নববধূ এলো হেলিকপ্টারে করে শ্বশুরবাড়ি, জরিমানা গুনলো চাচা

অনলাইন ডেস্ক

নববধূ এলো হেলিকপ্টারে করে শ্বশুরবাড়ি, জরিমানা গুনলো চাচা

বিয়ের পর শরীয়তপুর সদর উপজেলার আংগারিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ ভাষানচর গ্রামে হেলিকপ্টারে করে আনা হয় নববধূকে। হেলিকপ্টার থেকে নেমে পালকিতে ওঠেন নববধূ। বাজনা বাঁজিয়ে তার সঙ্গে বরের বাড়িতে প্রবেশ করে ব্যান্ড দল। জাঁকজমকপূর্ণ এই আয়োজন দেখতে ভিড় জমায় এলাকার মানুষ। ওই ঘটনায় স্বাস্থ্যবিধি না মেনে জনসমাগম করার অপরাধে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা গুনতে হয়েছে বরের চাচাকে।

সোমবার দুপুরে দক্ষিণ ভাষানচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বর সাগর আহম্মেদের চাচা আবদুস সালাম সরদাকরে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মনদীপ ঘরাই।

স্থানীয়রা জানায়, দক্ষিণ ভাষানচর গ্রামের মো. জাহাঙ্গীর আলম সরদারের ছেলে সাগর আহমেদ মাসুদের (২৬) সঙ্গে গত শুক্রবার বাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার ইব্রাহীমপুর ইউনিয়নের আলী করিম খন্দকারের মেয়ে কাউনান খন্দকার বন্যার (২৩) বিয়ে হয়। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে হেলিকপ্টারে নববধূকে নিয়ে দক্ষিণ ভাষানচর গ্রামের কাছে নতুন হাট ব্রিজে নামেন সাগর আহম্মেদ। হেলিকপ্টার থেকে নববধূ নেমে আসার পর তাকে পালকিতে করে নেওয়া হয় বরের বাড়িতে। এ সময় বাজনা বাজিয়ে নববধূকে নিয়ে বাড়িতে প্রবেশ করে ব্যান্ড দল। এমন দৃশ্য দেখতে কয়েক শ লোক ভিড় জমায়।

খবর পেয়ে সদরের ইউএনও মনদীপ ঘরাই দক্ষিণ ভাষানচর গ্রামে উপস্থিত হয়ে করোনায় বিধিনিষেধ উপেক্ষা করার অপরাধে বরের চাচা আবদুস সালাম সরদারকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

ইউএনও মনদীপ ঘরাই বলেন, হেলিকপ্টারে করে নববধূ এনে এলাকায় লোকসমাগম করা হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনের দায়ে বরের চাচাকে জরিমানা করা হয়েছে। দেশে করোনা মহামারি প্রতিরোধে বিধিনিষেধ চলছে। তা উপেক্ষা করেই বিয়ের অনুষ্ঠানের নানা আয়োজন চলছিল।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

কাকরাইলে গ্যারেজের আগুন নিয়ন্ত্রণে

অনলাইন ডেস্ক

কাকরাইলে গ্যারেজের আগুন নিয়ন্ত্রণে

ফাইল ছবি

রাজধানীর কাকরাইল এলাকায় একটি গ্যারেজে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ১০টি ইউনিট ঘটনাস্থলে কাজ করছে।

বুধবার (৫ আগস্ট) দিবাগত রাত ১২টা ২৬ মিনিটের দিকে আগুন লাগার খবর পায় বলে ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ডিউটি অফিসার মাসুদ রিবেন নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, কাকরাইলে একটি গ্যারেজে আগুন লাগার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আমাদের ১০টি ইউনিট গেছে।  পরে  ফায়ার সার্ভিসের চেষ্টায় ১২টা ৫৮ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। 

প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ জানা যায়নি। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

কুষ্টিয়ায় ঠিকাদারকে হাতুরি দিয়ে পেটানোর ঘটনায় আটক তিনজন

অনলাইন ডেস্ক


কুষ্টিয়ায় ঠিকাদারকে হাতুরি দিয়ে পেটানোর ঘটনায় আটক তিনজন

কুষ্টিয়া শহরে রাইফেল ক্লাবের কাছে প্রকাশ্যে এক ঠিকাদারকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আহত করার ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে র‌্যাব । সোমবার বেলা ১২টার দিকে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

এতে গুরুত্বর আহত হয়েছেন শহিদুর রহমান মিন্টু নামের ওই ঠিকাদার। সোমবার বেলা ১২টার দিকে এই হামলার ঘটনা ঘটে। পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় হামলার ভিডিও ভাইরাল হলে বিষয়টি জানাজানি হয়। গুরুতর আহত ঠিকাদার শহিদুল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে নিরাপত্তাহীনতা বোধ করায় বাসায় ফিরে যান।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

করোনার টিকা না নিয়ে ঘোরাফেরা করলেই শাস্তি

অনলাইন ডেস্ক

করোনার টিকা না নিয়ে ঘোরাফেরা করলেই শাস্তি

দেশে মহামারী করোনার টিকা না নিয়ে বাইরে ঘোরাফেরা করলে আগামী ১১ আগস্ট থেকে তাদের শাস্তির আওতায় আনা হবে। এক্ষেত্রে রাস্তাঘাটে, গণপরিবহন, ট্রেনে হোক- কেউ আইন না মানলে সরকার অধ্যাদেশ জারি করে শাস্তি দেওয়ার কথা ভাবছে।

মঙ্গলবার (০৩ আগস্ট) সচিবালয়ে সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এ তথ্য জানান।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী বলেন, ১১ আগস্টের পর ভ্যাকসিন (টিকা) ছাড়া কেউ মুভমেন্ট করলে শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে। অবশ্যই ভ্যাকসিন নিতে হবে। ১৪ হাজার কেন্দ্রে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। আইন না করলেও অধ্যাদেশ জারি করে হলেও শাস্তি দেওয়ার ক্ষমতা দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন:


১১ তারিখ থেকে যানবাহন চলবে যে নিয়মে

৭, ৮, ৯ আগস্ট ভ্যাকসিন নেওয়ার সুযোগ দিচ্ছি: মোজাম্মেল হক

১১ আগস্টের পর ভ্যাকসিন ছাড়া ঘোরাফেরা করলে শাস্তি


 

তিনি বলেন, আগামী ১ সপ্তাহে ১ কোটি মানুষকে ভ্যাকসিনেটেড করবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। ওয়ার্ড-ইউনিয়নে ৫ থেকে ৭টা কেন্দ্র করে ১ কোটি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। মানুষকে ভ্যাকসিন নিতে দৌড়াতে হবে না, আমাদের লোকজনই তাদের কাছে পৌঁছে যাবে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

এবার ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে ২৮ দিন ধরে কলেজছাত্রীর অবস্থান

অনলাইন ডেস্ক

এবার ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে ২৮ দিন ধরে কলেজছাত্রীর অবস্থান

বিয়ের আশ্বাসে সিঁথিতে সিঁদুর দিয়ে ছাত্রলীগ নেতা বঙ্কিম চন্দ্র এক কলেজছাত্রীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করে। কিন্তু সম্প্রতি সে যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়ে অন্যত্র বিয়ের জন্য পাত্রী দেখা শুরু করে দেয় । এ ঘটনা জানতে পেরে বিয়ের দাবিতে ৭ জুলাই থেকে ২৮ দিন ধরে বঙ্কিমের বাড়িতে অবস্থান নেয় ওই কলেজ ছাত্রী। অবস্থান নিয়ে প্রেমিকাটি জানায়, হয় তার সঙ্গে বিয়ে হবে, না হয় মৃত্যুর পথ বেছে নিবে। 

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জের বড়ভিটা ইউনিয়নের মেলাবর পশ্চিমপাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা বঙ্কিম চন্দ্র ওই গ্রামের দিলীপ চন্দ্রের ছেলে ও বড়ভিটা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। অবস্থানকারী শিক্ষার্থী ডিমলা উপজেলার বাসিন্দা ও জলঢাকার একটি কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী।

সোমবার সন্ধ্যায় ওই ছাত্রীকে পুলিশ থানায় নিয়ে গিয়ে মঙ্গলবার সকালে আদালতে পাঠিয়েছে। 

স্থানীয়রা জানান, মেয়েটির অবস্থানের বিষয়টি বুঝতে পেরে ছাত্রলীগ নেতা বাড়ি থেকে সটকে পড়েন। রাতে উভয় পরিবারের লোকজন বৈঠকে বসেন। ৮ লাখ টাকা যৌতুকের বিনিময়ে বঙ্কিমের পরিবার বিয়েতে সম্মত হয়। এ সময় ছাত্রীর পরিবারের নিকট থেকে অগ্রিম ৪০ হাজার টাকাও নেয়। পরে বঙ্কিম ও তার পরিবার টালবাহানার আশ্রয় নেয়।

আরও পড়ুন


শেখ কামাল: বহুমাত্রিক প্রতিভাবান সংগঠক

বিচার চাওয়ার অধিকার পর্যন্ত জিয়াউর রহমান কেড়ে নিয়েছিলেন: কাদের

বরিশাল শেবাচিমে অক্সিজেনের দাবীতে বাসদের বিক্ষোভ


 

এ ব্যাপারে কিশোরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল আউয়াল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পারিবারিকভাবে বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য কালক্ষেপণ করা হয়েছে। অবশেষে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে ওই ছাত্রীকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

সরকারি তদন্তেও পটিয়ায় অবৈধভাবে টিকা দেয়ার প্রমাণ পাওয়া গেলো

ডেস্ক রিপোর্ট

এবার সরকারি তদন্তেও চট্টগ্রামের পটিয়ার শোভনদণ্ডী ইউনিয়নে অবৈধভাবে টিকা দেয়ার প্রমাণ পাওয়া গেলো। সোমবার রাতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। সেখানে আড়াই হাজারের বেশি টিকা প্রদানের প্রমাণ পেয়েছে তদন্তকারিরা। পাশাপাশি ভ্যাকসিনের অন্তত ২শ কার্ড পাওয়া গেছে যেগুলো কয়েকমাস আগেই রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। অথচ সব কার্ডই পূরণ করা হয়েছে দুই দিনের টিকা কার্যক্রম শেষ হওয়ার পর। কমিটির কাছে উপস্থাপন করা ২৬শ কার্ডের ২২শ-ই ভূয়া বলে সন্দেহ করছেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।

সব অভিযোগের তীর চট্টগ্রাম-১২ আসনের এমপি ও হুইপ সামশুল হক চৌধুরীর ঘনিষ্ঠ সহযোগি, পটিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইপিআই রবিউল হোসাইনের বিরুদ্ধে। 

পটিয়ার শোভনদণ্ডী ইউনিয়নে সরকারি সিদ্ধান্তের এক সপ্তাহ আগে টিকা দেয়ার যে পোস্টার ডিজাইন হয়, তাতে স্পষ্টভাবে এই কার্যক্রম আয়োজনের জন্য হুইপ সামশুল হককে ধন্যবাদ জানান তার সাঙ্গপাঙ্গরা। সরকারি আদেশের মতো মোবাইলে যে মেসেজ পাঠানো হয়, তাতেও সামশুল হকের নির্দেশনায় টিকা দেয়া হচ্ছে বলে উল্লেখ করা হয়।

তদন্তের সময় ২৬শ টিকা কার্ড কমিটির সামনে উপস্থাপন করা হয়। ২শ কার্ডে যে এনআইডি নম্বর পাওয়া যায়, সেগুলো কয়েকমাস আগেই রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। আরো ২ হাজার মানুষ, যারা বিভিন্ন সময়ে ইউনিয়ন পরিষদে রেজিস্ট্রেশন করতে এসে ফিরে গেছেন, তাদের নামেও কার্ড করা হয়েছে।

এতে দুটি প্রশ্ন উঠে আসছে স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের কাছে।

১. যারা আগেই রেজিস্ট্রেশন করেছেন, কিন্তু টিকা নেননি, পরবর্তীতে তারা কিভাবে টিকা নেবেন?

২. যারা রেজিস্ট্রেশন করতে এসেও নানা কারনে তা পারেননি, তারা পুনরায় রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন কিনা? তদন্ত কর্মকর্তারা বলছেন, অবৈধ এই টিকা কর্মসূচিতে কোনো নিয়মনীতিই মানা হয়নি।

আরও পড়ুন


শেখ কামাল: বহুমাত্রিক প্রতিভাবান সংগঠক

বিচার চাওয়ার অধিকার পর্যন্ত জিয়াউর রহমান কেড়ে নিয়েছিলেন: কাদের

বরিশাল শেবাচিমে অক্সিজেনের দাবীতে বাসদের বিক্ষোভ


পটিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সিসি ক্যামেরা থাকলেও ঘটনার দিনের কোনো ফুটেজ পায়নি তদন্ত কমিটি।

অভিযোগ আছে, শোভনদণ্ডী ইউনিয়নে হুইপের বাড়ি লাগোয়া ক্যাম্পে, হুইপের ভাইও টিকা প্রদান করেছেন। মাত্র দুই দিনে ২৬শ টিকা প্রদান কোনোভাবেই স্বাভাবিক নয়। এতে চরম স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি হয়েছে বলে ধারণা স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্টদের।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর