যানবাহন উৎপাদন ও বিপণনে ট্রেডমার্ক সনদ পেলো ওয়ালটন

অনলাইন ডেস্ক

যানবাহন উৎপাদন ও বিপণনে ট্রেডমার্ক সনদ পেলো ওয়ালটন

যানবাহন উৎপাদন ও বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে ট্রেডমার্ক সনদ পেয়েছে ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। ক্লাশ ১২ ক্যাটাগরিতে ওয়ালটনকে এ সনদ দিয়েছে শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন পেটেন্ট, ডিজাইন ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তর (ডিপিডিটি)।

বৃহস্পতিবার (১৭ জুন, ২০২১) অফিসার্স ক্লাবে মুজিববর্ষ ও বিশ্ব মেধাসম্পদ দিবস উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের (এমডি) হাতে ট্রেডমার্ক সনদপত্র তুলে দেওয়া হয়। জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে মেধাসম্পদ শীর্ষক ওই অনুষ্ঠানের আয়োজনে ছিল পেটেন্ট, ডিজাইন ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তর।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। বিশেষ অতিথি ছিলেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার। শিল্প সচিব জাকিয়া সুলতানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেনশিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব লুৎফুন নাহার বেগম এবং সানোয়ার হোসেন, ডিপিডিটির রেজিস্ট্রার আবদুস সাত্তার, ডেপুটি রেজিস্ট্রার ওবায়দুর রহমান প্রমুখ।

প্রধান অতিথির কাছ থেকে সনদ গ্রহণ করেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী গোলাম মুর্শেদ। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটনের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর শরীফ হারুনুর রশীদ এবং জাহিদুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, ট্রেডমার্ক নিবন্ধন সনদপত্র পাওয়ায় ওয়ালটন ব্র্যান্ডের নামে সড়কযান যেমন: মোটরসাইকেল, যাত্রীবাহী গাড়ি, ট্রাক, বাস ট্রেইলার, ট্রাক্টর, ভ্যান, স্পোর্টস কার, অমনিবাস, ট্রলার, ইয়ট ইত্যাদির যন্ত্রাংশ, ইঞ্জিন, বডি ও চাকা, আকাশ ও নৌযান, বাইসাইকেল, ইলেকট্রিক বাইসাইকেল, ট্রাইসাইকেল ইত্যাদি পণ্য ও যন্ত্রাংশ উৎপাদন ও বাজারজাত করা যাবে।


আরও পড়ুনঃ

চীনের রাস্তায়-গলিতে সরকারদলীয় প্রচারণামূলক বিলবোর্ড

‘নিখিলকে আগেই বলেছিলাম, নুসরাত তোমাকে ঠকাবে’

বিয়ের পিঁড়িতে বসার আগ মূহুর্তে যে কারণে বিয়ে ভেঙে দিয়েছিলেন সালমান

চুরির দায়ে জেলে গেলেন ‘ক্রাইম পেট্রলের’ ২ অভিনেত্রী


অনুষ্ঠানে প্রকৌশলী গোলাম মুর্শেদ বলেন, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন ডিপিডিটি ওয়ালটনকে স্বীকৃতি দিয়েছিল বলেই আজ এটি বাংলাদেশের পাইওনিয়ার ব্র্যান্ড। রেফ্রিজারেটর পণ্যে ৭৫ শতাংশেরও বেশি মার্কেট শেয়ার নিয়ে ওয়ালটন এখন শীর্ষে। ৪০টির বেশি দেশে ওয়ালটন পণ্য রপ্তানি হচ্ছে। পণ্য উৎপাদন ও রপ্তানির পাশাপাশি দেশের মেধা যাতে দেশের কাজে লাগে, তার উদ্যেগ নিয়েছে ওয়ালটন। দেশের মেধাবী প্রকৌশলীদের গবেষণার সুযোগ সৃষ্টিতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সঙ্গে ওয়ালটন যৌথ উদ্যেগে কাজ করছে। ওয়ালটন হবে দেশীয় প্রকৌশলীদের গবেষণাগার। এর ফলে ব্রেইন ড্রেইন বন্ধ হবে।

দেশের মেধা কাজে লাগিয়ে স্থানীয় শিল্পের বিকাশে ওয়ালটনের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের জন্য সন্তোষ প্রকাশ করেন শিল্পমন্ত্রী এবং শিল্প প্রতিমন্ত্রী। এজন্য তারা ওয়ালটন কর্তৃপক্ষকে শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জানান।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

লকডাউনে পঁচল বিপুল পরিমাণ আদা-রসুন

নিজস্ব প্রতিবেদক

লকডাউনে পঁচল বিপুল পরিমাণ আদা-রসুন

লকডাউনে বিক্রি করতে না পারায় দেশের ভোগ্যপণ্যের সবচেয়ে বড় পাইকারি বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে পঁচে গেছে বিপুল পরিমাণ আদা ও রসুন। ব্যবসায়ীদের মাথায় হাত।

বিস্তারিত আসছে...

পরবর্তী খবর

৪র্থ বাংলাদেশ মার্কেটিং ডে উদযাপিত

অনলাইন ডেস্ক

৪র্থ বাংলাদেশ মার্কেটিং ডে উদযাপিত

সংকট মোকাবেলা বা কম্ব্যাটিং ক্রাইসিস প্রতিপাদ্য নিয়ে ৩০ ও ৩১ জুলাই দেশব্যাপী পালিত হলো বাংলাদেশ মার্কেটিং ডে। মার্কেটারস’ ইন্সটিটিউট বাংলাদেশের আয়োজনে চতুর্থ বারের মত দিবসটি পালন করলো দেশের ব্যাবসায় বিপনণখাতের লক্ষাধিক শিক্ষক, ছাত্র এবং পেশাজীবি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আয়োজক পরিষদের সদস্য সচিব ডঃ শরীফুল ইসলাম দুলু স্বাগত বক্তব্য পেশ করেন। ৪র্থ বাংলাদেশ মার্কেটিং ডে-এর মূল পর্বের উদ্বোধন ঘোষনা করেন আয়োজক পরিষদের আহ্ববায়ক অধ্যাপক ডঃ মীজানুর রহমান।

সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মার্কেটিং পরিবারের উদ্দেশ্যে মূল্যবান বক্তব্য পেশ করেন দেশের অন্যতম সেরা শিল্প প্রতিষ্ঠান আকিজ গ্রুপ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব শেখ বশির উদ্দিন। আয়োজক পরিষদের সহ-আহ্ববায়ক অধ্যাপক ডঃ সৈয়দ ফারহাত আনোয়ার-এর ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মাধ্যমের উদ্বোধনী পর্বের সমাপ্তি হয়। 

দুই দিনব্যাপী ভার্চুয়ালী আয়োজিত মূল আয়োজন ছাড়াও দেশব্যাপী প্রায় শতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, এলামনাই এসোসিয়েশন, কর্পোরেট হাউস ও পেশাজীবিদের সংগঠনের আয়োজন উৎসবমুখর পরিবেশে এই আয়োজন সমাপ্ত হয়। দু’দিনের মূল পর্বে ৪টি কি-নোট সেশন, ৬টি প্যানেল আলোচনা ও একটি পলিসি ডায়ালগ সেশন অনুষ্ঠিত হয়।

 

অনুষ্ঠানে আলোচকগন করোনাকালীন সময়ে বিপণন খাতে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গের অগ্রণী ভূমিকা তুলে ধরেন এবং দেশের বিপণন ব্যবস্থা সচল রাখায় বিপণন খাতে সংশ্লিষ্ট সকলকে সম্মুখসারির যোদ্ধা হিসেবে উল্লেখ করেন।

৪র্থ বাংলাদেশ মার্কেটিং ডে-এর আয়োজনে প্রায় দশ লক্ষাধিক লোক প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে এই আয়োজনে যুক্ত ছিলেন। 

মার্কেটারস’ ইন্সটিটিউট বাংলাদেশের আয়োজনে ৪র্থ বাংলাদেশ মার্কেটিং ডে আয়োজনের টাইটেল স্পন্সর আকিজ বোর্ড, পাওয়ার্ড বাই পুষ্টি এবং নগদ, ইন এসোসিয়েশন উইথ মেঘনা গ্রুপ অফ ইন্ডাস্ট্রিস, শাহ সিমেন্ট, কনকর্ড রিয়েল এস্টেট, কো-স্পন্সর ইস্পাহানি। এছাড়াও সহোযগী হিসেবে যুক্ত ছিল মার্কটেল কন্সাল্টিং গ্রুপ, মার্কেটিং সোসাইটি বাংলাদেশ, বাংলাদেশ কর্পোরেট ফোরাম, ব্রান্ড প্র্যাক্টিশনার্স বাংলাদেশ, ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া মার্কেটিং এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ ব্রান্ড ফোরাম, স্কুল অফ সেলস ম্যানেজমেন্ট, ই স্কুল অফ লাইফ, এডভান্সড ইন্টিগ্রাল সলিউশন্স, জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল ঢাকা সাউথ, রেডিও আমার, এনজেন, ফিওনা, এডফিনিক্স, ইউএফও, এডস অফ বাংলাদেশ, ক্লাউড লাইভ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব, সেলস লীডার্স ইন বিডি, সেলস এম্বাসেডর বাংলাদেশ, এক্সিলেন্স বাংলাদেশ, ইয়ুথ কলাব্রেশন ক্যাম্প এবং এনএউএসডিএফ।

মার্কেটিং এলামনাই এসোসিয়েশন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশ মার্কেটিং ডে আয়োজনের সূচনা হয়। 

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর

‘এ’ ক্যাটাগরিতে এনআরবিসি ব্যাংক

অনলাইন ডেস্ক

‘এ’ ক্যাটাগরিতে এনআরবিসি ব্যাংক

শেয়ারবাজারে ব্যাংক খাতে তালিকাভুক্ত এনআরবিসি ব্যাংক ‘এ’ ক্যাটাগরিতে উন্নীত হয়েছে। এর আগে কোম্পানিটি তালিকাভুক্তির পর থেকে ‘এন’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন করেছে। 

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) থেকে কোম্পানিটি ‘এ’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন করবে।

সোমবার (২ আগস্ট) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এনআরবিসি ব্যাংক ২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য সাড়ে ১২ শতাংশ লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। এর ফলে কোম্পানিটি ‘এন’ থেকে ‘এ’ ক্যাটাগরিতে স্থানান্তরিত হবে।

আরও পড়ুন:


করোনায় আক্রান্ত কনডেম সেলের ফাঁসির আসামি

টিকা নিলে কমে মৃত্যু ঝুঁকি: আইইডিসিআর

করোনা: কুষ্টিয়ায় একদিনে ৯ জনের মৃত্যু

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার দ্বিতীয় ডোজ টিকা প্রয়োগ শুরু


বিএসইসির নির্দেশনা অনুযায়ী ক্যাটাগরি পরিবর্তনের ৩০ দিনের মধ্যে কোম্পানিটির কোনো ঋণ সুবিধা দেওয়া যাবে না।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

করোনায় আক্রান্ত মুহিতকে দেখতে গেলেন ছোট ভাই মোমেন

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় আক্রান্ত মুহিতকে দেখতে গেলেন ছোট ভাই মোমেন

সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তার শারীরিক অবস্থা খুব একটা ভালো নয়। সব সময় দুর্বলতা অনুভব করছেন। 

এর মাঝেই গতকাল রোববার মুহিতকে দেখতে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে যান তার ছোট ভাই পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। এ সময় এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে তার স্ত্রী সেলিনা মোমেনও ছিলেন। স্বাস্থবিধি মেনে তারা সেখানে কিছুক্ষণ সময় কাটান এবং সাবেক অর্থমন্ত্রীকে অভয় দেন। 

আগের দিনই পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, ৮৭ বছর বয়সী মুহিত এমন শারীরিক অবস্থার মধ্যেও বই-পত্রিকা পড়তে চাইছেন। ওই দিনই তাকে বেশ কয়েকটি বই ও পত্রিকা পাঠানো হয়।

উল্লেখ্য, আবুল মাল আব্দুল মুহিত কভিড ভ্যাকসিনের দুই ডোজ নিয়েছেন। তার বাসার প্রায় সবাই করোনায় আক্রান্ত। যে কারণে তাকে বাসায় না রেখে হাসপাতালে রাখা হয়েছে। তার ফুসফুসে সংক্রমণ হয়েছে। এটা নিয়েই দুশ্চিন্তা করছেন ডাক্তাররা। ১৯৩৪ সালে জন্মগ্রহণ করেন মুহিত। তিনি স্বাধীন বাংলাদেশে প্রায় সব সরকারেই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ছিলেন।

আরও পড়ুন:


চট্টগ্রামে করেনা ও উপসর্গ নিয়ে ১১ জনের মৃত্যু

পিয়াসা ও মৌ উচ্চবিত্তদের বাসায় ডেকে ব্ল্যাকমেইল করত : হারুন

৯৯৯ এ ফোন কলেবারান্দার কার্নিশ আটকে পড়া কিশোরী উদ্ধার

পোশাকের নেমপ্লেট খুলে চাঁদাবাজির অভিযোগে এসআই স্ট্যান্ড রিলিজ


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

মাদারীপুরের সাদ্দামের ড্রাগন সাফল্য

বেলাল রিজভী, মাদারীপুর

মাদারীপুরে ড্রাগন ফলের চাষ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন সজিব হোসেন সাদ্দাম নামে এক ব্যক্তি। তার বাগানে এই ফলের আশানুরুপ উৎপাদন হয়েছে। স্বল্প খরচে লাভ বেশি হওয়ায় প্রতিবছরই এই জেলায় বাড়ছে এই ফলের আবাদ।

মাদারীপুর সদর উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়নের চরনাচনা গ্রামের সজিব হোসেন সাদ্দাম। চলতি বছরের জানুয়ারী মাসে নিজের ৫ একর জমিতে ৫ হাজার ড্রাগন ফলের চারা লাগান তিনি। গাছে ফুল ও ফল আসতে শুরু করেছে।

সাদ্দাম জানান, উৎপাদন খরচ ৩৫ লাখ টাকা হলেও বাজার দর ভাল থাকায় লাভের মুখ দেখছেন তিনি। 

তিনি শুধু নিজে স্বাবলম্বী হননি তার বাগানে কাজ করে কর্মসংস্থানও হয়েছে অনেকের।

ড্রাগন চাষে আগ্রহীদের সব ধরণের সহায়তা করা হচ্ছে বলে জানালেন কৃষি কর্মকর্তারা।  

আরও পড়ুন:


সঙ্কটে মানুষের পাশে দাঁড়ালে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে: কাদের

৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারির ফল প্রকাশ

বিশ্বাস করতে হবে আমরা টি-টোয়েন্টিতেও ভালো দল: ডমিঙ্গো


জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, একটি ড্রাগন গাছ থেকে কমপক্ষে ৩০ বছর পর্যন্ত ফল পাওয়া যায়।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর