বিবাহিত পাকিস্তানি নারীকে নিয়ে আমিরাতের হোটেলে বাংলাদেশি যুবক, অতঃপর কারাগারে
বিবাহিত পাকিস্তানি নারীকে নিয়ে আমিরাতের হোটেলে বাংলাদেশি যুবক, অতঃপর কারাগারে

বিবাহিত পাকিস্তানি নারীকে নিয়ে আমিরাতের হোটেলে বাংলাদেশি যুবক, অতঃপর কারাগারে

অনলাইন ডেস্ক

পাকিস্তানি নারীর সাথে বিবাহবহির্ভূত অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তোলার অভিযোগে বাংলাদেশি এক যুবককে তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের আদালত। একই সাথে ওই পাকিস্তানি নারীকেও তিন মাসের সাজা দেওয়া হয়েছে। সাজা শেষে দুজনকেই দেশ ছাড়তে হবে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ফুজাইরাহ কোর্ট অব ফার্স্ট ইন্সট্যান্স ২৯ বছর বয়সী বাংলাদেশি যুবকের বিরুদ্ধে পাকিস্তানি নারীর স্বামীর অভিযোগের প্রমাণ পেয়েছে।

অভিযুক্ত নারীর স্বামী পুলিশকে জানিয়েছেন, তার স্ত্রী প্রতারণা করে বাংলাদেশির সঙ্গে সম্পর্ক গড়েন। দুজনে একটি হোটেলে দুপুর একটা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত সময় কাটান। এসময় ওই নারীর স্বামী অন্য একটি গাড়িতে দুজনকে অনুসরণ করে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। এরপর বাংলাদেশি যুবককে মারধর করেন।

অন্যদিকে অভিযুক্ত বাংলাদেশি যুবক আদালতকে বলেছেন, দুজনের একটি সমস্যার বিষয়ে আলাপ করতে ওই নারীর সঙ্গে হোটেল যান তিনি। সেখানে আলাপ শেষে সমস্যা মিটিয়ে রাত ৯টার দিকে হোটেল ত্যাগ করেন। কয়েক মিনিট পর রাস্তায় নারীর স্বামী এসে তাকে কিল-ঘুষি মারতে থাকেন।


আরও পড়ুনঃ

বিয়েবাড়িতে ফুটন্ত স্যুপে পড়ে রাঁধুনির মৃত্যু

উলভসের পর এবার টটেনহামের দায়িত্ব নুনোর কাঁধে

অকারণে বাইরে ঘোরাঘুরি করায় মিরপুরে শতাধিক ব্যক্তি আটক

গণকবরের সন্ধানে তোলপাড়, শতাব্দী প্রাচীন গির্জায় আগুন


কিন্তু পাকিস্তানের মেয়েটি আদালতকে জানান, একটি হাসপাতালে বাংলাদেশি যুবকের সঙ্গে তার পরিচয়। সেখানে ছেলেটি কাজ করেন। করোনা পরবর্তী জটিলতা থেকে তার স্বামী প্যারালাইজড হয়ে পড়েন। তখন হাসপাতালে যেতে-যেতে তার সঙ্গে পরিচয়। সেখান থেকে ভালোবাসা। ইতিমধ্যে তিনি স্বামীকে ডিভোর্সের জন্য আবেদন করেছেন।

দুজনের এই দাবিতে সন্তুষ্ট না হয়ে তাদের ফেডারেল ক্রিমিনাল প্রসিডিউর কোডের ২১২ ধারায় অভিযুক্ত করেন আদালত। এরপর তাদের সাজা দেওয়া হয়।

news24bd.tv / নকিব