জম্মু-কাশ্মীরে সংঘর্ষ: লস্কর-ই-তাইয়্যেবার কমান্ডারসহ নিহত ৩
জম্মু-কাশ্মীরে সংঘর্ষ: লস্কর-ই-তাইয়্যেবার কমান্ডারসহ নিহত ৩

জম্মু-কাশ্মীরে সংঘর্ষ: লস্কর-ই-তাইয়্যেবার কমান্ডারসহ নিহত ৩

অনলাইন ডেস্ক

ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে তিন গেরিলা নিহত হয়েছে। উত্তর কাশ্মীরের বারামুল্লা জেলার সোপোর এলাকায় গতকাল (রোববার) দিবাগত রাতে কথিত বন্দুকযুদ্ধে লস্কর-ই-তাইয়্যেবার এক শীর্ষ কমান্ডারসহ ওই তিনজন নিহত হন।

আজ (সোমবার) কাশ্মীর পুলিশের আইজি বিজয় কুমার বলেন, ‘সম্প্রতি ৩ পুলিশ সদস্য, ২ কাউন্সিলর ও ২ বেসামরিক নাগরিকের হত্যার সঙ্গে যুক্ত থাকা লস্কর-ই-তাইয়্যেবার শীর্ষ কমান্ডার মুদাচ্ছির পণ্ডিত সংঘর্ষে নিহত হয়েছে। এছাড়া আসরার ওরফে আব্দুল্লাহ নামে এক বিদেশি সন্ত্রাসীর পরিচয় জানা গেছে।

পাকিস্তানের বাসিন্দা আব্দুল্লাহ ২০১৮ সাল থেকে উত্তর কাশ্মীরে সক্রিয় ছিল। ’ বন্দুকযুদ্ধে নিহত অন্য একজনের পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।   

গণমাধ্যম সূত্রে প্রকাশ, সোপোরের গান্ড বার্থে গেরিলাদের তৎপরতার কথা জানতে পেরে পুলিশ, সেনাবাহিনী ও আধাসামরিক বাহিনী সিআরপিএফ জওয়ান সমন্বিত যৌথবাহিনী সংশ্লিষ্ট এলাকা ঘিরে ফেলে তল্লাশি অভিযান চালায়। এসময় গেরিলারা নিরাপত্তা বাহিনীর উপরে গুলিবর্ষণ শুরু করে। নিরাপত্তা বাহিনী পাল্টা গুলিবর্ষণ করলে তিনজন নিহত হন।

এর আগে গত ১৬ জুন শ্রীনগরে একটি সংঘর্ষে একজন গেরিলা নিহত হয়েছিলেন। সোপিয়ানের বাসিন্দা নিহত ওই ওই গেরিলার নাম উজায়ের আশরাফ দার। নিরাপত্তা বাহিনী সেসময়ে একটি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, ছয় রাউন্ড গুলি এবং দুটি গ্রেনেড উদ্ধার করেছিল। উপত্যকায় গেরিলাদের বিরুদ্ধে নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযান অব্যাহত রয়েছে।    

এছাড়া, গত ১০ এপ্রিল সোপোরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ৩ গেরিলা নিহত হয়েছিল। এর একদিনে আগে সোপিয়ানের হাদিপোরায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ৩ গেরিলা নিহত হন।

news24bd.tv / তৌহিদ

;