সহকর্মীকে আটকে রেখে নারী পোশাক শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর

সহকর্মীকে আটকে রেখে নারী পোশাক শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে সহকর্মীকে আটকে রেখে এক নারী পোশাক শ্রমিককে সংঘবদ্ধ দুইজন যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এঘটনায় ওই নারী বাদী হয়ে তিন যুবককের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করলে রোববার উপজেলার রতনপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার হলো, উপজেলার রতনপুর গ্রামের বাবুল হোসেনের ছেলে নাইম হোসেন (২৬) ও একই গ্রামের জুইনুদ্দিনের ছেলে আনোয়ার হোসেন(২৫)।

আরও পড়ুন:


ঢাকা বোট ক্লাবের সদস্য হতে লাগে ১৮ লাখ টাকা

নাসিরের বাসায় উঠতি বয়সী তরুণীদের দিয়ে চলত অনৈতিক কার্যকলাপ

মাত্র ৫ হাজার টাকা পেয়েই হত্যার মিশনে নামে খুনিরা

ময়মনসিংহে বাসচাপায় নিহত ২


পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ৯জুন বিকেলে তার এক সহকর্মীকে নিয়ে রতনপুর রেল স্টেশন এলাকায় বেড়াতে যায়। সেখান থেকে অভিযুক্তরা সহকর্মীসহ ওই নারী শ্রমিককে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গজারি বনের ভেতর নিয়ে যায়। পরে তাকে একটি বাড়িতে নিয়ে সহকর্মীকে আটককে রেখে ওই নারী শ্রমিককে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

বিষয়টি ওই নারীর পরিবারকে জানালে লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন।

কালিয়াকৈর থানায় ওই নারী শ্রমিক মামলা দায়ের করলে রোববার পুলিশ অভিযুক্ত দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

মামলার তদন্তকারী কালিয়াকৈর থানার উপ-পরিদর্শক মাহবুব রহমান জানান, ওই নারী শ্রমিকের মামলার জের ধরে দুই যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। অপর অভিযুক্ত নাহিদকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। নারীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

কাদের মির্জার অনুসারীদের গুলিতে ছাত্রলীগ কর্মী গুলিবিদ্ধ

নোয়াখালী প্রতিনিধি :

কাদের মির্জার অনুসারীদের গুলিতে ছাত্রলীগ কর্মী গুলিবিদ্ধ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে আ.লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে চলমান দ্বদ্ধের জের ধরে কাদের মির্জার অনুসারীদের গুলিতে ছাত্রলীগের সদস্য করিম উদ্দিন শাকিল (২৪) গুলিবিদ্ধ হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শাকিল বসুরহাট পৌরসভা ছাত্রলীগের সদস্য বলে জানা গেছে। সে বসুরহাট পৌরসভা ৯নম্বর ওয়ার্ডের মোস্তফা ড্রাইবারের নতুন বাড়ির মো. সেলিমের ছেলে। 

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বসুরহাট পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মিস্ত্রী বাড়িতে ঘটনা এ ঘটে। 

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ.লীগের মুখপাত্র মাহবুবুর রশিদ মঞ্জু অভিযোগ করেন, গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বসুরহাট পৌরসভার থেকে ফেসবুক লাইভে এসে আমাকে ও আমার খালাতো ভাই রাহাতকে এবং ছাত্রলীগ কর্মি শাকিলকে হত্যার হুমকি দেয় কাদের মির্জার অনুসারী কেচ্ছা রাসেল। হুমিকর দুই দিন পর কেচ্ছা রাসেলের নেতৃত্বে কাদের মির্জার ৩-৩৫জন অনুসারী বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টার দিকে বসুরহাট পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মিস্ত্রী বাড়িতে শাকিলকের ওপর হামলা চালায়। এ সময় কেচ্ছা রাসেল, শাকিলকে লক্ষ করে গুলি ছুঁড়লে সে দুই পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়। এ বিষয়ে জানতে কাদের মির্জার ঘোষিত উপজেলা আ.লীগের সভাপতি ইস্কান্দার হায়দার চৌধুরী বাবুলের ফোনে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

আরও পড়ুন:


পরীমনি কাণ্ডে থমথমে ‘সুনসান এফডিসি’

প্রজ্ঞাপন জারি, রোববার ব্যাংক বন্ধ


 

কোম্পানীগঞ্জ উপজেরা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম জানান, শাকিলের দুই পায়ে গুলির স্প্রিন্টারের আঘাত ছিল। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.সাইফুদ্দিন আনোয়ার জানান, একজন গুলিবিদ্ধ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কিশোরীকে ধর্ষণ!

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কিশোরীকে ধর্ষণ!

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার বাঁশগাড়ি ইউপির দিঘলিয়াকান্দি গ্রামের প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (৪ আগস্ট) দুপুরে ওই কিশোরীর মা ২ জনকে আসামি করে রায়পুরা থানায় একটি মামলা করেন।

অভিযুক্তরা হলেন, রায়পুরা উপজেলার বাঁশগাড়ি ইউপির দিঘলিয়াকান্দি গ্রামের হযরত আলীর ছেলে সালামত উল্লাহ ওরফে সামছুল এবং জলিল মিয়ার ছেলে সাগর মিয়া।

কিশোরীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, প্রেম প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে ২ জন মিলে ধর্ষণ করেছে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, সাগর মিয়া দীর্ঘদিন ধরে ওই কিশোরীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। আর তার প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় কিশোরীর উপর ক্ষুব্ধ হয় সাগর। গত শনিবার রাতে ওই কিশোরীর বাড়িতে ওত পেতে থাকে সাগর ও সামছুল নামে এই দুই যুবক। পরে ঘরের বাইরে বের হলে ওই কিশোরীর টেনে প্রায় ২০০ গজ দূরে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় কিশোরীর চিৎকারে পরিবারের সদস্যরা ঘর থেকে বের হয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়।

রায়পুরা থানার এসআই দেব দুলাল দে জানান, ধর্ষণ মামলা হওয়ার পর ওই ভুক্তভোগীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এরই মধ্যে মামলার প্রধান আসামি সালামত উল্লাহ ওরফে সামছুলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন:


পাবনায় মেডিকেল ছাত্রীকে খালি সিরিঞ্জ পুশের অভিযোগ

হলি আর্টিজানের ঘটনায় সিনেমা, জাহান কাপুরের অভিষেক

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতেও অস্ট্রেলিয়াকে হারালো টাইগাররা

রাজের বাসায় বিকৃত যৌনাচারের সরঞ্জামাদি,চলত পর্নোগ্রাফি (ভিডিও)


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

টেকনাফে র‌্যাব সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা যুবক নিহত

অনলাইন ডেস্ক

টেকনাফে র‌্যাব সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা যুবক নিহত

টেকনাফে র‌্যাব সঙ্গে কথিত 'বন্দুকযুদ্ধে' এক রোহিঙ্গা যুবক নিহত হয়েছেন। নিহত মো. নুরু মিয়া (৪০) জাদিমুড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ২৭ নং সি ব্লকের মৃত আবুল বাশারের ছেলে। 

টেকনাফ র‌্যাব ১৫ সিপিসি-১ মিডিয়া কর্মকর্তা এএসপি বিমান চন্দ কর্মকার জানান, বুধবার দিনগত রাতে ২৭ নং রোহিঙ্গা শিবিরে পাহাড়ের পাদদেশে ডাকাত দলের মধ্যে গোলাগুলি হচ্ছে- খবর পেয়ে অভিযানে যায় র‌্যাব। 

এ সময় ডাকাত দল র‌্যাবের উপস্থিত টের পেয়ে এলোপাতাড়ি  গুলি বর্ষণ করে। এতে র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হন। পরে র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। 

তিনি জানান, ডাকাত দল পিছু হটলে ঘটনাস্থলে গিয়ে একটি বিদেশি পিস্তল, দুই রাউন্ড গুলিভর্তি ম্যাগজিনসহ তিনটি ওয়ান শুটার গান, দুটি তাজা কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। সেখান থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এক যুবকেকে উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

টেকনাফ মডেল থানার ওসি মো. হাফিজুর রহমান জানান, নুরের বিরুদ্ধে টেকনাফ থানায় একাধিক ডাকাতির মামল রয়েছে।

আরও পড়ুন:


হলি আর্টিজানের ঘটনায় সিনেমা, জাহান কাপুরের অভিষেক

কাকরাইলে গ্যারেজের আগুন নিয়ন্ত্রণে

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতেও অস্ট্রেলিয়াকে হারালো টাইগাররা

রাজের বাসায় বিকৃত যৌনাচারের সরঞ্জামাদি,চলত পর্নোগ্রাফি (ভিডিও)


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

অস্ত্র ও মাদকসহ পিয়াসার দুই সহযোগী মিশু হাসান ও জিসান গ্রেপ্তার

প্লাবন রহমান

মডেল পিয়াসার অন্যতম সহযোগী মিশু হাসানকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। রাজধানীর ভাটারা থানা এলাকা থেকে অস্ত্র ও মাদকসহ মিশু ও তার এক সহযোগীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব জানায়- রাজধানীর বিভিন্ন অভিজাত এলাকায় ডিজে পার্টির নামে মাদক বিক্রি ও সরবরাহ করতেন বিতর্কিত মডেল পিয়াসার সহযোগী মিশু হাসান। একইসঙ্গে-পার্টিতে থাকা ব্যক্তিদের কাছ থেকে টাকা-পয়সা হাতিয়ে নিতেনে। সব মিলিয়ে কয়েক বছরে বনে গেছেন কোটি কোটি টাকার মালিক। 

মডেল পিয়াসার অন্যতম সহযোগী ছিলেন মিশু হাসান। যিনি মাদক বিক্রি ও সরবরাহের মূল কারিগর। বিভিন্ন ডিজে পার্টির নামে মাদক বিক্রি করতেন মিশু। পার্টিতে থাকা ব্যাক্তিদের ফাঁদে ফেলে হাতিয়ে নিতেন টাকা-পয়সা। 

মাদকসহ অবৈধভাবে উপার্জিত কোটি কোটি টাকা দিয়ে বিদেশ থেকে দামি গাড়ী আনতেন মিশু। বিকেলে রাজধানীর ভাটারা থানা এলাকা থেকে অস্ত্র ও মাদকসহ মিশু হাসান ও তার সহযোগী জিসানকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। পরে বুধবার বিকেলে ‌র‌্যাব সদর দপ্তরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হয়।

গ্রেফতারকৃত মিশু গাড়ি আমদানির ক্ষেত্রে ট্যাক্স ফাঁকি দিতেন বলে জানানো হয় ব্রিফিং এ। বলেন - জিসান ও মিশুর প্রায় ৫০টির বেশি ক্লায়েন্ট রয়েছে। এছাড়াও দুবাইসহ বিদেশে তাদের ক্লায়েন্ট রয়েছে বলেও জানান র‌্যাবের মিডিয়া উইং এর পরিচালক খন্দকার আল মঈন।

আরও পড়ুন

আর্থিক সংকট মেটাতে বাড়ি ভাড়া দিচ্ছে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী

চিত্রনায়িকা পরীমণি আটক হচ্ছেন!

পরীমণির বাসায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের হামলার দাবি, আতঙ্কে নায়িকা


 

গ্রেফতার করার সময় একটি অস্ত্র, ছয় রাউন্ড গুলি, ১৩ হাজার ইয়াবা, একটি দামি গাড়ী, চেকবই এটিএম কার্ড ও ভারতীয় জাল মুদ্রা উদ্ধার করে র‌্যাব। গ্রেফতার হওযা মডেল পিয়াসা ও মৌয়ের সঙ্গে গ্রেফতার জিসান ও মিশুর সখ্য রয়েছে বলেও জানান এই র‌্যাব কর্মকর্তা।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

স্বামীর সহায়তায় হাত-মুখ ওড়না দিয়ে বেঁধে গৃহবধূকে গণধর্ষণ

আকবর হোসেন সোহাগ, নোয়াখালী

স্বামীর সহায়তায় হাত-মুখ ওড়না দিয়ে বেঁধে গৃহবধূকে গণধর্ষণ

নোয়াখালীর হাতিয়াতে স্বামীর সহায়তায় এক গৃহবধূকে (২৫) গণধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

তারা হলো, নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নের জেলে কলোনীর আক্তার (২৭) একই ইউনিয়নের বান্দাখালী গ্রামের হক সাব (৩৪), মদিনা গ্রামের সোহেল প্রকাশ রোহিঙ্গা সোহেল (৩০), জেলে কলোনীর ছেলে রাশেদ মাঝি (৪২)।

বুধবার (৪ আগস্ট) সন্ধ্যা ৭টায় এসব তথ্য নিশ্চিত করেন হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় নির্যাতিতা গৃহবধূ নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় আগামীকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে আটক আসামিদের গ্রেফতার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে। 

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়ন থেকে তাদের আটক করে নিঝুমদ্বীপ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ।

মামলা ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, নির্যাতিতা গৃহবধূ চট্টগ্রামের একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীতে কাজ করে। মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ১৬ মাস বয়সী শিশু কন্যাসহ তার স্বামী সোহেল ওরফে রোহিঙ্গা সোহেলের এর কাছে যাওয়ার জন্য তিনি হাতিয়ার নিঝুমদ্বীপ ঘাটে পৌঁছান। সেখানে তার স্বামী সোহেলসহ সঙ্গীয় ৭ জন এবং অজ্ঞাত ৩ জন ভিকটিমের হাত ও মুখ ওড়না দিয়ে বেঁধে নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের বান্দাখালী গ্রামের মোক্তারিয়া ঘাট থেকে ৫ কিলোমিটার পূর্ব দিকে নদীর পাড়ে নিয়ে যায়। সেখানে তার স্বামী আসামি সোহেলের সহায়তায় অন্যরা ভিকটিমকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

আরও পড়ুন:

যতক্ষণ না পুলিশ আসবে, মিডিয়া আসবে লাইভ চলবে: পরীমনি

আবারও মুখোমুখি ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা

একসঙ্গে দুই ছেলে ও দুই মেয়ের জন্ম

দরজা খুলল পরীমনি

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর