খালেদা জিয়া আজ সন্ধ্যায় বাসায় ফিরবেন

অনলাইন ডেস্ক

খালেদা জিয়া আজ সন্ধ্যায় বাসায় ফিরবেন

ফাইল ছবি।

প্রায় দেড় মাস বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে আজ শনিবার (১৯ জুন) সন্ধ্যায় বাসায় ফিরবেন। 

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া গত ২৭ এপ্রিল করোনা ভাইরাস পজিটিভ হয়ে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। আজ শনিবার সন্ধ্যা ৭টার পর তিনি হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরবেন।’

জানা যায়, গত ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। একইসঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের বাসভবন ফিরোজার আরও আটজন ব্যক্তিগত স্টাফও করোনা আক্রান্ত হন। তারা সবাই বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।

আরও পড়ুন:


দুর্লভ আবাসিক পাখি ‘জল ময়ূর’

কাপুরুষোচিত হামলা চালিয়ে ইসরাইলি সেনাদের মনোবল চাঙ্গা হবে না: হামাস

বিবস্ত্র করা ছবি তুলে ফাঁদে ফেলে প্রবাসীর স্ত্রী, মামলায় আ.লীগ নেতাও আসামি

‘নিখিলকে আগেই বলেছিলাম, নুসরাত তোমাকে ঠকাবে’


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

ছাত্রদল নেতার পাশে অক্সিজেন নিয়ে ছাত্রলীগ কর্মীরা

অনলাইন ডেস্ক

ছাত্রদল নেতার পাশে অক্সিজেন নিয়ে ছাত্রলীগ কর্মীরা

ছাত্রলীগ আর ছাত্রদলের মধ্যে রাজপথে তিক্ত সম্পর্ক। কিন্তু করোনা মহামারিতে সেই সম্পর্ক ভুলে ছাত্রদলের নেতার পাশে অক্সিজেন সেবা নিয়ে এগিয়ে এলেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। যার মধ্য দিয়ে মানবতার আরেকটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন মেহেরপুর জেলা ছাত্রলীগের কোভিড-১৯ স্বেচ্ছাসেবক ইউনিটের কর্মীরা।

জানা গেছে, মেহেরপুর জেলা ছাত্রদলের সহ সাধারণ সম্পাদক ইমরুল কায়েস করোনা আক্রান্ত হয়ে গাংনী উপজেলার নওদা মটমুড়া গ্রামের বাড়িতে চিকিৎসাধীন। শুক্রবার (২৩ জুলাই) সন্ধ্যায় তার শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। অক্সিজেনে দেওয়ার প্রয়োজনীয়তা দেখা দিলে দিশেহারা তার পরিবারের লোকজন। অক্সিজেন জোগাড় করতে ব্যর্থ হয়ে তারা ছাত্রলীগের কোভিড-১৯ স্বেচ্ছাসেবক ইউনিটের হটলাইন নম্বরে কল দিয়ে সহায়তা কামনা করেন। তাতে মানবিক সাড়া দেয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। বিনামূল্যে অক্সিজেন সহায়তা আর ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের পাশে পেয়ে আবেগ আপ্লুত ছাত্রদল নেতা ও তার পরিবারের লোকজন কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ও কোভিড-১৯ স্বেচ্ছাসেবক ইউনিটের আহ্বায়ক মুনতাছির জামান মৃদুল বলেন, আমরা ইমরুল কায়েসের পরিবারের কল পেয়ে সাড়া দেই। কোভিড-১৯ সেচ্ছাসেবক ইউনিটের সদস্য সচিব ও গাংনী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম সেন্টু, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল জাহান শিশির, স্বেচ্ছাসেবক ইউনিটের সদস্য জেলা মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম লীগের সভাপতি ইউসুফ আলী, জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তপু রায়হান রবিন মোটরসাইকেলযোগে অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে তার কাছে ছুটে যায়।

স্বেচ্ছাসেবক ইউনিটের সদস্য ছাত্রলীগের সাবেক নেতা জুবায়ের হোসেন উজ্জ্বল জানান, ইসরুল কায়েসের প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট ছিল। অক্সিজেন সেবা পেয়ে তিনি এখন বেশ সুস্থ। তার প্রয়োজনীয় অক্সিজেন ও অন্যান্য চিকিৎসা সেবা আমাদের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

জোট থেকে কোন শরীক বেরিয়ে গেলেও ক্ষতিগ্রস্থ হবে না বিএনপি

মারুফা রহমান

জোট থেকে কোন শরীক বেড়িয়ে গেলে সেটা বিএনপির ক্ষতি নয় বলে মনে করেন, বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের সমন্বয়ক, নজরুল ইসলাম খান। এদিকে আগামী নির্বাচন কিংবা রাজপথের আন্দোলনে সফল হতে, বিএনপি এবং জোটের শরীকদের আত্ম সমালোচনার মাধ্যমে এই জোটকে পুনরুদ্ধার এবং পুনর্গঠন করে, সক্রিয় করার আহ্বান জানিয়েছেন, জোটে থেকে যাওয়া নেতারা। 

১৪ জুলাই ঘোষণা দিয়ে, ২০ দলীয় জোট ছেড়েছে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের একাংশ। জোট ছাড়ার কারণ প্রসঙ্গে দলটির মহাসচিব মাওলানা  জাকারিয়া বলেন, জোটের শরিক দলের যথাযথ মূল্যায়ন না করা, শরিকদের সঙ্গে পরামর্শ না করেই উপনির্বাচন এককভাবে বর্জন করা এবং  আলমদের গ্রেফতারের প্রতিবাদ না করায় জোট ছাড়ছেন তারা।

এ বিষয়ে ২০ দলীয় জোটের স্বমন্বয়ক বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বলেন, যে কোন দলের স্বাধীনতা আছে, জোটে থাকা বা না থাকার। তবে মুল্যায়ণ নিয়ে জমিয়তের অভিযোগ ভুল।

এদিকে জমিয়তে উলামার একাংশের বেড়িয়ে যাওয়া এবং শরীকদল গুলোর এ নিয়ে অবস্থান প্রসঙ্গে কথা বলেন, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান,  সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম। তিনি মনে করেন, সরকারের বিরুদ্ধে কোন আন্দোলন হোক বা আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে হোক, সম্মিলিত শক্তি বা সম্মিলিত প্রয়াসের কোন বিকল্প নেই।

আরও পড়ুন:

আনন্দ ভ্রমণে গিয়ে মাদরাসাছাত্রের মৃত্যু

রাস্তায় ফেলে চলে যাওয়া চামড়াগুলোতে পচন ধরে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে

মুনিয়ার মৃত্যুর সঙ্গে সায়েম সোবহান আনভীরের জড়িত থাকার প্রমাণ পায়নি পুলিশ


 

বিএনপি জানায়, করোনাকালে তারা আপাতত এককভাবে কর্মসূচি নিয়েই এগোবে। এ মুহূর্তে কৌশলগত কারণেই কোনো জোটের সঙ্গে বৈঠক করা হচ্ছে না। তবে, সময়ই বলে দেবে জোট আরও শক্তিশালী হবে না ভেঙ্গে দেয়া হবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

সুরক্ষায় মানুষের পাশে থাকার পরিকল্পনা সরকারি দলের

শাহ্ আলী জয়

শুক্রবার থেকে শুরু হতে যাওয়া কঠোর লকডাউনে ত্রাণ,খাদ্য ও স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রী নিয়ে দুস্থদের পাশে থাকবে আওয়ামী লীগ এবং এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। দলটির ত্রাণ ও সমাজকলণ্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী জানিয়েছেন, দুর্যোগের এই সময়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে হলেও মানুষের সেবায় কার্পণ্য করবেন না সংগঠনটির কর্মীরা। 

করোনার উর্ধমুখী সংক্রমণ ঠেকাতে শুক্রবার ভোর থেকে দেশ জুড়ে আবারো শুরু হচ্ছে কঠোর লকডাউন। বন্ধ থাকবে অফিস আদালত কল কারখানা যানবাহন এবং মানুষের চলাচল। মানুষের জীব বাঁচাতে এমন উদ্যোগে নেয়া হলেও এতে বিপাকে পরবেন নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া মানুষেরা। লকডাউনের সময়ে এইসব অসহায় এসব মানুষের পাশে ত্রাণ সহয়তা নিয়ে সরকারের পাশাপাশি মাঠে থাকবেন আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরাও।

আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক জানান শুধু খাদ্য এবং ত্রাণ সহায়তায়ই নয়, অসুস্থ রোগীদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া এবং মৃতদের দাফন এবং সৎকারের কাজেও করবেন দল এবং সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীরা।

আরও পড়ুন:

আনন্দ ভ্রমণে গিয়ে মাদরাসাছাত্রের মৃত্যু

রাস্তায় ফেলে চলে যাওয়া চামড়াগুলোতে পচন ধরে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে

মুনিয়ার মৃত্যুর সঙ্গে সায়েম সোবহান আনভীরের জড়িত থাকার প্রমাণ পায়নি পুলিশ


 

ত্রাণ বিতরণের জন্য গেল বছর ওয়ার্ড পর্যায় পর্যন্ত ত্রাণ কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছিলেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দলটির ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক জানালেন, কমিটি গুলো নতুন ভাবে তৎপরতা শুরু করবে লকডাউনের সময়ে এবং ত্রাণ বিতরণের ক্ষেত্রে দলমত নির্বিশেষে সকলকেই অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের সর্বশেষ জানালেন মির্জা ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক

খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের সর্বশেষ জানালেন মির্জা ফখরুল

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কোভিড-১৯ থেকে মুক্ত হওয়ার পর এখন মোটামুটি ভালো আছেন। তবে টিকা নেওয়ার কারণে তার সামান্য জ্বর এসেছে  বলে জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের ভাড়া বাসা ফিরোজায় যান মির্জা ফখরুলসহ বিএনপির স্থায়ী কমিটির ছয় সদস্য। এক বছর পর ঈদের দিনে দলীয় চেয়ারপাসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা হলো বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্যদের।

খালেদা জিয়াকে দেখে আসার পর বিএনপি মহাসচিব সাংবাদিকদের বলেন, আমরা যেটা বরাবরই বলে আসছি এবং চিকিৎসকদের যেটা পরামর্শ, সেটা হলো তার উন্নত চিকিৎসা দরকার, উন্নত সেন্টারে। এটা খুবই বেশি প্রয়োজন তার।

রাত ৮টায় মহাসচিবের নেতৃত্বে স্থায়ী কমিটি সদস্য ড.  খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান ও সেলিমা রহমান গুলশানে খালেদার বাসা ‘ফিরোজা’য় ঢোকেন। এক ঘণ্টা তারা সেখানে ছিলেন। খালেদা জিয়ার চিকিৎসক অধ্যাপক এ জেড এম জাহিদ হোসেনও তাদের সঙ্গে ছিলেন।

সর্বশেষ গত বছরের কোরবানির ঈদের দিন খালেদা জিয়ার দেখা পেযেছিলেন দলের নেতারা।  এবছরে রোজার ঈদের সময়ে খালেদা জিয়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি থাকায় বিএনপি নেতাদের সঙ্গে তার সাক্ষাৎ হয়নি।

আরও পড়ুনঃ


দ. কোরিয়ার কোন গালিও দেয়া চলবে না উত্তর কোরিয়ায়

তালেবানের হাত থেকে ২৪ জেলা পুনরুদ্ধারের দাবি

কাছাকাছি আসা ঠেকাতে টোকিও অলিম্পিকে বিশেষ ব্যবস্থা


 

দেশবাসীর জন্য খালেদা জিয়ার কোনো বার্তা আছে কি না- জানতে চাইলে তিনি বলেন, দেশবাসীর কাছ থেকে তিনি দোয়া চেয়েছেন এবং ঈদের দিনে তিনি দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। করোনা থেকে যাতে দেশ মুক্ত হতে পারে, সেজন্য আল্লাহতালার কাছে তিনি দোয়া চেয়েছেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

আল্লাহর কাছে প্রার্থনা এ দেশে যেন গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেন : মির্জা ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক

আল্লাহর কাছে প্রার্থনা এ দেশে যেন গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেন : মির্জা ফখরুল

আমরা জানি কোরবানির মাধ্যমে আমরা ত্যাগ করে মানুষের কল্যাণে কাজ করি। কিন্তু দুর্ভাগ্য আমরা এমন একটি সময় ঈদুল আজহা পালন করছি, যে সময়টা আমাদের প্রিয় দেশনেত্রী খালেদা জিয়া কারারুদ্ধ হয়ে আছেন। যিনি সারা জীবন দেশের কল্যাণে ত্যাগ করে গেছেন, গণতন্ত্রের জন্য কাজ করেছেন বলে জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ।

বিএনপির এ নেতা বলেন, আল্লাহতায়ালার কাছে আমরা প্রার্থনা করেছি—আল্লাহতায়ালা যেন এ দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেন। এ দেশের মানুষের ১৯৭১ সালের যে চেতনা, একটি সঠিক গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা, তা করতে যেন তিনি সুযোগ করে দেন।

ঈদুল আজহার দিনে বুধবার শেরে বাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবরে বিএনপির স্থায়ী কমিটির পক্ষ থেকে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, দোয়া ও মোনাজাত শেষে মির্জা ফখরুল ইসলাম সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আজ নির্বাসিত হয়ে আছেন। আজ মিথ্যা মামলায় মানুষ গুম হয়ে যাচ্ছে— এমন একটা অবস্থা বাংলাদেশে বিরাজ করছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা আজ এই জিয়ারতের সময় পরম করুণাময় আল্লাহর কাছে এই দোয়া করেছি— আল্লাহতায়ালা যেন এই ভয়াবহ মহামারি থেকে, বিশেষ করে বাংলাদেশে এই সরকারের উদাসীনতায় মানুষের জীবন বিপন্ন হয়ে পড়েছে, সে সময় যেন মহান রব্বুল আল-আমিন মানুষকে এই মহামারি থেকে রক্ষা করেন।

এ সময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায় উপস্থিত ছিলেন।

এরপর বিএনপির যুগ্ম মগাসচিব ও ঢাকা মহানগর বিএনপির সভাপতি হাবিব-উন নবী খান সোহেলের নেতৃত্বে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি, যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম নীরব ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকুর নেতৃত্বে যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটি, স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েলের নেতৃত্বে স্বেচ্ছাসেবক দল জিয়ার মাজারে শ্রদ্ধা জানায়।

আরও পড়ুন:

সৌদির সঙ্গে মিল রেখে দেশের বিভিন্ন এলাকায় আগামীকাল ঈদ

ফাঁস হলো বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের স্মার্টফোনে আড়িপাতার ঘটনা

যে বাঙালি আলেম হজের খুতবা অনুবাদ করবেন


 

এ ছাড়া ঢাকা মহানগর উত্তরের যুবদলের সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীর ও সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিল্টনের নেতৃত্বে মহানগর উত্তর যুবদলের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

news24bd.tv/আলী

 

পরবর্তী খবর