কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে ৩ জনকে গুলি করে হত্যা, সৌমেন আসামি করে মামলা

অনলাইন ডেস্ক

কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে ৩ জনকে গুলি করে হত্যা, সৌমেন আসামি করে মামলা

প্রকাশ্যে ৩ জনকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় এএসআই সৌমেন রায়কে একমাত্র আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। কুষ্টিয়ায় রোববার (১৩ জুন) রাতে এ হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহত শাকিল খানের বাবা মেজবার রহমান।

কুষ্টিয়া শহরের পিটিআই সড়কের মুখে নিহতরা হলেন, বরখাস্ত এএসআই সৌমেনের সাবেক স্ত্রী আসমা (২৫), তাদের ছেলে রবিন (৫) এবং শাকিল খান (২৮)।

মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাব্বিরুল আলম বলেন, ট্রিপল মার্ডারের ঘটনায় খুলনা রেঞ্জ থেকে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। জেলা পুলিশের পক্ষ থেকেও ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ৩ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার খায়রুল আলম জানান, হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সৌমেন রায়কে আটক করা হয়েছে। তদন্ত শেষে সৌমেনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সৌমেনকে ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও ম্যাগাজিনসহ আটক করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


সে রাতে উত্তরা বোট ক্লাবে পরীমনির সঙ্গে কী ঘটেছিল!

ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা সম্পর্কে যা জানালেন পরীমণি

নেইমার জাদুতে কোপায় উদ্বোধনী ম্যাচে ব্রাজিলের জয়

চতুর্থ বিয়ের মধুচন্দ্রিমায় পাহাড়ে যেতে চান শ্রাবন্তী?


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

শৈলকুপায় আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ: নিহত ১

শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ

শৈলকুপায় আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ: নিহত ১

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সামাজিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে রাশেদুল ইসলাম উকিল মৃধা (৪৫) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এসময় উভয় পক্ষের পাঁচজন আহত হয়েছে।

আজ রোববার রাত ৯টার দিকে উপজেলার মনোহরপুর ইউনিয়নের দামুকদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত উকিল মৃধা ওই গ্রামের আবুল হোসেন মৃধার ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, ইদের পর দিন থেকে সামাজিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দামুকদিয়া সহ আশপাশের কয়েক গ্রামে বিরোধ ও সহিংসতা চলে আসছিল। এক পক্ষে ৯নং মনোহরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আরিফ রেজা মন্নু সমর্থিত ও অপর পক্ষে বকুল মোল্লা
সমর্থিত গ্রামবাসী রয়েছে। আজ সন্ধ্যায় থানায় দামুকদিয়া গ্রামের বিবাদমান এ ‍দুপক্ষের ভেতরে একটি সমঝোতা বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে বাড়ি ফেরার পথে মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত ও হামলার শিকার হয় মন্নু সমর্থিত রাশিদুল ইসলাম উকিল সহ কয়েকজন। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় কৃষক রাশিদুল ইসলাম উকিল। তাকে হাসপাতালে আনা হলে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করে।

শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম জানিয়েছেন আধিপত্য বিস্তার ও সামাজিক বিরোধ নিয়ে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটতে পারে। নিহতের খবর ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে দামুকদিয়া গ্রাম সহ আশপাশের কয়েকটি গ্রামে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করে রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


ডিএমপির ৯ পুলিশ কর্মকর্তার পদায়ন 

ফুলবাড়িয়ায় হাতকড়াসহ পালানো আসামি সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা পর গ্রেপ্তার

পিরোজপুরে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২

 news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে অবৈধ পারাপারকালে এক সপ্তাহে আটক ৩৭

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে অবৈধ পারাপারকালে এক সপ্তাহে আটক ৩৭

ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে অবৈধ পারাপার বৃদ্ধি পেয়েছে। যে কারণে জেলায় করোনা সংক্রমণ থামছে না।

এ ঘটনায় গেল এক সপ্তাহে দালালসহ ৩৭ জনকে আটক করেছে ৫৮ বিজিবি। এর মধ্যে ভারত থেকে আসার পথে আটক ১৮ জনকে বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

জানা গেছে, ৫৮ বিজিবি’র অধিনস্ত উপজেলার বিভিন্ন বিওপির টহল দল এ সব অবৈধ পারাপারকারীদেরকে আটক করে। এরমধ্যে বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাওয়ার সময় ১৯ জন এবং ভারত থেকে আসার পথে ১৮ জন রয়েছে। এছাড়াও পারাপারে সহায়তাকারী দালাল রয়েছে ২ জন।

আটককৃতদের মধ্যে রয়েছে নারী ১৩ জন, পুরুষ ২১ জন ও শিশু ৩ জন। ভারত থেকে আসার পথে আটককৃত ১৮ জনকে মহেশপুর মহিলা কলেজে বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

৫৮ বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্নেল কামরুল আহসান জানান, ভারত থেকে আসার পথে আটককৃত ব্যক্তিরা বিভিন্ন সময় ভারতে গিয়ে অবস্থান করছিল। সেখানকার অবস্থা খারাপ বুঝে তারা বাংলাদেশে ঢুকছে। অনেক সময় তাদের মেডিকেল চেকআপ করলে করোনা পজেটিভ পাওয়া যাচ্ছে। যে কারণে সবাই ঝুঁকির মধ্যে আছি। আটককৃতদের মহেশপুর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি সাইফুল ইসলাম জানান, তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে এবং তাদেরকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


ডিএমপির ৯ পুলিশ কর্মকর্তার পদায়ন 

ফুলবাড়িয়ায় হাতকড়াসহ পালানো আসামি সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা পর গ্রেপ্তার

পিরোজপুরে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২

 news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

লকডাউনে অ্যাম্বুলেন্সে ৫১ কেজি গাঁজা

অনলাইন ডেস্ক

লকডাউনে অ্যাম্বুলেন্সে ৫১ কেজি গাঁজা

মহামারী করোনাভাইরাস রোধে চলমান বিধিনিষেধে কুমিল্লায় অ্যাম্বুলেন্সে গাঁজা পাচারের সময় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

আজ রোববার বিকেলে র‍্যাব-১১ এর কোম্পানি অধিনায়ক মেজর তালুকদার নাজমুছ সাকিব জাগো গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেফতাররা হলেন- দিনাজপুর সদর উপজেলার বিশ্বনাথপুর গ্রামের মৃত আমিনুল ইসলামের ছেলে মো. সুমন (৩৫) ও একই জেলার বিরামপুর উপজেলার ভাগলপাড়া গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে মো. মুসফিকুর রহমান (৩২)।


আরও পড়ুন:

প্রতিবন্ধী শিশু পাপের ফল: এই বার্তার জন্যই সরিয়ে ফেলা হলো নিশো-মেহজাবীনের নাটক

অক্সিজেন এক্সপ্রেস নামে বিশেষ ট্রেন দেশে এসেছে

বাড়ছে ঢাকামুখী যাত্রীর চাপ

মানহানি মামলা লইয়া দেশে এক প্রকার নৈরাজ্য চলিতেছে


র‍্যাব-১১ এর কোম্পানি অধিনায়ক নাজমুছ সাকিব জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চট্টগ্রাম-ঢাকা মহাসড়কের কুমিল্লা সদর উপজেলার আমতলী এলাকায় রোববার আনুমানিক ভোর ৪টায় একটি বিশেষ অভিযান চালানো হয়। এ সময় একটি অ্যাম্বুলেন্স তল্লাশি করে ৫১ কেজি গাঁজাসহ দুজন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে কুমিল্লা কোতয়ালি মডেল থানায় দুপুরে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে।

news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর

মাদারীপুরে ফেস্টুন ছেড়া নিয়ে সংঘর্ষ, কাউন্সিলরসহ আহত ৭

বেলাল রিজভী, মাদারীপুর

মাদারীপুরে ফেস্টুন ছেড়া নিয়ে সংঘর্ষ, কাউন্সিলরসহ আহত ৭

মাদারীপুরের কালকিনিতে ফেস্টুন ছেড়া নিয়ে রোববার সকালে বর্তমান ও সাবেক কাউন্সিলরের সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে কালকিনি পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলরসহ ৭জন আহত

হয়েছে। আহতদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্নস্থানে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে ঘটনাস্থলে থানা-পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

এলাকা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, কালকিনি পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেন বেপারীর উদ্যোগে গত ১৮ জুলাই কোরবানির ঈদ উপলক্ষে স্থানীয় এমপি ড. আবদুস সোবহান
গোলাপকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা দিয়ে তার ওয়ার্ডের বিভিন্নস্থানে ফেস্টুন টানানো হয়। ওই ফেস্টুন ঈদের রাতেই দুর্বৃত্তরা ছিড়ে ফেলে।

এই ঘটনা নিয়ে কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন বেপারীর সমর্থক হৃদয় সরদারের সাথে একই এলাকার সাবেক কাউন্সিলর তোফাজ্জেল হোসেন দাদনের সমর্থক রুবেল সরদারের মধ্যে প্রথমে বাকবিতণ্ডা হয়। পরে রুবেল সরদারের নেতৃত্বে মাসুম সরদার, আবদুল সরদার ও বারেক সরদারসহ বেশ কয়েকজন মিলে হৃদয় সরদারের উপর হামলা চালায়। এক পর্যায় উভয় পক্ষই সংঘর্ষে জরিয়ে পরে। এ সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন বেপারী(৫০) গুরুতর আহত হন। এছাড়া বিল্লব বেপারী(২১), জাহাঙ্গির বেপারী(৫০) ও সাইফুল বেপারীসহ(২০) কমপক্ষে ৭জন আহত হন। আহতদেরকে কালকিনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে খবর পেয়ে কালকিনি থানা পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। আহত কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন বেপারী বলেন, আমি মারামারি থামাতে গেলে আমাকে রক্তাক্ত করা হয়েছে। হামলাকারী
রুবেল সরদারসহ সকল মিলে ফেস্টুন রাতের আধারে ছিড়ে ফেলেছে। তারা সকলে বিএনপি ও সাবেক কাউন্সিলর দাদনের সমর্থক। ৩-৪টি বসতবাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে তারা। এ বিষয় থানায় মামলা করার প্রস্তুতি নিয়েছি।

আমি এ ন্যাক্কারজনক হামলার বিচার চাই।

প্রতিপক্ষ সাবেক কাউন্সিলর তোফাজ্জেল হোসেন দাদন বলেন, যারা বর্তমান কাউন্সিলরের লোকজনের সাথে মারামারি করেছে তারা কেউ আমার লোক নয়।

বিষয়টি একান্তই তাদের বিষয়। পূর্ব থেকেই তাদের মধ্যে শত্রুতা চলে আসছে।

কালকিনি থানার ওসি ইসতিয়াক আসফাক রাসেল বলেন, আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছি। তবে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

কামারাঙ্গিরচরে মা-মেয়ের রহস্যজনক মৃত্যু

মৌ খন্দকার

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে মা ও মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় আরেক মেয়ে ও বাবাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশী হেফাজতে নেয়া হয়েছে। শনিবার ভোরে বাদশাহ মিয়া স্কুলের তুলাগাছ তলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মা-মেয়ের মৃত্যুর ঘটনায় আলামত সংগ্রহ করেছে সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিট।

শনিবার ভোর চারটার দিকে বড়মেয়ে ঝুমা রানী দাসের চিৎকার শুনে আশপাশ থেকে প্রতিবেশীরা ছুটে আসেন কালু চন্দ্র দাসের টিনশেডের ঘরে। ১১ বছর বয়সী ছোটবোন সুমি চন্দ্র দাস ও মা ফুলবাসি চন্দ্র দাসের অচেতন দেহ খাটে পড়ে থাকতে দেখা যায় তখন৷

প্রত্যক্ষদর্শী জানান, মা-মেয়ে দুজনের গলায় একইরকম দাগ।

আরও পড়ুনঃ


দ. কোরিয়ার কোন গালিও দেয়া চলবে না উত্তর কোরিয়ায়

তালেবানের হাত থেকে ২৪ জেলা পুনরুদ্ধারের দাবি

কাছাকাছি আসা ঠেকাতে টোকিও অলিম্পিকে বিশেষ ব্যবস্থা


 

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশী হেফাজতে নেয়া হয়েছে বাবা ও মেয়েকে।

ঘটনাস্থল থেকে মা ও মেয়ের মৃত্যুর ঘটনায় আলামত সংগ্রহ করেছে সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিট।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর