সেই কিশোরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে সৌদি সরকার

অনলাইন ডেস্ক

সেই কিশোরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে সৌদি সরকার

ছয় বছর আগে রাজতন্ত্রবিরোধী আন্দোলনের দায়ে সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় কাতিফ শহরে আটক এক কিশোরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে দেশটির সরকার। এই কিশোরের বিরুদ্ধে উসকানি সৃষ্টি এবং শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে অংশ নেয়ার অভিযোগ এনেছিল রিয়াদ।

এছাড়া, তার বিরুদ্ধে আরো ভিত্তিহীন নানা অভিযোগ এনেছিল সৌদি সরকার। কাতিফ হচ্ছে সৌদি আরবের শিয়া মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ একটি অঞ্চল।

গতকাল মঙ্গলবার সৌদি আরবের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই কিশোরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার ব্যাপারে একটি বিবৃতি দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, মুস্তাফা বিন হাশেম বিন ঈসা আল-দারভিশ নামে এই কিশোরের মৃত্যুদণ্ডের শাস্তি কার্যকর করা হয়েছে। সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় দাম্মাম প্রদেশে তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।

আরও পড়ুন


এখনও খোঁজ মেলেনি আবু ত্ব-হা আদনানের, যা বলছে পুলিশ

দেশের নদীবন্দরে সতর্কতা

সংসদে এমপি চুন্নু বললেন, নাসির ‘ভালো লোক’

বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সর্বশেষ তথ্য


সৌদি সরকার অভিযোগ করেছিল যে, মুস্তাফা দেশটির সরকারের বিরুদ্ধে অস্ত্র হাতে তুলে নিয়েছিল, জাতীয় নিরাপত্তা হুমকির মুখে ফেলেছিল, সৌদি নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের হত্যার জন্য একটি সন্ত্রাসী চক্র গড়ে তুলেছিল এবং উসকানি দিয়ে দাঙ্গা-হাঙ্গামা সৃষ্টির চেষ্টা করেছে। সৌদি সরকারের এ সমস্ত অভিযোগ মানবাধিকার সংগঠনগুলো প্রত্যাখ্যান করে কিশোর মোস্তফার বিরুদ্ধে দেয়া মৃত্যুদণ্ডের আদেশ প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছিল। কিন্তু সৌদি সরকার এসব আহ্বানকে উপেক্ষা করে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে।

২০১৫ সালে কাতিফ শহর থেকে মুস্তাফাকে আটক করা হয়। তখন তার বয়স ছিল ১৭ বছর। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

আফগানিস্তানে তুমুল লড়াইয়ে ৪০ বেসামরিক নিহত

অনলাইন ডেস্ক

আফগানিস্তানে তুমুল লড়াইয়ে ৪০ বেসামরিক নিহত

আফগানিস্তানের অবরুদ্ধ শহরে তালেবান বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে বড় ধরনের অভিযানের প্রস্তুতি শুরু করেছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় হেলমান্দ প্রদেশের রাজধানী লস্কর গাহতে তীব্র লড়াই চলছে। জাতিসংঘ বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় লস্কর গাহতে কমপক্ষে ৪০ বেসামরিক নিহত হয়েছেন।

আফগান সেনাবাহিনীর ২১৫ মাইওয়ান্দের কমান্ডার জেনারেল সামি সাদাত ওই এলাকার বাসিন্দাদের যত দ্রুত সম্ভব বাড়ি-ঘর ছাড়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

২ লাখ মানুষের এই শহরের বাসিন্দাদের উদ্দেশে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় তিনি বলেছেন, দয়া করে যত দ্রুত সম্ভব বাড়ি-ঘর ছাড়ুন, যাতে আমরা অভিযান শুরু করতে পারি।

জেনারেল সামি সাদাত বলেছেন, আমি জানি নিজেদের বাড়ি-ঘর ছাড়া আপনাদের জন্য অত্যন্ত কষ্টকর। এটা আমাদের জন্যও কঠিন। আপনি যদি কয়েকদিনের জন্য বাস্ত্যুচুত হন, তাহলে দয়া করে আমাদের ক্ষমা করুন। তালেবানরা যেখানেই থাকুক না কেন, আমরা তাদের বিরুদ্ধে লড়াই করবো। আমরা তাদের বিরুদ্ধে লড়বো। আমরা তালেবানের একজন যোদ্ধাকেও জীবিত রাখবো না।

আরও পড়ুন:


১১ তারিখ থেকে যানবাহন চলবে যে নিয়মে

৭, ৮, ৯ আগস্ট ভ্যাকসিন নেওয়ার সুযোগ দিচ্ছি: মোজাম্মেল হক

১১ আগস্টের পর ভ্যাকসিন ছাড়া ঘোরাফেরা করলে শাস্তি


news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

অনলাইন গেমসকে ‘মাদকের’ সঙ্গে তুলনা

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন গেমসকে ‘মাদকের’ সঙ্গে তুলনা

চীনের রাষ্ট্রীয় একটি গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে অনলাইন গেমসের প্রতি আসক্তিকে ‘ইলেকট্রনিক মাদকের’ সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে । সেখানে গেমস নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর আরও নিয়ন্ত্রণ আনার কথা বলা হয়েছে।

খবরে বলা হয়, কয়েক মাস ধরেই চীনের প্রযুক্তি এবং শিক্ষাসংশ্লিষ্ট বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিতে নানা ব্যবস্থা নিয়েছে দেশটির সরকার। বিনিয়োগকারীরাও চীন সরকারের এসব নীতির কারণে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। সরকারের এমন পদক্ষেপে সম্প্রতি বেশ ক্ষতির মুখে পড়েছে দেশটির বৃহৎ দুটি গেম নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। 

চীনে রাষ্ট্রীয় দৈনিক ইকোনমিক ইনফরমেশন ডেইলির খবরে বলা হয়, কোনো প্রতিষ্ঠান বা খেলা এমনভাবে গড়ে তোলা উচিত না, যার ফলে একটি প্রজন্ম ধ্বংস হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। পত্রিকাটির প্রতিবেদনটিতে আরও বলা হয়, চীনের অনেক কিশোর-কিশোরী অনলাইন গেমসে আসক্ত হয়ে পড়েছে। এতে তাদের ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। ‘অনর অব কিলিং’ নামের একটি গেমস শিক্ষার্থীরা দিনে আট ঘণ্টা পর্যন্ত খেলছে বলে দেখা গেছে।

‘অনর অব কিলিং’ গেমসটি অনলাইনে বেশ জনপ্রিয়। এই গেমসটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেনসেন্ট। এ ছাড়া চীনের অনলাইন মিউজিক স্ট্রিমিংয়ে একচেটিয়া ব্যবসা করছিল টেনসেন্ট। দেশটিতে ৮০ শতাংশের বেশি মিউজিক স্ট্রিমিংয়ের স্বত্ব রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির। এই প্রতিষ্ঠানের ওপর চড়াও হয়েছে চীন সরকার। এ অংশ হিসেবে বিশ্বের বিভিন্ন রেকর্ডিং কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করার যে সুযোগ দেওয়া হয়েছিল, সেই মিউজিক নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর

ইরানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পেলেন রাইসি

অনলাইন ডেস্ক

ইরানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পেলেন রাইসি

ইব্রাহিম রাইসি ইরানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালনের জন্য আনুষ্ঠানিক অনুমোদন পেলেন। দেশটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি তাকে এই অনুমোদন দিয়েছেন।

এর মাধ্যমে আগামী ৪ বছরের জন্য প্রেসিডেন্ট হিসেবে কাজ করার আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব পেলেন দেশটির সাবেক এই প্রধান বিচারপতি। আগামী বৃহস্পতিবার ইরানের জাতীয় সংসদে প্রেসিডেন্ট রাইসি আনুষ্ঠানিকভাবে শপথ নেবেন। ওই অনুষ্ঠানে বিশ্বের ৭৩টি দেশ থেকে অতিথি উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে।


আরও পড়ুন

হাসপাতাল করার আর জায়গা নেই, এখন হোটেল খুঁজছি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ডিএনসিসি এলাকায় এডিস মশা বিস্তার রোধকল্পে ২ লক্ষ ৮০ হাজার টাকার বেশি জরিমানা

বাড়ছে রোগীর চাপ : চালু হচ্ছে আরও দুই করোনা ইউনিট

১১ তারিখ থেকে যানবাহন চলবে যে নিয়মে


আনুষ্ঠানিক অনুমোদন অনুষ্ঠানের পর সংবাদ সম্মেলনে রাইসি বলেন, ইরানের ওপর আরোপিত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ‘অত্যাচারী’ নিষেধাজ্ঞা সরাতে আমরা পদক্ষেপ নেব।

সূত্র: আরব নিউজ

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর

আনুষ্ঠানিকভাবে বিল-মেলিন্ডার বিচ্ছেদ সম্পন্ন, সম্পত্তি ভাগের নির্দেশ

অনলাইন ডেস্ক

আনুষ্ঠানিকভাবে বিল-মেলিন্ডার বিচ্ছেদ সম্পন্ন, সম্পত্তি ভাগের নির্দেশ

দীর্ঘ ২৭ বছরের সংসার জীবনের পর এবার আনুষ্ঠানিকভাবে বিচ্ছেদ সম্পন্ন হলো বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটসের। এর আগে চলতি বছরের ৩ মে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন তারা।

স্থানীয় সময় সোমবার ওয়াশিংটনের কিং কাউন্টি সুপিরিওর কোর্টের এক আইনজীবী তাদের ডিভোর্স পেপারে স্বাক্ষর করেন। বিচ্ছেদের চুক্তি অনুযায়ী তাদের নিজেদের সম্পত্তি ভাগ করার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। তবে বিচ্ছেদ হলেও দুজনের কেউই নিজেদের নাম পরিবর্তনের জন্য আবেদন করেননি।

এর আগে বিচ্ছেদের ঘোষণা দিতে গিয়ে বিল-মেলিন্ডা বলেন, আমরা যুগল হিসেবে আর পথ চলতে পারবো বলে আমাদের মনে হয় না। নিজেদের সম্পর্কের ওপর অনেক নিরীক্ষা ও চিন্তাভাবনার পর আমরা আমাদের সংসারের ইতি টানার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

বিল ও মেলিন্ডা দাতব্য সংস্থা ‘বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন’ এর যৌথ পরিচালক। এই ফাউন্ডেশন থেকে শিশুদের সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ ও টিকার আওতায় আনতে কোটি কোটি ডলার খরচ করেছে। বিশ্বখ্যাত ফোর্বস ম্যাগাজিনের বিবৃতি অনুযায়ী, বিল গেটস বর্তমানে বিশ্বের চতুর্থ সম্পদশালী ব্যক্তি।

আরও পড়ুন

সুন্দরী ২০-২৫ জন রমণীকে নিয়ে জমজমাট আসর বসাতো পিয়াসা

ভয়াবহ দাবানল থেকে বাঁচাতে সমুদ্র সৈকতে নেয়া হচ্ছে গবাদিপশুদের

ফ্লোরিডায় অদ্ভুতদর্শন ‘সেসিলিয়ান’-এর খোঁজ

১৬ই আগস্ট ভারতে ‘খেলা হবে’ দিবস


প্রসঙ্গত, মাইক্রোসফট কোম্পানিতে কাজের সূত্র ধরেই এর প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের সাথে পরিচয় হয় মেলিন্ডার। সেখান থেকেই ১৯৯৪ সালে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তারা। তাদের ২৭ বছরের সংসার জীবনে তিনজন সন্তান রয়েছে। গত ৩ মে তারা একই সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিবৃতি দিয়ে বিবাহবিচ্ছেদের ঘোষণা দেন।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

ভয়াবহ দাবানল থেকে বাঁচাতে সমুদ্র সৈকতে নেয়া হচ্ছে গবাদিপশুদের

অনলাইন ডেস্ক

ভয়াবহ দাবানল থেকে বাঁচাতে সমুদ্র সৈকতে নেয়া হচ্ছে গবাদিপশুদের

তুরস্কে ভয়াবহ দাবানল কিছুতেই থামছে না। প্রতিদিনই দাবানলের ভয়াবহতা বেড়েই চলেছে। দেশটিতে দাবানল বেড়ে যাওয়ায় দক্ষিণ উপকূলীয় এলাকার কৃষকরা তাদের গবাদি পশুগুলোকে রক্ষার জন্য সমুদ্র উপকূলে নিয়ে গেছেন। সাধারণত এই সমুদ্র সৈকতে পর্যটকরা ভিড় করেন।

উপকূলীয় মার্মারিস শহরে দমকলকর্মীরা দাবানল নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য লড়াই করছেন। এরইমধ্যে ইরান, আজারবাইজান, রাশিয়া এবং ইউক্রেন দাবানল নেভাতে সাহায্য করার জন্য দমকলকর্মী পাঠিয়েছে। এছাড়া, ইউরোপীয় ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আগুন নেভানোর জন্য দমকল বাহিনী পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন


‘ইসরাইলি জাহাজে হামলা: পরমাণু সমঝোতায় প্রভাব ফেলবে না’

টি স্পোর্টসে আজকের খেলা

ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনা ইউনিটে একদিনে ১৭ জনের মৃত্যু

রামেকে করোনা ওয়ার্ডে ১৯ জনের মৃত্যু


তুর্কি এবং বিদেশি দমকলকর্মীরা এক সপ্তাহ ধরে দাবানল নেভানোর চেষ্টা করছেন। কিন্তু গ্রীষ্মের ভয়াবহ উষ্ণতা দাবানল নেভানোর কাজে অনেকটা বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

দাবানলে এ পর্যন্ত আটজন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে সাতজন মানাবগাত এলাকায় এবং আরেকজন মার্মারিস শহরে মারা গেছেন। দাবানলের ঘটনায় তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান চাপের মুখে পড়েছেন। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর