গণপরিবহন বন্ধ, রাস্তায় চরম ভোগান্তিতে অফিসগামী মানুষ

অনলাইন ডেস্ক

গণপরিবহন বন্ধ, রাস্তায় চরম ভোগান্তিতে অফিসগামী মানুষ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আজ থেকে দেশজুড়ে সীমিত পরিসরে ‘লকডাউন’ শুরু হয়েছে। গণপরিবহন বন্ধ রেখে সীমিত পরিসরে অফিস-আদালত চালু থাকায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছে অফিসগামী মানুষ। রাস্তার স্থানে স্থানে অফিসগামী যাত্রীরা ভিড় করেছেন। কিন্তু কোথাও বাস নেই, মিনিবাস নেই। অটোরিকশাও কম। যে রিকশাগুলো চলছে সেগুলোর ভাড়াও বেশি। অনেকে বেশি ভাড়ায় রাইড শেয়ারিং মোটরসাইকেলে গন্তব্যে পৌঁছানোর চেষ্টা করছেন।

সোমবার (২৮ জুন) সকাল ৮ টা থেকে রাজধানীর মিরপুর, খিলক্ষেতসহ বিভিন্ন এলাকায় আফিসগামী মানুষের ভোগান্তির এমন চিত্র দেখা গেছে।

সুমাইয়া আক্তার একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা। মিরপুর ১০ নম্বর থেকে যাবেন আগারগাঁও। দীর্ঘ এক ঘণ্টা অপেক্ষার পরে কোনো পরিবহন না পেয়ে রিকশায় যাত্রা শুরু করেন আগারগাঁও উদ্দেশ্যে। তিনি বলেন, 'সীমিত পরিসে ‘লকডাউন’ ঘোষণা করা হয়েছে। অফিস খোলা আছে। অফিস তো যেতেই হবে। চাকরি বাঁচাতে হবে। চাকরি চলে গেলে পরিবার নিয়ে বিপদে পড়ে যাব। যত কষ্ট পোহাতে হয় আমাদের মত সাধারণ মানুষের। ৮০ টাকার ভাড়া রিকশা চালক নিচ্ছে ১৩০ টাকা। যে যেভাবে পারছে ভাড়া চাইছে, বাড়তি ভাড়া নিচ্ছে। কে দেখবে এইসব অসংগতি আর সমস্যা?'

খিলক্ষেতে বসস্ট্যান্ডে অপেক্ষারত একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা বাবুল বলেন, অফিস খোলা রাখা হয়েছে। রাস্তায় যানবাহন নেই। আমার অফিস মহাখালী এখন কীভাবে যাবো বুঝতে পারছি না। এভাবে কি সাধারণ মানুষকে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন করা যায়? মানুষ যদি নিজে থেকে সচেতন না হয়।

একই চিত্র রাজধানীর শাহবাগ, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে, কারওয়ান বাজার, নীলক্ষেত, গুলিস্তান, যাত্রাবাড়ী, রামপুরা, শ্যামলী, মোহাম্মদপুর, আসাদগেটসহ বিভিন্ন স্থানে। গণপরিবহনের অভাবে অনেকে হেঁটেই অফিসে রওনা হয়েছেন।

মতিঝিল যাওয়ার জন্য সকাল সাড়ে ৮টায় আগারগাঁওয়ে অপেক্ষা করছিলেন সিরাজুল ইসলাম। তিনি বললেন, রিকশায় ভাড়া চাইছে ৪০০ টাকা। অটোরিকশাও কম। তাই হেঁটেই রওনা দেবো। তিনি জানান, একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে তিনি কাজ করেন।


আরও পড়ুন:

টানা ১০ জয়ের পর ড্র করল ব্রাজিল

রোনালদোদের বিদায় করে কোয়ার্টার ফাইনালে বেলজিয়াম

মগবাজারে বিস্ফোরণস্থল পরিদর্শনে যাবে তদন্ত কমিটি

মগবাজারে বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্ত হয় ১৪ ভবন, তিন বাস


দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পণ্যবাহী যান চলাচল করছে রাজধানী ঢাকায়। সকালে বাসা থেকে বেরিয়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে অনেকে বাধ্য হয়ে এসব যানবাহনেও উঠেছেন। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী ঢাকা পোস্টকে বলেন, সব ধরনের গণপরিবহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। ঢাকার কাছের জেলাগুলো থেকে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। এ কারণে অনেকে পণ্যবাহী ট্রাক ও পিকআপে উঠছেন।

এর আগে, রবিবার (২৭ জুন) প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এতে বলা হয়, সারাদেশে পণ্যবাহী যানবাহন ও রিকশা ব্যতীত সব গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে নিয়মিত টহলের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।

সূত্রঃ কালের কন্ঠ

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

ময়মনসিংহে করোনা ও উপসর্গে ১৬ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক

ময়মনসিংহে করোনা ও উপসর্গে ১৬ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিকেলের করোনা ইউনিটে করোনায় আক্রান্ত উপসর্গে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন:


একসঙ্গে তিন ডোজ টিকা নেয়া সেই ব্যাক্তির পরিচয় মিলল

সম্পাদক পরিষদ থেকে পদত্যাগের কারণ জানালেন নঈম নিজাম

কভিড-১৯ টিকা উৎপাদনে বাংলাদেশকে অগ্রাধিকার দেবে যুক্তরাষ্ট্র

করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার পথে পাঁচজনের মৃত্যু


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

রাজশাহী মেডিকেলের করোনা ওয়ার্ডে আরও ১৭ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজশাহী মেডিকেলের করোনা ওয়ার্ডে আরও ১৭ জনের মৃত্যু

রাজশাহী মেডিকেলের করোনা ওয়ার্ডে আরও ১৭ জনের মৃত্যু

বিস্তারিত আসছে...

পরবর্তী খবর

সাতক্ষীরায় করোনার উপসর্গে ৬ জনের মৃত্যু

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:

সাতক্ষীরায় করোনার উপসর্গে ৬ জনের মৃত্যু

সাতক্ষীরা করোনা ডেডিকেটেড মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনার উপসর্গে  ৬ জনের মৃত্যু।

বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন:


একসঙ্গে তিন ডোজ টিকা নেয়া সেই ব্যাক্তির পরিচয় মিলল

সম্পাদক পরিষদ থেকে পদত্যাগের কারণ জানালেন নঈম নিজাম

কভিড-১৯ টিকা উৎপাদনে বাংলাদেশকে অগ্রাধিকার দেবে যুক্তরাষ্ট্র

করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার পথে পাঁচজনের মৃত্যু


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার পথে পাঁচজনের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার পথে পাঁচজনের মৃত্যু

চাঁদপুরে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি দিন দিন ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে। জেলার হাসপাতালের করোনা ইউনিটে রোগীর চাপ বেড়েছে।  পাশাপাশি অক্সিজেনের সঙ্কট দেখা দিয়েছে।

বুধবার (২৮ জুলাই) চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে আনার পথেই করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে একজন ফরিদগঞ্জ ও অন্য চারজন সদর উপজেলার।

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের করোনা বিষয়ক ফোকালপার্সন ডা. সুজাউদ্দৌলা রুবেল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

জানা গেছে, তাদের প্রত্যেকের শরীরে করোনার উপসর্গ ছিল। গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাদের হাসপাতালে নেয়া হয়। তবে পথিমধ্যে তাদের মৃত্যু হয়। 

হাসপাতালে আনার পথে মারা যাওয়ারা হলেন- চাঁদপুর শহরের বিষ্ণুদী এলাকার জলিল খন্দকার (৫৮), সদর উপজেলার দাসদী গ্রামের নুরজাহান (৬৫), রামপুর ইউনিয়নের কামরাঙ্গা গ্রামের আব্দুর রব (৯৫), দাসাদী এলাকার সফরমালী গ্রামের আব্দুল জব্বার (৭০) ও ফরিদগঞ্জ উপজেলার বালিথুবা পূর্ব ইউনিয়নের একতা বাজার এলাকার খুকি বেগম (৫৫)।

এছাড়া কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনার নমুনা দিতে এসে হাসপাতালে মারা যান কামরুন্নাহার (৪০) নামের এক নারী।

 

আরও পড়ুন:


একসঙ্গে তিন ডোজ টিকা নেয়া সেই ব্যাক্তির পরিচয় মিলল

সম্পাদক পরিষদ থেকে পদত্যাগের কারণ জানালেন নঈম নিজাম

করোনায় ঝালকাঠির আদালতের বিচারকের মৃত্যু!

২৯ জুলাই: ইতিহাসে আজকের এই দিনে


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

পটুয়াখালীতে করোনা শনাক্ত রোগী হু হু করে বাড়ছে

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:

পটুয়াখালীতে করোনা শনাক্ত রোগী হু হু করে বাড়ছে

পটুয়াখালীতে হু হু করে বাড়ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। গত ২৪ ঘন্টায় একদিনে জেলায় সর্বোচ্চ ১৭৮ জন শনাক্ত হয়েছে। এ সময় মারা গেছেন আরও দুই জন। মৃত ফরিদা বেগম (৫৫) পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন। তার বাড়ি গলাচিপার নলুয়াবাগী এলাকায়। 

অপর একজন মির্জাগঞ্জের মৃত মিনারা বেগম (৪০) বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে মারা গেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন ডাক্তার মোহাম্মদ জাহাংগীর আলম শিপন।

সিভিল সার্জন জানান, জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় দুইজন মারা গেছেন। এছাড়াও গত ২৪ ঘন্টায় ৪৪৯টি স্যাম্পল টেস্ট করা হয়েছে এর মধ্যে ১৭৮ জনের পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে। এর আগে গত ২৭ জুলাই ১৬৮ জন, ২৬ জুলাই ১০৪ জন, ২৫ জুলাই ১১৭ জন, ২৪ জুলাই ১০৭ জন, ২৩ জুলাই ১০৬ জন শনাক্ত হয়েছে। এর আগে জেলায় শানক্ত রোগীর সংখ্যা অনেক কম ছিল।

পটুয়াখালীতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৮ জনে। বর্তমানে মোট ১৪৩৫ জন রোগীর মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন ১২০ জন এবং হোমে রয়েছেন ১৩১৫ জন। এ পর্যন্ত ২৭৪০৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন সিভিল সার্জন শিপন।

আরও পড়ুন:


সম্পাদক পরিষদ থেকে পদত্যাগের কারণ জানালেন নঈম নিজাম

করোনায় ঝালকাঠির আদালতের বিচারকের মৃত্যু!

আগস্ট মাসের দুই দিন বন্ধ থাকবে ব্যাংক

২৯ জুলাই: ইতিহাসে আজকের এই দিনে


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর