খালেদা জিয়া আজ সন্ধ্যায় বাসায় ফিরবেন

অনলাইন ডেস্ক

খালেদা জিয়া আজ সন্ধ্যায় বাসায় ফিরবেন

ফাইল ছবি।

প্রায় দেড় মাস বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে আজ শনিবার (১৯ জুন) সন্ধ্যায় বাসায় ফিরবেন। 

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া গত ২৭ এপ্রিল করোনা ভাইরাস পজিটিভ হয়ে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। আজ শনিবার সন্ধ্যা ৭টার পর তিনি হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরবেন।’

জানা যায়, গত ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। একইসঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের বাসভবন ফিরোজার আরও আটজন ব্যক্তিগত স্টাফও করোনা আক্রান্ত হন। তারা সবাই বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।

আরও পড়ুন:


দুর্লভ আবাসিক পাখি ‘জল ময়ূর’

কাপুরুষোচিত হামলা চালিয়ে ইসরাইলি সেনাদের মনোবল চাঙ্গা হবে না: হামাস

বিবস্ত্র করা ছবি তুলে ফাঁদে ফেলে প্রবাসীর স্ত্রী, মামলায় আ.লীগ নেতাও আসামি

‘নিখিলকে আগেই বলেছিলাম, নুসরাত তোমাকে ঠকাবে’


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

পটিয়ায় সরকারি সিদ্ধান্ত অমান্য করে টিকা প্রদানের ঘটনা ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ

অনলাইন ডেস্ক

সরকারি সিদ্ধান্ত অমান্য করে পটিয়ায় টিকা প্রদানের ঘটনাকে ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ হিসেবেই দেখছেন চট্টগ্রামের রাজনীতিবিদরা।

এমন ঘটনা বরদাস্ত করা হবে না বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ বদিউল আলম। 

আরও পড়ুন:


পরীমনি কাণ্ডে থমথমে ‘সুনসান এফডিসি’

প্রজ্ঞাপন জারি, রোববার ব্যাংক বন্ধ


 

বৃহস্পতিবার সকালে পটিয়ায় করোনাকালে কাজ হারানো অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণের আগে এই মন্তব্য করেন তিনি। এসময় ৬শ দরিদ্র মানুষকে সহায়তা দেয়া হয়। ত্রাণ কার্যক্রমে পটিয়া ও চট্টগ্রামের বিভিন্ন পর্যায়ের রাজনীতিবিদরাও অংশ নেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

‘আদর্শ ও জনকল্যাণে অবদানই হওয়া উচিত রাজনীতির মূলমন্ত্র’

অনলাইন ডেস্ক

‘আদর্শ ও জনকল্যাণে অবদানই হওয়া উচিত রাজনীতির মূলমন্ত্র’

আদর্শ ও জনকল্যাণে অবদানই রাজনীতির মূলমন্ত্র হওয়া উচিত। নীতির রাজাই হচ্ছে রাজনীতি, শ্রেষ্ঠ নীতির নাম রাজনীতি। দুষ্টদের লালন-পালন ও পৃষ্ঠপোষকতা দেওয়া রাজনীতি নয়। রাজনীতি হতে হবে পরিশীলিত, পরিমার্জিত। রাজনীতির প্রতিপক্ষকে কখনো শত্রু ভাবা ঠিক নয়। শত্রুকে নিধন করতে হবে, সশরীরে মেরে ফেলতে হবে, এটা রাজনীতি হতে পারে না। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করতে হবে। রাজনীতির মৌলিক সত্তার জায়গায় দল-মত নির্বিশেষে আমাদের এক হতে হবে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

বৃহস্পতিবার (০৫ আগস্ট) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে পিরোজপুর জেলা প্রশাসন আয়োজিত আলোচনা সভায় রাজধানীর বেইলি রোডের সরকারি বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

মন্ত্রী বলেন,একটি পরিশীলিত, পরিমার্জিত, রূচিবান ও সম্ভাবনাময় ব্যক্তিত্ব ছিলেন শেখ কামাল। যিনি এ দেশের ক্রীড়াঙ্গন, সাংস্কৃতিক অঙ্গন ও রাজনীতিতে অনন্য-আসাধারণ অবদান রাখতে পারতেন। অথচ ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট পরিবারের সদস্যদের সাথে তাকে নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করা হয়। তিনি ছিলেন বাংলাদেশে আধুনিক ক্রীড়ার জনক। অপরদিকে বাঙালি সংস্কৃতিকে পূর্ণতা দেওয়ার জন্য সংস্কৃতির বিভিন্ন ধারা তিনি লালন করতেন, চর্চা করতেন। অন্যদিকে রাজনীতি ছিল তার জন্মসূত্রে পাওয়া। রাজনীতিতে তিনি নিজের জায়গা দখলের জন্য কখনো ক্ষমতার অপব্যবহারের মানসিকতা দেখান নি। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর শেখ কামাল সম্পর্কে বিরূপ কথা প্রচার করে বঙ্গবন্ধু পরিবারকে বিতর্কিত করার অপচেষ্টা করা হয়েছে। এটা ছিল জঘন্য মিথ্যাচার।

এ সময় শ ম রেজাউল করিম বলেন,বঙ্গবন্ধু বলেছেন, নিজের যা কিছু সামর্থ্য, যা কিছু ভালো তা উৎসর্গ করে দিয়ে দেশের কল্যাণে ও মানুষের উন্নয়নে নিজেকে নিবেদন করার নাম রাজনীতি। বঙ্গবন্ধু জীবনে কখনোই অনৈতিক কর্মকান্ডে সম্পৃক্তদের, কালো টাকার মালিকদের রাজনীতিতে এনে পৃষ্ঠপোষকতা দেন নি। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা বলেন, নিজের বিত্ত-বৈভবের জন্য, প্রাচুর্যের জন্য রাজনীতি নয়। মানুষের পাশে দাঁড়ানো, তার দুঃখ-কষ্টের সাথী হওয়া, গোটা জাতির স্বপ্ন পূরণের মাধ্যমে দারিদ্র্য, অসহায়ত্ব ও বৈষম্য দূর করার নাম রাজনীতি।

আরও পড়ুন:


পরীমনি কাণ্ডে থমথমে ‘সুনসান এফডিসি’

প্রজ্ঞাপন জারি, রোববার ব্যাংক বন্ধ


 

পিরোজপুরের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক চৌধুরী রওশন ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন পিরোজপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাঈদুর রহমান ও পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ হাকিম হাওলাদার। পিরোজপুর জেলা যুবলীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান ফুলু, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউল আহসান গাজী, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক গোপাল বসু, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার গৌতম নারায়ণ চৌধুরীসহ পিরোজপুরের বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকতা এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ষড়যন্ত্রকারী-সুবিধাবাদীর বিষয়ে সজাগ থাকতে বললেন নাছিম

অনলাইন ডেস্ক

ষড়যন্ত্রকারী-সুবিধাবাদীর বিষয়ে সজাগ থাকতে বললেন নাছিম

ষড়যন্ত্রকারী-সুবিধাবাদীর বিষয়ে সজাগ থাকতে হবে বলে জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম  বাহাউদ্দীন নাছিম। 

বৃহস্পতিবার ( ৫ আগস্ট)  বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ' বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠপুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭২ তম জন্মশতবার্ষিকী'র এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ এ আলোচনা সভায় আয়োজন করে।

বাহাউদ্দীন নাছিম বলেন,  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে আমরা রক্ষা করতে পারি নি। এটা আমাদের ব্যর্থতা।  জাতির জনকের সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে খুনিদের বিচার হয়েছে।কিন্ত ষড়যন্ত্রের সঙ্গে যারা জড়িত ছিলো তাদের ইতিহাস বাংলাদেশ মানুষের জানার অধিকার রয়েছে।  এই ইতিহাস যতদিন না উন্মুক্ত হবে, বাংলাদেশের মানুষ পরিস্কার ভাবে জানতে না পারবে, ততদিন ষড়যন্ত্রকারী, সুবিধাবাদীদের অপতৎপরতা চলতেই থাকবে।  এদের বিষয়ে আমাদের সজাগ থাকতে হবে। 

কৃষিবিদ নাছিম বলেন, জাতি পিতাকে হত্যাকাণ্ডের পর যারা প্রতিবাদ করতে পারেনি।  যারা বিশ্ববাসীর কাছে বাঙালি জাতিকে কাপুরুষের জাতি হিসেবে যে কালিমা লেপন করে দিয়েছিলো।  আমরা সেই কালিমা থেকে বেড়িয়ে আসতে সক্ষম হয়েছি, শুধুমাত্র জাতির পিতার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার কারণে। বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার হয়েছে। 

আগস্ট মাস আসলে নানামুখী ষড়যন্ত্র হয় জানিয়ে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বলেন,যখনই আগস্ট আসে, তখনই ষড়যন্ত্রের নানান ডালপালা গজাতে থাকে। যেকোনো মূল্যেই ষড়যন্ত্রকারীদের মূলোৎপাটন করতে হবে, শেকড় উপড়ে ফেলতে হবে।  যাতে বাঙালি জাতি গণতান্ত্রিক অধিকার,  মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশকে সুবিধাবাধীদের হাত থেকে রক্ষা করতে হবে।  স্বার্থপর, যারা সময় বুঝে মাথা জাগায়, দুঃসময়ে কচ্ছপের মত লুকিয়ে বেড়ায় তাদের বিরুদ্ধে আমাদের সোচ্চার হতে হবে। 

বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠপুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল প্রসঙ্গে তিনি বলেন,  প্রিয় নেতা শেখ কামাল, জাতির পিতার আদর্শ ধারণ করতে হয় তিনি আমাদের শিখিয়ে গেছেন। তিনি ছাত্র জীবনে আদর্শিক ছিলেন। তিনি জাতির পিতার সন্তান হয়েও সাধারণ মানুষের মত চলাচল  করতেন। তিনি কাজ করতে ভালোবাসতেন। একসঙ্গে ক্রীড়া, শিক্ষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতির তিনি শুধু সংগঠকই ছিলেন না, ছিলেন পৃষ্ঠাপোষকও।  তিনি ক্রীড়া সংগঠক হিসেবে বাংলাদেশে আধুনিক ফুটবলের জনক ছিলেন। 

আমরা শেখ কামালের মত সাহসী নেতা চাই। শেখ কামালের মত সাহসী যোদ্ধা চাই। শেখ কামালের মত আদর্শবান মানুষ চাই। সৎ মানুষ চাই। সৎ-সাহসী মানুষের নেতৃত্বেই বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে বলেও যোগ করেন আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম। 

আরও পড়ুন:


পরীমনি কাণ্ডে থমথমে ‘সুনসান এফডিসি’

প্রজ্ঞাপন জারি, রোববার ব্যাংক বন্ধ


 

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফীর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবিরের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরও বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নুরুল আমিন রুহুল এমপি,  ডা. দিলীপ কুমার রায়,  যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কাজী মোরশেদ হোসেন কামাল, মহিউদ্দিন মহি,  দফতর সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজসহ অন্যরা।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

‘৫০ বছরের বাংলাদেশে সর্বশ্রেষ্ঠ যুবক বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামাল’

অনলাইন ডেস্ক

‘৫০ বছরের বাংলাদেশে সর্বশ্রেষ্ঠ যুবক বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামাল’

ফাইল ছবি

বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী; ৫০ বছরের বাংলাদেশে সর্বশ্রেষ্ঠ যুবক বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামাল বলে জানিয়েছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেন, মাত্র ২৬ বছরের জীবনে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ, দেশ গঠনে যুবদের সম্পৃক্তকরণসহ ক্রীড়া এবং সংস্কৃতিতে  অসামান্য অবদান রেখে গেছেন। স্বাধীনতা বিরোধি গোষ্ঠি ৫০ বছরে বাংলাদেশে একজন শেখ কামাল তৈরি করতে পারেনি; কিন্তু তারা বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী শেখ কামালকে কলুষিত ও চরিত্র হননের চেষ্টা করেছে।

প্রতিমন্ত্রী আজ  নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র শেখ কামালের  ৭২ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় আয়োজিত আলোচনা সভায় (সরাসরি ও জুম) প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান এ এস এম আলী কবীর, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বেগম লায়লা জেসমিন,  সুলতান আব্দুল হামিদ,  এ কে এম শামীমুল হক ছিদ্দিকী,  চট্টগ্রাম বন্দরের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম শাহজাহান, বাংলাদেশ স্থল বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মো. আলমগীর, যুগ্ম সচিব রফিক আহমদ সিদ্দিক, নৌপরিবহন অধিদফতরের মহাপরিচালক কমডোর আবু জাফর মো. জালাল উদ্দিন এবং বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান  কমডোর গোলাম সাদেক।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের চরিত্র কলুষিত করতে রাষ্ট্রীয় যন্ত্র ব্যবহার করেছেন। সবচেয়ে বেশি করেছেন শেখ কামালের চরিত্র হনন নিয়ে।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, শেখ কামাল  মহান মুক্তিযুদ্ধে অসামান্য অবদান রেখেছেন। তিনি প্রথম ‘জয় বাংলা’ শ্লোগান দিয়েছেন। ‘আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালবাসি’ গানটিরও তিনি উদ্যোক্তা। তিনি ‘আবাহনী ক্রীড়া চক্র’ প্রতিষ্ঠা করেন এবং ‘ব্রাদার্স ইউনিয়ন ক্লাব’ প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখেন। শেখ কামাল একজন প্রতিভাধর খেলোয়াড় ছিলেন। খেলাধুলার পাশাপাশি শিল্প ও সংস্কৃতিতে  তিনি অবদান রাখেন। ‘ঢাকা থিয়েটার’ প্রতিষ্ঠাদের মধ্যে তিনি অন্যতম। তিনি ‘স্পন্দন’ শিল্পী গোষ্ঠি প্রতিষ্ঠা করেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন,  বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারীকে জানতে দেয়া হয়নি; জাতি গঠন করতে তাকে জানতে হবে। শেখ কামালের মতো প্রতিভাধর মানুষদের এগিয়ে নিয়ে আসুন; দেশ এগিয়ে যাবে। বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করছি বলে  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। শেখ কামালের জীবনকে অনুসরণ করে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে এগিয়ে যাব।

বিকেলে প্রতিমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র শেখ কামালের  ৭৩ তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বলেন, ১৯৭৫ সালে আমরা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হারানোর পাশাপাশি সর্বশ্রেষ্ঠ যুবক শেখ কামালকে হারিয়েছি।

আরও পড়ুন:


পরীমনি কাণ্ডে থমথমে ‘সুনসান এফডিসি’

প্রজ্ঞাপন জারি, রোববার ব্যাংক বন্ধ


 

শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মো. রকিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়–য়া, চিত্রনায়ক ফেরদৌস আহমেদ, সাবেক এমপি সিরাজুল ইসরাম মোল্লা, সংগঠনের উপদেষ্টা  ক্যাপ্টেন মোয়াজ্জেম হোসেন এবং  সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফউদ্দিন আহমেদ রতন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

মোটাতাজাদের বাদ দিয়ে শুকনাদের কমিটিতে আনুন: মির্জা আজম (ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম বলেছেন, দলে এখন মোটাতাজা নেতার সংখ্যা বেশি তাই অতীতের অভিজ্ঞতা ও  বর্তমানের সতর্কতা মাথায় রেখে চলতে হবে। মোটাতাজাদের বাদ দিয়ে শুকনাদের কমিটিতে আনুন, তারাই দূর্দিনে পাশে থাকবে।

শেখ কামালের ৭২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি আরও বলেন, অতীতের অভিজ্ঞতা ও বর্তমান সতর্ক বার্তা যেসব শুনছি সেগুলো আমাদের ধারণ করা উচিত। আমরা ১/১১ দেখেছি। আমাদের অনেক নেতাদের চেহারাও আমরা দেখেছি। আগামীতে হয়তোবা ২/২০ আসছে। তাই আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।

news24bd.tv এসএম

আরও পড়ুন


পরীমণি ও রাজসহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে র‍্যাব

সাতক্ষীরা মেডিকেলে আরও ৮ জনের মৃত্যু

পরীমণি-পিয়াসার ৩০০ খদ্দের আত্মগোপনে

কামাল বেঁচে থাকলে আরও অনেক কাজ করতে পারতো: প্রধানমন্ত্রী


 

পরবর্তী খবর