বিবস্ত্র করা ছবি তুলে ফাঁদে ফেলে প্রবাসীর স্ত্রী, মামলায় আ.লীগ নেতাও আসামি

অনলাইন ডেস্ক

বিবস্ত্র করা ছবি তুলে ফাঁদে ফেলে প্রবাসীর স্ত্রী, মামলায় আ.লীগ নেতাও আসামি

ফেসবুকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে এক ব্যবসায়ী বন্ধুকে বাড়িতে ডেকে এনে বিবস্ত্র করে ছবি তুলে ফাঁদে ফেলেছে বগুড়ার নন্দীগ্রামের এক প্রবাসীর স্ত্রী। এ ঘটনায় নন্দীগ্রাম থানায় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বুলু মিয়াসহ চারজন আসামি করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ফাঁদে ফেলা ওই প্রবাসীর স্ত্রীসহ তিন প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এসময় প্রবাসীর স্ত্রীর বাড়ি থেকে সিসিটিভির ডিভিআর জব্দ করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা হলেন - বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার ভদ্রদীঘি গ্রামের প্রবাসী সুজন প্রামাণিকের স্ত্রী রিনা বেগম (৩৭), তার সঙ্গী একই উপজেলার কহুলী তালুকপুরের মিলন হোসেনের ছেলে লিটন হোসেন (২২) ও কহুলী গ্রামের আবদুল আলিমের ছেলে গোলাম রাব্বি (২০)।

পুলিশ ও এজাহার সূত্রে জানা যায়, নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার কালাকান্দর গ্রামের মৃত আবদুল বারেকের ছেলে আবদুল মোত্তালেব (৩৬) সিলেটে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। গত দেড় মাস আগে ‘শিপলু সাথী’ নামে একটি ফেসবুক আইডির মাধ্যমে রিনা বেগমের সঙ্গে পরিচয় হয় তার। মাঝে মধ্যে চ্যাটিংয়ে তাদের মধ্যে বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে।

মোত্তালেব কয়েক দিন আগে স্ত্রী ও সন্তানদের সঙ্গে দেখা করার জন্য গুরুদাসপুর আসার পরিকল্পনা করেন। রিনা বেগম তা জানতে পেরে তাকে বারবার নিজ বাড়িতে দেখা করার জন্য অনুরোধ করেন। একপর্যায়ে তিনিও রাজি হন। গত ১৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নন্দীগ্রামের ভদ্রদীঘি গ্রামে প্রধান আসামি রিনা বেগমের বাড়ির সামনে পৌঁছেন মোত্তালেব। এ সময় রিনা বেগম ও অন্য দুইজন তাকে আপ্যায়নের নামে বাড়ির ভিতরে নিয়ে যান।

পরে তাকে ফাঁদে ফেলে এক লাখ টাকা দাবি করা হয়। রাজি না হলে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা হয়। পরে আরও চার যুবক বাড়িতে আসে। ছয়জন মিলে হাত-পা বেঁধে মারপিট করতে থাকে। পকেট থেকে সাত হাজার টাকা তুলে নেওয়া হয়। এরপর তাকে বিবস্ত্র করে মোবাইল ফোনে ছবি তোলা হয়।

এ ছবিগুলো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেবে এবং পরিবারকে দেখানোর হুমকি দেয়। পরে পরিচিতদের কাছে ফোন করে ১৭ হাজার ২০০ টাকা বিকাশ করেন। আসামিরা আরও ৮৫ হাজার টাকা দাবি করে।

আরও পড়ুন


‘নিখিলকে আগেই বলেছিলাম, নুসরাত তোমাকে ঠকাবে’

বিয়ের পিঁড়িতে বসার আগ মূহুর্তে যে কারণে বিয়ে ভেঙে দিয়েছিলেন সালমান

চুরির দায়ে জেলে গেলেন ‘ক্রাইম পেট্রলের’ ২ অভিনেত্রী

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন: ভোটগ্রহণ রাত ২টা পর্যন্ত, ফল ঘোষণা আজ


আবদুল মোত্তালিব ভ্যানযোগে নন্দীগ্রাম বাসস্ট্যান্ডে আসেন। এরপর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেওয়ার পর তার সংস্থার নন্দীগ্রাম শাখায় রাতযাপন করেন। বৃহস্পতিবার সকালে নন্দীগ্রাম থানায় গিয়ে প্রতারক চক্রের হোতা রিনা বেগম, তার সহযোগী লিটন হোসেন, গোলাম রাব্বী ও কহুলী গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে বুড়ইল ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বুলু মিয়ার (৫৫) বিরুদ্ধে মামলা করেন।

নন্দীগ্রাম থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, স্বামী সৌদি আরবে থাকায় রিনা বেগম তার সহযোগীদের নিয়ে প্রতারক চক্র গড়ে তোলেন। তিনি ফেসবুকে প্রথমে বন্ধু ও পরে প্রেমিক বানিয়ে সহজ-সরল জনগণকে বাড়িতে ডেকে এনে তাদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছেন। বিবস্ত্র করে ছবি তুলে তা ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়।

তিনি আরও জানান, ইতোমধ্যে তিনজনকে নিজ নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অপর আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। বৃহস্পতিবার বিকালে গ্রেফতার তিন আসামিকে আদালতে হাজির করে সাত দিন করে রিমান্ড চাওয়া হয়। শুনানি শেষে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

কীটনাশক ছিটাতে গিয়ে ফুলবাড়ীতে কৃষকের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক

কীটনাশক ছিটাতে গিয়ে ফুলবাড়ীতে কৃষকের মৃত্যু

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে কীটনাশক ছিটাতে গিয়ে বিষক্রিয়ায় মকলেছার রহমান (৬০) নামের এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে।

আজ সকাল ১১টার দিকে উপজেলার পৌর এলাকার স্বজনপুকুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। কৃষক মকলেছার স্বজনপুকুর গ্রামের মৃত ফয়েজ উদ্দিনের ছেলে।

মারা যাওয়া মকলেছারের বড় ভাই নুরুল ইসলাম বলেন, ‘মকলেছার রহমান জমিতে কীটনাশক ছিটাতে যায়। এ সময় সে মুখে কাপড় বাঁধেনি। খোলা মুখে কীটনাশক প্রবেশ করে বিষক্রিয়ায় সে ক্ষেতেই ঢলে পড়ে। খবর পেয়ে ক্ষেত থেকে মকলেছার রহমানকে ভ্যানে করে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।’

আরও পড়ুন:


কক্সবাজারের উখিয়ায় পাহাড় ধসে ৫ রোহিঙ্গা নিহত

৫ অতিরিক্ত সচিবকে বদলি 

ভারত সফর বাতিল করলেন আফগান সেনাপ্রধান

একজন আইনজীবির মৃত্যু ও আমাদের জন্য বার্তা


স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল কর্মকর্তা ডাক্তার চামেলি বলেন, ‘স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসার আগেই বিষক্রিয়ায় তার মৃত্যু হয়েছে।’

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

লকডাউনের মধ্যেই নাটোরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচী

নাসিম উদ্দীন নাসিম, নাটোর

লকডাউনের মধ্যেই নাটোরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচী

টানটান উত্তেজনা আর পুলিশি বেষ্টুনির মধ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করেছে নবগঠিত নাটোর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ এবং পদবঞ্চিত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীরা।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) সকালে শহরের কান্দিভিটুয়া জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে পদবঞ্চিত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীরা পৌর ও সদর উপজেলা শাখার উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন, কেককাটা এবং আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়। এ সকল কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক আহবায়ক অ্যাডেভাকেট আরিফুর রহমান, যুগ্ম আহবায়ক আহম্মেদ সেলিম-সহ পৌর ও সদর উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ।

অপরদিকে সকালে শহরের কানাইখালি জনতা ব্যাংকের সমানে বঙ্গবন্ধুর অস্থায়ী প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান নবগঠিত নাটোর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ইশতিয়াক আহমেদ ডলার, সাধারণ সম্পাদক শফিউল আযম স্বপন-সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

এসময় এক মিনিটি নিরবতা পালন এবং বিশেষ মোনাজাত করা হয়। পরে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী এবং প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫১তম জন্মদিন উপলক্ষে কেক কাটা হয়।

আরও পড়ুন


‘সজীব ওয়াজেদ জয়ের হাত ধরেই বিশ্বকে নেতৃত্ব দেবে বাংলাদেশ’

৩০ হাজার টাকার জন্য ৩ বন্ধু মিলে গলা কেটে হত্যা করে উজ্জলকে

অক্সিজেন পাচার নয়, নতুন কৌশলে টাকা আত্মসাৎ করত তারা

পর্নগ্রাফিকাণ্ডে আগাম জামিন নিলেন শার্লিন চোপড়া


এসময় জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোর্ত্তুজা আলী বাবুল, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও দুর্যোগ উপ-কমিটির সদস্য ইমরান সোনারসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারেক যুবায়ের এর নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়ন করা হয়। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে নাটোর সহকারী কমিশনার (ভূমি) রনি খাতুনের নেতৃত্বে জেলা প্রশাসনের একটি ভ্রাম্যমান আদালত নিয়োজিত ছিল।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

৩০ হাজার টাকার জন্য ৩ বন্ধু মিলে গলা কেটে হত্যা করে উজ্জলকে

বাবুল আখতার রানা, নওগাঁ

৩০ হাজার টাকার জন্য ৩ বন্ধু মিলে গলা কেটে হত্যা করে উজ্জলকে

নওগাঁর চাঞ্চল্যকর ডিস ব্যবসায়ী উজ্জল হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। ধারের টাকা না দিতেই তিন বন্ধু মিলে খুন করে তাকে। মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আব্দুল মান্না মিয়া জানান, নিহত উজ্জল একজন ডিস ব্যবসায়ী ছিলেন। মাঝে মধ্যে নেশা করার অভ্যাসও ছিল তার। বেশ কিছুদিন আগে তার খুব কাছের বন্ধু সুজন ও শরিফ উজ্জলের কাছ থেকে সুদে ত্রিশ হাজার টাকা ধার করেন। সেই সুদের ধারের টাকার জন্য কয়েকদিন ধরেই চাপ দিচ্ছিলেন উজ্জল। এমন পরিস্থিতিতে সে টাকা না দিতে ঈদের পরদিন দুপুরে স্থানীয় বাজারে একত্রিত হয়ে উজ্জলকে খুনের পরিকল্পনা করে তারা। সেই অনুযায়ী নেশা করা ও টাকার প্রলোভন দেখিয়ে শনিবার রাতে বিলভবানীপুর গ্রামের নির্জন বিলের পাশে পাট ক্ষেতে নিয়ে যাওয়া হয় উজ্জলকে। তখন সেখানে সুজন, শরিফ ও রায়হান উপস্থিত ছিলেন। টাকা লেনদেনের কথাবার্তার এক পর্যায়ে সুজন কৌশলে উঠে গিয়ে পিছন থেকে উজ্জলের গলায় ধারালো ছুরি চালায়। সে চিৎকার শুরু করলে অন্য দুজন তার হাত-পা চেপে ধরে গলা কেটে ফেলে। মৃত্যু নিশ্চিত করার জন্য শরিফের কাছে থাকা আরেক চাকু দিয়ে দু’পায়ের রগ কেটে ফেলা হয়। এরপর খুনিরা লাশ গুমের জন্য একটি পাটক্ষেতে ফেলে আসে উজ্জলের মৃতদেহ।

আরও পড়ুন


অক্সিজেন পাচার নয়, নতুন কৌশলে টাকা আত্মসাৎ করত তারা

পর্নগ্রাফিকাণ্ডে আগাম জামিন নিলেন শার্লিন চোপড়া

বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতির ৭৩টি সুন্ধি কচ্ছপ আটকের পর খানজাহান দিঘিতে অবমুক্ত

বিনা বিচারে ইসরাইলি কারাগারে বন্দি, ফিলিস্তিনি ফুটবলারের আমরণ অনশন


পুলিশ সুপার আরো জানান, ঘটনার পর উজ্জলের মা রহিমা বেগম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। সেই সূত্র ধরে এরই মধ্যে ২ জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পলাতক আরেকজনকে খুঁজতে তৎপরতা অব্যাহত আছে।

প্রসঙ্গত, গত ২৪ জুলাই দিবাগত রাত থেকেই নিখোঁজ ছিল নওগাঁ সদর উপজেলার বিলভবানীপুর গ্রামের রহিমা বেগমের ছেলে উজ্জল হোসেন। পরদিন সকাল ৯টার দিকে গ্রামের পাশের একটি পাটক্ষেত থেকে তার ক্ষতবিক্ষত মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

অক্সিজেন পাচার নয়, নতুন কৌশলে টাকা আত্মসাৎ করত তারা

রেজাউল করিম মানিক, রংপুর

অক্সিজেন পাচার নয়, নতুন কৌশলে টাকা আত্মসাৎ করত তারা

ভুয়া চালানে রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল থেকে অক্সিজেন সিলিন্ডার পাচার চেষ্টার মূল ঘটনা উদঘাটন ও দুই প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে রংপুর মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দুপুরে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন মহানগর পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) মোঃ আবু মারুফ হোসেন।

তিনি জানান, এই চক্রটি দীর্ঘদিন থেকে গাড়ী ভাড়া করে অভিনব কৌশলে গাড়ি চালকদের কাছ থেকে অর্থ আত্মসাৎ করে আসছিলো।

এদিকে সোমবার (২৬ জুলাই) পাবনা জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে সোহেল ফকির ও নাসিম হোসেন নামে এ ঘটনার মূলহোতা দুই প্রতারককে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তারা অভিনব কায়দায় ট্রাকচালকদের কাছ থেকে টাকা আত্মসাৎ করত বলে জানায়।

গত ২৩ জুলাই দিনাজপুর ট্রাক ট্যাংকলরী কাভার্ডভ্যান ও ট্যাক্টর শ্রমিক ইউনিয়নের মনজুরুল আলমকে মোবাইল ফোনে আসামী সােহেল ফকির নিজেকে ডা. রেজাউল করিম পরিচয় দিয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল হতে অক্সিজেনের খালি সিলিন্ডার ঢাকায় রেখে ঢাকা হতে অক্সিজেন ভর্তি সিলিন্ডার আনার কথা বলে ট্রাক প্রতি ৪০ হাজার টাকা করে ৩ টি ট্রাক ভাড়া করে।
চালকরা ফোনে কল দিয়ে গন্তব্যস্থল জেনে নেয়।তারপর দিনাজপুর থেকে ট্রাক ভাড়া চালান নিয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজে এসে কথিত ডাঃ রেজাউল করিমকে ফোন করে। এসময় প্রতারক সােহেল ফকির রংপুর মেডিকেলে আছে এবং তাদের কাছে যাওয়ার কথা বলে সময় ক্ষেপন করতে থাকে। একপর্যায়ে প্রতারক সােহেল ফকির বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল ফ্রি করে দেয়ার কথা বলে ৩টি ট্রাকের জন্য ট্রাক চালকদের কাছ থেকে ৩০০০ টাকা একটি বিকাশ নাম্বারে দেওয়ার জন্য বললে ৩ চালক সেই বিকাশ নাম্বারে ৩০০০ টাকাপাঠিয়ে দেয়। বিকাশে টাকা পাওয়া মাত্র প্রতারক তার মােবাইল ফোন বন্ধ করে দেয়।

আরও পড়ুন


পর্নগ্রাফিকাণ্ডে আগাম জামিন নিলেন শার্লিন চোপড়া

বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতির ৭৩টি সুন্ধি কচ্ছপ আটকের পর খানজাহান দিঘিতে অবমুক্ত

বিনা বিচারে ইসরাইলি কারাগারে বন্দি, ফিলিস্তিনি ফুটবলারের আমরণ অনশন

সৃজিত ঘণ্টার পর ঘণ্টা আমার সঙ্গে রিহার্সাল করেছে: বাঁধন


প্রতারকরা ইউটিউব, ফেসবুক কিংবা বিভিন্ন গাড়ির পিছনে থাকা মােবাইল নাম্বার সংগ্রহ করে ট্রাক ভাড়া প্রদানকারী দালালের সাথে কথা বলে প্রতারণার ক্ষেত্র তৈরী করে এবং ৩-৫ হাজার টাকা নিয়ে মােবাইল ফোন বন্ধ করে দেয়। পরবর্তী টার্গেট নির্ধারণ করে প্রতারণা করে।এই প্রতারক চক্র গত ২/৩ বছর যাবত সারা দেশে একই কায়দায় অসংখ্য প্রতারনা করেছে। টাকার পরিমাণ কম হওয়ায় অনেকেই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ না করে এড়িয়ে যায়।

এর আগে এই ঘটনায় পুলিশ ৩ জন ট্রাক চালক ও ৩ ট্রাক চালকের সহযােগীকে আটক করে এবং ৩টি ট্রাক জব্দ করে। পরবর্তীতে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ঘটনার বিষয়ে কোতয়ালী থানায় নিয়মিত মামলার জন্য এজাহার দাখিল করলে কোতয়ালী থানায় নিয়মিত মামলা।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

গোপন বৈঠক থেকে চট্টগ্রামে জামায়াতের ১৯ নেতাকর্মী আটক

অনলাইন ডেস্ক

গোপন বৈঠক থেকে চট্টগ্রামে জামায়াতের ১৯ নেতাকর্মী আটক

চট্টগ্রাম নগরীতে একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে জামায়াত ইসলামীর ১৯ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। তারা গোপন বৈঠক করছিলো বলে পুলিশ জানিয়েছে।

গতকাল রাত পৌনে ১২টার দিকে নগরীর চান্দগাঁও থানার আদুরপাড়ায় একটি বাসা থেকে তাদের আটক করা হয়।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (উত্তর) আবু বক্কর সিদ্দিকী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, চট্টগ্রাম অংশে নাশকতা সৃষ্টির পরিকল্পনায় চান্দগাঁও এলাকার একটি বাসায় গোপন বৈঠকে হানা দিয়ে সংগঠনটির ১৯ জন নেতাকর্মীকে আটক করা হয়। মূলত ঢাকা-চট্টগ্রাম এবং চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে অবস্থান নেওয়ার পাশাপাশি সরকারি স্থাপনা ছিল তাদের হামলার প্রধান লক্ষ্যবস্তু। জিজ্ঞাসাবাদে এমন তথ্য পেয়েছে পুলিশ। তবে অভিযানের সময় জামায়াত-শিবিরের বেশকিছু নেতাকর্মী পালিয়ে যায়।

আরও পড়ুন:


কক্সবাজারের উখিয়ায় পাহাড় ধসে ৫ রোহিঙ্গা নিহত

৫ অতিরিক্ত সচিবকে বদলি 

ভারত সফর বাতিল করলেন আফগান সেনাপ্রধান

একজন আইনজীবির মৃত্যু ও আমাদের জন্য বার্তা


তিনি আরও জানান, অভিযানে জামায়াতের চান্দগাঁও থানা উত্তর শাখার আমির হাসান মোহাম্মদ ইয়াছিন, সাধারণ সম্পাদক রফিক উদ্দিন, সহকারী বায়তুল মাল সম্পাদক মো. ইস্কান্দারসহ ১৯ জনকে আটক করা হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর