বিটুমিনের কর কাঠামোয় বড় বৈষম্যের অভিযোগ

বিটুমিনের কর কাঠামোয় বড় বৈষম্যের অভিযোগ

Other

সড়ক নির্মাণের অন্যতম উপকরন বিটুমিনের কর কাঠামোয় বৈষম্যের অভিযোগ উঠেছে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, সরকারের শুল্ক নীতি আমদানিকারকদের উৎসাহিত করলেও, নিরুৎসাহিত হচ্ছেন দেশিয় উৎপাদকরা। দেশে উৎপাদিত বিটুমিনের জন্য ২৬ শতাংশ কর দিতে হলেও আমদানিকারকদের দেয়া হচ্ছে বড় ছাড়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এমন নীতির ফলে দেশিয় শিল্প উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে, ঝুঁকিতে পড়ছেন এই খাতে বিনিয়োগকারিরা।

সরকারের উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হচ্ছে বড় বড় সড়ক মহাসড়ক নির্মাণের মাধ্যমে। আর এসব সড়ক তৈরিতে অতি প্রয়োজনীয় উপকরণ বিটুমিন। একসময় আমদানি নির্ভর হলেও এখন দেশেই উৎপাদন হচ্ছে বিশ্বমানের বিটুমিন। বহু লোকের কর্মসংস্থান তৈরি করা এই খাতে উঠেছে নানা বৈষম্যের অভিযোগ।

তথ্য বলছে, বড় বিনিয়োগ করে যারা বিটুমিন দেশে উৎপাদন করছেন তাদেরকে সর্বোচ্চ ২৬ শতাংশ পর্যন্ত কর দিতে হচ্ছে। অথচ যারা আমদানি করছেন তাদের করের পরিমাণ ঢের কম। বিটুমিনের কাঁচামাল আমদানিতে ১৫ শতাংশ ভ্যাট ধরা হলেও পরিশোধিত বিটুমিনে কোন ভ্যাট নেই। সবমিলে বিটুমিনের কাচামালে টনপ্রতি ৫৭০ ডলার খরচ হলেও যারা বিটুমিন আমদানি করছেন তাদের খরচ হচ্ছে ২৬০ ডলার। সব মিলে দেশিয় উৎপাদকরা বড় বৈষম্যের শিকার।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, দেশিয় শিল্প সুরক্ষায় নজর দেয়ার কথা বলেছেন। আগামী অর্থবছরের জন্য ঘোষিত বাজেটেও দেশিয় শিল্প বিকাশে নানা নীতি সহায়তার কথা বলা হয়েছে। অথচ বিটুমিন নিয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের এই নীতির কারণে বিপাকে পড়েছেন উৎপাদকরা। রাজস্ব বোর্ডের সাবেক সদস্য ফরিদ উদ্দিন মনে করেন, দ্রুত এই দ্বিমুখী নীতির পরিবর্তন জরুরী।

আমদানি করা নিম্ন মানের বিটুমিনের মান নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে সরকারি সংস্থাগুলোর পক্ষ থেকেও। এর ব্যবহারে দ্রুত নষ্ট হচ্ছে রাস্তাঘাট বাড়ছে সংস্কার ব্যয়ও।

news24bd.tv/এমিজান্নাত

 

;