পুঁজিবাজারে দুই মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন লেনদেন
পুঁজিবাজারে দুই মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন লেনদেন

পুঁজিবাজারে দুই মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন লেনদেন

অনলাইন ডেস্ক

সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবস মঙ্গলবার (২৯ জুন) দেশের শেয়ারবাজারে মূল্য সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। এদিন দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন কমে দুই মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থানে নেমেছে।  

তবে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি ব্যাংক খাতের শেয়ারের দাম বাড়ায় সূচকের উত্থান হয়েছে। বেশির ভাগ কোম্পানিরই শেয়ারের দাম বেড়েছে।

দিনভর দেশের পুঁজিবাজারে লেনদেন হয়েছে সূচক ওঠানামার মধ্য দিয়ে।  

মঙ্গলবার পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত আর্থিক খাতের ২৩টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ১৮টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ৫টি কোম্পানির শেয়ারের দাম। একইভাবে উত্থান হয়েছে ব্যাংকের শেয়ারে দাম। অপরদিকে মিশ্রপ্রবণতায় লেনদেন হয়েছে প্রকৌশল এবং মিউচুয়াল ফান্ড খাতের শেয়ারের।   

আর তাতে সবমিলে আজ দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক আগের দিনের চেয়ে বেড়েছে ১৫ পয়েন্ট। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বেড়েছে ৪৪ পয়েন্ট।

সূচক বাড়লেও প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের পাশাপাশি ব্যক্তি বড় বিনিয়োগকারীদের কম লেনদেন হয়েছেন। আর তাতে লেনদেন নেমে এসেছে ১ হাজার কোটি টাকায়। এছাড়াও লকডাউনে ব্রোকার হাউজগুলো বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতি কম ছিল। ফলে লেনদেনও কমেছে বলে মনে করেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

ডিএসইর তথ্যমতে, সকাল ১০টা থেকে প্রকৌশল, আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ বেশ কয়েকটি খাতের শেয়ার কেনার আগ্রহ বাড়ে বিনিয়োগকারীদের। তাতে লেনদেনের প্রথম ১৭ মিনিটে সূচক বাড়ে ৪০ পয়েন্ট। তবে বীমা ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারের দাম কমতে থাকে। আর এই ধারাবাহিকতায় দিনের বাকি সময় লেনদেন হয়।

দিন শেষে ডিএসইতে মোট ৩৭৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ১৭৫টির, কমেছে ১৬৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩২টির। তাতে এদিন মোট লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৩২৮ কোটি ৪৯ লাখ টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৩২৮ কোটি ৪৯ লাখ টাকা। যা গত প্রায় দুই মাসের মধ্যে সর্বনিন্ম লেনদেন। এর আগের ৩ মার্চ ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ১৫৯ কোটি টাকা।

বেশির ভাগ শেয়ারের দাম বাড়ায় এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ১৫ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৪২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। প্রধান সূচকের পাশাপাশি ডিএসইর অন্য সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৩ দশমিক ৫৮ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২৯৮ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৯ পয়েন্ট বেড়ে ২ হাজার ১৮৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে লেনদেনের শীর্ষে ছিল বেক্সিমকো লিমিটেড। এরপর বেশি লেনদেন হয়েছে ডেল্টা লাইফ ইনস্যুরেন্স লিমিটেডের শেয়ারের। এরপর ক্রমান্বয়ে রয়েছে মালেক স্পিনিং, ন্যাশনাল ফিডস মিলস, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং, জেনারেশন নেক্সট, কুইন সাউথ টেক্সটাইল, কেয়া কসমেটিকস, লঙ্কা বাংলা ফাইন্যান্স এবং নিউ লাইন ক্লোথিং লিমিটেড।

অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৪৪ পয়েন্ট বেড়ে ১৭ হাজার ৪৭৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। সিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩২১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বেড়েছে ১৪০টির, কমেছে ১৫১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টির শেয়ারের দাম। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৪ কোটি ৬৬ লাখ ৩৩ টাকা।

news24bd.tv নাজিম

;