যে দেশে ১২ বছর হলেই ছেলেরা মেয়ে, মেয়েরা ছেলে হয়ে যায়!
যে দেশে ১২ বছর হলেই ছেলেরা মেয়ে, মেয়েরা ছেলে হয়ে যায়!

যে দেশে ১২ বছর হলেই ছেলেরা মেয়ে, মেয়েরা ছেলে হয়ে যায়!

অনলাইন ডেস্ক

অদ্ভুত এই বিশ্বের নানা প্রান্তে প্রতিনিয়তই নানা রখমের অদ্ভুত সব ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে কিছু আমাদের মনোজগতে আলোড়ন তোলে আর কিছু বিস্ময় জাগায়। এমনই এক অদ্ভুত ধরণের আজব ঘটনা ঘটেছে  লাতিন আমেরিকার দ্বীপ রাষ্ট্র ডমিনিকান রিপাবলিকে। দেশটির দক্ষিণের রয়েছে এক আজব গ্রাম সালিনাস।

সেখানে কে ছেলে কে মেয়ে বোঝা মুশকিল। ওই গ্রামে কারও বয়স ১২ বছর না হলে বোঝা মুশকিল, সে আদৌ মেয়ে না ছেলে! 

সেই গ্রামেরই বাসিন্দা জনি শারীরিক গঠন অনুসারে ছেলে। কিন্তু কোনো এক অজানা কারণে তার পুরুষাঙ্গ তৈরি হয়নি। তবে ১২ বছরে পা দেয়ার পর তার পুরুষাঙ্গ গঠিত হয়। জনির মতো গ্রামের আরও অনেক ছোট ছোট শিশুর একই অবস্থা। ১২ বছরের আগে যারা মেয়ে ছিল, ১২-তে পা দেয়া মাত্রই তারা ছেলেতে পরিণত হয়েছে।

স্থানীয়রা এই রোগের নাম দিয়েছে ‘১২ বছরে পুরুষাঙ্গ রোগ’ বা গেবেদোসিস। জনিকে ১২ বছরের আগে সবাই মেয়ে বলেই জানতো। কিন্তু পুরুষাঙ্গ তৈরি হওয়ার পর তাকে এখন সবাই ছেলে হিসেবেই মেনে নিয়েছে।

গ্রামের বাসিন্দা এমনই ছয়জন মেয়ে ১২ বছর বয়সের পরই ছেলেতে পরিণত হয়েছে।  

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, গ্রামের সবাই ওই ছয়জনকে মেয়ে বলেই চিনতো। তারা মেয়েদের পোশাক পরেই গ্রামে ঘুরতো। কিন্তু ১২ বছরে পা দিতেই তাদের পুরুষাঙ্গ গঠিত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ে। এখন ওই ছয়জনই ছেলেদের পোশাক পরে ঘুরে বেড়ায়।

বিশেষজ্ঞদের ধারণা, এক ধরনের বিশেষ শারীরিক ত্রুটির কারণেই গ্রামের মেয়েদের সঙ্গে এমনটা ঘটে থাকে। গর্ভাবস্থায় থাকাকালীনই শিশুদের উপর এই প্রভাব পড়তে শুরু করে। এই সমস্যার সৃষ্টি হয় গর্ভাবস্থায় একটি বিশেষ এনজাইমের অভাবে।

তবে এটা নিয়ে কোনও গবেষণা বা চিকিৎসা পদ্ধতির কথা জানা যায় নি।

news24bd.tv/আলী

;