রাজবাড়ীতে লকডাউনে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে তিন চাক্কার অবৈধ গাড়ি
রাজবাড়ীতে লকডাউনে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে তিন চাক্কার অবৈধ গাড়ি

রাজবাড়ীতে লকডাউনে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে তিন চাক্কার অবৈধ গাড়ি

Other

রাজবাড়ী জেলার পাঁচটি উপজেলায় প্রায় সহাস্রোধিক তিন চাক্কার নসিমন, করিমন মহাসড়ক দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। গণপরিবহন বন্ধ থাকায় অবাদে চলাচল করছে এ সকল অবৈধ গাড়ি। এ সকল অবৈধ গাড়ি মহাসড়কে চলাচল করার কারণে মাঝে মধ্যে দুর্ঘটনা ঘটছে। অকালে জীবন হারাচ্ছে অনেকে, অনেকেই হচ্ছে পঙ্গু।

জেলার পাঁচটি উপজেলায় প্রায় সহাস্রোধিক তিন চাক্কার নসিমন, করিমন মহাসড়কে চলাচল করে। এ সকল গাড়িগুলো ভাড়ি মালামাল বহন করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করে। সকাল থেকে মধ্য রাত পর্যন্ত এ সকল গাড়ি মহাসড়ক দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। অনেক গাড়ি দূরপাল্লায়ও যাচ্ছে। যে কারণে মহাসড়কে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। এতে অকালে জীবন হারাচ্ছে অনেকে।

মহাসড়কে কেন নসিমন চালাচ্ছেন সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা যায়

এমন প্রশ্ন করলে সবুজ মোল্লা নামের এক নসিমন চালক বলেন, প্রয়োজনের তাগিদে চালাচ্ছি। এই গাড়িগুলো অল্প টাকায় ক্রয় করে চালাতে পারি। কিন্ত বড় গাড়িতো আমরা ক্রয় করার সামর্থ নেই। তবে এই গাড়ি গুলো চালাতে মহাসড়কে নানা প্রকার দুর্ভোগ পোহাতে হয়। পুলিশ দেখলেই টাকা, না হলে নিয়ে যায়। তিনি বলেন, আয়ের সিংহ ভাগ পুলিশের দিতে হয়।
 
নাম প্রকাশ না শর্তে একাধিক চালক বলেন, আমরা যখন সরকারি কাজ করি তখন বৈধ। আর সারা বছর অবৈধ। তারা আরও বলেন, এ সকল গাড়িগুলো চলাচল করছে, যে কারণে অনেকে আয় রোজগার করে সংসার চালাতে পারছে। গাড়িগুলো না চললে দেশে চুরি-ছিনতাই বেড়ে যাবে।
  
তিন চাক্কার অবৈধ নসিমন-করিমন মহাসড়কে চলাচলে নিশেষ থাকলেও কিভাবে গাড়িগুলো চলাচল করে এ প্রশ্ন সাধারণ মানুষের।
 
গোয়ালন্দ রাবেয়া ইদ্রিস মহিলা কলেজের ছাত্রী সিগমা বলেন, মহাসড়কে পুলিশের সামনে দিয়ে কিভাবে এসকল অবৈধ যানবাহন চলাচল করে ? তিনি বলেন, পুলিশ ইচ্ছা করলে এ সকল যানবাহন যে কোন সময় বন্ধ করতে পারে।  

রাজবাড়ী ড. আবুল হোসেন মহাবিদ্যালয়ের রুহুল আমীন নামের এক ছাত্র বলেন, বিভিন্ন সরকারি কাজে তিন চাক্কার নসিমন ব্যবহার করে। আবার এ সকল যানবাহন অবৈধও বলা হচ্ছে। এ ব্যাপারে পরিস্কার হওয়া প্রয়োজন। কারণ এসকল গাড়ি তৈরি করছে সকলের সামনে। চলাচলও করছে সকলের সামনে।
 
রাজবাড়ী মটর শ্রমিক ইউনিয়নের (রেজি নং-১৭২৭) এর সভাপতি মো. শহীদ মোল্লা বলেন, তিন চাক্কার নসিমন-করিমন, অটোবাইক সহ গ্রামীণ যানবাহন গুলো মহাসড়কে চলাচল নিশেষ থাকলেও অবাদে চলাচল করছে। এই গাড়িগুলোর চালকগণ মহাসড়কের আইন-কানুন জানে না। যে কারণে  মহাসড়কে দুর্ঘটনাও বেশি ঘটছে। এর দায় বড় গাড়ি চালকের নিতে হয়।
 
রাজবাড়ী আহলাদীপুর হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, তিন চাক্কার অটোবাইক, নসিমন-করিমন, ইঞ্জিন চালিত রিক্সা-ভ্যান এর ব্যাপারে প্রতিদিন অভিযান চালানো হচ্ছে। মামলাও দেওয়া হচ্ছে।

গত এক সপ্তাহে কি পরিমান গাড়ি ধরেছেন, কত গাড়ি মামলা দিয়েছেন প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, দেখে জানাতে পারব। মামলা দিলে মহাসড়কে তাহলে এত অবৈধ গাড়ি কেন প্রশ্ন করলে তিনি কোন উত্তর দিতে পারেন নি।    

আরও পড়ুন:


১৪ দিনের শাটডাউনে প্রস্তুত সরকার, যেকোন সময় ঘোষণা (ভিডিও)

সারাদেশে ১৪ দিনের ‘শাটডাউন’ দেওয়ার সুপারিশ

খুলনার তিন হাসপাতালে আরও ৯ জনের মৃত্যু

ঝিনাইদহে ২৪ ঘন্টায় সর্বোচ্চ আক্রান্ত, মৃত্যু ২


news24bd.tv / কামরুল