সারাদেশে ১৪ দিনের ‘শাটডাউন’ দেওয়ার সুপারিশ

অনলাইন ডেস্ক

সারাদেশে ১৪ দিনের ‘শাটডাউন’ দেওয়ার সুপারিশ

সারাদেশে ১৪ দিনের ‘শাটডাউন’ দেওয়ার সুপারিশ করেছে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি।

আজ বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) কোভিড কারিগরি পরামর্শক কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মােহাম্মদ সহিদুল্লাহ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, দেশে কোভিড-১৯ রােগের বিশেষ ডেল্টা ধরনের সামাজিক সংক্রমণ চিহ্নিত হয়েছে। ইতােমধ্যে এর প্রকোপ অনেক বেড়েছে। এ প্রজাতির জীবাণুর সংক্রমণ ক্ষমতা তুলনামূলকভাবে অনেক বেশি। 

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্য বিশ্লেষণে সারাদেশেই উচ্চ সংক্রমণ, পঞ্চাশাের্ধ্ব জেলায় অতি উচ্চ সংক্রমণ লক্ষ্য করা গেছে। এটি প্রতিরােধে খণ্ড খণ্ডভাবে নেওয়া কর্মসূচির উপযােগিতা প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে।

অন্যান্য দেশ, বিশেষত পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের অভিজ্ঞতা হলো, কঠোর ব্যবস্থা ছাড়া এর বিস্তৃতি প্রতিরােধ করা সম্ভব নয়। ভারতের শীর্ষস্থানীয় বিশেষজ্ঞদের সঙ্গেও এ বিষয়ে আলােচনা হয়েছে। তাদের মতামত অনুযায়ী, যে সব স্থানে পূর্ণ ‘শাটডাউন’ প্রয়ােগ করা হয়েছে সেখানে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ হয়েছে।

বর্তমান পরিস্থিতিতে রােগের বিস্তার নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়া এবং জনগণের জীবনের ক্ষতি প্রতিরােধের জন্য কমিটি সর্বসম্মতিক্রমে সারাদেশে কমপক্ষে ১৪ দিন সম্পূর্ণ 'শাটডাউন' দেওয়ার সুপারিশ করছে।

জরুরি সেবা ছাড়া যানবাহন, অফিস-আদালতসহ সবকিছু বন্ধ রাখা প্রয়ােজন। এ ব্যবস্থা কঠোরভাবে পালন করতে না পারলে আমাদের যত প্রস্তুতিই থাকুক না কেন স্বাস্থ্য ব্যবস্থা অপ্রতুল হয়ে পড়বে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন সংগ্রহের জন্য সর্বাত্মক উদ্যোগ নিয়েছেন। এ জন্য সভায় তাকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়। এ রােগ থেকে পূর্ণ মুক্তির জন্য ৮০ শতাংশের ঊর্ধ্বে মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া প্রয়ােজন।

বিদেশ থেকে টিকা সংগ্রহ, লাইসেন্সের মাধ্যমে দেশে টিকা উৎপাদন করা এবং নিজস্ব টিকা তৈরির জন্য সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে গবেষণার জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রচেষ্টার প্রতি কমিটি পূর্ণ সমর্থন জানায়।

আরও পড়ুন:


চলন্ত ট্রাকে তরুণীকে ধর্ষণ, অতঃপর যেভাবে উদ্ধার

দ্বিতীয় বিয়ের পর থেকেই অশান্তিতে ছিল আবু ত্ব-হা!

পরিবারের দাবি হত্যাকাণ্ড, দাফনের ১৫ দিন পর তরুণীর লাশ উত্তোল

পরীমনিকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা মামলায় ১০ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

বিপিএসসির যেকোনো পরীক্ষা দিতে হলে টিকা নিতে হবে

অনলাইন ডেস্ক

বিপিএসসির যেকোনো পরীক্ষা দিতে হলে টিকা নিতে হবে

করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যেও জরুরি নিয়োগ কার্যক্রম বজায় রাখতে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের কোনো পদের প্রিলিমিনারি টেস্ট, লিখিত পরীক্ষা এবং মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে প্রত্যেক পরীক্ষার্থীকে টিকা নিতে হবে।


আরও পড়ুন

করোনাভাইরাস ঊর্ধ্বগতিতে সংক্রমণের শীর্ষে ঢাকা

ফেরি ঘাটে পারের অপেক্ষায় শতাধিক যানবাহন

বিভিন্ন জেলায় করোনায় প্রায় দেড় শতাধিক মৃত্যুর

সিলেট বিভাগে করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু নতুন রেকর্ড


আজ বুধবার পিএসসির যুগ্ম-সচিব নূর আহমদ স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, জরুরি নিয়োগ কার্যক্রম বজায় রাখার স্বার্থে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন বিজ্ঞাপিত কোনো পদের যেকোনো পরীক্ষায় অংশগ্রহণের আগে পরীক্ষার্থীদের কোভিড-১৯ টিকাগ্রহণ নিশ্চিত করার পরামর্শ প্রদান দেওয়া হলো।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর

করোনাভাইরাস ঊর্ধ্বগতিতে সংক্রমণের শীর্ষে ঢাকা

অনলাইন ডেস্ক

করোনাভাইরাস ঊর্ধ্বগতিতে সংক্রমণের শীর্ষে ঢাকা

মহামারি করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বগতির এই সময় সারাদেশে সংক্রমণের শীর্ষে রয়েছে ঢাকা জেলা। এদিকে সবচেয়ে কম সংক্রমিত হয়েছে রাজশাহী জেলায়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর গত ছয় মাসের নমুনা পরীক্ষা ও রোগী শনাক্তের হার বিবেচনায় এ তথ্য জানায়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত করোনা বুলেটিনে অধিদপ্তরের মুখপাত্র ও লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ঢাকা জেলায় এখন পর্যন্ত করোনা শনাক্ত হয়েছে ৪ লাখ ১৯ হাজার ১২৮ জন। ঢাকার পরের অবস্থান চট্টগ্রামের। সেখানে এই পর্যন্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে ৭৪ হাজার ১৯৩ জন।আর এখন পর্যন্ত রাজশাহীতে শনাক্ত হয়েছে মোট ১৮ হাজার ৮০৮ জন রোগী।


আরও পড়ুন

ফেরি ঘাটে পারের অপেক্ষায় শতাধিক যানবাহন

বিভিন্ন জেলায় করোনায় প্রায় দেড় শতাধিক মৃত্যুর

সিলেট বিভাগে করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু নতুন রেকর্ড

বগুড়ায় ৭০০ পরিবারের মাঝে বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ বিতরণ


নাজমুল ইসলাম আরও বলেন, রোগীর সংখ্যা এবং মৃত্যুর সংখ্যা পাশাপাশি রাখা হলে বরিশাল বিভাগের শনাক্ত রোগীর বিপরীতে মৃত্যুর হার ২ শতাংশ। ঢাকায় সেটি ১.৩ শতাংশ, রংপুর বিভাগে ২.৪ শতাংশ।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর

ফেরি ঘাটে পারের অপেক্ষায় শতাধিক যানবাহন

অনলাইন ডেস্ক

ফেরি ঘাটে পারের অপেক্ষায় শতাধিক যানবাহন

চলমান কঠোর লকডাউনের ৬ষ্ঠ দিনে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটের উভয় পাড়ে যাত্রীদের ভিড়। একই সঙ্গে ঢাকায় ফেরা ও দক্ষিণবঙ্গে দিকে ঘরমুখো যাত্রীর চাপ রয়েছে। এরই মধ্যে শিমুলিয়া ঘাট এলাকায় প্রায় একশ এর বেশি এবং বাংলাবাজার ঘাট এলাকায় প্রায় ৪ শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে।

আজ বুধবার দুপুরের দিকে এই চিত্র দেখা যায়। এর মধ্যে দক্ষিণবঙ্গ থেকে আসা ঢাকাগামী যাত্রীর চাপ বেশি।


আরও পড়ুন

বিভিন্ন জেলায় করোনায় প্রায় দেড় শতাধিক মৃত্যুর

সিলেট বিভাগে করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু নতুন রেকর্ড

বগুড়ায় ৭০০ পরিবারের মাঝে বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ বিতরণ

মাহফুজ আনামের অনৈতিক কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদে সম্পাদক পরিষদ থেকে নঈম নিজামের পদত্যাগ


এদিকে গণপরিবহন বন্ধ থাকায় শিমুলিয়া ঘাট থেকে সিএনজি, পিকাপ ভ্যানসহ বিভিন্ন যানবাহনে গন্তব্যে যাচ্ছেন যাত্রীরা। এতেও তাদের গুনতে হচ্ছে অধিক ভাড়া।

news24bd.tv/এমিজান্নাত 

পরবর্তী খবর

ডেঙ্গু চিকিৎসায় রাজধানীতে ৬ ডেডিকেটেড হাসপাতাল

অনলাইন ডেস্ক

ডেঙ্গু চিকিৎসায় রাজধানীতে ৬ ডেডিকেটেড হাসপাতাল

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কমিউনিকেবল ডিজিজ কন্ট্রোলের (সিডিসি) পরিচালক ডা. মো. নাজমুল ইসলাম জানিয়েছেন, ডেঙ্গু চিকিৎসায় রাজধানীর ৬টি হাসপাতালকে ডেঙ্গু ডেডিকেটেড হাসপাতাল করা হবে।

বুধবার (২৮ জুলাই) সকালের দিকে রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ডেঙ্গু বিরোধী চিরুনি অভিযানে অংশ নিয়ে একথা জানান তিনি।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার মিরপুরের রূপনগর এলাকা থেকে ডেঙ্গু বিরোধী চিরুনি অভিযানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা।

মঙ্গলবার অভিযানের প্রথম দিনেই ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৫৪টি ওয়ার্ডে লার্ভিসাইড ছিটানো হয়েছে। এছাড়াও পরীক্ষা করা হয়েছে কোন ভবনগুলোতে এডিসের লার্ভা আছে। যেসব ভবনে এডিসের লার্ভা পাওয়া যাচ্ছে, সেই ভবনের মালিককে জরিমানা করছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

গত বছর মশক নিধন ওষুধের কার্যকারিতা নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠেছিল। তবে এবার সে বিষয়ে সতর্ক অবস্থানের কথা জানিয়েছেন ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জোবায়দুর রহমান।

আরও পড়ুন


জীবন রক্ষা না পেলে জীবিকা দিয়ে কী হবে: ওবায়দুল কাদের

সংকট সমাধানে তিউনিশিয়ার প্রেসিডেন্টকে সংলাপের আহ্বান আন-নাহদার

করোনায় ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সানিয়া আক্তারের মৃত্যু

বগুড়ায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ১৯ জনের মৃত্যু


তিনি বলেন, ওষুধ তিনটি ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়। সব নিশ্চিত হওয়ার পরই ওষুধ মাঠে প্রয়োগ করা হয়। মানুষ যদি একটু সচেতন হয়, তাহলে ৮০ শতাংশ মশা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। সাধারণ নাগরিকদের সচেতন করতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

এদিকে রাজধানীতে মঙ্গলবার ( তার আগের ২৪ ঘণ্টায়) ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ১৪৩ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। যা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। আর আক্রান্তদের মধ্যে ১৪২ জনই রাজধানীর। মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে গত সোমবার সর্বোচ্চ ১২৩ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। চলতি বছরে এটি একদিনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রোগী ভর্তির রেকর্ড।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর

এবার ভিকারুননিসার সেই অধ্যক্ষের পদত্যাগ চাইলেন ব্যারিস্টার সুমন

অনলাইন ডেস্ক

এবার ভিকারুননিসার সেই অধ্যক্ষের পদত্যাগ চাইলেন ব্যারিস্টার সুমন

ক’দিন থেকেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে ফোনে এক অভিভাবকের সঙ্গে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ কামরুন নাহারের গালিগালাজ ভাইরাল হওয়া নিয়ে।

ফাঁস হওয়া সেই ফোনালাপে শোনা যায় অশ্রব্য ভাষায় গালিগালাজ করছেন ভিকারুননিসা অধ্যক্ষ। যদিও পরে তিনি অস্বীকার করেছেন এই ফোনালাপ তার নয়। এই ফোনালাপকাণ্ডের পর অধ্যক্ষ কামরুন নাহারের পদত্যাগের দাবি জানিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) রাতে এক ফেসবুক লাইভে ব্যারিস্টার সুমন এই আহ্বান জানান। স্বেচ্ছায় পদত্যাগ না করলে তাকে অধ্যক্ষের পদ থেকে সরিয়ে ভিকারুননিসার সম্মান রক্ষার কথা বলেছেন তিনি। 

ফেসবুক লাইভে ব্যারিস্টার সুমন বলেন, ভিকারুননিসা নূন স্কুল দেশের একটি ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ভিকারুননিসায় সব মেধাবী শিক্ষার্থীরা পড়ে থাকেন। সবদিক দিয়েই তারা এগিয়ে। বাংলাদেশের প্রতিটি জায়গায়ই ভিকারুননিসায় পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা নেতৃত্ব দিচ্ছেন। কিন্তু বর্তমানে যিনি এই প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ, তার একটি অডিও রেকর্ড ফাঁস হয়ে গেছে। এই অডিও রেকর্ডটি শুনে আমি খুবই কষ্ট পেয়েছি। সেগুলো আমি আপনাদের সামনে তুলে ধরতে চাই।

শিক্ষামন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে ব্যারিস্টার সুমন বলেন, অডিওতে বলা কথাগুলো যদি সঠিক হয়ে থাকে, তাহলে অধ্যক্ষ কামরুন নাহারের স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করা উচিত। নৈতিকতার স্বার্থেই এটা করা উচিত। অন্যথায় ভিকারুননিসার অধ্যক্ষ পদ থেকে আপাতত তাকে সরিয়ে দিন। ভিকারুননিসা থেকে কামরুন নাহারকে সরিয়ে দেওয়াটাই হবে উত্তম সিদ্ধান্ত। অডিওতে বলা বক্তব্য সত্য হওয়ার পরও যদি অধ্যক্ষকে সরিয়ে না দেওয়া হয়, তাহলে ভিকারুননিসায় সন্তান ভর্তি করতে অভিভাবকরা উৎসাহ হারাবেন।

সুমন বলেন, প্রথমে আমি বলতে চাই, কোনো মানুষের ব্যক্তিগত কথা ফাঁস হওয়া উচিত না। এটা আইনবিরোধী, সংবিধানবিরোধী। আমি মনে করি যারা ফাঁস করেছেন, তাদেরও আইনের আওতায় আনতে হবে। এটি সরকারেরই দায়িত্ব। অডিওটি যদি সঠিক হয়ে থাকে, কথোপকথন যদি প্রিন্সিপালের হয়ে থাকে, তাহলে আমি বলব এখানে আইনের বিষয় না। নৈতিকতার গ্রাউন্ডে একজন শিক্ষকের যে ভাষায় কথা বলা উচিত, তিনি সেভাবে বলেননি।

আরও পড়ুন


বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়ার টি-টোয়েন্টি সিরিজের পূর্ণাঙ্গ সূচি

ঝিনাইদহে আরও ৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৭৬

ইরান-আফগানিস্তান সীমান্তে পূর্ণ নিরাপত্তা বিরাজ করছে: আইআরজিসি

পাকিস্তানি তালেবান সদস্যদের লাশ গ্রহণ, অস্বীকার রেডক্রসের


অডিওর তথ্য তুলে ধরে তিনি আরও বলেন, উনি এক জায়গায় বলেছেন, আমি পিস্তল বালিশের নিচে নিয়ে ঘুমাই। এছাড়াও বিভিন্ন কথা বলেছেন। যেগুলো আসলে উচ্চারণ করার মতো না।

তিনি বলেন, আমার অনেক কষ্ট হয়েছে, ভিকারুননিসার সফল যারা আছেন, তারা আজ কী চিন্তা করছেন। অনেকেই হামিদা ম্যাডামের কথা বলছেন। হামিদা ম্যাডামের সময়ে কী ভিকারুননিসা ছিল, আর এখন কী অবস্থা।

সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, মেয়েদের জন্য সবচেয়ে ভালো একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ তার মতো নারী হতে পারে না। তাকে সরিয়ে দিন। তাহলে বাংলাদেশে মেয়েদের গর্বের জায়গা, ভিকারুননিসার সম্মান রক্ষা পাবে।

news24bd.tv এসএম

পরবর্তী খবর