মুক্তিযোদ্ধাদের মরণোত্তর গার্ড অব অনারে নারী না রাখার নিন্দা অর্থনীতি সমিতির

অনলাইন ডেস্ক

মুক্তিযোদ্ধাদের মরণোত্তর গার্ড অব অনারে নারী না রাখার নিন্দা অর্থনীতি সমিতির

বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মরণোত্তর গার্ড অব অনারে নারী কর্মকর্তা না রাখার বিষয়ে যে সুপারিশ এসেছে তা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পরিপন্থি বলে মন্তব্য করেছে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতি।

জাতীয় সংসদের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ১৯তম বৈঠকে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মরণোত্তর গার্ড অব অনার- এ নারী কর্মকর্তাদের উপস্থিতি নিয়ে আপত্তি তোলা হয়। পরে নারী কর্মকর্তাদের সরকারি এই আনুষ্ঠানিকতায় না রাখার সুপারিশ করেছে।

স্থায়ী কমিটির এই সুপারিশের প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ অর্থনীতিবিদ সমিতি বলেছে, এখানে ধর্মীয় ভাবাবেগকে টেনে আনা মৌলবাদী চিন্তা-চেতনা উৎসারিত এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ও চেতনার পুরোপুরি বিরোধী। 

গার্ড অব অনারে নারী কর্মকর্তাদের বাদ দেওয়ার সুপারিশের নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতি বলেছে, নারী প্রসঙ্গ তুলে অহেতুক ধর্মীয় বিতর্ক সৃষ্টি করে সরকারি কোনো কার্যক্রম থেকে নারীকে দূরে সরিয়ে রাখার যেকোনো পরিকল্পনা ও উদ্যোগ কখনও গ্রহণযোগ্য নয়। এতে করে মানুষে মানুষে সামাজিক অসাম্য বিলোপ করার সংবিধানের অঙ্গীকার ভূলুণ্ঠিত করা হবে। যারা এ ধরণের চিন্তা-চেতনা পোষণ করেন, তারা কোনোভাবেই মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা হৃদয়ে ধারণ করেন না। তবে তাদের জেনে রাখা উচিৎ, তাদের আদর্শিক রাষ্ট্র পাকিস্তানে নারীরা নিয়মিতই মৃতের জানাজায় অংশ নিয়ে থাকেন। 

মুক্তিযোদ্ধাদের মৃত্যুর পর গার্ড অব অনার প্রদান করা কোনো ধর্মীয় অনুষ্ঠান-রীতি নয়। সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী মুক্তিযোদ্ধাদের মৃত্যুর পর শেষবারের জন্য তাঁদের রাষ্ট্রীয়ভাবে সম্মান জানিয়ে শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়। সরকারের প্রতিনিধি হিসাবে জেলা বা উপজেলা প্রশাসনের ডিসি বা ইউএনওরা গার্ড অব অনার দিয়ে থাকেন। বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতি মনে করে, এখানে ধর্মীয় ভাবাবেগকে টেনে আনা মৌলবাদী চিন্তা-চেতনা উৎসারিত এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ও চেতনার পুরোপুরি বিরোধী ।

বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির প্রতিবাদলিপিতে বলা হয়, জানাজার বাইরে সরকারের একটি আনুষ্ঠানিকতা নিয়ে অহেতুক ধর্মীয় বিতর্ক সৃষ্টি করাকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও শোভন বাংলাদেশ বিনির্মাণের প্রচেষ্টায় নিয়োজিত বাংলাদেশে অর্থনীতি সমিতি মনে করে গভীর উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও ষড়যন্ত্রমূলক।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার এ ধরনের কোনো হঠকারী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে না বলেই বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতি আশা করে।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় গড়ে ওঠা বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতি সবসময়ই শোভন সমাজ-অর্থনীতি-রাষ্ট্রীয় উপাদানসমৃদ্ধ শোভন একটি বাংলাদেশ বিনির্মাণের স্বপ্ন ধারণ করে। যেকোনো পশ্চাৎপদ চিন্তাধারার বিপক্ষে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির অবস্থান সবসময়ই অটুট থাকবে।

প্রতিবাদলিপিতে স্বাক্ষর করেছেন সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. আবুল বারকাত, সহ সভাপতি এ জেড এম সালেহ্, অধ্যাপক হান্নানা বেগম, সাধারণ সম্পাদক জামালউদ্দিন আহমেদসহ অন্য সদস্যরা।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ডিএনসিসিতে মোবাইল কোর্টে ২৭ মামলা

অনলাইন ডেস্ক

ডিএনসিসিতে মোবাইল কোর্টে ২৭ মামলা

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) এলাকায় এডিস মশা, ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া বিস্তার রোধকল্পে মোবাইল কোর্টে ২৭টি মামলায় সর্বমোট ২ লক্ষ ১৬ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

২৮শে জুলাই বুধবার ডিএনসিসির ১ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ জুলকার নায়ন পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ২টি মামলায় ১০ হাজার টাকা, ২ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ. এস. এম. সফিউল আজম পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ২টি মামলায় ২০ হাজার টাকা, ৩ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল বাকী পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৮টি মামলায় ৩৪ হাজার ৭০০ টাকা, ৪ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সালেহা বিনতে সিরাজ পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৪টি মামলায় ৩৬ হাজার টাকা,

৫ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুদ হোসেন পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৩টি মামলায় ৭৫ হাজার টাকা, ৮ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আবেদ আলি পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৫টি মামলায় ১০ হাজার ৮০০ টাকা এবং ৯ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পারসিয়া সুলতানা প্রিয়াংকা পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৩টি মামলায় ৩০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এভাবে মোট ২৭টি মামলায় আদায়কৃত জরিমানার সর্বমোট পরিমাণ ২ লক্ষ ১৬ হাজার ৫০০ টাকা।

আরও পড়ুনঃ


দ. কোরিয়ার কোন গালিও দেয়া চলবে না উত্তর কোরিয়ায়

তালেবানের হাত থেকে ২৪ জেলা পুনরুদ্ধারের দাবি

কাছাকাছি আসা ঠেকাতে টোকিও অলিম্পিকে বিশেষ ব্যবস্থা


 

এসময় মাইকিং করে জনসচেতনতামূলক বার্তা প্রচার করা হয় এবং সকলকে এডিস মশা এবং ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে ডিএনসিসি মেয়রের আহবান “তিন দিনে একদিন, জমা পানি ফেলে দিন” মানার পাশাপাশি ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনাসহ স্বাস্থ্যবিধিসমূহ যথাযথভাবে মেনে চলার পরামর্শ দেয়া হয়।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

পিরোজপুরে ৩৩৩ কল দিয়ে একদিনে খাবার পেল ৩০ পরিবার

পিরোজপুর প্রতিনিধি

পিরোজপুরে ৩৩৩ কল দিয়ে একদিনে খাবার পেল ৩০ পরিবার

পিরোজপুরে ৩৩৩ কল দিয়ে একদিনে খাবার পেল ৩০ পরিবার। আজ মঙ্গলবার দুপুরে সদর উপজেলা পরিষদ ভবনে অসহায় পরিবারগুলোর হাতে ১০ কেজি চাল,ডাল,তেল ও আলুসহ খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন ইউএনও বশির আহমেদ। 

এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার বশির আহমেদ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সদর উপজেলায় ১৩ লক্ষ টাকা খাদ্য সহায়তার জন্য বরাদ্দ দিয়েছেন। যা ৩৩৩ এর মাধ্যমে আমরা খাদ্য সহায়তা প্রদান করছি। ঢাকায় যে মেসেজ পাওয়া যায় তা যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে আমরা খাদ্য সহায়তা তুলে দেই। ৩৩৩ চালু হওয়ার পর থেকে আমরা ৫ শতাধিক লোককে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে মৃত্যুর তথ্য

গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী


 

বিতরনকালে সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আমিরুল ইসলামসহ সদর উপজেলার বিভিন্ন সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বিয়ের দাবীতে স্বামী ছেড়ে পরকীয়া প্রেমিকের বাড়িতে প্রবাসীর স্ত্রীর অনশন

অনলাইন ডেস্ক

বিয়ের দাবীতে স্বামী ছেড়ে পরকীয়া প্রেমিকের বাড়িতে প্রবাসীর স্ত্রীর অনশন

স্ত্রীর মর্যাদার দাবীতে স্বামীর ঘর ছেড়ে পরকীয়া প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন এক প্রবাসীর স্ত্রী। এ সংবাদ পেয়ে প্রেমিক শাহাদত (২৫) বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। এ নিয়ে ওই গ্রামে পক্ষে-বিপক্ষে উত্তেজনা দেখা দেয়।

নওগাঁর রাণীনগরে  সোমবার (২৬ জুলাই) বিকেল থেকে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন শুরু করেন প্রবাসীর স্ত্রী। 

জানা গেছে, উপজেলার মিরাট ইউনিয়নের মেরিয়া গ্রামের এনামুল সরদারের ছেলে শাহাদত হোসেন একই গ্রামের সৌদি প্রবাসী আপেল মাহমুদের স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায় প্রেমিক শাহাদত বিয়ে করার প্রলোভন দিয়ে ওই গৃহবধূর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করেন। বিষয়টি প্রবাসী স্বামী ও স্বজনরা জানার পর পারিবারিকভাবে কয়েক দফা সালিশি বৈঠকে এমন কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকতে বলেন প্রবাসীর স্ত্রীকে। কিন্তু পিছু ছাড়েন না শাহাদত।

আরও পড়ুন:


বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে মৃত্যুর তথ্য

গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী


 

ভুক্তভোগী নারী জানান, কয়েক দিন আগে আমার প্রেমিক শাহাদত আমাদের দুই জনের বেশ কিছু ছবি আমার স্বামীর কাছে পাঠায়। এক পর্যায়ে স্বামী আমাকে বাড়ি থেকে চলে যেতে বলে এবং কিছু ছবি আমার স্বামী বাবার বাড়ি বগুড়া জেলার দুপচাচিয়া পাঠায়। সেখান থেকেও আমাকে নানাভাবে গালমন্দ করে। কোনো পথ না পেয়ে আমি শাহাদতের বাড়ি চলে আসি। আমার উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় শাহাদত। এরপর বাড়ির অন্যান্য সদস্যরাও চলে যায়। শাহাদত যদি আমাকে বিয়ে না করে তাহলে আত্মহত্যা ছাড়া আমার পথ নেই।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ডিএমপিতে এসি মর্যাদার দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে বদলি

অনলাইন ডেস্ক

ডিএমপিতে এসি মর্যাদার দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে বদলি

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) পদমর্যাদার দুই কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে।

লজিস্টিকস্ বিভাগের সহকারী পুলিশ কমিশনার মাহফুজুর রহমানকে ওয়ারী বিভাগে (গোয়েন্দা) ও সহকারী পুলিশ কমিশনার মোস্তাফিজুর রহমানকে লজিস্টিকস্ বিভাগের সহকারী পুলিশ কমিশনার হিসেবে পদায়ন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে মৃত্যুর তথ্য

গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী


 

সোমবার (২৬ জুলাই) ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে এ পদায়ন করা হয়। এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ডিএসসিসিতে মশক নিয়ন্ত্রণে ১০ ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

অনলাইন ডেস্ক

ডিএসসিসিতে মশক নিয়ন্ত্রণে ১০ ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

এডিস মশার লার্ভা নিয়ন্ত্রণে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ১০ ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে মশার লার্ভা পাওয়ায় ৭ নির্মাণাধীন ভবন ও বাসা-বাড়িকে ১ লক্ষ ৯ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করেছে। 

এডিস মশার লার্ভা নিয়ন্ত্রণে আজ সোমবার ডিএসসিসি এর অঞ্চল-৪ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা (আনিক) মো. হায়দার আলী কেপি ঘোষ স্ট্রিট এলাকায় এবং অঞ্চল-১০ এর আনিক মোহাম্মদ মামুন মিয়া জনতাবাগ ও রইছনগর এলাকায় এবং করপোরেশনে নবসংযুক্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের মধ্যে মুহাম্মদ হাসনাত মোর্শেদ ভূঁইয়া গেন্ডারিয়া এলাকায়, শাহীন রেজা নন্দীপাড়া এলাকায় এবং মো. আলমগীর হোসেন খিলগাঁও এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এছাড়াও আনিক-৭ এবং নবসংযুক্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের মধ্যে ৪ জন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছেন।   

অভিযানে ভ্রাম্যমাণ আদালতসমূহ মোট ৮৭টি নির্মাণাধীন ভবন ও বাসাবাড়ি পরিদর্শন করেন। এ সময় আনিক-৪ মো. হায়দর আলী ২ মামলায় ১ লক্ষ টাকা, আনিক-১০ মোহাম্মদ মামুন মিয়া ২ মামলায় ৭ হাজার টাকাসহ সর্বমোট ৭ মামলায় এক লক্ষ ৯ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। 

আরও পড়ুন:


করোনায় জাবি অধ্যাপকের মৃত্যু

মর্মান্তিক মৃত্যুর ঠিক আগ মুহূর্তে ছবি তোলেন তিনি

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ স্থগিত


আগামীকাল থেকে আরও বৃহদাকারে ডিএসসিসি এর ১০টি অঞ্চলে একযোগে ১০টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হবে। অভিযানের পাশাপাশি করপোরেশনের বিভিন্ন ওয়ার্ডে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর