দপ্তরের মধ্যে সহকারীকে চুমু খেয়ে বিপাকে ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী
দপ্তরের মধ্যে সহকারীকে চুমু খেয়ে বিপাকে ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী

দপ্তরের মধ্যে সহকারীকে চুমু খেয়ে বিপাকে ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

করোনার মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে দপ্তরের ভিতরে এক সহকারীকে চুমু খেয়ে বিপাকে পড়েছেন যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক। চুমু খাওয়ার ওই ছবি সংবাদপত্রে প্রকাশিত হওয়ার পর থেকে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা চলছে। এমনকি স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে মন্ত্রিসভা থেকে বের করে দেওয়ার দাবিও উঠেছে।

তবে এমন কাণ্ড ঘটানোর জন্য শুক্রবার দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চেয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গিনা কোলাডঅ্যাঞ্জেলো নামের ওই সহকারীকে ম্যাট হ্যানকক নিজেই নিয়োগ দিয়েছিলেন। তাঁর সঙ্গে অন্তরঙ্গ ছবি প্রকাশ পাওয়ার পর দুঃখ প্রকাশ করে মন্ত্রী বলেছেন, আমি স্বীকার করছি যে, করোনা মহামারির মধ্যে আমি সামাজিক দূরত্বের বিধিনিষেধ ভেঙেছি।

দুঃখ প্রকাশ করে তিনি আরও বলেন, আমি মানুষকে হতাশ করেছি। তবে এই মহামারি থেকে দেশকে মুক্ত করতে আমি কাজের দিকে মনোনিবেশ করছি।

আরও পড়ুন


ফিনল্যান্ডে সিটি কাউন্সিলর নির্বাচিত তরুণ প্রবাসী বাংলাদেশি হিমেল

১৬ বছরের কিশোরীকে বিয়ে করলেন ৬০ বছর বয়সী চেয়ারম্যান

জর্জ ফ্লয়েড হত্যা: সাড়ে ২২ বছর কারাদণ্ড সেই পুলিশ কর্মকর্তার

জার্মানিতে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতে ৩ জনের মৃত্যু


এদিকে, লেবার পার্টির পক্ষ থেকে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের প্রতি হ্যানকককে মন্ত্রিসভা থেকে বরখাস্ত করার দাবি জানানো হয়েছে। তার অবস্থানকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলেছে লেবার পার্টি।

তবে বরিস জনসনের একজন মুখপাত্র বলেন, প্রধানমন্ত্রী হ্যানকককে ক্ষমা করেছেন এবং বিষয়টি এখানেই শেষ ভাবতে বলেছেন। দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ওপর প্রধানমন্ত্রীর পূর্ণ আস্থা রয়েছে।

ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড দ্য সানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, হ্যানকক ও কোলাডঅ্যাঞ্জেলো দুজনই বিবাহিত। তাঁদের তিনটি করে সন্তানও রয়েছে। তাঁদের অন্তরঙ্গ ছবি গত ৬ মে স্বাস্থ্য বিভাগের ভেতরেই তোলা হয়।

news24bd.tv এসএম