সে রাতে উত্তরা বোট ক্লাবে পরীমনির সঙ্গে কী ঘটেছিল!

অনলাইন ডেস্ক

সে রাতে উত্তরা বোট ক্লাবে পরীমনির সঙ্গে কী ঘটেছিল!

দেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী পরীমণিকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে এবং তাকে ধর্ষণ করতে না পেরে মেরে ফেলার হুমকিও দেওয়া হয়েছে এ অবস্থায় তিনি জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত। রোববার (১৩ জুন) রাতে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। সেদিন তাঁর সঙ্গে কী ঘটেছিল সেটাও জানিয়েছেন পরীমনি।

নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার চেয়ে দেওয়া স্ট্যাটাসে অভিযুক্তদের নাম প্রকাশ না করলেও পরে সাংবাদিকদের সামনেই অভিযুক্তের নাম ও কখন, কোথায় তাকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করা হয় সেসবের বিস্তারিত বর্ণনা দেন।

রাত সাড়ে ১০টায় বনানীর বাসায় সাংবাদিকদের পরীমনি জানান, গত ১০ জুন রাতে পারিবারিক বন্ধু অমি ও ব্যক্তিগত রূপসজ্জাশিল্পী জিমির সঙ্গে বাইরে বের হয়েছিলেন তিনি। রাত তখন ১২টা পেরিয়েছে। বন্ধুটি তাদের নিয়ে যান আশুলিয়ার একটি ক্লাবে। ক্লাবটির নাম উত্তরা বোট ক্লাব। সেখানে মদ্যপানরত কয়েকজন ব্যক্তির সঙ্গে পরীমনির পরিচয় করিয়ে দেন অমি। ওই ব্যক্তিদের মধ্যে একজনের নাম নাসিরউদ্দিন আহমেদ।

তিনি নিজেকে ক্লাবটির সাবেক প্রেসিডেন্ট পরিচয় দেন। নাসিরউদ্দিনসহ উপস্থিত ব্যক্তিরা তার সঙ্গে বাজে আচরণ করেন। মাধুরী দিক্ষিত বলে নাচতে বলে। এক সময় তাদের একজন হঠাৎ জোর করে পরীমনির মুখে পানীয়র গ্লাস চেপে ধরে এবং শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। এ সময় মারধর পরীমনির সঙ্গে থাকা কস্টিউম ডিজাইনার জিমিকেও মারধর করে তারা।

নাসির উদ্দিন তার সঙ্গে জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করেন বলেও অভিযোগ করেন পরীমনি।

পরীমনি বলেন, বুধবার রাত ১২ টার দিকে অমি নামের একজন পরিচিত ব্যক্তির সঙ্গে উত্তরা বোট ক্লাবে যাই। সঙ্গে আমার ব্যক্তিগত রূপসজ্জাশিল্পী জিমিও ছিলেন। তবে পরে সেখানে নাসিরউদ্দিন আহমেদ নামে এক ব্যক্তি আসেন। তিনি নিজেকে উত্তরা বোট ক্লাবের সাবেক প্রেসিডেন্ট পরিচয় দেন। সেদিন তিনিসহ চারজন মদ্যপ ব্যক্তি আমাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করেন। চড়-থাপ্পড় মারেন। গায়ে আঘাত করেন। এক পর্যায়ে একজন আমাকে নেশাদ্রব্য খাইয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে।

এই ঘটনার পর পরীমনি বনানী থানায় অভিযোগ করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু সেখানে তিনি কোনো সহযোগিতা পাননি। দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা তারা অভিযোগ রেকর্ড করেননি। এরপর হাসপাতাল পর্যন্ত গিয়েও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগে চিকিৎসা না নিয়েই বাড়ি ফিরে যান।

পরীমণি বলেন, ‘এমন ঘটনায় সাধারণ মেয়েরা প্রথমে কোথায় যায়? থানায় যায়। আমিও থানায় গিয়েছি। আমি বারবার বলেছি, ঘটনাটা যদি নিজের সঙ্গে না ঘটে তাহলে কেউ বুঝবে না। ওইদিন পর্যন্ত কি তবে অপেক্ষা করবেন?’

অভিযুক্তদের বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চাইলে পরীমনি বলেন, ‘আমার মুখটা সাদা কাপড়ে ঢাকা পড়লেই কেবল বুঝতেন। আমি চার দিন ধরে কারও সাপোর্ট পাইনি। আপনারা সত্যিটা খোঁজেন। সাধারণ কোনো মেয়ের হলে সে খবর হয়তো আপনাদের কাছে পৌঁছায় না। সাংবাদিকদের কাছে খবর পৌঁছানো হয় না। আমার মতো যখন কোনো মেয়েকে ভয় দেখানো হয় তখন সাধারণ মেয়ের খবর তো পাবেন না!’

কাঁদতে কাঁদতে সাংবাদিকদের উদ্দেশে পরীমনি বলেন, ‘আপনারা আমাকে ৫ মিনিট কাঁদতে দেখছেন। কিন্তু আমি গত চারদিন ধরে কাঁদছি। ওই লোক আমাকে কি সব বিশ্রি কথা বলেছিলো। আমি বলতে পারছি না। আমি পাগল হয়ে যাচ্ছি। আমার জায়গায় আপনারা থাকলে হয়ত কথাও বলতে পারতেন না। আমি ওইখানে অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলাম। ওয়েটাররা ধরে আমাকে নামিয়ে দেয়। সিসি ক্যামেরায় সব রেকর্ড আছে। আমার মনে হয়েছে বিষয়টি তাদের পূর্বপরিকল্পিত।’

একপর্যায়ে অঝরো কাঁদতে কাঁদতে পরীমনি চিৎকার করে বলেন, ‘আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। তবে আপনারা জেনে রাখুন, আমি আত্মহত্যা করার মতো মেয়ে নই। যদি মরে যাই তবে বুঝবেন, আমাকে মেরে ফেলা হয়েছে। আমার সঙ্গে অন্যায় করা হয়েছে। আমি এর বিচার চাই। মরলে আমি আমার বিচার নিয়ে মরব।’

আরও পড়ুন:


ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা সম্পর্কে যা জানালেন পরীমণি

নেইমার জাদুতে কোপায় উদ্বোধনী ম্যাচে ব্রাজিলের জয়

চতুর্থ বিয়ের মধুচন্দ্রিমায় পাহাড়ে যেতে চান শ্রাবন্তী?


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

ববিতার জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানিয়ে ফেসবুকে যা লিখলেন শাকিব

অনলাইন ডেস্ক

ববিতার জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানিয়ে ফেসবুকে যা লিখলেন শাকিব

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জীবন্ত কিংবদন্তি ববিতা। আজ তার ৬৮তম জন্মদিন। এমন দিনে তাঁকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে দীর্ঘ একটি স্ট্যাটাস লিখেছেন ঢাকাই সিনেমার শীর্ষ নায়ক শাকিব খান। তার স্ট্যাটাসটি নিউজটোয়েন্টিফোর ডট টিভির পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো:

তিনি লিখেছেন,  ‌‌‌‌‘যে কোনো পেশাতেই চড়াই উৎরাই থাকে। কিন্তু পরামর্শ দেয়ার সঠিক মানুষটি পেলে চড়াই উৎরাই মোকাবিলা করা যে কারো জন্য সহজ হয়ে যায়। অভিনয় পেশার শুরু থেকে আমি তেমন কিছু গুরুজন পেয়েছি, যারা আমাকে সবসময় সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পরামর্শ দিয়ে গেছেন। অভিনয় শূন্য থেকে শুরু করেছিলাম; কিন্তু তাদের স্নেহ-মমতা আর আশীর্বাদের শীতল পরশ সঙ্গে ছিল বলেই আমি আজকে সবার কাছে শাকিব খান। 
অভিনয়ে আসার পর যে কজন অভিভাবক পেয়েছি, তাদের অন্যতম ববিতা ম্যাডাম। তাঁর মতো এমন অভিজ্ঞ, দক্ষ অভিনয় শিল্পী মাথার উপর ছায়া হয়ে থাকলে সব কিছুই সহজ হয়ে যায়। অনস্ক্রিনে অসংখ্যবার দর্শক তাকে আমার মায়ের ভূমিকায় দেখেছেন, অথচ অফস্ক্রিনেও তিনি আমার কাছে তেমন একজন মমতাময়ী মা।

দেশের সিনেমাপ্রেমী মানুষের কাছে তো বটেই, বিশ্ব সিনেমার ইতিহাসেও যার নাম ডাক। কমার্শিয়াল সিনেমার পাশাপাশি ভিন্নধারার সিনেমাতেও তিনি ছিলেন স্বতঃস্ফূর্ত। তাঁর অভিনয় দেখে মুগ্ধ হননি এমন প্রজন্ম খুঁজে পাওয়া যাবে না। 
সেই সত্তরের দশকেই ববিতা ম্যাডাম বিশ্বের বিভিন্ন চলচ্চিত্র উৎসবে ঘুরেছেন। বাংলা সিনেমার প্রতিনিধিত্ব করেছেন। সেই সময়ে দেশের সব গুণী নির্মাতাদেরও পছন্দের তালিকায় ছিলেন আমাদের ববিতা ম্যাডাম। কাজ করেছেন সত্যজিৎ রায়ের মতো পৃথিবীখ্যাত নির্মাতার সিনেমাতেও। 

আরও পড়ুন:


হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা হচ্ছে

মেঘনায় ট্রলার ডুবে জেলের মৃত্যু, জীবিত উদ্ধার ১১

পর্যটকদের জন্য খুলছে সৌদির দরজা

বগুড়ার গাবতলীতে ৩০০ পরিবারের মাঝে বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ বিতরণ


বহুদিন তিনি সিনেমা থেকে দূরে। তাঁর সাথে আমার প্রায়ই কথা হয়। বর্তমান সিনেমার খোঁজ খবর নেন। আগের মতোই মমতাময়ী মায়ের কণ্ঠে সঠিক দিকনির্দেশনা দেন। তাঁর মতো গুণী অভিনয়শিল্পীর সাথে কথা বলতে বলতে মাঝেমধ্যে নিজেদের ব্যর্থতার কথাগুলোও স্মরণ করি। 

ষাট, সত্তর, আশির দশকে পাশের দেশের সিনেমার  অভিনেতা অভিনেত্রীদের ঘিরে কতো কতো সিনেমা নির্মিত হচ্ছে; অথচ ববিতা ম্যাডামদের মতো গুণী অভিনয়শিল্পীদের আমরা পরবর্তীতে আর ব্যবহারই করতে পারলাম না! তাদের জন্য যুঁতসই গল্প-চরিত্র নির্মাণ করতে পারলাম না!

হয়তো এসব আফসোসও একদিন ঘুঁচবে। অন্তত ববিতা ম্যাডামের জন্মদিনে এমন প্রত্যাশাই জানিয়ে রাখলাম। প্রিয় অভিনেত্রী, মাতৃতুল্য অভিভাবক ববিতা ম্যাডামের সুস্থতা ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি ... শুভ জন্মদিন ...’

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

রাজের কাছে যৌন হয়রানির শিকার হয়ে বিস্ফোরক তথ্য দিলেন শার্লিন চোপড়া

অনলাইন ডেস্ক

রাজের কাছে যৌন হয়রানির শিকার হয়ে বিস্ফোরক তথ্য দিলেন শার্লিন চোপড়া

ক’দিন থেকেই পর্নকাণ্ডে বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শিল্পা শেঠির স্বামী রাজ কুন্দ্রাকে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। এই আলোচনায় ঘি ঢালছেন আরেক বলিউড অভিনেত্রী শার্লিন চোপড়া। এবার রাজ কুন্দ্রার বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তুললেন এই অভিনেত্রী।

পর্নকাণ্ডে সম্প্রতি শার্লিনের জবানবন্দি নিয়েছে মুম্বাই পুলিশের অপরাধ দমন শাখা। সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, গত এপ্রিলে রাজের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেন শার্লিন। লিখিত অভিযোগে শার্লিন জানান, ২০১৯ সালের শুরুর দিকে রাজ তার বিজনেস ম্যানেজারের মাধ্যমে তার সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাব দেন। ওই বছরেরেই ২৭ মার্চ রাজের সঙ্গে শার্লিন ব্যবসা সংক্রান্ত মিটিং করেন। পরে তাদের মনোমালিন্য হয়। রাজ জোর করে শার্লিনের বাড়ি গিয়েছিলেন এবং হঠাৎ তাকে চুমু খান।

শার্লিন চোপড়া বলেন, ‘রাজের এমন আচরণে অবাক হয়েছিলাম। তার স্ত্রী শিল্পার সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন করি। রাজ জানিয়েছিল, তাদের সম্পর্কে জটিলতা কাজ করছে, বাড়িতে বেশিরভাগ সময় চাপে থাকে। আমি তাকে বাধা দিই। ভীষণ ভয় পেয়েছিলাম। দৌড়ে ওয়াশরুমে ছুটে যাই। রাজ বাড়ি থেকে বের না হওয়া পর্যন্ত ওয়াশরুমেই ছিলাম।’

আরও পড়ুন


পটুয়াখালীতে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১২৩

খুলনায় করোনায় মৃত্যু দুই অঙ্কের নিচে

কুষ্টিয়ায় করোনায় আরো ৮ জনের মৃত্যু

সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে পিকনিক স্পটে নিয়ে ৫ বন্ধু মিলে ধর্ষণ


এর আগে শার্লিন দাবি করেন, মহারাষ্ট্র পুলিশের সাইবার শাখায় প্রথম রাজের ঘটনায় বয়ান নথিভুক্ত করেন তিনি। শিল্পার স্বামীর হাত ধরেই নাকি অ্যাডাল্ট দুনিয়ায় পা রেখেছেন এই অভিনেত্রী। প্রতিটি কাজের জন্য ৩০ লাখ রুপি পেতেন। এমন ১৫ থেকে ২০টি প্রজেক্টে কাজ করেছেন তিনি। রাজ কুন্দ্রা ছাড়াও আরো কয়েকজন এর সঙ্গে যুক্ত ছিলেন বলে তার দাবি।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

স্বামীর পর্নকাণ্ড: ক্ষতিপূরণ দাবি করে মামলা করলেন শিল্পা শেঠি

অনলাইন ডেস্ক

স্বামীর পর্নকাণ্ড: ক্ষতিপূরণ দাবি করে মামলা করলেন শিল্পা শেঠি

পর্নকাণ্ডে বেশ কয়েকদিন থেকেই আলোচনায় বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শিল্পা শেঠির স্বামী রাজ কুন্দ্রা। সেই সাথে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে শিল্পা শেঠিকেও। পর্নকাণ্ডে গ্রেপ্তার রাজ কুন্দ্রার এই মামলায় বেশ কয়েকটি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম শিল্পার নাম জড়িয়ে অভিনেত্রীর ইমেজ নষ্টের চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন শিল্পা শেঠি।

এই অভিযোগের ভিত্তিতে সংশ্লিষ্ট সংবাদ মাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ, যেমন ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছেন অভিনেত্রী।

গত ১৯ জুলাই পর্ন ভিডিও তৈরি ও অ্যাপের মাধ্যমে তা ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছেন রাজ কুন্দ্রা। স্বামী গ্রেপ্তারের ১০ দিনের মাথায় শিল্পার পক্ষ থেকে দায়ের করা মানহানির মামলার খবর প্রকাশ্যে এল।

বার অ্যান্ড বেঞ্চের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, মুম্বাই হাইকোর্টে দাখিল আবেদনপত্রে শিল্পা তার বিরুদ্ধে মিথ্যা, অসত্য এবং অবমাননাকর তথ্য প্রকাশ বা প্রচারে ফুলস্টপ লাগানোর আবেদন জানিয়েছেন। পর্নকাণ্ড সংক্রান্ত নানান খবর পরিবেশনের সময় রঙ চড়িয়ে পেশ করছে বেশ কিছু মিডিয়া হাউজ, তাতে অভিনেত্রীর ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে বলে জানান তিনি। অবিলম্বে সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম এবং নিজস্ব সাইট থেকে সেই সকল কনটেন্ট মুছে ফেলার এবং নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন অভিনেত্রী। পাশাপাশি ক্ষতিপূরণ হিসেবে ২৫ কোটি রুপিও দাবি করেছেন তিনি। ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া’র খবরে এমনটিই বরা হয়েছে।

আরও পড়ুন


চট্টগ্রামে একদিনে রেকর্ড শনাক্ত, মৃত্যু ৯

‘নাগার্নো-কারাবাখ অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠায় কাজ করবে ইরান’

একরাতেই চীন থেকে এলো সিনোফার্মের ৩০ লাখ টিকা

হেলেনাকন্যা জেসি জানালেন মদ রাখার লাইসেন্স ছিল


মুম্বাই পুলিশ জানিয়েছে, পর্নগ্রাফি মামলায় অভিযুক্ত রাজ কুন্দ্রার স্ত্রী তথা বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠিকে ক্লিনচিট দেওয়া হয়নি। এই মামলার সঙ্গে যুক্ত সবরকম সম্ভাবনা খতিয়ে দেখছে মুম্বাই পুলিশের অপরাধ দমন শাখা, মুম্বাই পুলিশের এক উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা এ তথ্য জানিয়েছেন। পাশাপাশি বলেন, রাজ কুন্দ্রার আর্থিক লেনদেন খতিয়ে দেখবার জন্য ফরেনসিক অডিটর নিয়োগ করছে মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চ। অভিযুক্তের সমস্ত ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ট্রানস্যাকশন পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে খতিয়ে দেখবেন সেই অডিটর। এই মুহূর্তে মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চের প্রপার্টি সেলের হাতে রয়েছে এই মামলার তদন্তভার।

বৃহস্পতিবার মুম্বাই হাইকোর্টে দ্বিতীয় দফায় শুনানি হয় রাজ কুন্দ্রার জামিনের আর্জির, এদিন সওয়াল-জবাব শেষ হয়নি। শনিবার ফের এই মামলার শুনানি হবে।

অন্যদিকে গত মঙ্গলবার রাজ কুন্দ্রাকে ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠিয়েছে মুম্বাইয়ের ম্যাজিস্ট্রেট আদালত।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

চার মাস ধরে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন নায়ক ফারুক

অনলাইন ডেস্ক

চার মাস ধরে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন নায়ক ফারুক

অনেক দিন ধরেই অসুস্থ বাংলা চলচ্চিত্রের মিয়া ভাই খ্যাত কিংবদন্তি অভিনেতা ও ঢাকা-১৭ আসনের সংসদ সদস্য আকবর হোসেন পাঠান ফারুক। দীর্ঘ ৪ মাস ধরে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।

এই অভিনেতার কিডনি ও মস্তিষ্কজনিত জটিলতা ছাড়াও তার রক্তে ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ ধরা পড়ায় হাসপাতালে থেকে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে তাকে। মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালেই গত চার মাস ধরে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে ভর্তি (আইসিইউ) রয়েছেন ফারুক।

জানা গেছে, এই সাংসদের শারীরিক বর্তমান অবস্থা আগের চেয়ে কিছুটা ভালো। এ ব্যাপারে ফারুকের স্ত্রী ফারহানা পাঠান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘অবস্থা এখন কিছুটা ভালো, তবে এখনো আইসিইউতে রাখা হয়েছেন। ফারুকের চিকিৎসা প্রক্রিয়াটি বেশ দীর্ঘ। তাই ধীরে ধীরেই তিনি সুস্থতার দিকে এগোচ্ছেন।’ স্বামীর সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন স্ত্রী ফারহানা।

আরও পড়ুন


বগুড়ার শেরপুর ও ধুনটে ৬০০ পরিবারের মাঝে বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ বিতরণ

১৯ বছর বয়সী পোশাক শ্রমিককে ৬ জন মিলে গণধর্ষণ

অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার, স্বামী আটক

গুলি করে ফিলিস্তিনি শিশুর বুক ঝাঁজরা করে দিল ইসরাইলি বাহিনী


উল্লেখ্য, গত ৪ মার্চ থেকে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা চলছে বর্ষীয়ান এই অভিনেতার। তিনি নিয়মিত চেকআপের জন্য সিঙ্গাপুর গিয়েছিলেন। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। প্রথমে তার রক্তে সংক্রমণ ধরা পড়ে। এরপর পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর মস্তিষ্কেও সংক্রমণ পাওয়া যায়। পরে গত ২১ মার্চ থেকে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রয়েছেন ফারুক। 

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

বিশেষ শিশুদের পরিবারের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন নিশো

অনলাইন ডেস্ক

বিশেষ শিশুদের পরিবারের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন নিশো

এ মুহুর্তে বেশ আলোচনায় নাটক ‘ঘটনা সত্য’। তবে নাটকটি নির্মাণের জন্য আলোচনায় আসেনি। এসেছে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের নিয়ে করা আপত্তিকর এক বার্তার কারণে। নাটকটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন আফরান নিশো ও মেহজাবীন চৌধুরী।

অনেক আলোচনা সমালোচনার পর বিশেষ শিশুদের প্রতিটি পরিবারের কাছে দুঃখপ্রকাশ করেছেন অভিনেতা আফরান নিশো। বললেন, আমি দুঃখিত, লজ্জিত, বিব্রত— এবং অনুতপ্ত।

আফরান নিশো বিজের ফেসবুকে লিখেছেন, আমি আফরান নিশো। একজন অভিনয়শিল্পী। একজন বাবা। পৃথিবীর প্রতিটি বাবার মতো, আমিও আমার সন্তানের প্রতি সমান আবেগী। 'ঘটনা সত্য' নাটক নিয়ে যে অনাকাঙ্খিত এবং অনিচ্ছাকৃত ভুল সংগঠিত হয়েছে— এতে যেসব বাবা-মায়ের হৃদয় কেঁদেছে, আমিও তাদের কান্না অনুভব করতে পেরেছি। তাই সবার দুঃখে আমিও সহমর্মী। প্রতিটি পরিবারের কাছে আমি দুঃখ প্রকাশ করছি।'

অভিনেতা বলেন, 'আমি যে মাধ্যমে কাজ করি, সেই মাধ্যমটির সঙ্গে সম্পৃক্ত প্রতিটি মানুষকে আমি একটি পরিবারের সদস্য মনে করি। প্রযোজক, পরিচালক কিংবা শিল্পী-কলাকুশলী— আমরা সবাই এই পরিবারের সদস্য। আমি আমার নাট্যপরিবারের কাছেও দুঃখ প্রকাশ করছি। এ ভুলে তাদেরকেও কষ্ট দিয়েছি। ঘটে যাওয়া ভুলের জন্য আমরা কেউই দায় এড়াতে পারি না। ভুল থেকে আমি,আমরা নতুন করে শিক্ষা নিয়েছি। একই সঙ্গে নিজের সামাজিক অবস্থান, সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতা নতুন করে উপলব্ধি করতে পারছি। আমি দুঃখিত, লজ্জিত, বিব্রত— এবং অনুতপ্ত। আশা করছি, ভবিষ্যতে সামাজিক যে কোনো বিষয়ে আমি, আমরা আরো অনেক বেশি সংবেদনশীল থাকবো।'

আলোচিত এই অভিনেতা বলেন, বিশেষ শিশুদের প্রতি আমার বিশ্বাস, ভালোবাসা বরাবরই ছিল। এক ভুলে তা শেষ হয়ে যেতে দিবো না। আমি প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, বিশেষ শিশুদের কল্যাণে সক্রিয়ভাবে কাজ করে যাবো। কারণ আজকের শিশুরা আগামী দিনের উজ্জ্বল ভবিষ্যত। আমাদের সম্পদ। আমার নাট্যপরিবারের প্রতিটি সংগঠন বিষয়টি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখেছেন। তাদের উদ্দেশ্যে সশ্রদ্ধ কৃতজ্ঞতা জানাই। আশা করছি, সবার সহযোগিতা নিয়ে আমি,আমরা সুন্দর এবং শুদ্ধ শিল্পচর্চার পথে এগিয়ে যাবো।

আরও পড়ুন:


আজ বিকেলে ঢাকায় আসছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল

ব্যবসায়িক চুক্তিভঙ্গের অভিযোগে রাজ-শিল্পাকে জরিমানা

নোয়াখালীতে একদিনে আরও ২২৮ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ১

নাটকে 'বাবা-মার পাপ কর্মের ফল শিশু' এমন সংলাপ ব্যবহারের কারণে দেশের দর্শকদের তোপের মুখে পড়েন মেহজাবীন চৌধুরী ও আফরান নিশো। একই সাথে নাটকটির পরিচালক রুবেল হাসান, প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সিএমভি ও চিত্রনাট্য নির্মাতা মাইনুল সানুও তোপের মুখে পড়েন।  

এছাড়া, তাদের এই বিশাল অজ্ঞতা নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন নেটিজেনরা।

news24bd.tv রিমু 

পরবর্তী খবর