিতরণ


নাজমুল ইসলাম আরও বলেন, রোগীর সংখ্যা এবং মৃত্যুর সংখ্যা পাশাপাশি রাখা হলে বরিশাল বিভাগের শনাক্ত রোগীর বিপরীতে মৃত্যুর হার ২ শতাংশ। ঢাকায় সেটি ১.৩ শতাংশ, রংপুর বিভাগে ২.৪ শতাংশ।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর

ফেরি ঘাটে পারের অপেক্ষায় শতাধিক যানবাহন

অনলাইন ডেস্ক

ফেরি ঘাটে পারের অপেক্ষায় শতাধিক যানবাহন

চলমান কঠোর লকডাউনের ৬ষ্ঠ দিনে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটের উভয় পাড়ে যাত্রীদের ভিড়। একই সঙ্গে ঢাকায় ফেরা ও দক্ষিণবঙ্গে দিকে ঘরমুখো যাত্রীর চাপ রয়েছে। এরই মধ্যে শিমুলিয়া ঘাট এলাকায় প্রায় একশ এর বেশি এবং বাংলাবাজার ঘাট এলাকায় প্রায় ৪ শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে।

আজ বুধবার দুপুরের দিকে এই চিত্র দেখা যায়। এর মধ্যে দক্ষিণবঙ্গ থেকে আসা ঢাকাগামী যাত্রীর চাপ বেশি।


আরও পড়ুন

বিভিন্ন জেলায় করোনায় প্রায় দেড় শতাধিক মৃত্যুর

সিলেট বিভাগে করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু নতুন রেকর্ড

বগুড়ায় ৭০০ পরিবারের মাঝে বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ বিতরণ

মাহফুজ আনামের অনৈতিক কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদে সম্পাদক পরিষদ থেকে নঈম নিজামের পদত্যাগ


এদিকে গণপরিবহন বন্ধ থাকায় শিমুলিয়া ঘাট থেকে সিএনজি, পিকাপ ভ্যানসহ বিভিন্ন যানবাহনে গন্তব্যে যাচ্ছেন যাত্রীরা। এতেও তাদের গুনতে হচ্ছে অধিক ভাড়া।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর