ইরানে চলছে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ

অনলাইন ডেস্ক

ইরানে চলছে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ

করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ইরানের ১৩তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে। শুক্রবার সকাল ৭ টায় ৭৩ হাজার ৫০০ ভোটকেন্দ্রে একযোগে ভোটগ্রহণ শুরু হয়, চলবে বিকাল ৬টা পর্যন্ত। তবে নির্ধারিত সময়ে ভোটগ্রহণ শেষ করা না গেলে সময় বাড়ানো হবে।

আজ প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পাশাপাশি সিটি কাউন্সিল ও স্থানীয় পরিষদ এবং পার্লামেন্ট ও বিশেষজ্ঞ পরিষদের মধ্যবর্তী নির্বাচনের ভোটগ্রহণও চলছে। সকাল ৭টা থেকেই ভোটকেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের বিপুল উপস্থিত দেখা যায়। তারা দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিচ্ছেন।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী প্রথম ব্যক্তি হিসেবে তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। ভোট দেওয়ার পর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আজ জাতির ভাগ্য নির্ধারণে একটি গুরুত্বপূর্ণ দিন। কেউ যেন একথা না ভাবে আমার একটি ভোটের কি মূল্য আছে?

এবারের নির্বাচনে চারজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন- সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি, মোহসেন রেজায়ি, আব্দুন নাসের হেম্মাতি এবং কাজিযাদে হাশেমি।এর আগে অন্যতম প্রার্থী মেহের আলীজাদে অপর সংস্কারপন্থী প্রার্থী আব্দুন নাসের হেম্মাতির প্রতি সমর্থন জানিয়ে নির্বাচনি লড়াই থেকে সরে দাঁড়ান এবং অন্য দুই প্রার্থী আলীরেজা যাকানি ও সাঈদ জালিলি নিজেদের প্রত্যাহার করে নিয়ে সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসির প্রতি সমর্থন ঘোষণা করেন।


আরও পড়ুনঃ

আবু ত্ব-হা আদনানকে খুঁজে দিতে জাতীয় দলের ক্রিকেটার শুভর আহ্বান

গণপূর্ত ভবনে অস্ত্রের মহড়া: সেই আ.লীগ নেতাদের দল থেকে অব্যাহতি

আবারও মিয়ানমারের গ্রামে তাণ্ডব চালিয়েছে সেনাবাহিনী

সুইসদের হারিয়ে সবার আগে শেষ ষোল নিশ্চিত করল ইতালি


বিশ্বের ২২৬টি গণমাধ্যমের প্রায় ৫০০ সাংবাদিক ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের খবর কভার করার জন্য ইরানে এসেছেন।

ইরানের নির্বাচনি আইন অনুযায়ী- কোনো প্রার্থী ৫০ শতাংশের বেশি ভোট পেতে ব্যর্থ হলে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে দ্বিতীয় দফা ভোট নেওয়া হবে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

মাকে প্লাস্টিকে মুড়ে ফেলে চলে গেল মেয়ে!

অনলাইন ডেস্ক

মাকে প্লাস্টিকে মুড়ে ফেলে চলে গেল মেয়ে!

ভারতের কলকাতায় বৃষ্টির মধ্যে এক বৃদ্ধা মাকে প্লাস্টিকে মুড়ে রাস্তায় ফেলে যায় তার মেয়ে। পরে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। বরানগরের সিঁথি থানা এলাকার এ ঘটনায় শোরগোল পড়ে গেছে। মেয়ের অমানবিকতার এমন নজির দেখে ক্ষুব্ধ প্রতিবেশীরা। তাকে গ্রেপ্তারের দাবিও উঠেছে। এ ঘটনায় বৃদ্ধার ছেলেরাও জড়িত বলে অভিযোগ।

গতকাল বুধবার বেলা সামান্য বাড়তেই তুমুল বৃষ্টি শুরু হয় কলকাতা ও তার চারপাশের এলাকায়। টানা কয়েকঘণ্টার বৃষ্টিতে জলমগ্ন হয়ে পড়ে বিটি রোডের বিস্তীর্ণ অংশ। আর এমনই দুর্যোগে মায়ের সঙ্গে চরম অমানবিক আচরণ করতে দেখা যায় মেয়েকে। সিঁথির পেয়ারাবাগান এলাকার বাসিন্দা আশি বছরের ঠাকুরদাসী সাহাকে প্লাস্টিকে মুড়ে রাস্তায় ফেলে রেখে যায় বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। রাতের দিকে ধীরে ধীরে বৃষ্টি কমলে পানি নামতে শুরু করলে দু-একজনের চোখে পড়ে প্লাস্টিকমোড়া বৃদ্ধাকে। তবে মৃত বলে মনে করে পাশ কাটিয়ে চলে যান।

তার কিছুক্ষণ পর সিঁথি থানার পুলিশ খবর পায়, এলাকার নির্জন জায়গায় পড়ে রয়েছেন এক বৃদ্ধা। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেন, বৃদ্ধা জীবিতই। তাঁকে সঙ্গে সঙ্গে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁর কাছ থেকেই পুলিশ জানতে পারে, বাড়ি পেয়ারাবাগান এলাকায় তাঁর মেয়ের নির্দেশেই ছেলেরা তাঁকে বৃষ্টির মধ্যে রাস্তায় ফেলে গেছে।


আরও পড়ুনঃ


১১ আগস্ট থেকে খোলা থাকবে সবকিছু

পরীমণি নিজের স্বার্থ হাসিলের জন্য বিভিন্ন অশ্লীল ভিডিও তৈরি করতো : র‌্যাব

পরীমনি ও প্রযোজক রাজের বিরুদ্ধে হচ্ছে ৩ মামলা

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবে ট্রেন: টিকিট বিক্রি অনলাইনে


কিন্তু কেন এভাবে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হলো, তা জানেন না তিনি। এরপর আজ বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতাল থেকে সুস্থ করে ঠাকুরদাসী সাহাকে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার পরপরই তাঁর মৃত্যু হয়। এ ঘটনার পরই এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর

সিরিয়া থেকে অবশ্যই বিদেশি সেনাদের চলে যেতে হবে: রায়িসি

অনলাইন ডেস্ক

সিরিয়া থেকে অবশ্যই বিদেশি সেনাদের চলে যেতে হবে: রায়িসি

সিরিয়ার ভূখণ্ড থেকে অবশিষ্ট বিদেশি সেনাদের অবিলম্বে প্রত্যাহার করে নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি। এসময় তিনি গত এক দশক ধরে ইহুদিবাদী ইসরাইল এবং পাশ্চাত্যের মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সিরিয়ার বীরত্বপূর্ণ প্রতিরোধের ভূঁয়সী প্রশংসা করেন তিনি।

ইরানের প্রেসিডেন্ট সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসির শপথ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে আসা সিরিয়ার সংসদ স্পিকার হামুদা সাব্বাগের সঙ্গে সাক্ষাতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

প্রেসিডেন্ট রায়িসি বলেন, সিরিয়ার সরকার এবং জনগণ হেব্রু-পাশ্চাত্য সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সাহসিক প্রতিরোধ সক্ষমতা দেখিয়েছে এবং তারা বিজয় অর্জন করেছে। সিরিয়ার জাতি যাতে পূর্ণ শক্তি দিয়ে পুর্নগঠন কার্যক্রম শুরু করতে পারে সেজন্য অবিলম্বে সিরিয়ার ভূখণ্ড থেকে বাকি সেনাদের চলে যাওয়া উচিত বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

আরও পড়ুন


বরিশাল থেকে অপহরণ হওয়া কিশোরী ৩৮ দিন পর গাজীপুর থেকে উদ্ধার

লেবাননে বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী

কুষ্টিয়ায় মাইক্রোবাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৩

মোটাতাজাদের বাদ দিয়ে শুকনাদের কমিটিতে আনুন: মির্জা আজম (ভিডিও)


সিরিয়ার সরকার ২০১১ সাল থেকে পাশ্চাত্য মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে আসছে। বিশেষ করে আমেরিকা এবং তার মিত্রদেশগুলো সিরিয়ায় তৎপর বিভিন্ন উগ্র গোষ্ঠীগুলোকে সামরিক এবং আর্থিক সহায়তা দিয়েছে।  তবে ইরান এবং রাশিয়ার সহায়তায় সিরিয়ার সরকার তাকফিরি সন্ত্রাসীদের কবল থেকে সিরিয়ার বেশিরভাগ এলাকা দখলমুক্ত করতে সক্ষম হয়েছে।

রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে তেহরান-দামেস্কের মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নের প্রতি গুরুত্বারোপ করে ইরানের নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট বলেন, দুই দেশের ঐক্য এবং সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে এবং ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো বাড়ানোর ব্যাপারে কোনো ধরনের সীমাবদ্ধতা থাকবে না। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

লেবাননে বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী

অনলাইন ডেস্ক

লেবাননে বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী

লেবাননের দক্ষিণাঞ্চলে বিমান হামলা চালিয়েছে ইহুদিবাদী ইসরাইল। এর আগে ওই এলাকায় ব্যাপকভাবে কামানের গোলাবর্ষণ করেছে ইহুদিবাদী সেনারা। গতকাল বুধবার ইসরাইলের অভ্যন্তরে লেবানন থেকে তিনটি রকেট হামলা হয়েছে বলে দাবি করে ইসরাইল এই ব্যাপক বিমান হামলা ও কামানের গোলাবর্ষণ করল।

ফিলিস্তিনের কয়েকটি গণমাধ্যম জানিয়েছে, আজ সকালের দিকে ইসরাইলি বিমান থেকে দক্ষিণ লেবাননে হামলা চালানো হয়। হামলার কথা নিশ্চিত করেছে ইসরাইলি সামরিক বাহিনী।

ইসরাইলি বাহিনীর দাবি, দক্ষিণ লেবাননের যেসব এলাকাকে রকেট উৎক্ষেপণের লঞ্চপ্যাড হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছিল সেসব লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালানো হয়েছে। বিমান হামলার আগে ইসরাইলি সেনারা দক্ষিণ লেবাননে কামানের অন্তত ১০০ রাউন্ড গোলাবর্ষণ করে।

আরও পড়ুন


কুষ্টিয়ায় মাইক্রোবাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৩

মোটাতাজাদের বাদ দিয়ে শুকনাদের কমিটিতে আনুন: মির্জা আজম (ভিডিও)

পরীমণি ও রাজসহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে র‍্যাব

সাতক্ষীরা মেডিকেলে আরও ৮ জনের মৃত্যু


এর আগে গত মে মাসে ইহুদিবাদী ইসরাইল যখন ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় সামরিক আগ্রাসন চালাচ্ছিল তখন লেবানন থেকে ইসরাইল অভিমুখে কয়েকটি রকেট ছোঁড়া হয়।

১৯৬৭ সালের পর থেকে লেবানন এবং ইহুদিবাদী ইসরাইল কার্যত যুদ্ধ পরিস্থিতির মধ্যেই রয়েছে। ওই বছর আরব-ইসরাইল যুদ্ধের সময় ইহুদিবাদীরা লেবাননের শেবা ফার্ম এলাকা দখল করে নেয়। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ইসরাইলি সাইবার ইউনিট: সঙ্কটের কেন্দ্রে পারস্য উপসাগর

অনলাইন ডেস্ক

ইসরাইলি সাইবার ইউনিট: সঙ্কটের কেন্দ্রে পারস্য উপসাগর

ইহুদিবাদী ইসরাইলের সাইবার হামলার ইউনিট সংযুক্ত আরব আমিরাতে স্থানান্তর করা হয়েছে বলে জানা গেছে। পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলে বিমান এবং জাহাজ চলাচলে বাধা সৃষ্টির লক্ষ্যে ইসরাইল এই পদক্ষেপ নিয়েছে। এর ফলে ওমান সাগর ও পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চল সঙ্কটের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হতে যাচ্ছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ইরানের নূর নিউজ এজেন্সি গতকাল বুধবার দেশের নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে। ইরানের নিরাপত্তা সূত্র নূর নিউজকে জানিয়েছে, প্রায় এক মাস আগে ইসরাইলের গুপ্তচর সংস্থা মোসাদ তাদের সাইবার ইউনিটের উন্নত যন্ত্রপাতি সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিয়ে গেছে।

ইরানের ওই নিরাপত্তা কর্মকর্তা বলেন, ইসরাইলের এই তৎপরতার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে ওমান সাগর এবং পারস্য উপসাগরীয় এলাকায় বিমান ও জাহাজ চলাচল ব্যবস্থা বাধাগ্রস্ত করা এবং আঞ্চলিক নিরাপত্তা পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করে তোলা।

আরও পড়ুন


নওগাঁর মান্দায় বসুন্ধরা গ্রুপের খাদ্য সহায়তা পেল ২৫০ অসহায় পরিবার

দেশে করোনায় আক্রান্ত ৯৮ শতাংশের শরীরেই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট

সারারাত র‍্যাব সদরদপ্তরেই ছিলেন পরীমণি, আজ পুলিশের কাছে হস্তান্তর

শেখ কামালের কবরে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা


এছাড়া, অধিকৃত ভূখণ্ডের গোলযোগের দিক থেকে বিশ্ববাসীর নজর ভিন্ন দিকে ঘুরিয়ে দেয়ার জন্য ইহুদিবাদীরা এই পদক্ষেপ নিচ্ছে। আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে ফিলিস্তিন ইস্যুতে অনেক চাপের মুখে রয়েছে ইহুদিবাদী ইসরাইল।

ইরানের নিরাপত্তা কর্মকর্তা নূর নিউজ এজেন্সিকে আরো বলেছেন, আঞ্চলিক দেশগুলোর মধ্যে মারাত্মক রকমের বিভেদ এবং দ্বন্দ্ব সৃষ্টি করাও ইসরাইলের বড় লক্ষ্য। সাইবার হামলার মধ্যদিয়ে তারা আঞ্চলিক দেশগুলোর মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি এবং দ্বন্দ্ব-সংঘাতে লিপ্ত হতে বাধ্য করতে চায়। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

ভারতে একদিনের ব্যবধানে করোনা আক্রান্ত বেড়েছে ১২ হাজার

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে একদিনের ব্যবধানে করোনা আক্রান্ত বেড়েছে ১২ হাজার

ভারতে আবারও বাড়ছে অতিমারি করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪২ হাজার ৬২৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

গতকাল দেশটিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩০ হাজারের ঘরে। সেখানে আবারও একদিনে ব্যবধানে বেড়ে হয়েছে ৪২ হাজার ৬২৫ জন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ১৭ লাখ ৬৯ হাজার ১৩২ জন।

দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যানে উল্লেখ করা হয়েছে, এক দিনের ব্যবধানে দেশে প্রায় ১২ হাজার করোনার সংক্রমণ বেড়েছে।

এদিকে একই সময়ে দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৫৬২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু ছাড়ালো ৪ লাখ ২৫ হাজার ৭৫৭।

আরও পড়ুনঃ

অসংখ্য তরুণীর পর্নো ভিডিও পরীর গডফাদার রাজের মোবাইলে

দক্ষিণ চীন সাগরে বেশ কয়েকটি যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন করেছে ভারত

পর্নোগ্রাফি: আঁচল-নায়লা নাঈম ও শিলাসহ অনেকেই র‍্যাবের নজরদারিতে

বেরিয়ে আসছে পরীমনির অন্ধকার জগতের চাঞ্চল্যকর তথ্য


ভারত থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনার অতিসংক্রামক ডেল্টা ধরন-এর পেছনে ভূমিকা রেখেছে। মাঝে আক্রান্তের হার ও মৃত্যু কমে আসে। কিন্তু এর মধ্যে আবারও মৃত্যু বেড়ে যাওয়ায় ভারতের জন্য অশনিসংকেত। গত ৭ মে ভারতে একদিনে সর্বোচ্চ চার লাখ ১৪ হাজারের বেশি রোগী শনাক্তের তথ্য জানানো হয়।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর