ডা. জাফরুল্লাহর বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাল যুবদল
ডা. জাফরুল্লাহর বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাল যুবদল

ডা. জাফরুল্লাহর বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাল যুবদল

অনলাইন ডেস্ক

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী সম্প্রতি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে নিয়ে যে বক্তব্য দিয়েছেন তার প্রতিবাদ জানিয়েছে যুবদল।

সংগঠনটির পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন যুবদল সভাপতি সাইফুল আলম নীরব ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহউদ্দীন টুকু।

গত শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘বিএনপির ক্ষমতায় আসারই ইচ্ছা নেই। ক্ষমতায় আসতে হলে ইচ্ছা, আগ্রহ থাকতে হবে।

সঙ্গে সঙ্গে তাকে পরিকল্পনা করতে হবে যে কী কী জায়গায় পরিবর্তন আনব। সেগুলো নিয়ে আলোচনা প্রয়োজন। ’

জাফরুল্লাহ বলেন, ‘আজকে বিএনপি পরিচালিত হচ্ছে ওহি নিয়ে। আর সে ওহি লন্ডন থেকে আসে। আমরা লক্ষ করছি, সম্প্রতি নির্বাচনে দাঁড়ানোর লোক খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাই মনে করি, স্বৈরাচার সরকারের পতন ঘটাতে হলে সবাইকে একাত্ম হতে হবে। সে পরিবর্তন আনতে হবে বিএনপির নিজ ঘর থেকে। ’

বক্তব্যের একপর্যায়ে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘আমি বারবার বলেছি, তারেক দুই বছর চুপচাপ বসে থাকো। পারো তো বিলেতে লেখাপড়ার সঙ্গে যুক্ত হয়ে যাও। সেখানে বহুভাবে লেখাপড়া করা যায়। ’ 

জাফরুল্লাহ চৌধুরীর ওই বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে মঙ্গলবার এক বিবৃতি দেয় যুবদল। নেতৃদ্বয় বলেন, তারেক রহমান উড়ে এসে জুড়ে বসেনি। রাজনীতি তার শেকড়ে প্রোথিত। শুরু থেকেই দলের তৃণমূলকে নিয়ে তিনি অনেক কাজ করেছেন। এখনও নিরবচ্ছিন্নভাবে তিনি দলকে সময় দিচ্ছেন।

যুবদল নেতারা বলেন, তার (তারেকের) বাবা শুধু স্বাধীনতার ঘোষকই নন, রণাঙ্গনে যুদ্ধ করে বিজয় ছিনিয়ে এনেছেন। বাংলাদেশের গনতান্ত্রিক সংগ্রামে তার মায়ের ভূমিকাও অনন্য ও অসাধারণ।

জাতীয়তাবাদী যুবদল মনে করে, জনাব জাফরুল্লাহ চৌধুরীর এই বক্তব্য ভ্রান্তিকর, অপ্রাসঙ্গিক ও উদ্দেশ্যমূলক।

সম্পর্কিত খবর

;