আলফাডাঙ্গায় আ.লীগ নেতাকে হামলা: দুই আসামি জেল-হাজতে

অনলাইন ডেস্ক

আলফাডাঙ্গায় আ.লীগ নেতাকে হামলা: দুই আসামি জেল-হাজতে

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় আওয়ামী লীগ নেতাসহ তার পরিবারের ওপর হামলা ও লুটপাটের ঘটনায় স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ দুই আসামিকে জেল-হাজতে পাঠিয়েছে আদালত।

বুধবার সকালে আসামিরা ফরিদপুর আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তরুণ বাশার তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল-হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আসামিরা হলেন- উপজেলার গোপালপুর ৩ নং ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম বাবর ও গোপালপুর গ্রামের মো. বিল্লাল হোসেন।

গত ১৯ এপ্রিল সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শফি এবং তার পরিবারের সদস্যদের ওপর ধরাল অস্ত্রসহ হামলা ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। এতে শফিসহ চারজন আহত হন। আহাতরা স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেন।

পরে ২০ এপ্রিল এই ঘটনায় ২২ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে আলফাডাঙ্গা থানায় মামলা করা হয়। মামলা হওয়ার পর থেকে আসামিরা পালাতক রয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে এবং ভুক্তভোগীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই আলফাডাঙ্গার ২ নং গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শফির সঙ্গে একই ইউনিয়নের ৩ নং ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম বাবরের বিরোধ চলছিল।

এই বিরোধকে কেন্দ্র করে বাবরসহ তার অনুসারী-অনুগামীরা শফিসহ তার লোকজনদের মারধরসহ হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিল। পরে সোমবার সাইফুল ইসলাম বাবরের নেতৃত্বে ৩০ থেকে ৩৫ জন ব্যক্তি ধারালো অস্ত্র নিয়ে গোপালপুরে শফির বাড়িতে ঢুকে তার ভাই রবিউল ইসলামের নাম ধরে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন।

পরে রবিউল ইসলাম ঘর থেকে বের হয়ে গালিগালাজের কারণ জানতে চাইলেই অভিযুক্তরা রবিউলের ওপর অতর্কিত হামলা করে। তার মাথার ডান ও বাঁ পাশে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করা হয়।

ঘটনার সময় রবিউলের চিৎকার শুনে বাড়ির পাশের স্কুল মাঠ থেকে আওয়ামী লীগ নেতা শফি দৌঁড়ে এলে অভিযুক্তরা তাকেও ঘিরে ধরে মারপিট করে। এতে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয়। এ সময় সবার চিৎকার শুনে শফির চাচাতো ভাইয়ের ছেলে সুমন খান ও শফির ভাইয়ের স্ত্রী রুমা বেগম এগিয়ে এলে তাদেরও মারপিট করে আহত করা হয়।

একপর্যায়ে অভিযুক্তরা আওয়ামী লীগ নেতার ঘরে ঢুকে মালামাল ভাঙচুর ও মূল্যবান জিনিসপত্র লুটপাট করে নিয়ে যায়। পরে প্রতিবেশীরা এসে আহতদের আলফাডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

আরও পড়ুন:


তোর যদি মেয়ে পছন্দ হয় সরাসরি অফার করবি: মারিয়া মিম

কঠোর লকডাউনেও খোলা থাকবে গার্মেন্ট শিল্প-কারখানা

কর্মস্থলে যাতায়াতে ভোগান্তি, গার্মেন্টস শ্রমিকদের বিক্ষোভ

সুইডেনকে কাঁদিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ইউক্রেন


news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

হিরো আলমের বিরুদ্ধে মামলার সত্যতা খুঁজে পায়নি সিআইডি

অনলাইন ডেস্ক

হিরো আলমের বিরুদ্ধে মামলার সত্যতা খুঁজে পায়নি সিআইডি

আলোচিত ‘বাবু খাইছো’ গানের শিরোনাম, কথা, সুর চুরি ও বিকৃত করার অভিযোগে হিরো আলম ও আতাউর রহমান মম এর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার সাক্ষ্য প্রমাণে সত্যতা খুঁজে পায়নি তদন্ত সংস্থা সিআইডি।

তবে সিআইডির দেওয়া প্রতিবেদনের ওপর নারাজি দেবেন মামলার বাদী সোলস ব্যান্ডের অন্যতম সদস্য ও সংগীত পরিচালক মীর শাহরিয়ার মাসুম।

রও পড়ুন:


সেই বাংলা ছবি থেকে সানি লিওনের অংশটি বাদ

অনলাইনে পণ্য ডেলিভারির সময় নির্ধারণ করে দিলো মন্ত্রণালয়

ভ্রুন নষ্ট না করলে তালাক দেয়ার হুমকি স্বামীর

মানবতাবিরোধী মামলার আসামি শহীদুল্লাহ ফকির গ্রেপ্তার


NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

কুষ্টিয়া হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কসহ তিন জনের নামে দুদকের মামলা

জাহিদুজ্জামান, কুষ্টিয়া:

কুষ্টিয়া হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কসহ তিন জনের নামে দুদকের মামলা

ক্রয়নীতি লংঘন করে সরকারি টাকা আত্মসাতের দায়ে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের সাবেক তত্ত্বাবধায়ক ও ঠিকাদারসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুদক, কুষ্টিয়া। 

আজ দুপুর ২টার দিকে কুষ্টিয়া দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে মামলাটি রেকর্ড করা হয়। মামলা নং ১২।

দণ্ডবিধির ৪০৯/১০৯ ও ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে। মামলার বাদী দুদকের ঢাকা প্রধান কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মো. সহিদুর রহমান। 

মামলায় আসামি করা হয়েছে- কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের সাবেক তত্ত্বাবধায়ক (অবসরপ্রাপ্ত) ডা. মো. আবু হাসানুজ্জামান, মহাখালীর নিমিউ এন্ড টিসির সাবেক অ্যাসিস্টেন্ট রিপিয়ার কাম ট্রেনিং ইঞ্জিনিয়ার এ এইচ এম আব্দুস কুদ্দুস ও রাজশাহীর মেসার্স প্যারাগন এন্টারপ্রাইজের মালিক মো. জাহেদুল ইসলামকে।

রও পড়ুন:


সেই বাংলা ছবি থেকে সানি লিওনের অংশটি বাদ

অনলাইনে পণ্য ডেলিভারির সময় নির্ধারণ করে দিলো মন্ত্রণালয়

ভ্রুন নষ্ট না করলে তালাক দেয়ার হুমকি স্বামীর

মানবতাবিরোধী মামলার আসামি শহীদুল্লাহ ফকির গ্রেপ্তার


কুষ্টিয়া দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. জাকারিয়া বলেন, আসামিরা পরস্পর যোজসাজস ও পরিকল্পনা করে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বাজারদরের চেয়ে অধিক দরে কুষ্টিয়া হাসপাতালের জন্য যন্ত্রপাতি ক্রয় করেন। সে সময় তারা সরকারি ১ কোটি ১০ লাখ টাকা তুলে আত্মসাৎ করেন। 

জাকারিয়া বলেন, প্রাথমিক তদন্তে সত্যতা মেলায় দুদক প্রধান কার্যালয় মামলার অনুমতি দিয়েছে। মামলার পর এখন এর পরিপূর্ণ তদন্ত শুরু হলো। তিনি বলেন, দুদকের এসব মামলা জেলা ও দায়রা জজ আদালাতের অধীনে বিচার কার্য পরিচালনা হয়ে থাকে। এ জন্য ওই আদালতকেও মামলার নথি দেয়া হয়েছে। 

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

মানবতাবিরোধী মামলার আসামি শহীদুল্লাহ ফকির গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

মানবতাবিরোধী মামলার আসামি শহীদুল্লাহ ফকির গ্রেপ্তার

মানবতা বিরোধী অপরাধ মামলার আসামি শহীদুল্লাহ ফকিরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পুলিশ গ্রেপ্তার করে তাকে আদালতে সোপর্দ করে।

ঈশ্বরগঞ্জ পৌর এলাকার কাকনহাটি গ্রামের বাসিন্দা শহীদুল্লাহ ফকির (৭২)। তিনি ওই গ্রামের প্রয়াত মৌলভী কমর উদ্দিন ফকিরের ছেলে। বাড়ি ঈশ্বরগঞ্জ হলেও তিনি ঢাকার বনানী এলাকায় একটি বাসায় বসবাস করতেন।

রও পড়ুন:


জন্মদিনে সৃজিতের কাছে কী চাইলেন মিথিলা?

বায়ু দূষণের তালিকায় বাংলাদেশ প্রথম, ঢাকা তৃতীয়

৪৫ মিনিট পর হাসপাতালে অলৌকিকভাবে বেঁচে উঠলেন নারী!

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!


আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল ২০২০ সালের ২ নভেম্বর অভিযোগ পড়ে। তার বিরুদ্ধে দায়ের করা অভিযোগটি তদন্ত করছে ট্রাইব্যুনাল। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে ঈশ্বরগঞ্জ পৌর এলাকার কালীবাড়ি রোড থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি আবদুল কাদের মিয়া জানান, আটককৃতের বিরুদ্ধে ট্রাইবুনাল থেকে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির বিষয় প্রক্রিয়াধীন। আপতত তাকে ৫৪ ধারায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

NEWS24.TV / কামরুল

পরবর্তী খবর

গ্রাহকদের পওনা ফেরত দিতে চাইলেন রাসেল

অনলাইন ডেস্ক

গ্রাহকদের পওনা ফেরত দিতে চাইলেন রাসেল

প্রতারণার অভিযোগে আটক ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির সিইও রাসেলকে জেল থেকে আদালতকক্ষে নেয়া হচ্ছিল। এ সময় টাকা ফেরত দিতে চান কিনা, সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের জবাবে ইভ্যালির রাসেল জবাব দেন, তিনি টাকা ফেরত দিতে চান।

আজ বৃহস্পতিবার রিমান্ড শেষে আদালতে নেয়ার সময় সাংবাদিকের প্রশ্নে হ্যাঁ সূচক মাথা নেড়ে এমন জবাব দেন রাসেল। এরপর আদালতে তোলা হলে তার জামিন নামঞ্জুর করেন আদালত। রিমান্ডের আবেদন বাতিল করে তিন কার্যদিবস তথা আগামী মঙ্গলবারের মধ্যে তাকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়ে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।


আরও পড়ুন

চার-পাঁচ দিনের মধ্যে টিকা পাবে এক কোটির বেশি মানুষ

প্রবাসী নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ!

অনলাইনে থেকেও অফলাইনে চ্যাট!

শর্তসাপেক্ষে করোনার বুস্টার ডোজের অনুমোদন দিলো যুক্তরাষ্ট্র


এ সময় রাসেলের আইনজীবী ব্যারিস্টার মনিরুজ্জামান আসাদ বলেন, মামলা দিয়ে সমস্যা সমাধান হয় না। জামিনে পেলেই সমস্যার সমাধান হবে। রাসেলকে আদালতে আনার খবরে সেখানে বিপুল সংখ্যক গ্রাহক জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করেন। তারা টাকা ফেরত পেতে রাসেলের মুক্তি দাবি করেন। বিক্ষোভকারীরা বলেন, রাসেল জেলে থাকলে তারা পাওনা ফেরত পাবে না। তাই টাকা ফেরত দেয়ার জন্য তাকে মুক্তি দেয়ার দাবি জানান গ্রাহকরা।

news24bd.tv/এমি-জান্নাত  

পরবর্তী খবর

রাসেলের জামিন নাকচ, জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ

অনলাইন ডেস্ক

রাসেলের জামিন নাকচ, জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ

ফাইল ছবি

ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী মো. রাসেলের বিরুদ্ধে প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ধানমন্ডি থানার মামলায় রিমান্ড ও জামিন নাকচ করে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. হাসিবুল হক এই আদেশ দেন।

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আবুল কালাম আজাদ আসামিকে আদালতে হাজির করে গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদনসহ পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করেন। রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন আসামিপক্ষের ব্যারিস্টার এম মনিরুজ্জামান আসাদ। রাষ্ট্রপক্ষে জামিনের বিরোধিতা করেন সিএমএম আদালতের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর আজাদ রহমান।

রও পড়ুন:

জন্মদিনে সৃজিতের কাছে কী চাইলেন মিথিলা?

বায়ু দূষণের তালিকায় বাংলাদেশ প্রথম, ঢাকা তৃতীয়

৪৫ মিনিট পর হাসপাতালে অলৌকিকভাবে বেঁচে উঠলেন নারী!

গাড়ি সাইড দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করলেন এমপি রিমন!


অন্যদিকে ধানমন্ডি থানার আরেক মামলায় রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করে আসামিকে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেছেন তদন্ত কর্মকর্তা। এরপর আদালত আসামিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

news24bd.tv/ নকিব

পরবর্তী খবর